শিরোনাম:
ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩ আগস্ট ২০২১, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৮

Bijoynews24.com
সোমবার, ১৯ জুলাই ২০২১
প্রথম পাতা » অনিয়ম-দুর্নীতি | খুলনা | জাতীয় সংবাদ | বক্স্ নিউজ | রাজনীতি | শিরোনাম » ভেঙ্গে পড়ল ঝিনাইদহে মুজিববর্ষে পাওয়া আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘরের খুটি,আশ্রয়ণ প্রকল্পে চলছে চরম আতঙ্ক!
প্রথম পাতা » অনিয়ম-দুর্নীতি | খুলনা | জাতীয় সংবাদ | বক্স্ নিউজ | রাজনীতি | শিরোনাম » ভেঙ্গে পড়ল ঝিনাইদহে মুজিববর্ষে পাওয়া আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘরের খুটি,আশ্রয়ণ প্রকল্পে চলছে চরম আতঙ্ক!
সোমবার, ১৯ জুলাই ২০২১
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

ভেঙ্গে পড়ল ঝিনাইদহে মুজিববর্ষে পাওয়া আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘরের খুটি,আশ্রয়ণ প্রকল্পে চলছে চরম আতঙ্ক!

উপজেলা প্রশাসন ও চেয়ারম্যান বলছেন ষড়যন্ত্র করে ভাঙ্গা হয়েছে!
---

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ-
ঝিনাইদহ সদর উপজেলার লাউদিয়া গ্রামে মুজিব বর্ষে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে পাওয়া আশ্রয়ণ প্রকল্পের একটি ঘরের পিলার ভেঙ্গে পড়েছে। শুক্রবার রাত ১০টার দিকে ঘরের বাসিন্দা আরিফুল ইসলামের ঘুম ভাঙ্গে পিলার ভাঙ্গার শব্দে। এর পর থেকে আতংক দেখা দেয় ওই আশ্রয়ন প্রকল্পের বাসিন্দাদের মাঝে। উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় চেয়ারম্যান খবর পেয়ে ছুটে যান ঘটনাস্থলে। তাদের ধারণা সরকারের ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন করার জন্য রাতের আধারে ষড়যন্ত্র করে পিলার ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়া হয়েছে। কারণ এই আশ্রয়ন প্রকল্প তৈরীর শুরু থেকেই স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহল বাধা দিয়ে আসছিলো। লাউদিয়া আশ্রয়ন প্রকল্পে গিয়ে দেখা যায়, আবাসনের এক নং ঘরের বারান্দার পিলার ভেঙ্গে পড়ে আছে। মাটিতে পড়ে পিলারটি কয়েক টুকরো হয়ে গেছে। কে বা কারা পিলার ভেঙ্গেছে তা নিয়ে তদন্তে নেমেছে প্রশপাসন। অন্যান্য ঘরগুলোর পলেস্তারা, মেঝের ফিনিশিং ও রং খুবই নি¤œমানে। ঘরে নেই বিদ্যুৎ সংযোগ। আবাসনে সুপেয় পানির অভাব রয়েছে। ঘরের বাসিন্দা ফাতেমা ওরফে বাতাসি খাতুন জানান, শুক্রবার রাত ১০ টার পরে ঘরের সামনে জোরে কিছু ভেঙ্গে পড়ার শব্দ শুনতে পান তিনি। বাইরে বেরিয়ে দেখতে পান ঘরের সামনের ডান পাশের পিলার ভেঙ্গে পড়ে আছে। ওই নারী জানান, পিলার ভেঙ্গে পড়ার পর থেকে খুব ভয়ে আছি। কখন জানি ঘর ভাঙ্গে মাথায় না পড়ে। আশ্রয়ন প্রকল্পের বাসিন্দা তারা বানু ঘর নিয়ে নানা অভিযোগ করেন। বাসিন্দাদের মধ্যে এক নারী পরিদর্শনে যাওয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম শাহীনের কাছে ভেজাল ও নি¤œমানের কথা জানালে জবাবে ইউএনও বলে ওঠেন“ এই আপনি এতো কথা বলছেন কেন, আপনিই ফেলেছেন তাহলে”। ইউএনওর কথার সঙ্গে সাই দেন অফিসের ক্যাশিয়ার জাহাঙ্গীর হোসেন। কিছুক্ষন পর স্থানীয় সুরাট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কবির হোসেন জোয়াদার এসে ঘরের উপকারভোগী আরিফুল ইসলামকে বলেন “কারা ভেঙ্গেছে নাম না বললে ঘর ফেরৎ নেওয়া হবে”। হয় নাম কও নাই ঘর থেকে নামো’। উত্তরে আরিফুল জানান, আল্লাহর কিরে আমারা পিলারে হাত-ই দিই নি, এ করে আমার লাভ কি। লাউদিয়া গ্রামের বাসিন্দা সাহেব আলী বলেন, যে পিলার ভেঙ্গে পড়েছে সেটা ৫ ফুট হলেও রড দেওয়া হয়েছে দুই ফুট। ঠিকমত সিমেন্টও দিইনি। তাহলে খুটি থাকবে কি করে ? বিষয়টি নিয়ে ঝিনাইদহ সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসের ইঞ্জিনিয়ার হাসিবুর রহমান জানান, দুর্যোগ বিহীন পরিবেশে ঘরের পিলার এ ভাবে পড়তে পারে না। মনে হচ্ছে কেও ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিয়েছে। অনুসন্ধান করে জানা গেছে, সাবেক জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার বদরুদ্দোজা শুভর সময়কালে লাউদিয়া আবাসনে ঘর তৈরীতে বাধা সৃষ্টি করেন ভার্সিটির স্থানীয় এক প্রফেসর। বাচ্চাদের খেলার জায়গা নষ্ট করার অজুহাতে সরকারী ওই স্থানে ঘর তৈরীতে তিনি নানা ভাবে বাধা দিতে থাকেন। শত বাধা উপেক্ষা করে পরবতীতে সেখানে নির্মিত হয় প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর। সেটি ভেঙ্গে পড়ায় প্রভাবশালীদের সংশ্লিষ্টতার থাকার সন্দেহ প্রবল হচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে ঝিনাইদহ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম শাহীন বলেন, সরকারের ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন করার জন্য রাতের আধাঁরে কে বা কারা এই কাজ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক মজিবর রহমান বলেন, ঘটনা শোনার পর সেখানে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসককে পাঠানো হয়েছে। তারা ঘুরে এসে বিষয়টি জানালে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

ঝিনাইদহে করোনা ও উপসর্গে গত ২৪ ঘন্টায় ৫ জনের মৃত্যু!

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ-
ঝিনাইদহে করোনা ও উপসর্গ নিয়ে গত ২৪ ঘন্টায় মারা গেছে ৫ জন। শুক্রবার সকাল থেকে শনিবার সকাল পর্যন্ত ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়। সিভিল সার্জন ডা: সেলিনা বেগম জানান, গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় করোনায় ৩ জন ও উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও ২ জন মারা গেছে। তবে ২৪ ঘন্টায় কুষ্টিয়া বা ঝিনাইদহ ল্যাব থেকে কোন নমুনার ফলাফল আসেনি।


কালীগঞ্জে পাটক্ষেতে নিয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ, আটক ৩

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ-
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলায় জোরপূর্বক পাটক্ষেতে নিয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে (১১) ধর্ষণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার (১৬ জুলাই) রাতে উপজেলার বড় রায়গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। শনিবার দুপুরে শহরের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ। ভুক্তভোগীর মা জানায়, শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে ওষুধ ও আম কেনার জন্য বাজারে যায় তার মেয়ে। সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত বাড়িতে ফিরে আসে না। আত্মীয়-স্বজনের বাড়ি সহ বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজিও করে না পাওয়া গেলে রাত ৯ টার দিকে কালীগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন তিনি। এরপর রাত ২ টার দিকে কালীগঞ্জ থানা পুলিশ ভুক্তভোগী শিশুকে বড় রায়গ্রাম এলাকা থেকে উদ্ধার করে। এ ঘটনায় ৬ জন জড়িত বলেও জানান তিনি।  কালীগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) মতলেবুর রহমান একাত্তরকে জানান, এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। এরপর ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ভুক্তভোগীকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে।

ঝিনাইদহে মহা বিপাকে পাট চাষিরা, পানির অভাবে পাট পচাতে পারছে না কৃষকরা!

জাহিদুর রহমান তারিক, স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ-
দেশের প্রধান অর্থকরী ফসলের মধ্যে পাট অন্যতম। চলতি বছরে আবহাওয়া  অনুকুলে  না  থাকার কারণে সময়মত বৃষ্টি না হওয়ায় কৃষকরা  চাহিদামত পাট চাষ করতে পারেনি।  ফাল্গুন মাসের শেষ সপ্তাহ থেকে চৈত্র মাসের শেষ সপ্তাহের মধ্যে কৃষকরা জমিতে পাট বীজ বপন করে থাকে। কিন্তু  এবছর বৃষ্টি না হওয়ায় তারা এ সময় জমিতে পাটের বীজ রোপন করতে পারেনি তাই অন্যান্য বছরের তুলনায় অধেক জমিতে পাট আবাদ করেছে কৃষকরা। কিন্তু এখন এই পাট চাষ হয় দাড়িয়েছে কৃষকের গলার কাটা। পানি স্বল্পতা ও কিষান সংকট নিয়ে নাজেহাল অবস্থায় দিন পার করছে ঝিনাইদহের চারটি উপজেলার পাট চাষীরা। সরেজমিন উপজেলার ধলহরাচন্দ্র, ধাওড়া, হাটফাজিলপুর সহ  বিভিন্ন গ্রাম ঘুরে জানা যায়, এবার আশানুরূপ বৃষ্টি না হওয়াতে কৃষক পানির অভাবে পাটের জাগ দিতে পারছেনা। বর্ষাকালে খাল-বিল,নদী-নালা বৃষ্টির পানিতে কানায়-কানায় ভরে যায়। কিন্তু এবার বর্ষা নামলেও তা যথেষ্ট না হওয়াতে এমন অবস্থার মধ্যে পড়তে হয়েছে কৃষক ও পাটচাষীদের। উপজেলা কৃষি অফিস সুত্রে জানা যায় চলতি এবছর উপজেলার পৌর সভাসহ ১৫টি ইউনিয়নে মোট ৮ হাজার ৩ শত ৮০ হেক্টর জমিতে পাটের আবাদ হয়েছে।ধলহরাচন্দ্র গ্রামের পাট চাষি পরিক্ষিত পোদ্দার জানান,  স্যালোমেশিনে সেচ দিয়ে  ৪ বিঘা জমিতে পাট  আবাদ করি। পাট বীজ জমিতে  বুনা থেকে শুরু করে কাটা   ধুয়ে বাজারে বিক্রি করা পর্যন্ত   এতে প্রায়  ৪৫ থেকে ৫০ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। বর্তমানে  কৃষানের  দৈনিক  মুজুরি ৬শ থেকে ৭শ টাকা   হলেও কিষানের  সংকট দেখা দিয়েছে। আবার পাট কাটার পর চাষীরা গরুর গাড়ি বা মহিষের গাড়িতে করে পানি সমৃদ্ধ এলাকায় নিয়ে যাচ্ছে জাগ দিয়ে পাট পঁচানোর জন্য। অনেক কৃষক বাধ্য হয়ে শ্যালো মেশিন ও মোটরের পানি দিয়ে পাট জাঁগ দিতে গিয়ে বাড়তি খরচ করছেন। অন্যদিকে ফলন ভালো হলে বিঘাপ্রতি ৮ মণ ও ফলন খারাপ হলে ২ মণ করে পাট উৎপাদন হয়েছে বলে জানান কৃষকেরা। যা বর্তমান বাজারে ২৩শ থেকে ২৪শ টাকা মণ দরে বিক্রি করে নিরাশ হচ্ছে কৃষক।উপজেলার দামুকদিয়া গ্রামের কৃষক মাসুদ মোল্লা বলেন, এবার ৩ বিঘা জমিতে পাঠ চাষ করেছি। ফলন আশানুরূপ হলেও পাট বুনন থেকে শুরু করে ঘরে তুলতে যা খরচ হচ্ছে তাতে কষ্টই বৃথা। তারপর আবার বাজারে পাটের দাম কম। এইবার পাটের ভাল দাম না পেলে পরের বছর থেকে আর পাট চাষ করবো না। শৈলকুপা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আকরাম হোসেন জানান, এবার উপজেলায় মোট ৮ হাজার ৩ শত ৮০ হেক্টর জমিতে পাটের আবাদ হয়েছে। ফলন তুলনামূলক ভালো হয়েছে। তবে কিষান সংকটের কারণে পাট ঘরে তুলতে বেশি টাকা ব্যায় হওয়ায় লোকসানের আশঙ্কা করছে কৃষকরা।  ন্যায্যমূল্য পেলে এই লোকসান পুশিয়ে নিতে পারবে।

মুখে কসটেপ জড়ানোবস্থায় মহেশপুরের স্কুল ছাত্রের লাশ যশোর লস্কারপুর শ্বশান ঘাট এলাকার পাটক্ষেত থেকে উদ্ধার!
শ্বশুরের অপমানের প্রতিশোধ নিতে শ্যালককে হত্যা করে আপন দুলাভাই!

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ-
যশোরের চৌগাছায় পাটক্ষেত থেকে মুখে স্কচস্টেপ দিয়ে মোড়ানো অবস্থায় উদ্ধার এসএসসি পরীক্ষার্থী এহতেশাম মাহমুদ রাতুলকে হত্যার রহস্য উন্মোচন করেছে যশোর ডিবি পুলিশ। শনিবার বেলা সাড়ে ১০টায় যশোর ডিবি পুলিশের এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানানো হয়। প্রেস ব্রিফিংয়ে উল্লেখ করা হয়, শ্বশুরের করা অপমানের প্রতিশোধ নিতে নিজের শ্যালককে খুন করার পরিকল্পনা করে দুলাভাই শিশির আহাম্মেদ। পুর্ব পরিকল্পনা বাস্তাবায়ন করতে বোনের মোবাইল দিয়ে ফোন করে রাতুলকে ডেনে নেয় ঘাতক শিশির। এরপর শ্বশুরের করা অপমানের প্রতিশোধ নিতে শিশির নৃশংসভাবে হত্যা করে রাতুলকে। ঘাতক শিশির কোটচাঁদপুর উপজেলার কাশিপুর গ্রামের হায়দার আলীর ছেলে। তথ্য নিয়ে জানা গেছে, শুক্রবার (১৬ জুলাই) দুপুরে চট্টগ্রামে সিএমপি বন্দর থানা এলাকা থেকে যশোর ডিবি পুলিশের একটি দল হত্যাকান্ডের একমাত্র আসামী শিশিরকে আটক করে। শুক্রবার রাতেই তাকে চৌগাছার লস্কারপুর শ্মশান মাঠে মৃতদেহ উদ্ধারের স্থলে নেয়া হয়। সেখানে শিশিরের স্বীকারোক্তি মোতাবেক রাত সাড়ে নয়টায় মৃতদেহ উদ্ধার হওয়া পাটক্ষেতের পাশ্ববর্তী আরেকটি পাটক্ষেত থেকে হত্যার শিকার রাতুলের গায়ের গেঞ্জি, মুখ বাধার স্কচটেপের অবশিষ্টাংশ ও হ্যান্ড গ্লোভস এবং রাতে শিশিরের বাড়ি কাশিপুর গ্রাম থেকে নিহত রাতুলের ব্যবহৃত মোবাইল সেট উদ্ধার করে। যশোর পুলিশ সুপারের পক্ষে ডিএসবির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম জানান গত ১২ জুলাই (সোমবার) চৌগাছা উপজেলার লস্কারপুর শ্মশান মাঠের একটি পাটক্ষেত থেকে মুখে স্কচটেপ বাধা অবস্থায় ১৮ বছর বয়সী অজ্ঞাত যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করে চৌগাছা থানা পুলিশ। পরবর্তীতে মৃতের আত্মীয়-স্বজন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সংবাদ পেয়ে ও ছবি দেখে মৃতের মৃতদেহ সনাক্ত করে উদ্ধারকৃত লাশের নাম এহতেশাম মাহমুদ রাতুল (১৮)। রাতুল ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার বাজিপোতা গ্রামের মাঃ মহিউদ্দীনের ছেলে এবং মহেশপুর থানার সামবাজার এম.পি.বি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির ছাত্র। নিহতের পরিবার পুলিশকে জানান ১১ জুলাই (রোববার) আড়াইটায় বাড়ী থেকে বের হওয়ার পর সন্ধ্যা ৭টায় মুঠোফোনে পিতার সাথে যোগাযোগ হয়। এরপর হতে সে নিখোঁজ ছিল। এ ঘটনায় নিহত রাতুলের পিতা ১৩ জুলাই অজ্ঞাত আসামীদের নামে চৌগাছা থানায় মামলা করেন। যার নং-০৮। প্রেস ব্রিফিংয়ে জানানো হয় প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে শিশির ডিবি পুলিশকে জানিয়েছে, শ্বশুর একদিন বাড়ীতে ডেকে এনে অপমান অপদস্থ করে। রাগে-ক্ষোভে সেই থেকে তার একমাত্র ছেলেকে (রাতুল) মেরে ফেলার পরিকল্পনা করতে থাকি। রাতুলের পিতা এমপিবি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি মহিউদ্দিন জানান, ‘গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে তার বড় মেয়ের ইচ্ছায় শিশিরের সাথে তার বিয়ে হয়। সন্ত্রাসী প্রকৃতির হওয়ায় এ বিয়েতে তার মত ছিল না। তবুও মেয়ের ইচ্ছার কারনে তিনি মেনে নিলেও তাদের সাথে কোন সম্পর্ক ছিল না। মেয়ে-জামাই ঢাকায় থাকতো। একমাস আগেই তারা নিজেদের গ্রামের বাড়িতে এসে আমার ছেলেকে (রাতুল) হত্যার পরিকল্পনা করতে থাকে। এরপর মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ডেকে নিয়ে আমার ছেলেকে হত্যা করেছে। তিনি বলেন ‘আমি আমার ছেলে হত্যার সুষ্ঠ বিচার চাই। অপরাধীর সর্বোচ্চ শাস্তি চাই।’

ঝিনাইদহে পৃথক ঘটনায় নিহত ৩

জাহিদুর রহমান তারিক, স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ-
ঝিনাইদহের মহেশপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় করিমন নেছা (ভুন্দি) (৪৫) নামে এক গৃহবধূ মারা গেছে। শনিবার বিকাল সাড়ে তিনটার দিকে খালিশপুর-জীবননগর সড়কের তুষার সিরামিক ফ্যাকটরীর সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। করিমন নেছা ভুন্দি মহেশপুর উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের কানাইডাঙ্গা গ্রামের মসলেম উদ্দিন (মিঠুর) স্ত্রী। মহেশপুর থানার ওসি সাইফুর রহমান জানান, শনিবার বিকাল সাড়ে তিনটার দিকে একটি ইঞ্জিন চালিত নসিমনে করে বাড়ির দিকে যাচ্ছিল করিমন নেছা ভুন্দি এ সময় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মোটসাইকেলের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় নসিমনটি নিয়ন্ত্রন হারিয়ে উল্টে পড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হয় করিমন নেছা ভুন্দি। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরো তিনজন। এদিকে শুক্রবার বিকালে শৈলকুপার কবিরপুরে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে উপজেলার পৌর এলাকার  আমদ আলির ছেলে রাকিব নামের এক ব্যক্তি মারা গেছে।  নিহত রাকিব  কবিরপুর এলাকার নায়েব আলীর বাড়িতে বিল্ডিং নির্মানের কাজ  করতে যেয়ে বিদ্যুতের তাড়ে জড়িয়ে গেলে তাকে আহত অবস্থায় শৈলকুপা হাসাপতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে। আহত ব্যক্তির শারীরি অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ফরিদপুর মেডিকেল হাসপাতালে রেফার্ড করলে পথের মধ্যে সে মারা যায়। এ ব্যাপারে শৈলকুপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহাঙ্গির হোসেন বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে একজন মারা গেছে বলে জানান। আবার ঝিনাইদহে সাপের কামড়ে ফয়সাল মিয়া (১৮) নামের এক কলেজ ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। ১৬ জুলাই শুক্রবার দিবাগত রাতে ঘুমন্ত অবস্থায় এই ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, গতরাতে ফয়সালকে ঘুমন্ত অবস্থায় সাপে কাটে। শরীরে সাপের বিষের যন্ত্রণা শুরু হলে তার ঘুম ভেঙে যায়। এসময় সে তার মাকে জানায় তার শরীরের ভিতর কেমন জানি লাগছে। ফয়সালের রুমে কিছু সময় থাকার পর তাকে স্বাভাবিক মনে হলে তার মা উনার ঘরে ফিরে যায়। তখনও কেউ বুঝতে পারেনি তাকে সাপে কেটেছে। সকালে ঘুম থেকে ছেলের উঠতে দেরি হওয়ায় মা রুমে যেয়ে দেখে ফয়সালের মুখ দিয়ে লালা ঝড়ছে। সেসময় পরিবারের লোকজন তাকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল নিয়ে গেলে তার মৃত্যু হয়। নিহত ফয়সাল ঝিনাইদহ সদর উপজেলার হলিধানী ইউনিয়ন এর রামচন্দ্র পুর পুর্ব পাড়ার আসির উদ্দিনের ছেলে। সে ঝিনাইদহ সরকারি কেসি কলেজের একাদ্বশ শ্রেণীর ছাত্র ছিল।

কোটচাঁদপুর পৌর ছাত্র লীগ ও শ্রমিকলীগ নেতার বিরুদ্ধে ছাগল চুরির অভিযোগ; থানায় অভিযোগ দায়ের!
স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ-
ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর পৌর শহরে এক মাদ্রাসা শিক্ষকের কুরবানির ছাগল চুরির অভিযোগ উঠেছে পৌর ছাত্রলীগের এক নেতার বিরুদ্ধে। এঘটনায় শুক্রবার সকালে সংশ্লিষ্ট থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী ওই শিক্ষক। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, শহরের সলেমানপুর দাসপাড়ার মৃত আজিজুল হকের পুত্র মাদ্রাসা শিক্ষক মুহাঃ আসাদুজ্জামান কুরবানির জন্য একটি ছাগল লালন-পালন করেন। গত বুধবার (১৪ জুলাই) রাত ১২ টার পর বাড়ি থেকে ছাগলটি চুরি হয়ে যায়। সকালে অনেক খোঁজাখুঁজির পর তিনি জানতে পারেন, জীবননগর উপজেলার পুরন্দপুর গ্রামের মৃত আইতাল মন্ডলের ছেলে মোঃ নাজিম উদ্দিনের বাড়িতে চোরাইকৃত ছাগলটি আছে। খোঁজ পেয়ে তিনি ওই স্থানে গেলে নাজিম উদ্দিন ও তার স্ত্রী জানায়, কোটচাঁদপুরের সলেমানপুর গ্রামের ইসলাম দফাদারের ছেলে পৌর শ্রমিকলীগের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ইসরাফিল হাসান ঈসা, সাবেক পৌর কাউন্সিলর মৃত ফজলুর রহমানের ছেলে পৌর ছাত্রলীগ নেতা রুবায়েত ইসলাম রাহুল, মৃত আসাদুল ইসলামের ছেলে আবু সাঈদ ও একই এলাকার হুরমত আলীর ছেলে হাফিজুর রহমান ছাগলটি তার বাড়িতে রেখে গেছেন। এসময় ছাগলের মালিক ছাগলটি নিতে গেলে বাড়ির মালিক নাজিম উদ্দিন বাধা দেন। পরে তিনি কোটচাঁদপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন। কোটচাঁদপুর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ ইমরান আলম জানান, ছাগল চুরির ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহন করে চোরাইকৃত ছাগলটি উদ্ধার করা হবে। সেই সাথে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
কুষ্টিয়ায় আরো ৯ জনের মৃত্যু, শনাক্তের হার ৪২.৬৬
মৌলভীবাজারে স্ত্রীর চুলের খোপা কেটে স্ত্রী নির্যাতন ! নির্যাতনকারী স্বামী আটক
গাইবান্ধায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে পৃথক ৩৯ মামলায় ৩১ হাজার ৮শ’ টাকা জরিমানা
ধর্ষণশেষে স্কুলছাত্রীকে বাড়িতে দিয়ে গেল যুবক, বাবার মামলা
কুষ্টিয়ায় হাতুড়ি বাহিনীর হামলায় ঠিকাদার আহত
চিলাহাটি-হলদিবাড়ি দিয়ে নিয়মিত পণ্যট্রেন উন্মুক্ত হচ্ছে
কুষ্টিয়ায় প্রবাসীর স্ত্রীর লাশ উদ্ধার
প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ
বাসায় মদের বার, মডেল মৌ আটক
আফগানিস্তানের প্রধান তিন শহর ঘেরাও করল তালেবান, চলছে লড়াই
কুষ্টিয়ায় পদ্মা নদীতে ডুবে দুই কলেজ ছাত্র নিখোঁজ
পঞ্চগড়ে ২১টি গাঁজার গাছসহ ব্যবসায়ী আটক
মানবিক সহায়তা হিসেবে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
শোকাবহ আগস্টের প্রথম দিন আজ
স্ত্রী তালাক দেয়ায় শ্যালিকাকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ, ফেসবুকে ভিডিও
ব্ল্যাকমেইলের ফাঁদে চলত টাকা আদায়
ডোমারে বৃষ্টিপাত না হওয়ায় কৃষকরা বিপাকে
শোকাবহ আগষ্টে কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামীলীগের শোক ও কর্মসূচী ঘোষণা
সরওয়ার জাহান বাদশাহ্ এমপির পিতার মৃত্যুতে মাহবুবউল আলম হানিফ এমপির শোক
জাহাজ জব্দ করেছে যুক্তরাষ্ট্র, সেনাবাহিনীকে প্রস্তুতির নির্দেশ কিমের