শিরোনাম:
●   এবার পাকিস্তানের সেনা বহরে আত্মঘাতী হামলা, নিহত ৯ ●   যৌন হয়রানির অভিযোগে ইটিভির সাংবাদিক বুলবুল বরখাস্ত ●   মাগুরার এএসপি ছয়রুদ্দিনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা ●   দুদককে ভয় পায় না এমন লোক হয়তো সমাজে নেই : দুদক চেয়ারম্যান ●   জ্ঞান, দক্ষতা ও দেশপ্রেমকে সমন্বয় করে শিক্ষা ব্যবস্থা বিন্যস্ত করতে হবে: ইবি ভিসি ●   ‘বড় বাবুর’ ৫ কোটি টাকার বাড়ি ●   মাইজভান্ডারীর ওরশে যাওয়ার পথে কুমিল্লার সড়কে প্রান গেল ৫ জনের ●   আবুধাবিতে প্রধানমন্ত্রী ●   কুষ্টিয়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নাজমুল মালিথা নামে মাদক ব্যবসায়ী নিহত ●   মোদীর বার্তায় যুদ্ধের শঙ্কা, পাকিস্তান চালাবে পারমাণবিক হামলা
ঢাকা, সোমবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৯, ৫ ফাল্গুন ১৪২৫

Bijoynews24.com
সোমবার, ৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৯
প্রথম পাতা » অর্থ-বাণিজ্য-কৃষি | জাতীয় সংবাদ | বক্স্ নিউজ | রংপুর | শিরোনাম » ফুলছড়িতে পার্চিং উদ্বুদ্ধকরণের উৎসব
প্রথম পাতা » অর্থ-বাণিজ্য-কৃষি | জাতীয় সংবাদ | বক্স্ নিউজ | রংপুর | শিরোনাম » ফুলছড়িতে পার্চিং উদ্বুদ্ধকরণের উৎসব
সোমবার, ৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৯
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

ফুলছড়িতে পার্চিং উদ্বুদ্ধকরণের উৎসব

---আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার ফুলছড়িতে উদ্বুদ্ধকরণের মাধ্যমে ধানের ক্ষেতে পোকা মাকড় দমনের উদ্দেশ্যে পার্চিং উৎসবের উদ্বোধন করা হয়েছে।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে সোমবার উপজেলার কঞ্চিপাড়া ইউনিয়নের মদনেরপাড়া গ্রামে পার্চিং উৎসবের উদ্বোধন করেন উপজেলা কৃষি অফিসার মো. আসাদুজ্জামান। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার মো. সাদেকুজ্জামান,  উপ-সহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ অফিসার মতলুবর রহমান, উপ-সহকারী কৃষি অফিসার শাহিনুল ইসলাম, আবু হাসান মানিক, শহিদুল হক, নুর রব্বানী, আরাফাত বেনজির, ইউপি সদস্য হযরত আলী, কৃষক সোহেল মিয়া ও মোহাম্মদ আলী প্রমুখ।

উল্লেখ্য, পার্চিং উদ্বুদ্ধকরণের মাধ্যমে ধানের ক্ষেতে পোকা মাকড় দমনের করলে পাখি সহজেই ফসলের ক্ষতিকারক পোকা খেয়ে ধ্বংস করে। পোকা বংশ বিস্তার করেত পারে না। পার্চিং করলে কীটনাশকের ব্যবহার কমে যাবে। উৎপাদন খরচ কমে যাবে এবং পরিবেশ দূষণমুক্ত থাকে। ছবি সংযুক্ত

ডেপুটি স্পীকারের মাতা মরহুমা হামিদুন্নেছা’র তৃতীয় মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে গাইবান্ধায় কোরআনখানি-মিলাদ মাহ্ফিল ও দোয়া অনুষ্ঠিত

আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পীকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়ার মাতা মরহুমা হামিদুন্নেছা’র তৃতীয় মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে আজ সোমবার গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার ভরতখালী ইউনিয়নের গটিয়া গ্রামে তার নিজ বাড়ি মিয়া বাড়ি এতিমখানা মাঠে দিনব্যাপী কোরআনখানি, মিলাদ মাহ্ফিল দোয়া ও বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া ও মিলাদ মাহ্ফিলে জেলা প্রশাসক আব্দুল মতিন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আতাউর সরকার,  অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাহাত কবির, উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নাজমুল হুদা দুদু, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হামিদ বাবু সহ উপজেলা  প্রশাসনের কর্মকর্তা ও বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক ও স্থানীয় মুসুল্লীরা অংশ নেন।

মাওলানা মো. শহিদুল ইসলাম বিএসসি দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন। এসময় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা, ডেপুটি স্পীকারের মাতা মরহুমা হামিদুন্নেছা’র রুহের মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। পরে মুসুল্লীদের মধ্যে খাবার পরিবেশন করা হয়।

পলাশবাড়ীতে দাদন ব্যবসার রমরমা বাণিজ্যে নিঃস্ব

হচ্ছে অসহায় মানুষ-গ্রাম ছাড়া অনেক পরিবার

আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে দাদন ব্যবসার রমরমা বাণিজ্যে নিঃস্ব হচ্ছে গ্রামের অসহায় মানুষ। ভিটেমাটি হারিয়ে পথে বসছে দাদন ব্যবসায়ীর অত্যাচারে। নিজ এলাকা ছেড়ে ঢাকাসহ বিভিন্ন অঞ্চলে অবস্থান করছে এসব অসহায় ভুক্তভোগী পরিবার গুলো। এমন একটি এলাকার নাম গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার মহদীপুর ইউনিয়নের দূর্গাপুর গ্রাম বিশেষ ভাবে উল্লেখযোগ্য। সেখানে তালুকদার পাড়ার মুনছুর আমিন তালুকদার, তার স্ত্রী সাবেক ইউপি সদস্য আর্জিনা বেগম ও পুত্র মনিরুজ্জামান রাসেলের নেতৃত্বে গড়ে ওঠা দাদন ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট। চড়া সুদে টাকা দিয়ে অসহায় মানুষকে প্রতারণার ফাঁদে ফেলে ঘর-বাড়ী দখলসহ সুদে-আসলে টাকা অনাদায়ে শারীরিক নির্যাতন ছাড়াও বিভিন্ন হুমকি-ধামকি ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করে গ্রাম ছাড়া করতে বাধ্য করছে। নিরাপত্তার অভাবে অনেকেই ঢাকাসহ বিভিন্ন অঞ্চলে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। মিথ্যা মামলার জড়িয়েও হয়রানী করছে অনেককেই। এমন পরিস্থিতির শিকার হয়ে একই এলাকার আঃ হান্নানের পুত্র শরিফুল, সবুজ ও আরিফসহ অনেকেই গ্রাম ছাড়া হয়েছে। আঃ হান্নানের পুত্রদ্বয়সহ একই গ্রামের মোহাম্মদ আলীর জামাতা শাফি দাদন ব্যবসায়ীর টাকা ফেরৎ দিতে ব্যর্থ হওয়ায় তাদের শয়ন গৃহে তালাবদ্ধ করে মালামাল বাড়ীতে নিয়ে গেছে সাবেক ইউপি সদস্য আর্জিনা বেগম ও তার পরিবারের লোকজন। উক্ত দাদন ব্যবসায়ীচক্র এমনি ভাবে দূর্গাপুর গ্রামের মৃত লুৎফর রহমানের পুত্র কাঠ মিস্ত্রি জেনারুল ইসলাম, মৃত সায়েদ আলী পুত্র শামছুল ও মৃত তছির উদ্দিনের ছেলে সাজু মিয়ার বিরুদ্ধে ডাকাতির মিথ্যা মামলা জড়ানো হয়েছে।

দাদন গ্রহীতাদের শয়ন গৃহে তালাবদ্ধের বিষয়ে আর্জিনা বেগম বলেন, ওরা এনজিও’র টাকা দেওয়ার ভয়ে নিজের ঘরে নিজেরাই তালাবদ্ধ করে ঢাকায় চলে গিয়েছে।

তবে সংবাদকর্মীরা কথিত দাদন ব্যবসায়ীর মতামত সংগ্রহ করতে গেলে তাদেরকে বিভিন্ন গাল-মন্দসহ ছাড়াও মিথ্যা মামলায় জড়ানোর হুমকি প্রদর্শন করেন।

এদিকে গত ২০ জানুয়ারী মহদীপুর ইউনিয়নের দূর্গাপুর নতুনবাজারে ভুক্তভোগী পরিবার গুলোসহ স্থানীয় এলাকাবাসী দাদন ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে একটি মানববন্ধন করেন।

এ ব্যাপারে মানববন্ধন শেষে দাদন ব্যবসায়ীর দৃষ্টান্তদূলক শাস্তির দাবীতে ওইদিন দাদন গ্রহীতারাসহ প্রায় সাড়ে ৩শ’ এলাকাবাসীর স্বাক্ষরকৃত একটি অভিযোগের কপি ও সংবাদকর্মীদের পক্ষ থেকে পৃথক একটি সাধারণ ডায়েরী পলাশবাড়ী থানায় দাখিল করা হয়েছে।

গাইবান্ধায় দেড় বস্তা প্লাস্টিক চাল আটক!

আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ খাওয়ার অনুপোযোগী প্লাস্টিকের কৃত্রিম চাল সন্দেহে সোমবার গাইবান্ধা শহরের নতুন বাজারের রুবান দেওয়ান এর দোকান থেকে দেড় বস্তা চাল আটক করা হয়েছে। আটক চালের মধ্যে ১৫ কেজি পরীক্ষার জন্য ঢাকায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে।

জানা গেছে, শহরের মুন্সিপাড়ার রনি মিয়া রোববার বিকেলে ওই দোকান থেকে ৬ কেজি চাল কেনেন। বাড়িতে ভাত রান্নার পর খেতে তা বিস্বাদ লাগলে সন্দেহের সৃষ্টি হয়। এরপর সোমবার সকালে ওই চাল ভাঁজতে গিয়ে সেগুলো পুড়ে গলে ও কুঁচকে গেলে সন্দেহ আরও গাঢ় হয়। ফলে রনি মিয়া চাল নিয়ে সদর থানায় উপস্থিত হয়ে প্লাস্টিকের চাল সন্দেহের অভিযোগ করেন। তার অভিযোগ পেয়ে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ খান মো. শাহরিয়ার সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার উত্তম কুমার রায়কে বিষয়টি অবগত করেন। এরপর ভ্রাম্যমান টিম গঠন করা হয়। এই ভ্রাম্যমান টিম ওই দোকানে অভিযান চালায়। এছাড়াও ডিবি রোডসহ আরও কয়েকটি চালের দোকানে অভিযান চালানো হয়। ভ্রাম্যমান টিমে জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মাছুম আলীও উপস্থিত ছিলেন। ছবি সংযুক্ত


গোবিন্দগঞ্জে ট্রাক চাপায় পিকআপ ভ্যান চালক নিহত

আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার রংপুর-ঢাকা মহাসড়কের গোবিন্দগঞ্জের কালিতলা বাজার এলাকায় রোববার গভীর রাতে লবন বোঝাই ট্রাকের সাথে পিকআপ ভ্যানের সংঘর্ষে আল আমিন (৪০) নামে এক পিকআপ ভ্যান চালক নিহত হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, চট্টগ্রাম থেকে আসা রংপুরগামী লবন বোঝাই একটি ট্রাক কালিতলা বাজার এলাকায় পৌঁছিলে হঠাৎ করেই সামনে থাকা টমেটো বোঝাই একটি পিকআপকে চাপা দেয়। এতে ট্রাকটি পিকআপের উপরে উঠে এবং পিকআপটি দুমড়ে মুচড়ে যায়। ফলে ট্রাকের চাপা পড়ে পিকআপের চালক আল আমিন ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। দুর্ঘটনা কবলিত ট্রাক ও পিকআপ আটক করা হয়েছে।

গাইবান্ধায় মাত্র দুজন শিক্ষক দিয়ে

চলছে ২৩৮জন শিক্ষার্থীর পাঠদান

আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ শিক্ষার্থী ২৩৮ জন আর শিক্ষক মাত্র দুজন। একজন প্রধান শিক্ষক ও একজন সহকারী শিক্ষক, এই দু শিক্ষক দিয়েই চলছে গাইবান্ধা সদর উপজেলার বোয়ালি ইউনিয়নের হরিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। কিন্তু ২৩৮ জন শিক্ষার্থীর পাঠদান ও তাদের সামলানো দুজন শিক্ষকের পক্ষে প্রায় অসম্ভব হয়ে পড়েছে। ফলে শিক্ষার্থীদের সুষ্ঠু পাঠ গ্রহণ মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে।

হরিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির একজন সদস্য জানান, বিদ্যালয়ের শিশু শ্রেণি থেকে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের পাঠদানের জন্য শিক্ষক ছিলেন সাতজন। এর মধ্যে অনিয়মতান্ত্রিকভাবে তিনজন শিক্ষককে বিপিএড প্রশিক্ষণে পাঠানো হয়েছে, তারা হলেন-সবিতা রানী সরকার, ফিরোজ হোসেন ও মনিরুজ্জামান। দুজন শিক্ষককে বদলি করা হয়েছে। এখন প্রধান শিক্ষকসহ মাত্র দুজন শিক্ষক রয়েছেন। ক্লাসে পাঠদানের বাইরেও প্রধান শিক্ষককে অফিসিয়াল কাজ করতে হয়।

তিনি আরও বলেন, এক বিদ্যালয় থেকে একসাথেই তিনজন শিক্ষককে বিপিএড প্রশিক্ষণে পাঠানো নজিরবিহীন।  এ নিয়ে কর্তৃপক্ষকে অভিযোগ করেও কোনো ফল হয়নি। তিনি অবিলম্বে শিক্ষক নিয়োগ দেয়ার দাবি জানান। এ ব্যাপারে  সদর উপজেলা শিক্ষা অফিসারের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়। কিন্তু তিনি ফোন রিসিভ করেননি।



আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
এবার পাকিস্তানের সেনা বহরে আত্মঘাতী হামলা, নিহত ৯
যৌন হয়রানির অভিযোগে ইটিভির সাংবাদিক বুলবুল বরখাস্ত
মাগুরার এএসপি ছয়রুদ্দিনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা
জ্ঞান, দক্ষতা ও দেশপ্রেমকে সমন্বয় করে শিক্ষা ব্যবস্থা বিন্যস্ত করতে হবে: ইবি ভিসি
‘বড় বাবুর’ ৫ কোটি টাকার বাড়ি
মাইজভান্ডারীর ওরশে যাওয়ার পথে কুমিল্লার সড়কে প্রান গেল ৫ জনের
আবুধাবিতে প্রধানমন্ত্রী
কুষ্টিয়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নাজমুল মালিথা নামে মাদক ব্যবসায়ী নিহত
মোদীর বার্তায় যুদ্ধের শঙ্কা, পাকিস্তান চালাবে পারমাণবিক হামলা
ভিক্ষুকের কোলের বাচ্চাটি সবসময় ঘুমিয়ে থাকে? এর পেছনে ভয়ংকর এক কাহিনী!
টেকনাফে ১০২ ইয়াবা ব্যবসায়ীর আত্মসমর্পণ
ভারত-পাকিস্তান উত্তেজনা তুঙ্গে, যুদ্ধের আশঙ্কা
যে কারণে কলকাতায় অপু বিশ্বাস
আমিন ধ্বনিতে মুখরিত তুরাগ পাড়, শেষ হলো প্রথম পর্বের ইজতেমা
সেক্রেটারির নেতৃত্বে কমিটি নতুন দল গড়ার চেষ্টায় জামায়াত
জনতার হাতে পুলিশের এসআই ধরা
ধর্মের ওপর গবেষণা করার পর ইসলাম গ্রহণ করলেন তিন মার্কিন অধ্যাপক
শেখ হাসিনার পর কে হবেন প্রধানমন্ত্রী?
পাকিস্তানকে কড়া হুঁশিয়ারি ভারতের
সেক্স রোবট বিপ্লব, সৃষ্টি হয়েছে বিতর্কের