শিরোনাম:
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ আগস্ট ২০২১, ২১ শ্রাবণ ১৪২৮

Bijoynews24.com
রবিবার, ১৯ জুন ২০১৬
প্রথম পাতা » জাতীয় সংবাদ | রাজনীতি » সরকারের সম্পৃক্ততা বেরিয়ে পড়ার ভয়েই ক্রসফায়ার: খালেদা
প্রথম পাতা » জাতীয় সংবাদ | রাজনীতি » সরকারের সম্পৃক্ততা বেরিয়ে পড়ার ভয়েই ক্রসফায়ার: খালেদা
রবিবার, ১৯ জুন ২০১৬
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

সরকারের সম্পৃক্ততা বেরিয়ে পড়ার ভয়েই ক্রসফায়ার: খালেদা

------বিজয় নিউজ: সাম্প্রতিক গুপ্তহত্যায় সরকারের সম্পৃক্ততা বেরিয়ে পড়ার ভয়েই অপরাধীদের ক্রসফায়ার দেয়া হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তিনি বলেছেন, দুই-একটা অপরাধী ধরা পড়লেও তারা প্রকৃত অপরাধী কিনা জানি না। সেই অপরাধীকে দেখাও যায়, জেলে নিয়ে যায়, তারপর রিমান্ডে, রিমান্ড থেকে আর সে জেলখানায় ফেরত যায় না। তার বাবা-মার কাছেও ফেরত যায় না। সে সোজা চলে যায় ক্রসফায়ারে। কোন আসামি রিমান্ড থেকে ক্রসফায়ারে কিভাবে যায়? এর উদ্দেশ্যটা কি? সে (অপরাধী) এমন কিছু তথ্য দিয়ে দেয়, যাতে সরকার জড়িয়ে পড়বে। তাই তাকে ক্রসফায়ারে দেয়া হয়। এই পবিত্র রমজান মাসেও ক্রসফায়ার হচ্ছে। রাজধানীর হোটেল পূর্বাণীতে গতকাল জোটের শরিক দল জাগপা আয়োজিত ইফতার মাহফিলে তিনি এ কথা বলেন। খালেদা জিয়া বলেন, দেশে কি হচ্ছে, কি চলছে সবাই জানেন। দেশ আছে কিনা সেট নিয়েও সন্দেহ রয়েছে। দেশ কে চালাচ্ছে- তা নিয়েও সংশয় রয়েছে। অনেক ঘটনা ঘটছে। কিন্তু বিচার হয়নি। তিনি বলেন, সাংবাদিক দম্পতি সাগর-রুনি হত্যার কয়েক বছর পার হলো কিন্তু এখনো বিচার হয়নি। এর পেছনে বড় কারণ আছে। সাগর-রুনি হত্যায় জড়িত প্রকৃত অপরাধীদের ধরা হলে সরকারের অপকর্ম বেরিয়ে আসবে। এ কারণে তাদের ধরা হচ্ছে না। সাংবাদিক দম্পতির ল্যাপটপে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য ছিল। তাই সে ল্যাপটপ চুরি করেছে আর কোনো জিনিস চুরি করেনি। তিনি বলেন, কোর্ট নির্দেশ দিয়েছে, বিনা ওয়ারেন্টে ধরা যাবে না। অথচ  গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। দেশে কারো কোন নিরাপত্তা নেই। প্রধানমন্ত্রী নামেই প্রধানমন্ত্রী। এদেশের স্বাধীনতা বিপন্ন হচ্ছে বলেও ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি। সরকারের উদ্দেশ্যে খালেদা জিয়া বলেন, যারা জোরে করে ক্ষমতায় বসে আছে এরা জনগণের প্রতিনিধি নয়। কোর্ট নির্দেশ নিয়েছে বিনাওয়ারেন্টে সাদা পোশাকে কাউকে ধরতে পারবে না। রাতের বেলায় কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারবে না। এরা আজকে আদালতের নির্দেশ পর্যন্ত মানে না। উল্টো কোর্টকে নির্দেশ দেয় তাদের কি করতে হবে কি করতে হবে না। খালেদা জিয়া বলেন, দেশ কারো কোন নিরাপত্তা নেই। আমরা এই থেকে বুঝতে পারি, মুক্তিযুদ্ধের মূল লক্ষ্য আমাদের নেই, গণতন্ত্র, ন্যায় বিচার, সকলের সমান অধিকার, মানুষের নিরাপত্তা কোনোটাই নেই। আজকে মনে হয়, বাংলাদেশে যিনি বসে আছেন তিনি কোন প্রধানমন্ত্রী? শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী না অন্য কারও নির্দেশ পালন করেন, তা নিয়ে প্রশ্ন আছে। দেশের স্বাধীনতা পিবন্ন হতে চলেছে। তাই দেশের মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ারও আহ্বান জানান তিনি। জাগপা সভাপতি শফিউল আলম প্রধানের সভাপতিত্বে ইফতার মাহফিলে বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য লে. জে. (অব.) মাহবুবুর রহমান, ব্রি. জে. (অব.) আসম হান্নান শাহ, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মে. জে. (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীরপ্রতীক, জাতীয় পার্টি (কাজী জাফর) মহাসচিব মোস্তফা জামাল হায়দার, এনপিপি চেয়ারম্যান ড. ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, বাংলাদেশ ন্যাপের চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গাণি, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, ন্যাপ ভাসানীর সভাপতি আজহারুল ইসলাম, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক সাঈদ আহমেদ, খেলাফত মজলিসের নায়েবে আমির মজিবুর রহমান পেশওয়ারী, ইসলামিক পার্টির আবু তাহের চৌধুরী, পিপলস লীগের মহাসচিব গরীবে নেওয়াজ, দৈনিক ইনকিলাবের সম্পাদক এএমএম বাহাউদ্দিন, নয়াদিগন্তের সম্পাদক আলমগীর মহিউদ্দিন, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব  সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, এলডিপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব শাহদাত হোসেন সেলিম, কল্যাণ পার্টির মহাসচিব এমএম আমিনুর রহমান, জাতীয় পার্টি (কাজী জাফর) প্রেসিডিয়াম সদস্য আহসান হাবীব লিংকন ও জাগপার মহাসচিব খন্দকার লুৎফর রহমান প্রমুখ অংশ নেন। ইফতারের আগে দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করে মোনাজাত করা হয়।
প্রকৃত ঘটনা আড়াল করতে ক্রসফায়ার: নোমান
এদিকে প্রকৃত ঘটনাকে আড়াল করতে জঙ্গি ধরে ক্রসফায়ারের নামে হত্যা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান। গতকাল রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে ঢাকা ওয়াসা এমপ্লয়িজ ইউনিয়ন আয়োজিত এক ইফতার পার্টিতে তিনি এ অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, সরকারের উচিত ছিল রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ করে প্রকৃত ঘটনাকে সামনে আনা। কারা কারা জড়িত সেটা উদঘাটন করা। আইনি প্রক্রিয়ায় তার কাছ থেকে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি নেয়া যেত। যাচাই-বাছাই করা জানা যেতে এসবের মূলে কারা জড়িত। কিন্তু সরকার তা না করে সকল রহস্যকে আরও রহস্যময় করে প্রকৃত দোষীদের রক্ষার জন্য ক্রসফায়ারে হত্যা করে ফেলেছে। নোমান বলেন, জনগণের রোষানল থেকে বাঁচার জন্য সরকার এই পবিত্র রমজান মাসেও গণগ্রেপ্তারের মতো বেআইনি কাজটি করেছে। এর মাধ্যমে তারা বিরোধী দলগুলোকে সমূলে বিনাশ করার নীল প্রচেষ্টাও করেছে। ভোটার বিহীন সরকারের প্রধান টার্গেট হচ্ছে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তাই দেশব্যাপী চলমান অভিযানে বিএনপির নেতাকর্মীরাই সবচেয়ে বেশি পুলিশি নির্যাতনের শিকার। সংগঠনের সভাপতি মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের সাবেক সভাপতি জাফরুল হাসান, বর্তমান সভাপতি আনোয়ার হোসাইন, সাধারন সম্পাদক নুরুল ইসলাম খান নাসিমসহ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য দেন।
ক্ষমতায় টিকে থাকতেই ভারতকে ট্রানজিট : বিএনপি
স্টাফ রিপোর্টার: ক্ষমতায় টিকে থাকতেই সরকার ভারতকে ট্রানজিট দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রিজভী আহমেদ। গতকাল রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন। ভারতকে আনুষ্ঠানিকভাবে ট্রানজিট দেয়ার বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে রিজভী আহমেদ বলেন, সরকার টিকে থাকার জন্য নজরানা হিসেবে এটা করছে। সরকারের যে টেরিফ কমিশন, যে ফি নির্ধারণ করেছিল সেটা ১ হাজার ৫৮ টাকার মতো। সেটা এখন ১৯২ টাকা করা হয়েছে প্রতি টনে। তার মানে কি? এটা দেশের স্বাধীনতাকে বিক্রি করলেন না? দেশের সার্বভৌমত্ব বিক্রি করলেন না? বিএনপির এই নেতা বলেন, ছোট্ট একটা দেশে আমাদের নিজেদের চলাচলেই বিপন্ন। রোজার মাসে কি ভয়াবহ অবস্থা। ঢাকাতে চলাচল করতে পারি না। ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম গেলে ২০-৩০ কি.মি. যানজট লেগে থাকে। সেখানে আরেকটা দেশেকে তার পণ্য ব্যবহারের জন্য ট্রানজিট দেবেন, নদী পথে আসবেন সেই নদীতে পানি নেই। পানি তার আটকে রেখেছেন। সেখানে নাম মাত্র মূল্যে ট্রানজিট। রিজভী আহমেদ বলেন, এবার তো বলে ছিলেন টাকা নেয়াটা বেয়াদবি হবে। এটা কি হবে ড. মশিউর রহমানকে যদি জিজ্ঞেস করেন- এটা কি বেয়াদবি হলো? অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ট্রানজিট দেয়া মতো ছোট দেশ যে অবকাঠামো দরকার সেটা নেই। আমরা ঘনবসতিপূর্ণ দেশ। সেখানে আরেকটি দেশকে যদি চলাচল করতে দেয়া হয়। এটা বিপন্ন পরিস্থিত সৃষ্টি হবে। সরকার নিজেরা টিকে থাকার জন্য এখানে সরকারের দেশের মানুষ সার্বভৌমত্ব কোনো কিছু আমলে নেননি। মাদারীপুরের কলেজ শিক্ষক হত্যাচেষ্টার ঘটনায় রিমান্ডে নেয়া ফাহিমকে ক্রসফায়ারে দেয়ার সমালোচনা করে রিজভী আহমেদ বলেন, সরকার তাকে ক্রসফায়ারে হত্যা করলো। এ হত্যা করা মানে প্রকৃত ঘটনা আড়াল করা। এটাকে সমানে আসতে দিল না। আমরা আগেই বলেছি- প্রতিটি সন্ত্রাসের সঙ্গে রাষ্ট্রের একটা সম্পর্ক আছে। আমাদের দলের চেয়ারপারসন বলেছেন, উগ্রবাদী চক্রের সঙ্গে সরকার জড়িত। এই যে আজকে ঘটনাটিতে যে ঘন কুয়াশা তৈরি করেছে সরকার। এর সঙ্গে সরকার জড়িত। সম্প্রতি সাঁড়াশি অভিযান সম্পর্কে রিজভী আহমেদ বলেন, জঙ্গি দমনের নামে প্রহসনের এক চরম নাটক অনুষ্ঠিত করছে সরকারি দায়িত্বশীল লোকেরা। মামলা হচ্ছে, তদন্ত হচ্ছে, কিন্তু কুপিয়ে হত্যাকারী প্রকৃত অপরাধীরা অধরাই থেকে যাচ্ছে। হত্যা রহস্যের কোন কুল-কিনারাই বের হচ্ছে না। অথচ সরকারি বাহিনী ক্ষুধার্ত নেকড়ের মতো গ্রাম, শহর, নগর, বন্দরে হামলা করেছে। বিরোধী দলের নেতা-কর্মীরা-যারা গ্রেপ্তার হয়নি। তারা দিশেহারা হয়ে প্রাণ ভয়ে অজানা গন্তব্যে পাড়ি জমিয়েছে। সরকার জঙ্গি তৎপরতা দমন করতে যে নিষ্ঠুর পদ্ধতি গ্রহণ করেছে সেটিতে প্রকৃতপক্ষে জঙ্গিদের উৎপাত বন্ধ নয়, বরং সরকার যে একটা বিশেষ এজেন্ডা নিয়ে কাজ  করেছে, সেটি এখন সুস্পষ্টভাবে প্রতিভাত হচ্ছে। তাদের সেই এজেন্ডাটা হচ্ছে বিএনপিসহ গণতান্ত্রিক আন্দোলনের কর্মীদেরকে জঙ্গী হিসেবে চিত্রিত করা। আইন প্রয়োগকারী সংস্থা থেকে শুরু করে মিডিয়া নিয়ন্ত্রণে সকল যন্ত্র সরকারের হাতে মন্তব্য করে তিনি বলেন, বিদেশী কূটনীতিক, আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা, দেশের বিভিন্ন অধিকার গ্রুপ সরকারের গণগ্রেপ্তারের স্বচ্ছতা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করছে। এমনকি আটককৃত সন্দেহভাজন জঙ্গীরাও প্রকৃত জঙ্গি কিনা এবং বছরব্যাপী চাঞ্চল্যকর খুনগুলোর সঙ্গে তারা জড়িত কিনা- এটা নিয়ে জনমনে সংশয় আছে। কারণ কোন খুনেরই তদন্তে এখন পর্যন্তু অগ্রগতি নেই। সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক  আবদুস সালাম আজাদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।



আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
বিজিবি সদস্য মো: শহীদুল ইসলামকে ফাঁসানোর চেষ্টা ব্যর্থ
প্রযোজক-অভিনেতা নজরুল রাজ আটক
র‌্যাব সদরদপ্তরে নেওয়া হয়েছে পরীমনিকে
বিকৃত যৌনাচরণের উপকরণসহ পরীমণির সহযোগী রাজ আটক
পরীমনির বাসায় মিলেছে ভয়ংকর মাদক এলএসডি ও আইস
তালেবানের হাতে প্রাদেশিক রাজধানীর পতন সময়ের ব্যাপার মাত্র; আফগান বাহিনী বলছে লড়ে যাবে
ঢাকাই চলচ্চিত্রের নায়িকা পরীমনিকে আটক করেছে র‌্যাব
চাঁপাইনবাবগঞ্জে বজ্রপাতে ১৬ বরযাত্রীর মৃত্যু
মিন্টু’র প্রতারণা ফাঁদে পড়ে কুষ্টিয়ার অনেকেই সর্বশান্ত
আর কত টাকা হইলে তাহারা কুষ্টিয়াবাসীকে মাফ করিয়া দিবেন ?
কুষ্টিয়ায় দিবালোকে ঠিকাদারকে হাতুড়ি পেটার ঘটনায় তিনজনকে আটক করেছে র‌্যাব
কলেজ ছাত্রকে বিয়ের দা’বিতে পাঁচ সন্তানের জননীর অনশন
গোবিন্দগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু
জননেতা মাহবুব উল আলম হানিফ এমপি’র দৃষ্টি আকর্ষণ
কুষ্টিয়ায় আরো ৯ জনের মৃত্যু, শনাক্তের হার ৪২.৬৬
মৌলভীবাজারে স্ত্রীর চুলের খোপা কেটে স্ত্রী নির্যাতন ! নির্যাতনকারী স্বামী আটক
গাইবান্ধায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে পৃথক ৩৯ মামলায় ৩১ হাজার ৮শ’ টাকা জরিমানা
ধর্ষণশেষে স্কুলছাত্রীকে বাড়িতে দিয়ে গেল যুবক, বাবার মামলা
কুষ্টিয়ায় হাতুড়ি বাহিনীর হামলায় ঠিকাদার আহত
চিলাহাটি-হলদিবাড়ি দিয়ে নিয়মিত পণ্যট্রেন উন্মুক্ত হচ্ছে