শিরোনাম:
●   কাফন মিছিলের পর শাবিতে এবার গণঅনশনের ডাক ●   ●   কুষ্টিয়ায় পরিবেশ বান্ধব জিকজাক ইট ভাটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ওরা কারা ? ●   কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে ●   ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি ●   অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক ●   কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি ●   দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড ●   ‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’ ●   আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি
ঢাকা, শনিবার, ২ জুলাই ২০২২, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯

Bijoynews24.com
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১
প্রথম পাতা » অপরাধ জগত | জাতীয় সংবাদ | বক্স্ নিউজ | রাজনীতি | শিরোনাম » ইভ্যালি কেলেঙ্কারি রাসেল দম্পতি গ্রেপ্তার
প্রথম পাতা » অপরাধ জগত | জাতীয় সংবাদ | বক্স্ নিউজ | রাজনীতি | শিরোনাম » ইভ্যালি কেলেঙ্কারি রাসেল দম্পতি গ্রেপ্তার
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

ইভ্যালি কেলেঙ্কারি রাসেল দম্পতি গ্রেপ্তার

---

স্টাফ রিপোর্টার

 

প্রতারণার অভিযোগে ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মো. রাসেল ও তার স্ত্রী শামীমা নাসরিনকে  রাজধানীর মোহাম্মদপুর থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। গতকাল বিকালে রাসেলের বাসায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গুলশান থানায় তাদের নামে প্রতারণার মামলা হওয়ার প্রেক্ষিতে দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে র‌্যাব জানিয়েছে। তবে তারা আগে থেকেই র‌্যাবের নজরদারিতে ছিলেন। তাদের দেশ ত্যাগেও নিষেধাজ্ঞা ছিল। র‌্যাব তাদের দুইজনকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাবের সদর দপ্তর উত্তরায় নিয়ে যায়। আজ শুক্রবার তাদের আদালতে প্রেরণ করা হবে।
এর আগে রাসেল ও তার স্ত্রী শামীমা নাসরিনের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে গুলশান থানায় মামলা হয়।

 

 

আরিফ বাকের নামে ইভ্যালির একজন গ্রাহক মামলাটি করেছেন। মামলা নম্বর-১৯। মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, আরিফ বাকের গত ২৯শে মে ও জুন মাসের বিভিন্ন সময়ে ইভ্যালিতে মোটরসাইকেলসহ বেশ কয়েকটি পণ্য অর্ডার করেন। এগুলো ৭ থেকে ৪৫ কার্য দিবসের মধ্যে দেয়ার কথা থাকলেও তারা দেয়নি। ইভ্যালির কাস্টমার কেয়ারে ফোন দিয়ে সমাধান পাওয়া যায়নি। অফিসে গিয়ে তাদের প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বললে খারাপ ব্যবহার করা হয়। প্রতিষ্ঠানটির সিইও রাসেলের সঙ্গেও দেখা করার চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। এছাড়াও পণ্যের জন্য আগাম অর্থ দিয়ে না পাওয়ার পাশাপাশি ‘প্রাণনাশের হুমকি’ দেয়ার মামলায় অভিযোগ করা হয়।
২০১৮ সালের ডিসেম্বরে যাত্রা শুরু করে মাত্র আড়াই বছরের মাথায় সরবরাহকারী কোম্পানি ও গ্রাহকদের কাছে ৫৪৩ কোটি টাকার দায়ে পড়েছে ইভ্যালি। এত অল্প সময়ে এই বিপুল টাকা কোথায় গেল তার হদিস এখনো মেলেনি। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী জানিয়েছে, এর বড় অংশের টাকা হুন্ডির মাধ্যমে বিদেশে পাচার হয়ে গেছে। আত্মসাৎ ও পাচারের অভিযোগ অনুসন্ধানের অংশ হিসেবে গত জুলাই মাসে দুদকের আবেদনে ইভ্যালির শীর্ষ কর্তাদের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা জারি করে আদালত।
প্রত্যক্ষদর্শী ও র‌্যাব জানায়, গতকাল দুপুর দেড়টার দিকে মোহাম্মদপুরের স্যার সৈয়দ রোডের ৫/৫/এ নম্বরের নিলয় কমপ্রিহেনসিভ হোল্ডিংয়ের চতুর্থ তলায় অভিযান চালায় র‌্যাবের সদস্যরা। ওই বাসা থেকে কী জব্দ করা হয়েছে তা র‌্যাব জানায়নি। পরে বিকাল ৫টা ২০ মিনিটে একটি কালো গাড়িতে করে তাদের র‌্যাব সদর দপ্তরে নিয়ে যাওয়া হয়।
অভিযানের পর র‌্যাবের গোয়েন্দা বিভাগের পরিচালক লে. কর্নেল মো. খাইরুল আলম জানান, ‘গুলশান থানায় ইভ্যালির বিরুদ্ধে মামলার প্রেক্ষিতে রাসেল ও তার স্ত্রীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের র‌্যাব সদর দপ্তরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।
রাসেল ও তার স্ত্রীকে গ্রেপ্তারের খবর পেয়ে ইভ্যালি থেকে প্রতারণার শিকার ভুক্তভোগী এবং ইভ্যালির পক্ষে প্রায় ১০০ জন সেখানে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। একটি পক্ষ তাদের টাকা ফেরত চান। আরেকটি পক্ষ দাবি করেন যে, রাসেল গ্রেপ্তার হওয়ার মধ্য দিয়ে ই-ভ্যালির সমস্ত সম্পদ বেহাত হয়ে যেতে পারে। এতে প্রকৃত গ্রাহকরা ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারে। এজন্য তারা রাসেলকে আরও বেশি সময় দিয়ে গ্রাহকের টাকা ফেরত দেয়ার দাবি জানান। কোনো কোনো গ্রাহক তাদের টাকা ফেরত না পেয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন।
ইভ্যালি থেকে প্রতারণার শিকার হারুনূর রশীদ জানান, গত জুন মাসে ২ লাখ ৭০ হাজার টাকা দিয়ে একটি পালসার বাইক কেনার অর্ডার দিই। আমাকে পণ্য ডেলিভারি দেয়ার জন্য মাত্র ২১ দিন সময় নেয়া হয়।
তিনি আরও জানান, ইভ্যালি তাকে পণ্যতো দেয়নি বরং তাকে বিভিন্ন হুমকি-ধমকি দেয়া হয়। তিনি তার টাকা ফেরতের দাবি করেন। এদিকে, বিক্ষুদ্ধ ইভ্যালির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট মনিরুল ইসলাম নামে এক যুবক জানান, রাসেলকে  গ্রেপ্তার করা হলে গ্রাহকরা আরও বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। অতীত অভিজ্ঞতায় দেখা গেছে, ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের যেসব কর্ণধারদের  গ্রেপ্তার করা হয়েছে, সেসব প্রতিষ্ঠান দ্বারা ক্ষতিগ্রস্ত কেউই তাদের বিনিয়োগ করা অর্থ ফেরত পাননি। তিনি আরও জানান, ইভ্যালির রাসেলকে যথাযথ নজরদারির মধ্যে রেখে আরও কিছুদিন সময় দেয়া উচিত। একটা নির্দিষ্ট সময়  বেঁধে দিয়ে তাকে গ্রাহকদের টাকা ফেরত বা পণ্য দিতে বাধ্য করা যেতে পারে। তাকে ধরে নিয়ে গেলে গ্রাহকরা পণ্য বা টাকা কিছুই পাবে না।
এ বিষয়ে মোহাম্মদপুর থানার এসআই নাজমুল হোসেন জানান, খবর পেয়ে আমরা সেখানে উপস্থিত হই। সেখানে বিক্ষুব্ধ গ্রাহক এবং রাসেলের পক্ষের লোকজন তাদের দাবি আদায়ে বিক্ষোভ করে। সেখানে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির যাতে কোনো বিঘ্ন না ঘটে সেদিকে নজর রাখা হয়।
তিনি আরও জানান, রাসেল গ্রেপ্তার হওয়ার পর বিক্ষুব্ধরা একটি মিছিল বের করলে পুলিশ মিছিলটি থামিয়ে দেয়। পরে সেখানে থাকা বিক্ষুব্ধরা শান্তিপূর্ণভাবে যে যার স্থানে চলে যায়।



এ পাতার আরও খবর

কুষ্টিয়ায় পরিবেশ বান্ধব জিকজাক ইট ভাটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ওরা কারা ? কুষ্টিয়ায় পরিবেশ বান্ধব জিকজাক ইট ভাটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ওরা কারা ?
কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে
ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি
অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক
কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি
দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড
‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’ ‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’
আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি
সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ শাহবাগে ‘গণঅনশন ও অবস্থান’ কর্মসূচিতে সংখ্যালঘুদের ৮ দফা দাবি সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ শাহবাগে ‘গণঅনশন ও অবস্থান’ কর্মসূচিতে সংখ্যালঘুদের ৮ দফা দাবি

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
কুষ্টিয়ায় পরিবেশ বান্ধব জিকজাক ইট ভাটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ওরা কারা ?
কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে
ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি
অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক
কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি
দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড
‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’
আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি
সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ শাহবাগে ‘গণঅনশন ও অবস্থান’ কর্মসূচিতে সংখ্যালঘুদের ৮ দফা দাবি
আজ বিআরবি কেবল ইন্ড্রাষ্টিজ লিমিটেড এর ৪৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী
কুষ্টিয়া জেলা প্রেসক্লাবের অভিনন্দন
মণ্ডপে হামলা : উস্কানিদাতা ইসলামিক বক্তা গ্রেপ্তার
প্রেমিককে স্বামী বানিয়ে প্রবাসীর সম্পদ লিখে নেন সাকুরা
আবারও বাড়ছে ভোজ্যতেলের দাম
তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে সাঈদ খোকনের চ্যালেঞ্জ ইসলাম ত্যাগ করেন, দুই দিনও মন্ত্রী থাকতে পারবেন না
কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে আপত্তিকর অবস্থা থেকে পালাতে গিয়ে ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে যুবকের মৃত্যু
কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব কেপিসির নবনির্বাচিত কমিটির দায়িত্ব গ্রহণ ও শপথ অনুষ্ঠিত
চিলাহাটি গার্লস্ স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষের প্রদায়ন ও নবাগত কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠিত
স্বামী বিদেশে নেওয়ার আগেই রাতের আধারে প্রেমিকের সঙ্গে পালালেন স্ত্রী