শিরোনাম:
ঢাকা, সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ১০ শ্রাবণ ১৪২৮

Bijoynews24.com
শনিবার, ২ জুলাই ২০১৬
প্রথম পাতা » রাজনীতি | শিরোনাম » গুম খুনে জড়িতদের বিচার একদিন হবে
প্রথম পাতা » রাজনীতি | শিরোনাম » গুম খুনে জড়িতদের বিচার একদিন হবে
শনিবার, ২ জুলাই ২০১৬
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

গুম খুনে জড়িতদের বিচার একদিন হবে

---বিজয় নিউজ : বিগত আন্দোলনে গুম-খুনের শিকার নেতাকর্মীদের স্মরণ করে কাঁদলেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। ভবিষ্যতে গণতান্ত্রিক পরিবেশ তৈরী হলে গুম-খুনে জড়িত র‌্যাব-পুলিশ সদস্যদের বিচার করার আশ্বাসও দেন তিনি। রাজধানীর গুলশানে ‘হোটেল লংবিচ’-এ গুম-খুন হওয়া নেতাকর্মীদের পরিবারের স্বজনদের নিয়ে আয়োজিত এক ইফতার মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন। ইফতারের আধঘণ্টা আগে অনুষ্ঠানস্থলে পৌঁছেন খালেদা জিয়া। তিনি টেবিলে টেবিলে ঘুরে আমন্ত্রিত পরিবারগুলোর সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন। গুম-খুন হওয়া পরিবারের সদস্যরাও খালেদা জিয়াকে কাছে পেয়ে স্বজনদের ফিরে পাওয়ার আকুতি জানান। অনেকে এসময় আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন। এসময় খালেদা জিয়া তাদের প্রতি সমবেদনা জানান। খালেদা জিয়া বলেন, ছাত্রদল, যুবদল, বিএনপির যারা গত কয়েক বছর ধরে নিখোঁজ রয়েছে, তারা কিভাবে আছেন, তা আমরা কিছুই জানি না। আপনারা যে আশায় আছেন- আপনাদের স্বজনরা একদিন ফিরে আসবে, আমরাও সেই আশায় আছি। আবার তারা ফিরে এসে আপনাদের মা, বাবা, ভাই-বোন, স্ত্রী, ছেলে-মেয়েদের আদর করবে ঠিক একইভাবে আমাদের দলে ফিরে নেতাকর্মীদের সঙ্গে মিলেমিশে আমাদের আপন হয়ে থাকবে। এর পরপরই ভারি হয়ে আছে বিএনপি চেয়ারপারসনের কণ্ঠ। অঝোরে কাঁদতে থাকেন তিনি। এসময় উপস্থিত দলের নেতাকর্মী ও নিখোঁজ পরিবারের সদস্যরা কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। তৈরী হয় শোকাবহ পরিবেশ। কান্নাজড়িত কণ্ঠে খালেদা জিয়া বলেন, স্বজন হারানোর ব্যথা আমি বুঝি। আপনারা দেখেছেন আমার সন্তান হারিয়েছি। ক্রসফায়ারের ঘটনাকে দু:খজনক আখ্যায়িত করে তিনি বলেন, একটি নিরীহ ছেলেকে কথা নেই, বার্তা নেই গুলি করে মেরে ফেলবে। এটা খুবই দু:খজনক। বিচার ছাড়া কাউকে গুলি করে মেরে ফেলবে- এটা আগে কখনও হয়নি। এই সরকার খুনি, এরা গুপ্ত হত্যাকারী, এরা জালিম। আমরা আল্লাহর কাছে দোয়া করবো- তিনি যেন এর বিচার করেন। দুনিয়াতেই যেন এর বিচার আপনারা দেখে যেতে পারেন। ভব্যিষতে যেন এই ধরনের কাজ করতে কেউ সাহস না পায়। নিখোঁজ নেতাকর্মীরা যেখানেই আছেন আল্লাহ যেন তাদের ভাল রাখেন। বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, আমরা বিরোধী দলে আছি। আমাদের প্রত্যেকের ওপর মিথ্যা মামলা, নানা নির্যাতন চলছে। নতুন করে অভিযানে ১৬ হাজার লোক ধরেছে, যার মধ্যে ৪ হাজার বিএনপি নেতাকর্মী। তাদের প্রধান উদ্দেশ্যে হলো বিএনপিকে ধ্বংস করা। গুম-খুনের সঙ্গে জড়িত আইনশৃঙ্খলা বানিহীর সদস্যদের বিচার করা হবে এমন মন্তব্য বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, ভবিষ্যতে দেশে গণতন্ত্র ফিরে আসলে আমরা অবশ্যই তাদের (গুম হওয়া নেতাকর্মী) খোঁজ করব। র‌্যাব-পুলিশের যারা এই অন্যায় কাজগুলো করেছে তাদের কোনো ক্ষমা করা হবে না। তাদের বিচার একদিন না একদিন হবে। তিনি বলেন, স্বজনদের আমরা ফিরে না পেতে পারি। কিন্তু বিচারটা পেলেও অন্তত শান্তি পাওয়া যাবে। আমরা আল্লাহর কাছে দোয়া করব যাতে তাদের আত্মাটা শান্তি পায়। খালেদা জিয়া অভিযোগ করেন, ২০১৩ সালে বিএনপির আন্দোলন দমনের জন্য সরকার গুম-খুন করেছে। কিন্তু তারপরও মানুষ ২০১৪ সালে নির্বাচনে ভোট না দিয়ে এর প্রতিবাদ জানিয়েছে। খালেদা জিয়া বরেন, বিএনপিকে ধ্বংস করাই সরকারের টার্গেট। ভালো ভালো যুবক ছেলেরা বিএনপিতে আসছে। এটাও আওয়ামী লীগের হিংসার কারণ। তারা চায় কিভাবে বিএনপিকে ধ্বংস করা যায়। অনুষ্ঠানের শুরুতেই বংশালের নিখোঁজ ছাত্রদল নেতা পারভেজ আহমেদের শিশু কন্যা হƒদি আহমেদ বাবার স্মৃতিচারন করে বলে, আমি আর পাপা’র (বাবা) ছবি গলায় ঝুলিয়ে হাঁটতে চাই না। পাপা’র হাত ধরে হাঁটতে চাই। পাপা’র সঙ্গে ঈদ করতে চাই। নিখোঁজ ছাত্রদল নেতা চঞ্চলের ছেলে আহাদ প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে বলেন, হাসিনা আন্টি আমার পাপাকে ফিরিয়ে দেন। পাপার সঙ্গে ঈদ করবো। পাপা জামা কিনে দেবে, পাপার সঙ্গে স্কুলে যাব। অনুষ্ঠান শেষে আন্দোলনে গুম-খুনের শিকার ৩৮ পারিবারের সদস্যেদের হাতে ঈদ উপহার ও আর্থিক সহয়তা তুলে দেন খালেদা জিয়া। এসময় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক শরিফুল আলম ও শহিদুল ইসলাম বাবুল উপস্থিত ছিলেন। এদিকে বনানীর হোটেল সেরিনায় আজ মুক্তিযোদ্ধাদের সঙ্গে ইফতার করবেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।



আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
নারী হাফেজকে ধর্ষণের মামলায় কারাগারে মাদ্রাসা শিক্ষক
‘লকডাউনের’ প্রথম দিন রাজধানীতে গ্রেপ্তার ৪০৩
লঘুচাপের প্রভাবে সাগর উত্তাল, ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত
পদ্মা সেতুর পিলারে ধাক্কা, ফেরির মাস্টার বরখাস্ত
লকডাউনের প্রথম সকালে ট্রাকের ধাক্কায় ঝরল ৬ প্রাণ
কঠোর লকডাউন শুরু, শূন্য রাজপথ
চেতনা নাশক ইনজেকশন পুশ করে রোগীদের ধ”র্ষ’ণ করতো এই ডাক্তার!
করোনার ঝুঁকি সত্ত্বেও ঢাকা ছাড়ছে মানুষ, মানছে না স্বাস্থ্যবিধি
গতবারের চেয়েও কঠোর ভাবে মাঠে নামছে সেনাবাহিনী-বিজিবি
১৯ দিনের ছুটিতে দেশ
ভূমধ্যসাগরে নৌডুবিতে ১৭ বাংলাদেশির সলিল সমাধি
কঠোর বিধি-নিষেধের আওতামুক্ত থাকছে যেসব পণ্য ও প্রতিষ্ঠান
বিদেশযাত্রীদের জন্য অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট চলবে
একদিনে ভারতে করোনায় ৩ হাজার ৯৯৮ জনের মৃত্যু
মহামারির মাঝে সারা দেশে ঈদ উদযাপন
আজ পবিত্র ঈদুল আজহা
নিউ লাইফ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ঈদ উপহার বিতরণ
বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরে সরকারি নির্দেশনা না মানায় তিন সিএন্ডএফ প্রতিনিধিকে অর্থদন্ড
কুষ্টিয়ায় বাথরুমে ওড়নায় ঝুলছিল মা-ছেলের লাশ
বিএমএসএফের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটিতে ১২ সদস্যের অন্তর্ভুক্তি