শিরোনাম:
●   কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে ●   ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি ●   অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক ●   কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি ●   দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড ●   ‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’ ●   আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি ●   সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ শাহবাগে ‘গণঅনশন ও অবস্থান’ কর্মসূচিতে সংখ্যালঘুদের ৮ দফা দাবি ●   আজ বিআরবি কেবল ইন্ড্রাষ্টিজ লিমিটেড এর ৪৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ●   কুষ্টিয়া জেলা প্রেসক্লাবের অভিনন্দন
ঢাকা, বুধবার, ১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ন ১৪২৮

Bijoynews24.com
সোমবার, ৪ মে ২০২০
প্রথম পাতা » জাতীয় সংবাদ | জীব-বৈচিত্র | বক্স্ নিউজ | শিরোনাম » কাপাসিয়ায় হঠাৎ সাপের পা দেখা এবং সাপের পা নিয়ে চলছে নানা গবেষণা
প্রথম পাতা » জাতীয় সংবাদ | জীব-বৈচিত্র | বক্স্ নিউজ | শিরোনাম » কাপাসিয়ায় হঠাৎ সাপের পা দেখা এবং সাপের পা নিয়ে চলছে নানা গবেষণা
সোমবার, ৪ মে ২০২০
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

কাপাসিয়ায় হঠাৎ সাপের পা দেখা এবং সাপের পা নিয়ে চলছে নানা গবেষণা

---মামুনূর রশিদ, স্পেশাল রির্পোটার: আমাদের সমাজে সাপ নিয়ে নানা ধরনের লোমহর্ষক কথা প্রচলিত আছে। সাপ দেখে ভয় পেলেও সাপ নিয়ে কৌতূহল আছে সব মানুষের।  সাপের পাঁচ পা দেখার প্রবাদটি খুব পরিচিত ও বহুল ব্যবহৃত একটি প্রবাদ। ছাত্র জীবনে বাংলা ব্যাকরণ বইতে আমরা অনেক বাগধারা পড়েছি। এর মধ্যে একটি বাগধারা ছিলো -সাপের পাঁচ পা দেখা। সাপের পাঁচ পা দেখার অর্থ হলো অর্থহীন কথা, দর্প করা। এত দিন আমরা জানতাম সাপের পাঁচ পা দেখা একটি কথার কথা। সাপের আবার পা আছে নাকি- এমনটাই আমরা এতো দিন জেনে এসেছি। সাপের পাঁচ পা কোন মানুষ নিজ চোখে দেখেছে বলেও শোনা যায়নি। সাপের পা নেই বলেই সে বুকে ভর করে চলাচল করে। এটাই এতকাল দেখে আসছি। কাপাসিয়ায় সাপের পা দেখাঃ সাপের পা আছে এমন কথা শুনলে অবাক হওয়ারই কথা। কিন্তু সাপের পা নেই এসব কথা মিথ্যা প্রমাণিত করে বাস্তবেই সাপের পা এর দেখা মিলেছে গাজীপুর জেলার কাপাসিয়া উপজেলায়।

গত ৩০ এপ্রিল ২০২০, কাপাসিয়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের পাবুর গ্রামের মানুষ সাপের পা এর সন্ধান পেয়েছে।ওই দিন সকালে পাবুর গ্রামের দেওয়ান ও খান বাড়ি সংলগ্ন একটি টেকে স্থানীয় এক কৃষক বিরল প্রজাতির বড় আকারের সাপ দেখতে পেয়ে সাপ সাপ বলে চিৎকার দিয়ে উঠে। পরে গ্রামের হেলাল উদ্দীন সহ লোকজন লাঠিসোঁটা নিয়ে সাপের পিছনে ধাওয়া করে এবং একপর্যায়ে সাপটিকে মারতে সক্ষম হয়। এই সাপটি লম্বায় ছিলো ১২ ফুট।

সবচেয়ে আশ্চর্যের বিষয় হলো সাপটির ছিলো দুটি দৃশ্যমান পা। সে দিন এই সাপের পা দেখার জন্য অনেক উৎসুক মানুষ ভীড় করেছিল। এলাকার মানুষ সাপের পায়ের কথাই এত দিন শুনে এসেছে। জীবনে এই প্রথম সত্যি সত্যি সাপের পা দেখে বিশ্বাস করেছে মানুষ। অনেকে সাপের পা আছে বিশ্বাস করতে পারছেন আবার কেউ কেউ এটাকে সাপের পা বলতে নারাজ। অনেকে পা সদৃশ অঙ্গটাকে সাপের যৌনাঙ্গ বলে মত প্রকাশ করেছেন। তাদের ধারণা সাপটি একটি পুরুষ শ্রেণির। সেক্সচুয়াল বা সঙ্গম চলাকালীন সময়ে সাপটিকে মারা হয়েছে। এ কারণে যৌনাঙ্গ ভিতরে প্রবেশ করতে পারেনি। সাপের পা নিয়ে নানা গবেষণার কথাঃ সাপের পা নেই। এতো দিন মানুষ এটাই জানতেন। সাপের পা নিয়ে দীর্ঘদিন যাবতই মানুষ অনুসন্ধান চালিয়ে আসছেন।সম্প্রতি সাপের পায়ের রহস্য ও উদঘাটিত হয়েছে। যুক্তরাজ্যের ইউনিভার্সিটি অব এডিনবরা ও যুক্তরাষ্ট্রের আমেরিকান মিউজিয়াম অব ন্যাচারাল হিস্টরি সম্প্রতি সিটি স্ক্যানিং প্রযুক্তি ব্যবহার করে সাপের পা রহস্যের সমাধান করেছে। সাপের পা নিয়ে গবেষণা পত্র লিখেছেন ড.হংগুইই। এ গবেষণা প্রকাশিত হয়েছিল সায়েন্স অ্যাডভান্সস জার্ণালে। তিনি এডিনবরা স্কুল অব জিওসায়েন্সেসের গবেষক। তিনি বলেন,এক সময় সাপের পা ছিলো। কিন্তু পা হারানোর বিষয়টি ঘটেছিলো যখন সাপের পূর্ব পুরুষ গর্তে প্রবেশ শুরু করে ছিলো। গবেষকরা ৯০ মিলিয়ন বছররের পুরনো ফসিল সিটি স্ক্যান করে দেখেন যে,সাপ মাটির সরু পথে প্রবেশ করার পরই তাদের পা এর প্রয়োজনীয়তা হারিয়ে ফেলে। এর আগে বিজ্ঞানীদের ধারণা ছিল সাপ যখন পানিতে বসবাস শুরু করে তখন তাদের পা অপ্রয়োজনীয় হয়ে পড়ে। আর এ ভাবেই সাপের পা বিলুপ্ত হয়ে যায়। এ ধরনের ধারণাকে অনেক গবেষক উড়িয়ে দিয়েছেন। অনেক গবেষকরা বলেন, সাপ যখন লম্বা দেহ নিয়ে মাটির সরু গর্তে প্রবেশ করা শুরু করে তখন তার পায়ের প্রয়োজন হয়না। বরং সরু গর্তে মধ্যে সাপের চলাচলের সময় পা বাধা সৃষ্টি করতে পারে। কেননা বেশিরভাগ সাপই মাটির গর্তেই বসবাস করে এবং শিকার করে বসেবসে খায়।

সম্প্রতি চীনে তিন নামে এক বয়ষ্ক মহিলার থাকার ঘরে রাতে একটি সাপ দেখতে পেয়ে ওই সাপটাকে মেরে ফেলেন। পরে তিনি লক্ষ করে দেখেন যে সাপটির একটি পা আছে। এর পর তিনি ১৬ ইঞ্চি লম্বা ওই সাপটিকে অ্যালকোহলের বোতলে সংরক্ষণ করে চীনের নানচাং প্রদেশের ওয়েস্ট নরমাল ইউনিভার্সিটির লাইফ সাইন্স ডিপার্টমেন্টে গবেষণার জন্য পাঠান। গবেষকদের ধারণা যে, এটি গুই প্রজাতির ও সাপের সংকর প্রজাতি।



এ পাতার আরও খবর

কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে
ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি
অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক
কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি
দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড
‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’ ‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’
আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি
সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ শাহবাগে ‘গণঅনশন ও অবস্থান’ কর্মসূচিতে সংখ্যালঘুদের ৮ দফা দাবি সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ শাহবাগে ‘গণঅনশন ও অবস্থান’ কর্মসূচিতে সংখ্যালঘুদের ৮ দফা দাবি
আজ বিআরবি কেবল ইন্ড্রাষ্টিজ লিমিটেড এর ৪৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী আজ বিআরবি কেবল ইন্ড্রাষ্টিজ লিমিটেড এর ৪৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী
কুষ্টিয়া জেলা প্রেসক্লাবের অভিনন্দন কুষ্টিয়া জেলা প্রেসক্লাবের অভিনন্দন

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে
ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি
অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক
কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি
দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড
‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’
আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি
সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ শাহবাগে ‘গণঅনশন ও অবস্থান’ কর্মসূচিতে সংখ্যালঘুদের ৮ দফা দাবি
আজ বিআরবি কেবল ইন্ড্রাষ্টিজ লিমিটেড এর ৪৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী
কুষ্টিয়া জেলা প্রেসক্লাবের অভিনন্দন
মণ্ডপে হামলা : উস্কানিদাতা ইসলামিক বক্তা গ্রেপ্তার
প্রেমিককে স্বামী বানিয়ে প্রবাসীর সম্পদ লিখে নেন সাকুরা
আবারও বাড়ছে ভোজ্যতেলের দাম
তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে সাঈদ খোকনের চ্যালেঞ্জ ইসলাম ত্যাগ করেন, দুই দিনও মন্ত্রী থাকতে পারবেন না
কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে আপত্তিকর অবস্থা থেকে পালাতে গিয়ে ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে যুবকের মৃত্যু
কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব কেপিসির নবনির্বাচিত কমিটির দায়িত্ব গ্রহণ ও শপথ অনুষ্ঠিত
চিলাহাটি গার্লস্ স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষের প্রদায়ন ও নবাগত কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠিত
স্বামী বিদেশে নেওয়ার আগেই রাতের আধারে প্রেমিকের সঙ্গে পালালেন স্ত্রী
কুষ্টিয়ায় চালু হচ্ছে ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্র
২০ অক্টোবর পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী