শিরোনাম:
ঢাকা, সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ১০ শ্রাবণ ১৪২৮

Bijoynews24.com
বুধবার, ১৭ মার্চ ২০২১
প্রথম পাতা » খুলনা | জাতীয় সংবাদ | নির্বাচন | রাজনীতি | শিরোনাম » অবশেষে ঝিনাইদহ পৌরসভার নির্বাচন সম্পন্ন করতে ভার্চুয়াল আদালতের নির্দেশ
প্রথম পাতা » খুলনা | জাতীয় সংবাদ | নির্বাচন | রাজনীতি | শিরোনাম » অবশেষে ঝিনাইদহ পৌরসভার নির্বাচন সম্পন্ন করতে ভার্চুয়াল আদালতের নির্দেশ
বুধবার, ১৭ মার্চ ২০২১
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

অবশেষে ঝিনাইদহ পৌরসভার নির্বাচন সম্পন্ন করতে ভার্চুয়াল আদালতের নির্দেশ

---
স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ-
অবশেষে ঝিনাইদহ পৌরসভা নির্বাচন দ্রুত সম্পন্ন করতে নির্বাচন কমিশনকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট বিভাগের একটি দ্বৈত বেঞ্চ। মঙ্গলবার দুপুরে বিচারপতি নাইমা হায়দারের নেতৃত্বে গঠিত ভার্চুয়াল বেঞ্চ এই আদেশ দেন বলে রিটকারী পক্ষের আইনজীবী ব্যারিষ্টার ইমাম হোসেন জানান। তিনি বলেন পুর্ণাঙ্গ রায় পেলে আরো বিস্তারিত বলা যাবে। ৮জন বিবাদীর মধ্যে অন্যতম ঝিনাইদহ পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি বাবু জীবন কুমার বিশ্বাস জানান, ঝিনাইদহ পৌরসভায় নির্বাচন হতে আর কোন বাধা নেই। নির্বাচন কমিশন সুত্রে জানা গেছে, ২০১১ সালের ১৩ মার্চ ঝিনাইদহ পৌরসভার নির্বাচন হয়। মেয়াদ শেষ হয় ২০১৬ সালের ২ এপ্রিল। কিন্তু চার বছরের বেশি সময় মামলা জটিলতায় ঝিনাইদহ পৌরসভায় নির্বাচন হয়নি। পৌরসভা আইন অনুযায়ী পৌরসভার মেয়াদ শেষ হওয়ার আগের ৯০ দিনের মধ্যে ভোট গ্রহণের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। এদিকে জরুরি ভিত্তিতে পুরনো সীমানায় ঝিনাইদহ পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠানের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদাকে চিঠি দেন ঝিনাইদহ-২ আসনের  সংসদ সদস্য তাহজীব আলম সিদ্দিকী। তিনি সিইসির সঙ্গে সাক্ষাৎ করে এই চিঠি দিয়েছিলেন। চিঠিতে বলা হয়েছে, ঝিনাইদহ পৌরসভায় গত ২০১১ সালের মার্চে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এতে সাইদুল করিম মিন্টু মেয়র হিসেবে নির্বাচিত হন। পরে পাগলাকানাই ও সুরাট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এবং পৌরসভা মেয়রের সম্মতিতে সুরাট ইউনিয়নের লাউদিয়া, পাগলাকানাই ইউনিয়নের গয়েশপুর, কোড়াপাড়া মৌজাকে পৌরসভায় অন্তর্ভুক্ত করার জন্য স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে চিঠি দেন। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় ২০১৫ সালের ৫ এপ্রিল এলাকা সম্প্রসারণের খসড়া গেজেট প্রকাশ করে। কিন্তু কোনো আপত্তি না পড়ায় ২২ জুলাই চূড়ান্ত গেজেট প্রকাশ করা হয়। পরে সদর উপজেলার পাগলাকানাই ইউপি চেয়ারম্যান এ কে এম নজরুল ইসলাম, সুরাটের চেয়ারম্যান কবির হোসেন জোয়ারদার ও জাহাঙ্গীর আলম দুটি রিট পিটিশন দায়ের করেন। রিট পিটিশন নং ২৯২২/১৬ ও ২৯২৩/১৬। হাই কোর্ট দুটি পিটিশনেরই তিন সপ্তাহের রুল জারি করেন। রুল জারির ফলে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় থেকে ২০১৬ সালের ১৯ ফেব্রয়ারি (স্মারক-২২৬) তৎকালীন জেলা প্রশাসকের কাছে জবাব চেয়ে পত্র দেন। জেলা প্রশাসক ২০১৬ সালের ৭ এপ্রিল (স্মারক-১৬৪) জবাব দেন। এরপর আর হাই কোর্টের রুলের জবাব দেওয়া হয়নি। দীর্ঘদিন রিট দুটি মোকাবিলা না করায় কার্যতালিকা থেকে বাদ (আউট অব লিস্ট) দেওয়া হয়। অবশেষে দীর্ঘদিন পর মঙ্গলবার দুপুরে উচ্চ আদালতের দেওয়া রায়ে ঝিনাইদহ পৌরসভার নির্বাচনী বাধা দুর হলো।

ঝিনাইদহ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তাসহ ৬
জন নারী নির্যাতন মামলায় ঝুলছে!

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ-
ঝিনাইদহ সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মশিউর রহমানসহ ৬ কর্মীর বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমনে আইনে মামলা হয়েছে। মামলায় তারা ঝিনাইদহের একটি আদালত থেকে জামিন লাভ করলেও নির্বাচন কমিশন কাউকে এখনো সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করেন নি। ফলে বহাল তবিয়তে তারা দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি মামলাটিকে প্রভাবিত করে যাচ্ছেন বলে বাদী অভিযোগ করেন। মামলা সুত্রে জানা গেছে, ২০১৯ সালে জেলার শৈলকুপা গাড়াগঞ্জ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে স্পার্টকার্ড বিতরণকালে উমেদপুর ইউনিয়নের নারী ভোটার গাড়াখোলা গ্রামের নুর আলম সিদ্দিকীর স্ত্রী নাজমা পারভিনকে ধাক্কাধাক্কির এক পর্যায়ে কিলঘুষি ও স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেন ঝিনাইদহ সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মশিউর রহমানসহ ৬ কর্মচারী। ঘটনার দিন মামলার দুই নাম্বার আসামী আব্দুল্লাহর কাছে ওই নারী ভোটার আইডি কার্ড ও স্লিপ জমাদেন। এরপর তিনি ৩৭০ টাকা দাবী করেন। এ নিয়ে উচ্চবাচ্য ও তর্কবিতর্কের এক পর্যায়ে আসামী ঝিনাইদহ সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মশিউর রহমান, ডাটা এন্ট্রি অপারেটর আব্দুল্লাহ, নাসরিন আক্তার, মাজেদুল ইসলাম, ইসমাইল হোসেন ও রুবায়েত ইসলাম জোটবদ্ধ হয়ে নাজমাকে মারধর ও শ্লিলতাহানী ঘটায়। পরবর্তীতে বিষয়টি নিয়ে আপোষ মিমাংশা ও বাদীর খোয়া যাওয়া সোনার গহনা ফেরৎ দেবার আশ্বাস দেন আসামীরা। পরবর্তীতে কালক্ষেপন করে ২০১৯ সালের ২০ আগষ্ট কোন আপোষরফা করবেন না বলে জানালে নাজমা পারভিন ঝিনাইদহ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে অভিযোগ দেন। যার মামলা নং ২৪৯/১৯। আদালত বিষয়টি তদন্ত করে প্রতিবদেন দাখিলের জন্য গাড়াগঞ্জ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মখলেছুর রহমানকে দায়িত্ব দেন। ২০২০ সালের ১৬ ফেব্রয়ারি প্রধান শিক্ষক তদন্ত প্রতিবেদনে উল্লেখ করনে নির্যাতিত নাজমা পারভিন শৈলকুপা থানা পুলিশের দারস্থ হয়ে ব্যার্থ হয়ে আদালতে অভিযোগ করেন। প্রধান শিক্ষক তদন্ত করার সময় সাক্ষি স্থানীয় ইউপি সদস্য সাইদুর রহমান স্বপন, শৈলকুপার বারইপাড়া গ্রামের আলমের ছেলে মেহেদী, মনজেলের ছেলে আলম, আব্দুল আজিজ মোল্লার ছেলে রিপন ও আবু তালেব জোয়ারদারের স্ত্রী মমতাজ বেগমের সঙ্গে কথা বলে এ ঘটনার সত্যতা পান এবং তাদের লিখিত বক্তব্য আদালতে দাখিল করেন। নির্যাতিত নাজমা পারিভন প্রধান নির্বাচন কমিশনারের কাছে ন্যায় বিচার আশা করেন। বিষয়টি নিয়ে মঙ্গলবার বিকালে ঝিনাইদহ সদর উপজেলা নির্বাচন অফিসার মশিউর রহমানের বক্তব্য জানতে তার মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।



আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
নারী হাফেজকে ধর্ষণের মামলায় কারাগারে মাদ্রাসা শিক্ষক
‘লকডাউনের’ প্রথম দিন রাজধানীতে গ্রেপ্তার ৪০৩
লঘুচাপের প্রভাবে সাগর উত্তাল, ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত
পদ্মা সেতুর পিলারে ধাক্কা, ফেরির মাস্টার বরখাস্ত
লকডাউনের প্রথম সকালে ট্রাকের ধাক্কায় ঝরল ৬ প্রাণ
কঠোর লকডাউন শুরু, শূন্য রাজপথ
চেতনা নাশক ইনজেকশন পুশ করে রোগীদের ধ”র্ষ’ণ করতো এই ডাক্তার!
করোনার ঝুঁকি সত্ত্বেও ঢাকা ছাড়ছে মানুষ, মানছে না স্বাস্থ্যবিধি
গতবারের চেয়েও কঠোর ভাবে মাঠে নামছে সেনাবাহিনী-বিজিবি
১৯ দিনের ছুটিতে দেশ
ভূমধ্যসাগরে নৌডুবিতে ১৭ বাংলাদেশির সলিল সমাধি
কঠোর বিধি-নিষেধের আওতামুক্ত থাকছে যেসব পণ্য ও প্রতিষ্ঠান
বিদেশযাত্রীদের জন্য অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট চলবে
একদিনে ভারতে করোনায় ৩ হাজার ৯৯৮ জনের মৃত্যু
মহামারির মাঝে সারা দেশে ঈদ উদযাপন
আজ পবিত্র ঈদুল আজহা
নিউ লাইফ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ঈদ উপহার বিতরণ
বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরে সরকারি নির্দেশনা না মানায় তিন সিএন্ডএফ প্রতিনিধিকে অর্থদন্ড
কুষ্টিয়ায় বাথরুমে ওড়নায় ঝুলছিল মা-ছেলের লাশ
বিএমএসএফের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটিতে ১২ সদস্যের অন্তর্ভুক্তি