শিরোনাম:
●   কাফন মিছিলের পর শাবিতে এবার গণঅনশনের ডাক ●   ●   কুষ্টিয়ায় পরিবেশ বান্ধব জিকজাক ইট ভাটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ওরা কারা ? ●   কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে ●   ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি ●   অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক ●   কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি ●   দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড ●   ‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’ ●   আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি
ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

Bijoynews24.com
শুক্রবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২০
প্রথম পাতা » অনিয়ম-দুর্নীতি | অপরাধ চিত্র | জাতীয় সংবাদ | বক্স্ নিউজ | শিরোনাম » মামলাবাজ চক্রের ফাঁদ ২০০ কোটি টাকার রাজস্ব গায়েব
প্রথম পাতা » অনিয়ম-দুর্নীতি | অপরাধ চিত্র | জাতীয় সংবাদ | বক্স্ নিউজ | শিরোনাম » মামলাবাজ চক্রের ফাঁদ ২০০ কোটি টাকার রাজস্ব গায়েব
শুক্রবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২০
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

মামলাবাজ চক্রের ফাঁদ ২০০ কোটি টাকার রাজস্ব গায়েব

 




 

 

---Bijoynews : নির্মাণকাজের গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ কুষ্টিয়ার পদ্মা নদীর মোটা বালুর সুখ্যাতি দীর্ঘদিনের। জেলার ২১টি বালুমহাল থেকে এই বালু উত্তোলনের পর প্রতিদিন কমপক্ষে ৫ লাখ ঘনফুট বালু যাচ্ছে খুলনা ও বরিশাল বিভাগের জেলাগুলোতে। যার আর্থিক মূল্য ন্যূনতম (প্রতি ঘনফুট ৩০-৪০ টাকা হিসেবে) দেড় থেকে দুই কোটি টাকা। রাষ্ট্রীয় এই সম্পদ থেকে বার্ষিক প্রায় হাজার কোটি টাকার অর্থনৈতিক প্রবাহ সৃষ্টি হলেও এ খাত থেকে কোনো রাজস্ব পাচ্ছে না সরকার। একটি মামলাবাজ চক্র মিথ্যা মামলার ফাঁদে আইনি জটিলতা জিইয়ে রেখে টোলের নামে বালুমহালগুলো থেকে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিলেও জেলার রাজস্ব বিভাগের প্রাপ্তি শূন্য। অভিযোগ উঠেছে, দীর্ঘ ১০ বছর ধরে এই আইনি জটিলতা জিইয়ে থাকার পেছনে স্থানীয় প্রশাসনের অবহেলা, ব্যর্থতা অথবা যোগসাজশ রয়েছে। আর এই সময়কালে ২১টি বালুমহাল থেকে সরকার কমপক্ষে ২০০ কোটি টাকার রাজস্ব হারিয়েছে বলে দেশ রূপান্তরকে জানিয়েছেন জেলার রাজস্ব বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত শীর্ষ কর্মকর্তা।

দেশ রূপান্তরের অনুসন্ধানে জানা যায়, জেলার ৬ উপজেলার ২১টি বালুমহালের মধ্যে ১১টি মৌজার বালুমহালের ওপর ২০১০ সালে হাইকোর্টে রিট পিটিশনের মাধ্যমে বালু উত্তোলনে জটিলতার সূত্রপাত করেন ওই বালুমহালগুলোর সাবেক ইজারাদার আনোয়ারুল হক মাসুম। এরপর ক্রমানুসারে ২০১১, ২০১২, ২০১৩, ২০১৪ ও ২০১৫ সালে আলাদা আলাদা রিট আবেদনের মাধ্যমে সব কটি বালুমহাল থেকে বালু উত্তোলনে নিজের অধিকার দাবি করেন তিনি। আর এই মামলা জটিলতার কারণে জেলার সব বালুমহাল সরকারিভাবে ইজারা দেওয়ার কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়। তবে বালু উত্তোলন ঠিকই চলতে থাকলেও কোনো রাজস্ব পাচ্ছে না সরকার। অন্যদিকে জেলার ২১টি বালুমহালকে মামলা জটিলতায় আটকে রেখে সরকারের রাজস্ব ক্ষতির কারিগর আনোয়ারুল হক মাসুমের প্রতিষ্ঠানের লেটারহেড প্যাডে ব্যবহৃত কুষ্টিয়া পৌর এলাকার ঠিকানা ভুয়া বলে দেশ রূপান্তরের অনুসন্ধানে দেখা গেছে। ওই ঠিকানায় আনোয়ারুল হক মাসুম নামে কোনো ব্যক্তির অস্তিত্ব নেই বলে জানিয়েছেন কুষ্টিয়া পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর বদরুল ইসলাম। তিনি বলেন, ‘এই নাম ঠিকানা ভুয়া এবং অস্তিত্বহীন।’

উচ্চ আদালতে মাসুমের করা মামলাগুলো পরিচালনায় ভূমি মন্ত্রণালয় নিযুক্ত আইনজীবী মোসাম্মৎ মোরশেদা পারভিন দেশ রূপান্তরকে বলেন, ‘সরকারের পক্ষে এসব মামলা মোকাবিলা করে ৮টি মামলা আমরা ভ্যাকেট করলেও পুনরায় ২০১৯ সালে মামলার বাদী নতুন করে রিট পিটিশন দাখিল করেন, যা এখনো বিচারাধীন। অবশিষ্ট মামলার মধ্যে অধিকাংশ মামলার রিট অনেক আগেই ইনভ্যালিড বা অকার্যকর হয়ে গেছে। এসব বালুমহাল সরকার চাইলে এখন নিজেদের অনুকূলে নেওয়ার ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারে।’

মিরপুর উপজেলার রানাখড়িয়া বালুঘাটের ব্যবসায়ী ওহিদুল কবিরাজ দেশ রূপান্তরকে বলেন, ‘পশ্চিম বাহিরচর ও রানাখড়িয়া-তালবাড়িয়া বালুঘাটে পদ্মা নদী থেকে প্রতিদিন নির্মাণকাজের সর্বোচ্চ মানসম্মত প্রায় ৫ লাখ ঘনফুট বালু উত্তোলন ও সরবরাহ হচ্ছে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২০ জেলায়। যার আর্থিক মূল্য প্রায় দেড় কোটি টাকা।’

ভেড়ামারা বারোমাইল বালু ঘাটের ব্যবসায়ী মাহবুল হক বলেন, ‘ঘাট মালিকদের মাধ্যমে আদায় করা টোল দিয়েই ব্যবসা করি। তবে আদায় করা এই টাকা আদৌ সরকারের ঘরে যাচ্ছে কি না, সেটা বলতে পারব না।’

নদী থেকে বালু উত্তোলন করা বড় নৌকার (ভলগেট) মালিক সাহাবুল ইসলামের অভিযোগ, সরকারিভাবে বালুমহাল ইজারার কার্যক্রম বন্ধ থাকার সুযোগ নিয়ে ক্ষমতাসীন দলের প্রভাবশালীদের ছত্রচ্ছায়ায় ঘাট মালিকরা প্রতিদিন কেবলমাত্র বাহিরচর বারোমাইল ও ঘোড়ামারা তালবাড়িয়া বালুঘাটের ৫০০ নৌকা থেকে অবৈধভাবে জোর করে গড়ে ৫০ লাখ টাকা বিনা রসিদে আদায় করছেন।

সাহাবুল ইসলাম বলেন, ‘চরম নিষ্পেষণের শিকার হচ্ছি আমরা। এসব বিষয়ে মুখ খোলা যাবে না। ডিসি অফিস, ইউএনও অফিস ও পুলিশ সবাই জানে এখানে কী হচ্ছে। প্রশাসন পদক্ষেপ নিয়ে বৈধভাবে ইজারা দিলে সরকার রাজস্ব পেত, আবার রেট বেঁধে দিলে আমরাও নির্ধারিত টোল দিয়ে ব্যবসা করতে পারতাম।’

রসিদ ছাড়াই টাকা আদায়ের কারণ জানতে চাইলে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্র্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) অনুমোদিত ইজারাদার দাবিকারী ভেড়ামারার পশ্চিম বাহিরচর ও বারোমাইল বালুঘাটের টোল আদায়কারী মেসার্স ব্লেজ ইন ট্রেডের স্বত্বাধিকারী আতিকুজ্জামান বিটু বলেন, ‘বিআইডব্লিউটিএর অনুমোদিত নৌযান চলাচলের টোল আদায়কারী হিসেবে সরকারি ভ্যাট-ট্যাক্স দিয়েই বালুমহালের টোল তুলছি।’

 বালুমহালগুলোতে মামলার মাধ্যমে আইনি জটিলতা তৈরির অভিযোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমরা টাকাপয়সা সব দেওয়ার পরও নৌ-মন্ত্রণালয় দাবি করে এটা তাদের, আবার ভূমি মন্ত্রণালয় দাবি করে এটা তাদের। তাই আমরা নিরুপায় হয়ে হাইকোর্টে মামলা ঠুকে দিলাম।’

 বালুমহালের ইজারা বন্ধ থাকলেও সেখান থেকে টোল তুলছেন এমন অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে আতিকুজ্জামান বিটু বলেন, ‘এখানে যা কিছু হচ্ছে তার সবই সবাইকে ম্যানেজ করেই হচ্ছে। সংগৃহীত টাকার ভাগ জেলা, উপজেলা ও পুলিশ প্রশাসনকে দেওয়া হয়।’

কুষ্টিয়া জজ আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (জিপি) এ এস এম আকতারুজ্জামান মাসুম দেশ রূপান্তরকে বলেন, ‘দীর্ঘ ১০ বছর ধরে অস্তিত্বহীন মামলাবাজ আনোয়ারুল হক মাসুম রিট পিটিশন করে বালুমহালের ইজারা কার্যক্রম বন্ধ রেখে হাতিয়ে নিচ্ছেন কোটি কোটি টাকা। অন্যদিকে এর মাধ্যমে তিনি সরকারের ২০০ কোটি টাকার রাজস্ব গায়েব করে দিয়েছেন।’

কুষ্টিয়া জেলা জাসদের সভাপতি গোলাম মহসিন এবং সনাক কুষ্টিয়ার সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম টুকু বলেন, ‘অস্তিত্বহীন এক মামলাবাজের কারণে ১০ বছরে সরকার ২০০ কোটি টাকার রাজস্ব হারাল অথচ সংশ্লিষ্ট প্রশাসন কীভাবে এটা মেনে নিচ্ছে তা কোনোভাবেই বোধগম্য নয়। এতে সন্দেহের যথেষ্ট কারণ আছে যে এই আইনি জটিলতা জিইয়ে রাখার সঙ্গে প্রশাসনেরর কারও কারও যোগসাজশ থাকতে পারে। অন্যথায় এটা কোনোভাবেই সম্ভব নয়।’

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) ওবাইদুর রহমান দেশ রূপান্তরকে বলেন, ‘জেলার ২১টি বালুমহালে আইনগত জটিলতা বিদ্যমান থাকায় দীর্ঘ ১০ বছরে সরকারের দেড় থেকে ২০০ কোটি টাকার রাজস্ব ক্ষতি হয়েছে। ভূমি মন্ত্রণালয় থেকে আইনজীবী নিয়োগ করা হয়েছে হাইকোর্ট থেকে এই মামলা জটিলতা নিরসনের জন্য। কিন্তু উচ্চ আদালত থেকে আইনি লড়াই করে যখনই কোনো বালুমহাল ভ্যাকেট করা হয়, তখনই আবার নতুনভাবে রিট পিটিশন করে একটি মহল দিনের পর দিন এই জটিলতা সৃষ্টি করে চলেছে।’

অন্যদিকে কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন বলেন, ‘বালুমহালের বিষয়ে মন্তব্য করতে চাইলে তো অন্যভাবে বলতে হয়। তবে এটুকু বলছি, দীর্ঘদিন ধরে মামলা জটিলতায় এসব বালুমহালে বিদ্যমান পরিস্থিতি নিরসন করে খুব শিগগির আমরা সরকারি রাজস্ব আয় নিশ্চিত করতে পারব। সেভাবেই আমরা এগোচ্ছি।’সুত্র : দেশ রূপান্তর



এ পাতার আরও খবর

কুষ্টিয়ায় পরিবেশ বান্ধব জিকজাক ইট ভাটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ওরা কারা ? কুষ্টিয়ায় পরিবেশ বান্ধব জিকজাক ইট ভাটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ওরা কারা ?
কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে
ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি
অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক
কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি
দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড
‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’ ‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’
আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি
সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ শাহবাগে ‘গণঅনশন ও অবস্থান’ কর্মসূচিতে সংখ্যালঘুদের ৮ দফা দাবি সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ শাহবাগে ‘গণঅনশন ও অবস্থান’ কর্মসূচিতে সংখ্যালঘুদের ৮ দফা দাবি

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
কুষ্টিয়ায় পরিবেশ বান্ধব জিকজাক ইট ভাটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ওরা কারা ?
কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে
ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি
অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক
কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি
দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড
‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’
আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি
সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ শাহবাগে ‘গণঅনশন ও অবস্থান’ কর্মসূচিতে সংখ্যালঘুদের ৮ দফা দাবি
আজ বিআরবি কেবল ইন্ড্রাষ্টিজ লিমিটেড এর ৪৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী
কুষ্টিয়া জেলা প্রেসক্লাবের অভিনন্দন
মণ্ডপে হামলা : উস্কানিদাতা ইসলামিক বক্তা গ্রেপ্তার
প্রেমিককে স্বামী বানিয়ে প্রবাসীর সম্পদ লিখে নেন সাকুরা
আবারও বাড়ছে ভোজ্যতেলের দাম
তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে সাঈদ খোকনের চ্যালেঞ্জ ইসলাম ত্যাগ করেন, দুই দিনও মন্ত্রী থাকতে পারবেন না
কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে আপত্তিকর অবস্থা থেকে পালাতে গিয়ে ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে যুবকের মৃত্যু
কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব কেপিসির নবনির্বাচিত কমিটির দায়িত্ব গ্রহণ ও শপথ অনুষ্ঠিত
চিলাহাটি গার্লস্ স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষের প্রদায়ন ও নবাগত কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠিত
স্বামী বিদেশে নেওয়ার আগেই রাতের আধারে প্রেমিকের সঙ্গে পালালেন স্ত্রী