শিরোনাম:
●   কুষ্টিয়ায় নিখোঁজ সাংবাদিকের মরদেহ উদ্ধার ●   কাফন মিছিলের পর শাবিতে এবার গণঅনশনের ডাক ●   ●   কুষ্টিয়ায় পরিবেশ বান্ধব জিকজাক ইট ভাটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ওরা কারা ? ●   কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে ●   ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি ●   অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক ●   কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি ●   দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড ●   ‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’
ঢাকা, শুক্রবার, ৭ অক্টোবর ২০২২, ২২ আশ্বিন ১৪২৯

Bijoynews24.com
বুধবার, ৮ জুন ২০১৬
প্রথম পাতা » নারী ও শিশু নির্যাতন | বক্স্ নিউজ | রংপুর | শিরোনাম » হারিয়ে যাচ্ছে দেশীয় প্রজাতির মাছ!
প্রথম পাতা » নারী ও শিশু নির্যাতন | বক্স্ নিউজ | রংপুর | শিরোনাম » হারিয়ে যাচ্ছে দেশীয় প্রজাতির মাছ!
বুধবার, ৮ জুন ২০১৬
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

হারিয়ে যাচ্ছে দেশীয় প্রজাতির মাছ!

---বিজয় নিউজ: কমল রায় ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:

“মাছে ভাতে বাঙালি” কথাটি যেন বাসি হতে চলেছে। দিনাজপুরের উপজেলাগুলোর বিভিন্ন গ্রামঞ্চলের পরিচিত দেশীয় প্রজাতির মাছ আজ বিলুপ্তির পথে। এ অঞ্চলের খাল বিল, নদ নদীসহ মুক্ত জলাশয় গুলো মাছ শূন্য হয়ে পড়েছে।

আবহাওয়া পরিবর্তনের কারণে খাল বিলের পানি শুকিয়ে যাওয়ার ফলে দেশীয় প্রজাতির মাছ কমে যাওয়ার একটি অন্যতম কারণ বলে সচেতন মহল মনে করছেন। ইতিমধ্যে এ অঞ্চল থেকে হারিয়ে যেতে বসেছে পাবদা, সরপুঁটি, তিতপুঁটি, টেংরা, চান্দা, কৈ, শিং, মাগুর, বেলে, শৈল, গজার, বোয়াল, বাইম, চিতলসহ দেশীয় বিভিন্ন প্রজাতির মাছ। গ্রামঞ্চলের ছোট বড় হাট বাজারগুলোতেও এ প্রজাতির মাছ আগের মতো এখন আর তেমন দেখা যায় না।

বাজারগুলোতে এ প্রাজাতির মাছের আমদানি একেবারেই কমে গেছে। জেলার ফুলবাড়ীসহ বিভিন্ন বড় বাজারে যাও কিছু মাছ আমদানি হয় তাও আবার চলে যায় বিত্তবানদের হাতে। সাধারণ মানুষের কপালে এসব মাছ আর জোটে না। দেশীয় প্রজাতির প্রায় সব মাছের বংশ বৃদ্ধির হার আশঙ্কাজনকভাবে হ্রাস পেয়েছে। এসব স্থান দখল করে নিয়েছে বিদেশী বিভিন্ন প্রজাতির মাছ। জেলার হাট বাজারগুলোতেই দেশীয় প্রজাতির মাছে ব্যাপক সঙ্কট দেখা দিয়েছে।

এমন অবস্থা চলতে থাকলে আগামী ৫ বছরের মধ্যে নদ নদী, খাল বিলসহ মুক্ত জলাশয় গুলো প্রাকৃতিক মাছ শূন্য হয়ে পরবে। বিগত এক দশক আগেও দেশী প্রজাতির প্রাকৃতিক মাছের কোনো ঘাটতি ছিল না। গ্রামের মানুষ পাতাজাল, ধর্মজাল, বেড়াজাল ইত্যাদি দিয়ে মাছ ধরত। মাছ খেতে খেতে বিমুখ হয়ে যেত গ্রামঞ্চলের মানুষ।

এ বিষয়ে ফুলবাড়ী উপজেলা মৎস্য অফিসের একটি সূত্র জানান, জলাশয় ভরাট, জনসংখ্যা বেড়ে যাওযায় মৎস্য আহরণের চাপ বেড়ে গেছে। অপরদিকে, সেচ দিয়ে মাছ মেরে ফেলা হয়। জমিতে কীটনাশক ব্যবহারের প্রভাবে দেশীয় প্রজাতির মাছ বিলুপ্তি হয়ে যাচ্ছে। এ অবস্থা চলতে থাকলে ভাবিষ্যতে হয়তো দেশীয় প্রজাতির মাছ চিরতরে হারিয়ে যাবে।



এ পাতার আরও খবর

কুষ্টিয়ায় যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে পেটালেন পুলিশ সদস্য কুষ্টিয়ায় যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে পেটালেন পুলিশ সদস্য
বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আনভীরের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও হত্যা মামলা বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আনভীরের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও হত্যা মামলা
পঞ্চগড়ে কিশোরীকে অপহরণের দায়ে তিন অপহরনকারী গ্রেফতার পঞ্চগড়ে কিশোরীকে অপহরণের দায়ে তিন অপহরনকারী গ্রেফতার
মৌলভীবাজারে স্ত্রীর চুলের খোপা কেটে স্ত্রী নির্যাতন ! নির্যাতনকারী স্বামী আটক মৌলভীবাজারে স্ত্রীর চুলের খোপা কেটে স্ত্রী নির্যাতন ! নির্যাতনকারী স্বামী আটক
পরকীয়া প্রেমের সন্দেহ, স্ত্রীকে খুন করে থানায় স্বামী! পরকীয়া প্রেমের সন্দেহ, স্ত্রীকে খুন করে থানায় স্বামী!
দেহ ব্যবসা করতে রাজি না হওয়ায় স্ত্রীর গোপনাঙ্গে এসিড নিক্ষেপ করলো স্বামী দেহ ব্যবসা করতে রাজি না হওয়ায় স্ত্রীর গোপনাঙ্গে এসিড নিক্ষেপ করলো স্বামী
নাসির উদ্দিনসহ আটক ৫, পরীমনি বললেন ‘এখন বাঁচতে পারব’ নাসির উদ্দিনসহ আটক ৫, পরীমনি বললেন ‘এখন বাঁচতে পারব’
মেয়েকে বিয়ে করে শান্ত থাকেনি, শ্বাশুড়ি সাথেও কাজ চালিয়ে যেতেন এই ভদ্র লোক! মেয়েকে বিয়ে করে শান্ত থাকেনি, শ্বাশুড়ি সাথেও কাজ চালিয়ে যেতেন এই ভদ্র লোক!
ভালোবাসার ফাঁদ পেতে উন্নয়নকর্মীর ১১লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিল এক প্রতারক!! ভালোবাসার ফাঁদ পেতে উন্নয়নকর্মীর ১১লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিল এক প্রতারক!!
মেয়ে পটানোর প্রধান হাতিয়ার   ছিলো দিহানের দামি গাড়িটা মেয়ে পটানোর প্রধান হাতিয়ার ছিলো দিহানের দামি গাড়িটা

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
কুষ্টিয়ায় পরিবেশ বান্ধব জিকজাক ইট ভাটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ওরা কারা ?
কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে
ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি
অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক
কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি
দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড
‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’
আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি
সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ শাহবাগে ‘গণঅনশন ও অবস্থান’ কর্মসূচিতে সংখ্যালঘুদের ৮ দফা দাবি
আজ বিআরবি কেবল ইন্ড্রাষ্টিজ লিমিটেড এর ৪৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী
কুষ্টিয়া জেলা প্রেসক্লাবের অভিনন্দন
মণ্ডপে হামলা : উস্কানিদাতা ইসলামিক বক্তা গ্রেপ্তার
প্রেমিককে স্বামী বানিয়ে প্রবাসীর সম্পদ লিখে নেন সাকুরা
আবারও বাড়ছে ভোজ্যতেলের দাম
তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে সাঈদ খোকনের চ্যালেঞ্জ ইসলাম ত্যাগ করেন, দুই দিনও মন্ত্রী থাকতে পারবেন না
কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে আপত্তিকর অবস্থা থেকে পালাতে গিয়ে ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে যুবকের মৃত্যু
কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব কেপিসির নবনির্বাচিত কমিটির দায়িত্ব গ্রহণ ও শপথ অনুষ্ঠিত
চিলাহাটি গার্লস্ স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষের প্রদায়ন ও নবাগত কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠিত
স্বামী বিদেশে নেওয়ার আগেই রাতের আধারে প্রেমিকের সঙ্গে পালালেন স্ত্রী