শিরোনাম:
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০১৯, ৯ ফাল্গুন ১৪২৫

Bijoynews24.com
মঙ্গলবার, ২৮ আগস্ট ২০১৮
প্রথম পাতা » অর্থ-বাণিজ্য-কৃষি | জাতীয় সংবাদ | জীব-বৈচিত্র | ঢাকা | ফটো গ্যালারী | বক্স্ নিউজ | শিরোনাম » গোপালগঞ্জের খেলনা গ্রামে পদ্মফুলের মেলা : পর্যটকদের আনাগোনায় মুখর
প্রথম পাতা » অর্থ-বাণিজ্য-কৃষি | জাতীয় সংবাদ | জীব-বৈচিত্র | ঢাকা | ফটো গ্যালারী | বক্স্ নিউজ | শিরোনাম » গোপালগঞ্জের খেলনা গ্রামে পদ্মফুলের মেলা : পর্যটকদের আনাগোনায় মুখর
মঙ্গলবার, ২৮ আগস্ট ২০১৮
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

গোপালগঞ্জের খেলনা গ্রামে পদ্মফুলের মেলা : পর্যটকদের আনাগোনায় মুখর

 

---নিজস্ব প্রতিনিধি, গোপালগঞ্জ : পদ্ম ফুলকে কেন্দ্র করে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পূর্ণ ভূমি গোপালগঞ্জ জেলা এখন পর্যটকদের আনাগোনায় মুখর। জলজ ফুলের রানী বলা হয় পদ্মকে। প্রাকৃতিক ভাবে জন্ম নেওয়া পদ্মফুল সৌন্দর্য বাড়িয়ে দিয়েছে গোপালগঞ্জের বিলের চিত্র। দূর থেকে দেখে মনে হবে যেন ফুলের বিছানা পেতে রেখেছে কেউ। প্রতিদিনই এ সৌন্দর্য উপভোগ করতে আসছে দর্শনার্থীরা। বিস্তৃর্ণ জলাভূমি। চারদিকে লতা-গুল্ম কোথাও কচুরিপানা। এরই মাঝে ভেসে রয়েছে অগণিত পদ্ম। ¯িœগ্ধতার রং আর আকাশে মেঘের ভেলা এই দুইয়ে মিলে যেন একাকার প্রকৃতি। গ্রাম-বাংলার যেখানেই পুকুর, খাল-বিল রয়েছে সেখানেই দেখা মিলবে অপরূপ এই ফুলটির। তেমনি গোপালগঞ্জের বিভিন্ন বিলে ফুটে থাকা এই পদ্ম তৃষ্ণা মেটাচ্ছে প্রকৃতি প্রেমীদের।

প্রাকৃতিক ভাবে জন্ম নেওয়া লাল-গোলাপি ও সাদা পদ্মফুল সৌন্দর্য বাড়িয়ে দিয়েছে গোপালগঞ্জের পদ্মবিলের। দূর থেকে তাকালে মনে হবে বিলে কেউ যেন ফুলের বিছানা পেতে রেখেছে। এ যেন পদ্মমেলা। গোপালগঞ্জ জেলার চার পাশে রয়েছে অসংখ্য বিল। তার মধ্যে অন্যতম সদর উপজেলার খেলনা ও বলাকইড় বিল। গোপালগঞ্জ জেলা সদর থেকে মাত্র ১২ কিলোমিটার দূরে। অবস্থিত খেলনা গ্রাম। খেলনার বুক চিড়ে বিশাল বিলের মাঝ দিয়ে প্রায় ৫ কিলোমিটার রাস্তা আঁকা-বাঁকা ডানা মেলে চলে গিয়েছে বলাকইড় গ্রামে। খেলনা গ্রামের এ রাস্তা দিয়ে যেতেই চোখে পড়বে পদ্ম ফুলের মেলা। ১৯৮৮ সালের পর থেকে বর্ষাকালে এ বিলের অধিকাংশ জমিতেই প্রাকৃতিক ভাবে পদ্মফুল জন্মে। আর এ কারণে এখন এ বিলটি পদ্মবিল নামেই পরিচিত হয়ে উঠেছে।

বর্ষা মৌসুমে চারিদিকে শুধু পদ্ম আর পদ্ম। বিস্তৃর্ণ এলাকা জুড়ে গোলাপি রং এর পদ্ম দেখলে মন ও জুড়িয়ে যায়। চোখ যত দূর যায় শুধু পদ্ম আর পদ্ম। এমন অপরূপ দৃশ্য যেন ভ্রমণ পিপাসুদের হাতছানি দিচ্ছে। এ বিলের সৌন্দর্য ও পদ্ম দেখার জন্য প্রতিদিনই ছেলে-মেয়ে নিয়ে ভিড় করছেন দর্শনার্থীরা। তারা নৌকায় ঘুরে সৌন্দর্য উপভোগ করছেন। আর একে কেন্দ্র করে স্থানীয়রাও ভ্রমণ পিপাসুদের সার্বিক সহযোগিতা করতে নানা রকম পসরা মিলিয়ে বসছেন।

বলাকইড় গ্রামের কৃষ্ণ চন্দ্র সরকার (৬০) বলেন, হিন্দু ধর্মালম্বীরা বিভিন্ন পূজা পার্বণে পদ্ম ফুলের ব্যবহার করে থাকে। তাই এলাকার শ্রমজীবী মানুষ ফুল ও ফল বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করছে।

খেলনা গ্রামের স্বপপুরি পদ্ম মেলার আয়োজক আহসান হাবিব শেখ তুহিন বলেন, পর্যটকদের জন্য ইতি মধ্যে রাস্তার পাশে গড়ে উঠেছে বিভিন্ন দোকান। এখানে আছে ছোট বড় প্রায় ২০-২৫ টা নৌকা। নৌকা ভ্রমনের জন্য নির্দিষ্ট কোন ভাড়া না থাকলে ও পর্যটকরা ভ্রমন শেষে আমাদের খুশি হয়ে যা দেন তাতেই আমরা মহা খুশি। এছাড়া পদ্ম ফুলের এ মেলার জন্য আমাদের গ্রামের কালাম ও মান্নু শেখের রয়েছে একটি পার্ক, বালুর মাঠ। রয়েছে একাধিক বড় ঘের যেখানে রয়েছে মনোরম দৃশ্য পিকনিক কর্ণার। বিলের মাঝে দেখা মেলবে মাছুদ, সোহাগসহ এক ঝাঁক যুবকের নানা রঙ্গের ব্যানার ফেস্টুন। যেখানে রয়েছে নানা উপদেশ ও সতর্কবাণী।

গোপালগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী অফিসার মোছা: শাম্মি আক্তার বলেন, গোপালগঞ্জ জেলা বঙ্গবন্ধুর পূর্ণভূমি। সে হিসেবে এ জেলাটাই পর্যটক কেন্দ্রে পরিনত হবে। তবে পদ্মফুল একটা গ্রামীণ ঐতিহ্য একে কি ভাবে রক্ষা ও সংরক্ষণ করা যায় সে জন্য প্রধানমন্ত্রী ও স্থানীয় সরকারকে চিঠি দেওয়া হয়েছে বলে তিনি জানান।

গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো: মোকলেসুর রহমান সরকার বলেন, খেলনা এবং বলাকইড় গ্রামের পদ্মবিলের পদ্মফুল কে কেন্দ্র করে পর্যটকদের জন্য ইতিমধ্যে আমরা পাকা রাস্তা করে দিয়েছি এবং পর্যটকদের জন্য পাবলিক টয়েলেটের ব্যাবস্থাসহ নানা প্রকল্প রয়েছে বলে তিনি জানান।

রাজাকার জঙ্গি ও সাম্প্রদায়িক চক্র ও তাদের গডমাদার খালেদাকে মাইনাস করে আগামী নির্বাচন হবে——ইনু

নিজস্ব প্রতিনিধি, গোপালগঞ্জ : ১৪ দলের সমন্বয়ক ও স্বাস্থ্য মন্ত্রী মোঃ নাসিম বলেন, সংবিধান অনুযায়ি শেখ হাসিনার অধীনে অবাধ এবং সুষ্ঠু ভাবে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ওই নির্বাচনে ১৪ দল ঐক্যবদ্ধ ভাবে অংশ গ্রহন করবে। মঙ্গলবার দুপুর ১টায় গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির জনকের সমাধিতে ১৪দলের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মো: নাসিম আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, বিএনপি এবার অতীতের মতো ভুল করবে না। বিএনপি নির্বাচনে অংশ নেবে। আর বিএনপি নির্বাচনে না আসলেও সংবিধান অনুযায়ি নির্বাচন হবে।

১৪ দলের অংশীদার জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সভাপতি ও তথ্য মন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেন, রাজকার, জঙ্গি ও সাম্প্রদায়িক চক্র এবং তাদের গডমাদার দূর্নীতির দায়ে দন্ডপ্রাপ্ত খালেদা জিয়াকে মাইনাস করার প্রক্রিয়া এখন চুড়ান্ত পর্যায়। এসব চক্রকে মাইনাসের মধ্যদিয়ে ২০১৮ সালে সংবিধান অনুযায়ি  দেশে গণতান্ত্রিক ও সুষ্ঠু নির্বাচন অনুঠিত হবে।

এরআগে মো: নাসিমের নেতৃত্বে ১৪ দলের নেতৃবৃন্দ জাতির জনকের সমাধি বেদীতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পন করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। নেতৃবৃন্দ পরে সেখানে ফাতেহা পাঠ ও বঙ্গবন্ধুসহ ১৫ আগস্টে নিহতদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া ও বিশেষ মোনাজাত করেন।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে ওয়ার্কার্স পার্টির পলিট ব্যুরোর সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা, এমপি, সাম্যবাদী দলের সাধারন সম্পাদক দিলীপ বড়–য়া, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের শরীফ নূরুল আম্বিয়া, কমিউনিস্ট কেন্দ্রের ডাঃ অসীত বরণ রায়, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি চৌধুরী এমদাদুল হক, সাধারন সম্পাদক মাহবুব আলী খান, টুঙ্গিপাড়া আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল হালিম, সাধারন সম্পাদক আবুল খাযের বাশার, কোটালীপাড়া আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এস এম হুমায়ূন কবীর, গোপালগঞ্জ শহর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক নজরুল ইসলাম, জেলা জাসদের সভাপতি শেখ মাসুদুর রহমান, সাধারন সম্পাদক সাইফুর রশীদ চৌধুরী, জেলা যুবলীগ সভাপতি জি এম সাহবুদ্দিন আজম, সাধারন সম্পাদক এমবি সাইফ বি মোল্লাসহ আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অংশ নেন।

এরআগে বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) কেন্দ্রীয় সংসদ ও গোপালগঞ্জ জেলা শাখার পক্ষ থেকে জাতির জনকের সমাধিতে পৃথক ভাবে পুষ্পস্তাবক অর্পন করে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।


নৌকার প্রার্থী হতে চান গোপালগঞ্জের শামসুল হক ফরিদপুরীর ছেলে মাওলানা রুহুল আমীন

নিজস্ব প্রতিনিধি, গোপালগঞ্জ : আগামী ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট থেকে প্রার্থী হতে চান গোপালগঞ্জের গহরডাঙ্গা মাদ্রাসার মহাপরিচালক মাওলানা রুহুল আমীন। তিনি মাওলানা শামসুল হক ফরিদপুরী (রহ.) এর সন্তান, আল হাইআতুল উলয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়্যাহ বাংলাদেশের সদস্য ও কওমি মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের (বেফাক) সাবেক মহাসচিব। এবার তিনি নড়াইল-১ আসন থেকে নৌকা প্রতীকে নির্বাচনে আগ্রহী।

টুঙ্গিপাড়া গহরডাঙ্গা মাদ্রাসায় এক শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে নড়াইল-১ আসনের বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, ওয়ার্ড মেম্বার ও সামাজিক-রাজনৈতিক নেতারা মাওলানা রুহুল আমীনের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। মাওলানা রুহুল আমিনের ঘনিষ্ঠ মাওলানা মুহাম্মদ তাসনীম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন।

রুহুল আমিন কওমি মাদ্রাসার সরকারি স্বীকৃতির দাবিতে দীর্ঘ দিন সক্রিয় ছিলেন। বরাবরই তিনি আওয়ামীলীগের ঘনিষ্ঠ আলেম হিসেবে পরিচিত ছিলেন। আওয়ামীলীগ ধারার রাজনৈতিক সহমর্মিতার কারণে তিনি এক সময় বেফাকের মহাসচিব পদ থেকে অপসারিতও হয়েছিলেন, এমন দাবি তার নিজেরই।

মাওলানা রুহুল আমিন সাংবাদিকদের বলেন, এলাকার মানুষ চাচ্ছে, আগামী আমি সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হই। আওয়ামীলীগের জন্য আমি দীর্ঘ দিন ধরেই কাজ করে আসছি। আশা করি আমি মহাজোটের সমর্থন অবশ্যই পাবো।

টুঙ্গিপাড়া গহরডাঙ্গা মাদ্রাসায় মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন তারিকুজ্জামান রেজা, সালামাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শামিমুর রহমান, আলাউদ্দিন চৌধুরী, আমিনুল ইসলাম মনি, সাবেক পৌর মেয়র অহিদুর রহমান হেরা, খালিদ হাসান, যুবলীগের সাধারন সম্পাদক খালিদ হোসেন, ওলামা পরিষদের চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুর রকীব, মাওলানা শাহাদাত, মাওলানা আব্দুল্লাহ, মাওলানা আনিছুজ্জামান, মাওলানা রেজাউল হক, মাওলানা জিন্নাত আলী, মুফতি শহিদুল ইসলাম, স্বেচ্ছা সেবক লীগের জামাল হোসেনসহ স্থানীয় সামাজিক, রাজনৈতিক ও ধর্মীয় নেতারা।



আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
শিক্ষা ব্যবস্থা আরও যুগোপযোগী করা হবে : শিক্ষামন্ত্রী
চতুর্থ শ্রেণির শিশুকে ‘ধর্ষণ চেষ্টা’
আগুনে পুড়ে ছাই ২টি গরু নিবাতে গিয়ে ঝলছে আহত-৩
গাইবান্ধার বিভিন্ন এলাকায় ভারতের বনাঞ্চল থেকে একটি হনুমানের দেখা গেছে
গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে ছয় কোচিং সেন্টার সিলগালা : বেঞ্চ ধ্বংস
পদকপ্রাপ্তদের মাঝে একুশে পদক প্রদান করলেন প্রধানমন্ত্রী
ফেসবুকে পরিচয়,প্রেম-বিয়ে অত:পর
পরিবারের সবাইকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে শ্যালিকাকে ধর্ষণ
ইবিতে আন্তর্জাতিক পর্যটনের উপর সেমিনার
মনু নদী খননের দাবীতে বিশাল মানববন্ধন
সুন্দরগঞ্জে অমর একুশে বইমেলার উদ্বোধন
কুষ্টিয়ার বটতৈল জিকে খাল থেকে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার
বাচ্চা শিশুদের বিষ খাওয়াচ্ছেন? কাপড়ের রং আর স্যাকারিন দিয়ে ম্যাঙ্গো জুস
সাড়ে ৩শ মাদক স্পট থেকে কোটি টাকা মাসোহারা, আখাউড়ার ওসি ক্লোজড
ইমরানের যুদ্ধ উস্কানির পরেই সীমান্তে ব্যাপক গোলাগুলি, পাল্টা জবাব ভারতের
চুপ করে বসে থাকবো না, পাল্টা হামলা চালাব: ইমরান খান
ভারতে পৌঁছেছেন সৌদি যুবরাজ
টেকনাফে ইয়াবা পাচারকারীদের সঙ্গে বিজিবির ‘বন্দুকযুদ্ধ’, রোহিঙ্গা নিহত
৬৫ বছরের বৃদ্ধাকে ধর্ষণ করলো এই দুই বখাটে!
কুষ্টিয়া ডিবি পুলিশের সফল অভিযান : ৩শ বোতল ফেন্সিডিল ৩ কেজি গাঁজাসহ আটক-১