শিরোনাম:
●   কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসারের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ ●   সৌদি জোটের হামলায় ৯ মাসেই ৬০ হাজার ইয়েমেনি নিহত, সবথেকে রক্তাক্ত মাস নভেম্বর ●   ফিরতে চলেছেন রানি মুখার্জি ●   একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন : আ’লীগ-বিএনপি ব্যাপক সংঘর্ষ, নিহত ১ ●   সুন্দরগঞ্জে এসএসসি পরীক্ষার্থী রুবেলকে নির্মমভাবে হত্যা : এক সপ্তাহেও আসামি ধরা পড়েনি ●   প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনী জনসভাকে কেন্দ্র করে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া এখন উৎসব মুখর ●   নীলফামারীতে ড্রাগিষ্ট, গ্রাম ডাক্তার, ইউনানী এসোসিয়েশনের সদস্যদের সাথে সংস্কৃতি মন্ত্রীর মতবিনিময় ●   পঞ্চগড়ে নৌকার প্রচার-প্রচারণা শুরু ●   কমলগঞ্জে জমির মালিকানা নিয়ে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা !! আটক-৩ ●   রাঙামাটি-২৯৯ আসনে প্রতীক বরাদ্দ পেলেন এমপি প্রার্থীরা
ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৭ অগ্রহায়ন ১৪২৫

Bijoynews24.com
শুক্রবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৮
প্রথম পাতা » খুলনা | জাতীয় সংবাদ | তথ্যপ্রযুক্তি | বক্স্ নিউজ | শিরোনাম » জ্বালানী ছাড়াই বিদ্যুৎ উৎপন্ন করছে ঝিনাইদহে ৭ম শ্রেণী পাশ বিল্লাল হোসেন
প্রথম পাতা » খুলনা | জাতীয় সংবাদ | তথ্যপ্রযুক্তি | বক্স্ নিউজ | শিরোনাম » জ্বালানী ছাড়াই বিদ্যুৎ উৎপন্ন করছে ঝিনাইদহে ৭ম শ্রেণী পাশ বিল্লাল হোসেন
শুক্রবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৮
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

জ্বালানী ছাড়াই বিদ্যুৎ উৎপন্ন করছে ঝিনাইদহে ৭ম শ্রেণী পাশ বিল্লাল হোসেন

---স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ঝিনাইদহঃ

অভাবের সংসারে ৭ম শ্রেণী পাশের পর আর লেখাপড়া করতে পারেনি। পরিবারের প্রয়োজনে কিশোর বয়সেই কাজ শিখে কিছুদিন পরে যোগ দিয়েছিলাম কালীগঞ্জের বিদ্যুৎ অফিসের ক্যাজুয়াল শ্রমিক হিসেবে। সেখানে ২ বছর কাজ করে আসতো না কোন মাসিক বেতন। তবে শহরের লাইন মেরামতের কাজ করে গ্রাহকদের কাছ থেকে যা পয়সা রোজগার হতো তা দিয়ে সংসার চলতো। কিন্তু এ বিভাগের এক কর্মকর্তার একদিনের দুর্ব্যবহার আর অবহেলায় মনে প্রচন্ড দাগ কাটে। ঘটনাটি থেকে কষ্ট নিয়েই দেড় বছর আগে এ কাজ বন্ধ করে দিতে বাধ্য হই। তখন থেকে মনে জিদ আসে বিদ্যুৎ নিয়েই জীবনে এমন কিছু করবো যা দিয়ে বিদ্যুতের চাহিদা মেটাতে ভুমিকা রাখবে। এরপর দীর্ঘ সময়ের পরিশ্রম আর সাধনায় নিজ প্রযুক্তিতে আজ বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে পেরেছি। এখন কোন প্রকার জ্বালানী ব্যবহার না করেই নিজের প্রযুিক্ততে উৎপাদিত বিদ্যুৎ দিয়ে চলছে ইজিবাইক চার্জ দেয়ার কাজ। আমি মনে করি একদিন এ প্রযুক্তিই বিদ্যুতের অভাব পূরনে কাজে লাগবে। কথাগুলো ঝিনাইদহ কালীগঞ্জ পৌর এলাকার খয়েরতলা গ্রামের যুবক বিল্লাল হোসেনের। সে ওই গ্রামের আলী আকবর মুন্সির পুত্র। রাতে শহরের কলাহাটা মোড়ে আয়না ইজিবাইক চার্জার হাউজ নামের তার দোকানে গেলে দেখা যায়, ১ টি চার্জ কন্ট্রলার, ২ টি রাডার, ১ টি ডিসি মটর, ১ টি ডায়নামা, কয়েকটি পুলির সাথে সংযোগ দেয়া হয়েছে তার নিজের তৈরী ২ টি সার্কিট। প্রথমে ব্যাটারী দিয়ে মটরটি চালু করার সাথে সাথে ওই সংযোগ অটো বিচ্ছিন্ন হয়ে যাচ্ছে। এরপর পুলিতে বেল্ট ঘুরতেই থাকছে। এ থেকেই বিদ্যুৎ উৎপন্ন হচ্ছে। সেই উৎপাদনকৃত বিদ্যুতেই চলছে ইজিবাইকের চার্জ দেয়ার কাজ। আত্মপ্রত্যয়ী যুবক বিল্লাল হোসেন আরো জানায়, তারা ৩ ভাই ১ বোন। অন্য ভাইয়েরা শ্রমিকের কাজ করে। আর একমাত্র বোনের বিয়ে হয়ে গেছে। নিজেসহ ভাইয়েরা সকলেই কঠোর পরিশ্রম করে কোন রকমে সংসার চালায়। এমন অবস্থার মধ্যদিয়ে সে কঠোর পরিশ্রম করেছে। তার আবিষ্কৃত প্রযুক্তিতে কোন রকমের জ্বালানী ছাড়াই বিদ্যুৎ উৎপন্ন হচ্ছে। এটা কম খরচে বাসা বাড়িতেও ব্যবহার যোগ্য। সে জানায়, আরও বেশি ভোল্টেজের ডায়নামা কাজে লাগিয়ে একটি অঞ্চলের বিদ্যুৎ সংযোগ দিয়ে চাহিদা পুরনের চিন্তা ভাবনার পাশাপাশি তার কাজ চলছে। তার দাবি এ প্রযুক্তিই পারে বিদ্যুতের অভাব মেটাতে। সে জানায়, এটা সফলের জন্য বিভিন্ন সরঞ্জামাদী কিনতে একাধিকবার ঢাকা, চট্রগ্রামসহ বিভিন্ন স্থানে যেতে হয়েছে। যত কষ্টই হোক দীর্ঘদিনের গবেষণা আর পরিশ্রমের পর আজ সফলতা এসেছে। এখন বেশ ভালো লাগছে। তার এ প্রজেক্ট সফল করতে ১ লাখ ১০ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। আর নিজের পরিশ্রমতো হয়েইছে। কালীগঞ্জ শহরের ফয়লা মাষ্টারপাড়ার ইজিবাইক চালক সুজিত দাস জানান, গত এক সপ্তাহ ধরে প্রতিদিন রাতে বিল্লালের উৎপাদিত বিদ্যুতে বাইক চার্জ দিয়ে সারাদিন ভাড়ায় ইজবাইক চালাচ্ছেন। এতে চার্জের কোন ঘাটতি হচ্ছেনা। তিনি বলেন, তার এ প্রযুক্তিতে উৎপন্ন বিদ্যুতে চার্জ দিতে খরচও কম লাগছে। ইজিবাইকের অন্য এক চালক শহরের কলেজপাড়ার প্রদীপ দাস জানান, ইজিবাইকে আগে অন্য স্থান বিদ্যুুৎ লাইনের একটি দোকান থেকে রাতে চার্জ দিতেন। এখন নতুন প্রযুক্তিতে উৎপন্ন বিদ্যুতে চার্জ দিচ্ছেন। তিনি বলেন, এভাবে বিদ্যুৎ উৎপন্ন করলে বিদ্যুতের ওপর চাপ কমে যাবে। কালীগঞ্জ উপজেলা ওজোপাডিকোর আবাসিক প্রকৌশলী শেখ রেজা নাছিম জানান, আমি শুনেছি কালীগঞ্জের এক যুবক নিজ প্রযুক্তিতে বিদ্যুৎ উৎপন্ন করছে। শুনেছি আমি এখানে যোগাদানের আগে এ ছেলেটি বিদ্যুৎ অফিসে ক্যাজুয়াল শ্রমিক হিসেবে কাজ করতো। পারিবারিক প্রয়োজনে আপাতত কালীগঞ্জের বাইরে আছি। আমি ফিরেই তার এটা দেখতে যাবো। তবে যা শুনেছি যদি সঠিক হয় তাহলে অবশ্যই ছেলেটিকে ধন্যবাদ জানাতে হবে। এ বাপারে কালীগঞ্জ উপজেলা পল্লী বিদ্যুতের দায়িত্বরত (ডি.জি.এম) ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার মোহম্মদ আব্দুর রব জানান, কালীগঞ্জের এক প্রতিভাবান যুবক নিজের প্রযুক্তিতে কোন জ্বালানী ছাড়াই বিদ্যুৎ উৎপন্ন করে কাজে লাগাচ্ছে এটা শুনে বৃহস্পতিবার সেখানে গিয়েছিলাম। তিনি বলেন, যা শুনেছি তার সত্যতা রয়েছে। দেখলাম কোন রকমে জালানী ছাড়াই বিদ্যুৎ উৎপন্ন হচ্ছে। তিনি বলেন, প্রতিভাবান এ ছেলেটি যে মেধা খাঁটিয়ে এ প্রযুক্তি তৈরী করেছে সেটা বিদ্যুতের চাহিদা মেটাতে ভুমিকা রাখতে পারে।

ওয়ান শুটার গান ২ রাউন্ড গুলি সহ অস্ত্র ব্যবসায়িকে ঝিনাইদহ গোয়েন্দা পুলিশ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ঝিনাইদহঃ

কালীগঞ্জের শহরের বলিদাপাড়া এলাকা থেকে আসাদুজ্জামান বিপ্লব (২৫) নামের এক অস্ত্র ব্যবসায়ীকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। এসময় তার কাছ থেকে একটি ওয়ান শুটার গান ও ২ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। সে যশোর জেলার মাটি পুকুরিয়া গ্রামের আব্দুল জব্বারের ছেলে। ঝিনাইদহ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিলু মিয়া বিশ্বাস জানান, বৃহস্পতিবার রাতে কালীগঞ্জ উপজেলার বলিদাপাড়া এক ব্যবসায়ির সার গোডাউনের পিছনে চেকপোস্ট বসায় গোয়েন্দা পুলিশ। এসময় দ্রুত গতিতে আসা একটি মটর সাইকেলের গতিরোধ করে আসাদুজ্জামান বিপ্লবকে আটক করা হয়। পরে তার হাতে থাকা ব্যাগের ভিতর থেকে একটি ওয়ান শুটারগান ও ২ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। সে এলাকায় অস্ত্র ব্যবসার সাথে জড়িত ছিল এবং যশোর থেকে কালীগঞ্জ মোবারকগঞ্জ রেল স্টেশনের দিকে যাচ্ছি বলে জানায় পুলিশ। বিপ্লব পেশায় একজন অস্ত্র ব্যবসায়ি। গোয়েন্দা পুলিশ বলছেন, সে দীর্ঘদিন যশোর থেকে অস্ত্র এনে কালীগঞ্জ এলাকায় বিভিন্ন সন্ত্রাসিদের কাছে বিক্রি করতো। সন্ত্রাসীরা এসব অস্ত্র দিয়ে নানা ধরনের অপরাধ মুলক ঘটনা ঘটাতো। এ ঘটনায় কালীগঞ্জ থানায় অস্ত্র আইনে মামলা হয়েছে।

শৈলকুপায় ইজিপিপি কর্মসূচীর নামে সরকারের ২ কোটি টাকা তছরূপের চেষ্টা অব্যাহত

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ঝিনাইদহঃ

বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার নিরসল চেষ্টায় দেশের চলমান উন্নয়ন অব্যাহত রয়েছে। আর সেই উন্নয়নকে বাধাগ্রস্থ করে নিজেদের আখের গোছাতে ব্যস্ত রয়েছে এক শ্রেনীর দূর্নীতিবাজরা। সরকার দেশের উন্নয়নের জন্য কোটি কোটি টাকা বরাদ্দ করছে বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে। এরই ধারাবাহিকতায় অতি দরিদ্রদের ভাগ্যের পরিবর্তনের জন্য বছরে দুইবার ৪০ দিন করে কর্মসংস্থানের (ইজিপিপি) ব্যবস্থা করেছেন। ইজিপিপি নামক এই প্রকল্প কর্মসূচির প্রথম পর্যায়ের কাজ বর্তমানে চলমান রয়েছে। গত ২৭ অক্টোবর থেকে শুরু হয়ে ১৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত এ কর্মসূচি চলমান থাকবে। অথচ ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলায় এই প্রকল্পের নামে ২ কোটি টাকার বরাদ্দ থাকলেও তেমন কোন বাস্তবায়ন নেই বললেই চলে। ২০১৭-১৮ অর্থ বছরের প্রথম পর্যায়ের এই প্রকল্পে শৈলকুপা উপজেলায় ১৪টি ইউনিয়নে বরাদ্দ এসেছে ১ কোটি ৯৫ লাখ ২৮ হাজার টাকা ও নন-ওয়েজ কস্টের প্রকল্পে বরাদ্দ এসেছে ৮ লাখ ৫১ হাজার ৫২৫ টাকা। সর্বমোট ২ কোটি ৩ লাখ ৭৯ হাজার ৫২৫ টাকার বরাদ্দ রয়েছে। কিন্তু সরকারী বরাদ্দের এই টাকা উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার যোগসাজসে লুটেপুটে খাওয়ার পায়তারা চলছে। এসকল প্রকল্পে ইউপি সদস্যদের নামমাত্র পিআইসি বানিয়ে প্রকল্পের টাকা ভাগাভাগি ও কলকাটি নাড়েন ইউপি চেয়ারম্যানগণ। এসব প্রকল্পের ১০ ভাগ টাকা উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার পকেটে ঢোকে বলে জানিয়েছে ইউপি চেয়ারম্যানরা। সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, এ বরাদ্দে শৈলকুপা উপজেলার কাঁচেরকোল ইউনিয়নে ৩টি প্রকল্প রয়েছে। প্রকল্প ৩টিতে দৈনিক শ্রমিক সংখ্যা থাকার কথা ১৫৯জন। ৪০ দিনে ১৫৯ জন শ্রমিকের মজুরি ও সর্দ্দার ভাতাসহ বাজেট রয়েছে মোট ১২ লাখ ৭২ হাজার। এর মধ্যে ধুলিয়াপাড়া কালি মন্দির থেকে মৌকুড়ী অভিমুখে রাস্তা মেরামতের জন্য দৈনিক ৫৩ জন শ্রমিকের কর্মসংস্থান থাকলেও কর্মসূচি ২১ দিন অতিবাহিত হলেও মাত্র ৩দিন কাজ হয়েছে। সেখানে শ্রমিক সংখ্যা ছিলো মাত্র ১১জন। ঐ ইনিয়নের আরেকটি প্রকল্প সাদেকপুর সাত্তারের বাড়ি হইতে পাকা রাস্তা অভিমুখে রাস্তা মেরামতের জন্য দৈনিক ৫৩জন শ্রমিকের কর্মসংস্থান থাকলেও সেখানে মাত্র ১২ দিন কাজ করেছে ১০ জন শ্রমিক। এছাড়াও জাঙ্গালিয়া মিজানুর রহমানের বাড়ী হইতে কাশেম মোল্লার বাড়ী পর্যন্ত রাস্তা মেরামতের জন্য দৈনিক ৫৩ জন শ্রমিকের মধ্যে মাত্র ৭ জন শ্রমিক কাজ করেছে ৩ দিন। নিত্যানন্দপুর ইউনিয়নে প্রকল্প রয়েছে ৪টি। যেখানে দৈনিক ২০১জন শ্রমিকের কর্মসংস্থান রয়েছে। ৪টি প্রকল্পে বরাদ্দ রয়েছে ১৬ লাখ ৮ হাজার টাকা। সরেজমিনে দেখা যায়, নিত্যানন্দপুর ইউনিয়নের জয়বাংলা বাজার হইতে দিঘলগ্রাম পর্যন্ত কাঁচা রাস্তা সংস্কারের জন্য দৈনিক শ্রমিক থাকার কথা ৫০জন। অথচ সেখানে শ্রমিকের পরিবর্তে ভেকু মেশিন দিয়ে ৩ দিন কাজ করে প্রকল্পের কাজ সমাধান দেখানো হয়েছে। এই প্রকল্পে মাত্র ৪৫ হাজার টাকা খরচ করে ৪ লাখ টাকা খরচ দেখানো হয়েছে। একই ইউনিয়নের আরেকটি প্রকল্প দক্ষিণ গোপালপুর জিন্নাহর বাড়ী হইতে শামছুলের বাড়ী পর্যন্ত কাঁচা রাস্তা সংস্কারে দৈনিক ৫০ জন শ্রমিকের কর্মসংস্থান থাকলেও এখন পর্যন্ত সেখানে কাজ শুরুই হয়নি। এছাড়াও শাহাবাজপুর পাকা রাস্তা হইতে প্রাইমারী স্কুল পর্যন্ত রাস্তা সংস্কার ও বিদ্যালয় মাঠে মাটি ভরাটের জন্য দৈনিক ৫০ জন শ্রমিকের কর্মসংস্থান রয়েছে। কিন্তু সেখানেও ভেকু মেশিন দিয়ে মাত্র দুই দিন কাজ করে রাস্তার কাজ সমাপ্ত করা হয়েছে। এছাড়াও বিদ্যালয় মাঠে বাইরে থেকে ধুলাবালি এনে ভরাট করা হচ্ছে। অন্য আরেকটি প্রকল্প নিত্যানন্দপুর কাশেমের বাড়ী হইতে আতিয়ারের বাড়ী পর্যন্ত কাঁচা রাস্তা সংস্কার কাজে দৈনিক ৫১ জন শ্রমিকের কর্মসংস্থান থাকলেও সে প্রকল্পেও এখন পর্যন্ত কাজের ছোয়া পড়েনি। দিনগনগর ইউনিয়নে প্রকল্প রয়েছে ৩টি। প্রকল্প ৩টিতে দৈনিক ১৪১ জন শ্রমিকের কর্মসংস্থান রয়েছে। ৩টি প্রকল্পে মোট বরাদ্দ রয়েছে ১১ লাখ ২৮ হাজার টাকা। এ ইউনিয়নের সিদ্দি তক্কেল শেখের বাড়ি হইতে হাবিল মন্ডলের বাড়ি পর্যন্ত রাস্তা সংস্কারের জন্য দৈনিক ৬৭ জন শ্রমিকের কর্মসংস্থান রয়েছে। সেখানে শ্রমিকের পরিবর্তে ভেকু মেশিন দিয়ে মাত্র ৪ দিন কাজ করে প্রকল্প সম্পন্ন দেখানো হয়েছে। ২৪ দিন পার হলেও রতনপুর ও ইটালী প্রকল্প দুটিতে এখন পর্যন্ত কাজ শুরু হয়নি। এদিকে উমেদপুর ইউনিয়নের চিত্র আরো খারাপ। সে ইউনিয়নে ৪টি প্রকল্প রয়েছে। প্রকল্প ৪টিতে দৈনিক ২১৬ জন শ্রমিকের কর্মসংস্থান রয়েছে। মোট বরাদ্দ রয়েছে ১৭ লাখ ২৮ হাজার টাকা। এর মধ্যে বারইপাড়া মাঠের সামনে হইতে সোলাকুড়া বিলের খাল পুণ: খনরের জন্য দৈনিক ১’শ জন শ্রমিকের কর্মসংস্থান রয়েছে। ৪০ দিনের কর্মসূচির ২৪ দিন অতিবাহিত হলেও এই পকল্পে এখন পর্যন্ত কাজ শুরু হয়নি। বাকি ৩টি প্রকল্পে সপ্তাহে ৩ দিন মাত্র ১০ থেকে ১২ জন শ্রমিক কাজ করে। এই ইউনিয়নের দৃশ্যমান কোন কাজ চোঁখে পড়েনি। এছাড়াও মনোহরপুর, বগুড়া, ধলহরাচন্দ্র, মির্জাপুর ও আবাইপুর ইউনিয়নের চিত্র একই রকম। অন্যদিকে চেয়ারম্যানদের সাথে আতাত করে সরকারী টাকা হাতিয়ে নেয়ার উদ্দেশ্যে উপ-সহকারী প্রকৌশলী মলয় রঞ্জন বিশ্বাস বেশিরভাগ প্রকল্প প্রাক্কলনে অতিরিক্ত শ্রমিক নির্ধারণ করেছে বলে জানা যায়। শ্রমিক ফাকি দিয়ে গোজামিলে কাজ শেরে টাকা হাতিয়ে নেয়ার ব্যাপারে প্রকল্পের পিআইসিরা বলেন, তারা ইউপি চেয়ারম্যানদের কথা মতো কাজ করেন। বাদ-বাকী সব চেয়ারম্যানরা দেখভাল করেন। শ্রমিকদের মজুরী ফাকি দিয়ে সরকারী বরাদ্দের অর্থ আত্মসাতের বিষয়ে বেশিরভাগ ইউপি চেয়ারম্যানরা বলেন, এসব প্রকল্পের ১০ ভাগ টাকা উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আব্দুর রহমান ও অফিস সহকারী তারেক খন্দকারকে দিতে হয়। বাকী টাকা পিআইসিদের মধ্যে ভাগবাটোয়ারা করতে হয়। তাহলে শ্রমিক দিয়ে কাজ করাবো কিভাবে। এ ব্যাপারে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আব্দুর রহমান জানান, আমরা রাস্তায় মাটি দেখার পর বিল পাশ করি। বিলের টাকা শ্রমিকদের নিজস্ব ব্যাংক একাউন্টে জমা হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: উসমান গনি জানান, আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে ব্যস্ততার কারনে প্রকল্পগুলো পরিদর্শনে যাওয়ার সময় হয়নি। তবে কাজ দেখে বিল পাশ করা হবে। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ জানান, প্রকল্প পরিদর্শনের জন্য ডিআরও কে পাঠানো হয়েছিলো। কাজ পরিদর্শন করে তাকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

ঝিনাইদহে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল স্কুল ছাত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ঝিনাইদহঃ

ঝিনাইদহ সদরে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে আরিফা খাতুন (১৫) নামে এক স্কুলছাত্রী বাল্যবিয়ের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে জেলা আইনজীবি সমিতির এনেক্স ভবন থেকে এফিডেভিটের মাধ্যমে বিয়ে রেজিস্ট্রি করার সময় ওই স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করা হয়। জানা যায়, জেলার কোটচাঁদপুর উপজেলার দগদীশপুর গ্রামের ভাংড়ী ব্যবসায়ী রমজান আলীর মেয়ে আরিফা খাতুনের বিয়ে হচ্ছে একই উপজেলার বলুহর গ্রামের গাড়ীচালক শাকিল হোসেনের সাথে। আরিফার বয়স ১৮ বছর না হওয়ায় তাকে আইনজীবি বিপ্লব হোসেন এফিডেভিটের মাধ্যমিক বিবাহ রেজিস্ট্রিট করছে এমন সংবাদ পায় জেলা প্রশাসন। পরে জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ’র নির্দেশে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবু সালেহ্ মোহাম্মদ হাসনাত অভিযান চালিয়ে ওই মেয়েকে উদ্ধার করে। সেসময় বর পালিয়ে যায়। পরে মুচলেকা দিয়ে মেয়েকে তার মায়ের কাছে হস্তান্তর করা হয়।



এ পাতার আরও খবর

কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসারের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসারের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ
সৌদি জোটের হামলায় ৯ মাসেই ৬০ হাজার ইয়েমেনি নিহত, সবথেকে রক্তাক্ত মাস নভেম্বর সৌদি জোটের হামলায় ৯ মাসেই ৬০ হাজার ইয়েমেনি নিহত, সবথেকে রক্তাক্ত মাস নভেম্বর
ফিরতে চলেছেন রানি মুখার্জি ফিরতে চলেছেন রানি মুখার্জি
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন :  আ’লীগ-বিএনপি ব্যাপক সংঘর্ষ, নিহত ১ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন : আ’লীগ-বিএনপি ব্যাপক সংঘর্ষ, নিহত ১
সুন্দরগঞ্জে এসএসসি পরীক্ষার্থী রুবেলকে নির্মমভাবে  হত্যা : এক সপ্তাহেও আসামি ধরা পড়েনি সুন্দরগঞ্জে এসএসসি পরীক্ষার্থী রুবেলকে নির্মমভাবে হত্যা : এক সপ্তাহেও আসামি ধরা পড়েনি
প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনী জনসভাকে কেন্দ্র করে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া এখন উৎসব মুখর প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনী জনসভাকে কেন্দ্র করে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া এখন উৎসব মুখর
নীলফামারীতে ড্রাগিষ্ট, গ্রাম ডাক্তার, ইউনানী এসোসিয়েশনের  সদস্যদের সাথে সংস্কৃতি মন্ত্রীর মতবিনিময় নীলফামারীতে ড্রাগিষ্ট, গ্রাম ডাক্তার, ইউনানী এসোসিয়েশনের সদস্যদের সাথে সংস্কৃতি মন্ত্রীর মতবিনিময়
পঞ্চগড়ে নৌকার প্রচার-প্রচারণা শুরু পঞ্চগড়ে নৌকার প্রচার-প্রচারণা শুরু
কমলগঞ্জে জমির মালিকানা নিয়ে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা !! আটক-৩ কমলগঞ্জে জমির মালিকানা নিয়ে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা !! আটক-৩
রাঙামাটি-২৯৯ আসনে প্রতীক বরাদ্দ পেলেন এমপি প্রার্থীরা রাঙামাটি-২৯৯ আসনে প্রতীক বরাদ্দ পেলেন এমপি প্রার্থীরা

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
ফিরতে চলেছেন রানি মুখার্জি
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন : আ’লীগ-বিএনপি ব্যাপক সংঘর্ষ, নিহত ১
সুন্দরগঞ্জে এসএসসি পরীক্ষার্থী রুবেলকে নির্মমভাবে হত্যা : এক সপ্তাহেও আসামি ধরা পড়েনি
প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনী জনসভাকে কেন্দ্র করে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া এখন উৎসব মুখর
নীলফামারীতে ড্রাগিষ্ট, গ্রাম ডাক্তার, ইউনানী এসোসিয়েশনের সদস্যদের সাথে সংস্কৃতি মন্ত্রীর মতবিনিময়
পঞ্চগড়ে নৌকার প্রচার-প্রচারণা শুরু
কমলগঞ্জে জমির মালিকানা নিয়ে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা !! আটক-৩
রাঙামাটি-২৯৯ আসনে প্রতীক বরাদ্দ পেলেন এমপি প্রার্থীরা
খালেদা জিয়ার প্রার্থিতা নিয়ে হাইকোর্টে বিভক্ত আদেশ
চূড়ান্ত লড়াইয়ে ১৮৪১ প্রার্থী, স্বতন্ত্র ৯৬
চাঁদাবাজি ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগ খিলগাঁও জোনের এসিসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা
খালেদার বিষয়ে সিদ্ধান্ত আজ
নির্বাচনে ফিরলেন হিরো আলম
১ হাজার বছরের কাজা নামাজ আদায় হবে এই দোয়াটি পাঠ করলে!
আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে ফুলবাড়ীতে দলিত জনগোষ্ঠীর আবাসন সমস্যা নিরসনে মানববন্ধন
প্রধানমন্ত্রী টুঙ্গিপাড়া সফরে আসছেন বুধবার
পঞ্চগড়ের দুইটি আসনে ১৪ জনের প্রতীক বরাদ্দ
গাইবান্ধার ৫টি আসনে যারা মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করলেন
মৌলভীবাজারে বিশেষ অভিযানে জামায়াতের সভাপতিসহ আটক-১৫
কুষ্টিয়ায় ৪টি আসনে ২৫ প্রার্থীর অনুকুলে প্রতীক বরাদ্দ