শিরোনাম:
●   কাফন মিছিলের পর শাবিতে এবার গণঅনশনের ডাক ●   ●   কুষ্টিয়ায় পরিবেশ বান্ধব জিকজাক ইট ভাটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ওরা কারা ? ●   কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে ●   ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি ●   অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক ●   কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি ●   দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড ●   ‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’ ●   আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯

Bijoynews24.com
বৃহস্পতিবার, ২৩ জুন ২০১৬
প্রথম পাতা » জাতীয় সংবাদ | শিরোনাম » সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ রোধে যা যা করার করবো
প্রথম পাতা » জাতীয় সংবাদ | শিরোনাম » সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ রোধে যা যা করার করবো
বৃহস্পতিবার, ২৩ জুন ২০১৬
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ রোধে যা যা করার করবো

---বিজয় নিউজ: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি ও কঠোর অবস্থানের কথা পুনর্ব্যক্ত করে বলেছেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে আমাদের দৃঢ় ভূমিকা সব সময়ই ছিল। এর বিরুদ্ধে বাংলাদেশ ইতিমধ্যে ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি নিয়েছে। সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদকে কখনোই প্রশ্রয় দেয়া হবে না বলেও সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ রোধে যা যা করার করবো। এ ধরনের ঘটনা যেন আর না ঘটে সে বিষয়েও আমরা দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে গতকাল দশম জাতীয় সংসদের একাদশ অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর জন্য নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে তিনি এসব কথা বলেন। সরকারি দলের হুইপ শহীদুজ্জামান সরকারের সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে তিনি আরও বলেন, বিশ্ব মুসলিম উম্মাহ্‌কে ঐক্যবদ্ধ এবং সন্ত্রাসবাদ-জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান তিনি সবসময়ই করে থাকেন। মুসলিম উম্মাহ্‌র বিভিন্ন সম্মেলনে যতবার গেছেন, এ আহ্বানটা সবসময়ই তিনি তুলে ধরেছেন। তার সাম্প্রতিক সৌদি আরব সফরকালেও সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের এমন কঠোর অবস্থানের কথা তিনি সৌদি বাদশাহ্‌র কাছে তুলে ধরেছেন। ওআইসি মহাসচিবের কাছেও বাংলাদেশের দৃঢ় অবস্থানের কথা তুলে ধরেছেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সৌদি আরব একটি উদ্যোগও নিয়েছে। ওই দেশটির নেতৃত্বে গড়ে ওঠা সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদবিরোধী ইসলামিক জোটে বাংলাদেশও যোগ দিয়েছে। ৪০টি মুসলিম দেশের এই জোটে যোগদানের ফলে জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে মুসলিম দেশগুলোর ঐক্যবদ্ধ হওয়ার সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। ইসলাম শান্তির ধর্ম। এই শান্তির ধর্মের সম্মান যাতে আরও উচ্চশিখরে নিয়ে যেতে পারি, সেই প্রচেষ্টাও আমাদের অব্যাহত থাকবে। আবুল কালাম আজাদের সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে সৌদি আরবে অবস্থানরত সাবেক ধর্মমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন কায়কোবাদকে দেশে ফিরিয়ে এনে শাস্তির পদক্ষেপ নেয়ার আশ্বাস দেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, এ রকম অনেক অপরাধী পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে রয়েছে। বাংলাদেশ সব সময় সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলেছে। যেন এসব অপরাধীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানাও রয়েছে- তাদের দেশে ফিরিয়ে এনে সাজা দেয়া যায়। সৌদি আরবে অবস্থান নিয়ে ষড়যন্ত্র-চক্রান্তে লিপ্ত, সেই ব্যক্তি যার (মোফাজ্জল হোসেন কায়কোবাদ) কথা সংসদ সদস্য বললেন- নিশ্চয়ই এ ব্যপারে খোঁজ নেয়া হবে তিনি কোথায় আছেন। স্বরাষ্ট্র ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ও এ ব্যাপারে কাজ করবেন, যেন তাকে খুঁজে বের করে দেশে ফেরত এনে সাজা দেয়া যায়।
আওয়ামী লীগের সামশুল হক চৌধুরীর লিখিত প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিশ্বশান্তি রক্ষায় বাংলাদেশকে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও নৈরাজ্যমুক্ত একটি শান্তির আবাসভূমিতে পরিণত করার জন্য তার সরকার গভীর নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে দক্ষিণ এশিয়াসহ আঞ্চলিক ও আর্ন্তজাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশের অর্জনকে সমুন্নত রাখতেও তাঁর সরকার কাজ করছে। এ লক্ষ্যে পেট্রোলসহ অন্যান্য রাসায়নিক দ্রব্যের অপব্যবহার ও সব ধরনের অস্ত্র বিস্তাররোধে জাতীয়, আঞ্চলিক ও আর্ন্তজাতিক পর্যায়ে গঠনমূলক ভূমিকা পালন করে যাওয়া হবে। এর পাশাপাশি আগামী দিনগুলোতে শান্তি ও নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠায় জাতিসংঘ এবং অন্যান্য আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর পাশাপাশি বিভিন্ন দেশের যে কোনো শুভ উদ্যোগের সঙ্গে সম্পৃক্ত থেকে বাংলাদেশ একযোগে কাজ করে যাবে। বিশ্ববাসীর কাছে বাংলাদেশের এই শান্তিপ্রিয় ভাবমূর্তি বজায় রাখতে দেশের সব নাগরিকের প্রতি সংযত ও দায়িত্বশীল আচরণ করার আহ্বানও জানান প্রধানমন্ত্রী। হুইপ শহীদুজ্জামানের লিখিত প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাঁর সামপ্রতিক সৌদি আরব সফরের মাধ্যমে মুসলিম বিশ্বে আওয়ামী লীগ সরকারের দূরদর্শী নেতৃত্ব পুনঃস্বীকৃত হয়েছে। এর মাধ্যমে বাংলাদেশ ও সৌদি আরবের মধ্যকার ভ্রাতৃপ্রতিম সম্পর্ক দৃঢ় ভিত্তির ওপর প্রতিষ্ঠিত করার পাশাপাশি বাংলাদেশের সঙ্গে মুসলিম বিশ্বের সম্পর্কের ক্ষেত্রে গতিশীলতা আনবে। এ সফর বাংলাদেশ ও সৌদি আরবের সম্পর্ককে এক নতুন মাত্রায় নিয়ে গেছে। রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, বাণিজ্যিক ও নিরাপত্তা বিষয়ে সম্পর্কোন্নয়নে এক নতুন ও পূর্ণাঙ্গ ভিত্তি  তৈরি হয়েছে। সৌদি  আরবের সঙ্গে বাংলাদেশের এ নতুন সম্পর্কের ফলে মুসলিম বিশ্বে বাংলাদেশের গুরুত্ব বৃদ্ধি পাবে এবং এদেশের ভাবমূর্তি আরও উজ্জ্বলতর হবে বলেই আশা করা যায়। তিনি জানান, এই সফরকালে সৌদি সরকার ও ব্যবসায়ী নেতারা প্রথমবারের স্বতঃস্ফূর্তভাবে বাংলাদেশে বিনিয়োগ ও ব্যবসা বৃদ্ধির আগ্রহ দেখিয়েছে। বাংলাদেশের অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়ন এবং নারীর ক্ষমতায়নে সফলতা মুসলিম বিশ্বেও একটি রোল মডেল হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে বলে সৌদি নেতৃত্বও মত প্রকাশ করেছেন। জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য কাজী ফিরোজ রশিদের সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে শেখ হাসিনা তৃণমূলে নারীর ক্ষমতায়নে তার সরকারের পদক্ষেপ তুলে ধরেন। এক্ষেত্রে ১৯৯৬ সালের তাঁর প্রথম সরকারের নেয়া স্থানীয় সরকার নির্বাচনে নারীদের জন্য ৩০ শতাংশ সংরক্ষিত আসনে নির্বাচন ব্যবস্থা চালুর কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, এক সময় এই পদ্ধতিতে নির্বাচনে অনেক বাধা দেয়া হয়েছে। এমনকি পরিবারের সদস্যরাও নারীদের সংরক্ষিত আসনে নির্বাচনের অংশগ্রহণের ক্ষেত্রে বাধা দিয়েছেন। পরে তারাই নারীর পক্ষে নির্বাচনে নেমেছেন। এই পদক্ষেপ তৃণমূলে নারীর ক্ষমতায়নের ক্ষেত্রে একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ ও মাইলফলক।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি ভেবেছিলাম উনি (কাজী ফিরোজ রশীদ) প্রশ্ন করবেন, নারীদের জন্য এতো কিছু করেছেন, পুরুষদের জন্য কী করেছেন? সেদিন বেশি দূরে নয়, হয়তো ভবিষ্যতে দেখা যাবে পুরুষ অধিকার সংরক্ষণ কমিটি করা হচ্ছে। সেই কমিটিতেও আমার সমর্থন থাকবে। এ সময় উপস্থিত সংসদ সদস্যরা টেবিল চাপড়িয়ে প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানান।



এ পাতার আরও খবর

কুষ্টিয়ায় পরিবেশ বান্ধব জিকজাক ইট ভাটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ওরা কারা ? কুষ্টিয়ায় পরিবেশ বান্ধব জিকজাক ইট ভাটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ওরা কারা ?
কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে
ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি
অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক
কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি
দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড
‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’ ‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’
আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি
সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ শাহবাগে ‘গণঅনশন ও অবস্থান’ কর্মসূচিতে সংখ্যালঘুদের ৮ দফা দাবি সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ শাহবাগে ‘গণঅনশন ও অবস্থান’ কর্মসূচিতে সংখ্যালঘুদের ৮ দফা দাবি

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
কুষ্টিয়ায় পরিবেশ বান্ধব জিকজাক ইট ভাটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ওরা কারা ?
কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে
ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি
অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক
কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি
দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড
‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’
আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি
সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ শাহবাগে ‘গণঅনশন ও অবস্থান’ কর্মসূচিতে সংখ্যালঘুদের ৮ দফা দাবি
আজ বিআরবি কেবল ইন্ড্রাষ্টিজ লিমিটেড এর ৪৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী
কুষ্টিয়া জেলা প্রেসক্লাবের অভিনন্দন
মণ্ডপে হামলা : উস্কানিদাতা ইসলামিক বক্তা গ্রেপ্তার
প্রেমিককে স্বামী বানিয়ে প্রবাসীর সম্পদ লিখে নেন সাকুরা
আবারও বাড়ছে ভোজ্যতেলের দাম
তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে সাঈদ খোকনের চ্যালেঞ্জ ইসলাম ত্যাগ করেন, দুই দিনও মন্ত্রী থাকতে পারবেন না
কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে আপত্তিকর অবস্থা থেকে পালাতে গিয়ে ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে যুবকের মৃত্যু
কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব কেপিসির নবনির্বাচিত কমিটির দায়িত্ব গ্রহণ ও শপথ অনুষ্ঠিত
চিলাহাটি গার্লস্ স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষের প্রদায়ন ও নবাগত কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠিত
স্বামী বিদেশে নেওয়ার আগেই রাতের আধারে প্রেমিকের সঙ্গে পালালেন স্ত্রী