শিরোনাম:
●   কাফন মিছিলের পর শাবিতে এবার গণঅনশনের ডাক ●   ●   কুষ্টিয়ায় পরিবেশ বান্ধব জিকজাক ইট ভাটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ওরা কারা ? ●   কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে ●   ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি ●   অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক ●   কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি ●   দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড ●   ‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’ ●   আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি
ঢাকা, সোমবার, ৪ জুলাই ২০২২, ১৯ আষাঢ় ১৪২৯

Bijoynews24.com
বৃহস্পতিবার, ১২ মে ২০১৬
প্রথম পাতা » রংপুর | শিরোনাম | স্বাস্থ্য সংবাদ » ফুলছড়িতে স্বাস্থ্য কেন্দ্র নিলামে চরাঞ্চলের ৫ হাজার পরিবারের স্বাস্থ্য সেবা বিপন্ন
প্রথম পাতা » রংপুর | শিরোনাম | স্বাস্থ্য সংবাদ » ফুলছড়িতে স্বাস্থ্য কেন্দ্র নিলামে চরাঞ্চলের ৫ হাজার পরিবারের স্বাস্থ্য সেবা বিপন্ন
বৃহস্পতিবার, ১২ মে ২০১৬
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

ফুলছড়িতে স্বাস্থ্য কেন্দ্র নিলামে চরাঞ্চলের ৫ হাজার পরিবারের স্বাস্থ্য সেবা বিপন্ন

---বিজয় নিউজ: ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা প্রতিনিধি ঃ স্বাস্থ্য কেন্দ্র নদী ভাঙনের সম্মুখিন হওয়ায় ফুলছড়ি উপজেলার চরাঞ্চলের ৫ হাজার পরিবারের শিশু ও মাতৃসেবাসহ স্বাস্থ্য সেবা ঝুঁকির মুখে পড়েছে।

২০১০ সালে প্রায় কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত ফজলপুর ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার সেবা কেন্দ্র ভাঙনের কবলে পড়ে। ফলে গত ১৪ এপ্রিল মাত্র ১ লক্ষ ১২ হাজার ২শ’ টাকা নিলামে বিক্রয় করা হয়। এখন স্বাস্থ্য কেন্দ্রটি ভেঙ্গে নিয়ে যাচ্ছে নিলাম গ্রহণকারি ঠিকাদাররা। এতে দরিদ্র জনগোষ্টির স্বাস্থ্য সেবার নির্ভরযোগ্য প্রতিষ্ঠানটি বিলীন হওয়ায় নানা সমস্যায় পড়েছে চরাঞ্চলবাসী।

চরাঞ্চলের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে ২০১০ সালে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা প্রকৌশল অধিদপ্তরের বাস্তবায়নে উত্তর খাটিয়ামারীতে ৯৮ লক্ষ টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করা হয় ফজলপুর ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্র। নির্মাণকালীন সময়ে নদী অনেক দুরে ছিল। একমাত্র ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রটি নির্মিত হওয়ার পর স্থানীয় জনগোষ্ঠির প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবার চাহিদা পুরণ করে আসছিল। পরে ভাঙ্গন কবলিত হয়ে পড়ায় স্বাস্থ্য কেন্দ্রটি নিলামে বিক্রয় করা হয়।

স্বাস্থ্য কেন্দ্রটি ভেঙে নিয়ে যাওয়ায় ফজলুপুরের মানুষ দিশেহারা হয়ে পড়েছে। এখন তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার মতো কোন স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র আর থাকলো না। স্বাস্থ্য সেবা পেতে হলে তাদের নৌপথে ২ ঘন্টা পথ পাড়ি দিয়ে বালাসীঘাট হয়ে তারপর গাইবান্ধা অথবা রংপুরে যেতে হবে।

ফজলুপুর ইউপি চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদিন জালাল জানান, যেভাবে ভাঙন শুরু হয়েছে তাতে মাত্র কয়েকদিনেই শতাধিক ঘরবাড়ি, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাদ্রাসা ও আবাদী জমি নদী গর্ভে চলে গেছে।

ফুলছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদুর রহমান মোল্লা বলেন, ভাঙনের কবলে পড়ায় ফজলুপুর ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার সেবা কেন্দ্র নিলামে বিক্রয় করায় স্বাস্থ্য সেবা অবশ্যই হুমকির মূখে পড়েছে। তারপরেও যেন স্বাস্থ্য সেবা তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা নেয়া হয় সে বিষয়ে সংশি¬ষ্টদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

ফুলছড়িতে ইউপি ভোট যুদ্ধে ৩৪৪ জন

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা প্রতিনিধি ঃ ফুলছড়ির ৬ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৪০ জন, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ৯১ জন ও সাধারন সদস্য পদে ২১৩ জন মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন।

কঞ্চিপাড়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৮ জন, সংরক্ষিত সদস্য পদে ২০ জন, সাধারন সদস্য পদে ৩৯ জন, উড়িয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ১০ জন, সংরক্ষিত সদস্য পদে ১৩ জন, সাধারন সদস্য পদে ৩৫ জন, উদাখালী ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৬ জন, সংরক্ষিত সদস্য পদে ১২ জন, সাধারন সদস্য পদে ৩৫ জন, গজারিয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন, সংরক্ষিত সদস্য পদে ১৪ জন, সাধারন সদস্য পদে ৩১ জন, ফুলছড়ি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন, সংরক্ষিত সদস্য পদে ২০ জন, সাধারন সদস্য পদে ৩৩ জন, এরেন্ডাবাড়ী ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৬ জন, সংরক্ষিত সদস্য পদে ১২ জন, সাধারন সদস্য পদে ৪০ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

১১ ও ১২ মে এ সকল মনোনয়নপত্র যাচাই বাছাই করা হবে।

পলাশবাড়ী উপজেলা জামায়াতের সেক্রেটারি রাজ্জাক আটক

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা প্রতিনিধি ঃ পলাশবাড়ী উপজেলা জামায়াতের সেক্রেটারি ও সাবেক গাইবান্ধা জেলা ছাত্র শিবিরের সভাপতি বেংগোলিয়া গ্রামের আবদুল আজিজের ছেলে আবদুর রাজ্জাক (৫০)কে নিজ বাড়ি থেকে বৃহস্পতিবার সকালে আটক করেছে পুলিশ।

আবদুর রাজ্জাক পলাশবাড়ী উপজেলা জামায়াতের বর্তমান সেক্রেটারি। তিনি জেলার ছাত্র শিবিরের সাবেক সভাপতি।

পলাশবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মজিবুর রহমান জানান, আবদুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে তুলশীঘাটে যাত্রীবাহী বাসে পেট্রোলবোমা হামলা মামলাসহ ৬-৭টি নাশকতার মামলা রয়েছে। এরপর থেকে তিনি পলাতক ছিলেন। গোপন সংবাদর ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

সাদুল্যাপুরে কৃষকদের নিকট থেকে ধান সংগ্রহ অভিযান উদ্বোধন

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা প্রতিনিধি ঃ সাদুল্যাপুরে চলতি মৌসুমে কৃষকদের নিকট থেকে সরাসরি বোরো ধান সংগ্রহ অভিযান উদ্বোধন করেন।

সাদুল্যাপুর উপজেলা খাদ্য গুদামে বৃহস্পতিবার দুপুরে আনুষ্ঠানিকভাবে বোরো ধান ক্রয়ের উদ্বোধন করেন সাদুল্যাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মো. আবু রায়হান দোলন।

ওই সময় উপস্থিত ছিলেন সাদুল্যাপুর উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মোছা. আকতার বানু লাকী, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আবু সাইদ মো. ফজলে এলাহী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহারিয়া খাঁন বিপ্লব, উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মো. মোকাখারুল ইসলাম, খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইউনুস আলী মণ্ডল প্রমুখ।

সাদুল্যাপুর খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইউনুস আলী মণ্ডল জানান, সাদুল্যাপুর ও নলডাঙ্গা খাদ্য গুদামে সরকারিভাবে চলতি মৌসুমে ২৩ টাকা কেজি দরে প্রকৃত কৃষকের কাছে ২১৯০ মেট্রিক টন বোরো ধান ক্রয় করা হবে। এ ছাড়া চলতি মৌসুমে দুটি খাদ্য গুদামে উপজেলার কৃষকদের কাছে ১১৪ মেট্রিক টন গম ক্রয় করা হবে।

পলাশবাড়ী হাসপাতালে ডায়রিয়ার স্যালাইন সংকটে

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা প্রতিনিধি ঃ অবহাওয়া বিরুপের প্রভাবে সব শ্রেণীর মানুষের মধ্যে বিভিন্ন রোগের অভিরভাব ঘটেছে। বিশেষ করে অতি গরমে ডাইরিয়ার প্রভাব ব্যাপক ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে কিন্ত হাসপাতালে খাবার স্যালাইনসহ বিভিন্ন প্রকার ওষুধের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে।

পলাশবাড়ী হাসপাতালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ৫০ধীক ডায়রিয়ার রোগে ভর্তি হয়েছেন, বেডে জায়গা না পেয়ে অনেকে মেঝেতে জায়গা করে নিয়েছেন। জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত ডাঃ লিখে দিলে কর্তব্যরত নার্স বলে স্যালাইন অনেকদিন হলো নাই, আর এম ও ডাঃ ওজেদ আলী জানায় তার কর্মস্থলে ডায়রিয়ার স্যালাইন সংকট, গাইবান্ধা অফিসে বার বার চাহিদা পাঠালে এখনো কোন প্রতিকার হয়নি, আর স্যালাইন না থাকলে আমরা কোথা থেকে দিবো। রোগীদের বাহিরে থেকে স্যালাইন কিনতে হচ্ছে।।

রংপুরে জামায়াতের ১২ নেতাকর্মীসহ আটক ৬০

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা প্রতিনিধি ঃ নাশকতার গোপন বৈঠককালে রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলার এক ইউনিয়ন জামায়াতের সেক্রেটারিসহ ১২ নেতাকর্মীকেসহ জেলায় বিভিন্ন মামলায় ৬০ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার ঘড়িরামপুর ঝাকুয়াপাড়া নদীর পার থেকে নাশকতার গোপন বৈঠক করার সময় তাদের গ্রেফতার করা হয়।

তারাগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মোজাম্মল হোসেন জানান, ওই নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক দ্রব্য মামলা রয়েছে।

গ্রেফতারকৃত জামায়াত কর্মীরা হলেন- তারাগঞ্জ উপজেলার কুশরা ডাসাপাড়া গ্রামের মৃত মুন্সী খবির উদ্দিনের ছেলে জামায়াতের ইউপি সেক্রেটারি মানিক মিয়া (৪২), কিশামত মেরানগর গ্রামের মৃত নাসির উদ্দিনের ছেলে ওয়ার্ড সভাপতি ওবাইদুল্লাহ (৫৫), আলমপুর পাঠানপাড়া গ্রামের মো. রহমত আলীর ছেলে শিবিরের ওয়ার্ড সভাপতি আকাছ আলী (৩৪), আলমপুর পাঠানপাড়া গ্রামের মৃত.আবদুর রহমানের ছেলে শিবির কর্মী ইব্রাহিম মিয়া (৩০), কিশামত ইমামপাড়া গ্রামের নুরুজ্জামানের ছেলে শিবির কর্মী আমানউল্লাহ কাদের (১৪), মৃত আবদুল সামাদের ছেলে জামায়াত কর্মী নুরুজ্জামান মিয়া (৪২), হরিরামপুর গ্রামের মৃত রহিম উদ্দিনের ছেলে জামায়াত কর্মী মো. এলাহী বক্স (৬৫), কিশরাত ঝানাতিপাড়া গ্রামের ভজেদ উল্লাহ ছেলে জামায়াত কর্মী নসরত উল্লাহ (৬৫), ঘরিরামপুর গ্রামের মৃত আবেদ আলীর ছেলে জামায়াত কর্মী আনোয়ারুল হক (৬৩), ঘরিরামপুর গ্রামের মৃত আমির উদ্দিনের ছেলে মোশারফ হোসেন (৬০), বায়নজল শাহাপাড়া গ্রামের ইউনুছ আলীর ছেলে জামায়াত কর্মী আলমগীর হোসেন (৪০), ঘরিরামপুর গ্রামের নাজিম শেখের ছেলে শিবির কর্মী আরিফ শেখ (২০)।

তারাগঞ্জ  থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.আবদুল লতিব মিয়া জানান, বৃহস্পতিবার তাদের আদালতের মাধ্যমে রংপুর কারাগারে পাঠানো হয়।

কারমাইকেল কলেজে ছাত্র সংসদ নেই ২৬ বছর, চাঁদা আদায় ২ কোটি

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা প্রতিনিধি ঃ শতবর্ষে পদার্পণকারী উত্তরের অক্সফোর্ডখ্যাত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কারমাইকেল কলেজে ছাত্র সংসদ নেই ২৬ বছর। ছাত্র সংসদ না থাকলেও শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ফি আদায় হচ্ছে ঠিকই। এতে করে ছাত্র সংসদের নামে ২৬ বছরে প্রায় ২ কোটি টাকা আদায় করেছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। এ নিয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীদের মধ্যে রয়েছে বিরুপ প্রতিক্রিয়া।

সচেতন শিক্ষার্থীরা মনে করছেন, নতুন নেতৃত্ব তৈরি এবং কলেজ প্রশাসনের জবাবদিহিতা নিশ্চিত করার জন্য ছাত্র সংসদ জরুরি।

১৯৯০ সালে কারমাইকেল কলেজে ছাত্র সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। পরবর্তীকালে ছাত্র সংসদ ভেঙে দেয়া হলে আর নির্বাচন হয়নি। কিন্তু প্রতি বছরই ভর্তি এবং বিভিন্ন বিভাগের ফরম পূরণের সময় শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ২৫ টাকা করে ছাত্র সংসদ ফি ঠিকই নেয়া হচ্ছে। এতে প্রতি বছর কলেজের ৩০ হাজার শিক্ষার্থীর কাছ থেকে আদায় করা হচ্ছে সাত লাখ ৫০ হাজার টাকা। এ হিসাবে ২৬ বছরে আদায় হয়েছে প্রায় দুই কোটি টাকা। ছাত্র সংসদের নামে আদায়কৃত এই টাকা শিক্ষার্থীদের কোনো কাজে না লাগায় বিরুপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে তাদের মনে।

উদ্ভিদ বিদ্যা বিভাগের মাষ্টার্স শেষ পর্বের ছাত্র চন্দন সাহা বাপ্পী ও ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের আশরাফুল ইসলাম বলেন, আমাদের ন্যায্য দাবি আদায়ের একমাত্র মাধ্যম হলো ছাত্র সংসদ। তাই আমরা মনে করি, ছাত্র সংসদ নির্বাচন হওয়া জরুরি।

ব্যবস্থাপনা বিভাগের অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্র খায়রুল ইসলাম খোকন জানান, কারমাইকেল কলেজের অনেক সম্পদ থাকার পরও দরিদ্র ও সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীরা টাকার অভাবে অনেক সময় লেখাপড়া করতে পারে না। ছাত্রদের এসব কথা বলার মাধ্যম হচ্ছে ছাত্র সংসদ। কিন্তু আমাদের নেই ছাত্র সংসদ অথচ ফি আদায়ের ব্যবস্থা আছে।

ইংরেজি বিভাগের অনার্স চতুর্থ বর্ষের আমিনুল ইসলাম আপন নামে এক ছাত্র বলেন, ছাত্র সংসদ নেই, তবুও প্রতি বছরই আমাদের কাছ থেকে ছাত্র সংসদ ফি নেয়া হচ্ছে, এটা ঠিক নয়।

এ ব্যাপারে কারমাইকেল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর বিনতে হুসাইন নাসরিন বানু বলেন, ছাত্র-ছাত্রীদের কাছ থেকে ছাত্র সংসদ ফি হিসেবে যে টাকা নেয়া হচ্ছে, তা ছাত্র সংসদ তহবিলে জমা হচ্ছে। ওই টাকা তোলা হচ্ছে না। এ সময় ছাত্র সংসদ নির্বাচন সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি কোনো মন্তব্য করেননি।

উৎসবে মাতোয়ারা রংপুরের সেরা প্রতিষ্ঠানগুলো

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা প্রতিনিধি ঃ এসএসসি পরীক্ষার প্রকাশিত ফলাফলে দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডে পাশের হারে বোর্ডসেরা জেলা হয়েছে রংপুর। আর রংপুর জেলার মধ্যে ভালো ফলাফল করে প্রথম শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হয়েছে রংপুর ক্যাডেট কলেজ।

ফলাফল প্রকাশের পর রংপুর ক্যাডেট কলেজ জুড়ে দেখা গেছে অন্যরকম আনন্দ উচ্ছাসের উৎসব। একই রঙে মাতোয়রা ছিল রংপুর পুলিশ লাইন্স স্কুল অ্যান্ড কলেজ, রংপুর জিলা স্কুল, রংপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ, রংপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, কালেক্টরেট স্কুল অ্যান্ড কলেজ এবং বিয়াম স্কুল অ্যান্ড কলেজ।

দিনাজপুর বোর্ডে সবচেয়ে ভালো করেছে রংপুর ক্যাডেট কলেজ। এখানকার ৪৮ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে সবাই গোল্ডেন এ প্লাস পেয়েছে।

অন্যদিকে রংপুর পুলিশ লাইন্স স্কুল অ্যান্ড কলেজও ভালো করেছে। ২৩৭ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ২৩৩ জনই জিপিএ ৫ পেয়েছে। এরপরই রয়েছে রংপুর জিলা স্কুল। এই প্রতিষ্ঠান থেকে ২৪৫ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ২৩৭ জন জিপিএ ৫ পেয়েছে।

এছাড়া রংপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের ৩৬৩ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৩০৩ জন জিপিএ ৫ পেয়েছে। এছাড়াও রংপুর সরকারি বালিকা বিদ্যালয়, কালেক্টরেট স্কুল অ্যান্ড কলেজ, বিয়াম স্কুলও ভালো ফলাফল করেছে। ফলাফল ঘোষণার পর কৃতি শিক্ষার্থীরা আনন্দ উল্লাস করেছে। এসময় কৃতি শিক্ষার্থীদের সাথে নিয়ে শিক্ষক ও অভিভাবকরা পরস্পরকে মিষ্টিমুখ করান।

ফুলছড়িতে গ্রামভিত্তিক ভিডিপি’র মৌলিক প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠান

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা প্রতিনিধি ঃ ফুলছড়ির পূর্ব চন্দিয়া গ্রামে ১০ দিন মেয়াদি গ্রামভিত্তিক ভিডিপি মৌলিক প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গাইবান্ধার আনসার ও ভিডিপি’র জেলা কমান্ড্যান্ট মোঃ এফতেখারুল ইসলাম। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা মোঃ গোলাম রববানী। চন্দিয়া গ্রামে ৩২ জন পুরুষ ও ৩২ জন নারীকে নিয়ে প্রশিক্ষণটি ২৪ এপ্রিল শুরু হয়।

উক্ত প্রশিক্ষণে বিভিন্ন প্রশিক্ষণ দিবসে আত্মকর্মসংস্থানমূলক, সামাজিক উন্নয়নমূলকসহ বিভিন্ন বিষয়ভিত্তিক অতিথি বক্তা হিসাবে বক্তব্য প্রদান করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাসুদুর রহমান মোল্লা, ফুলছড়ি উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মোঃ হাদিউরজ্জামান,  উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মোঃ আসাদুজ্জামান, আনসার-ভিডিপি উন্নয়ন ব্যাংকের ম্যানেজার মোঃ হাবিবুল ইসলাম ও সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মোঃ আশরাফ হোসেন।



এ পাতার আরও খবর

গোবিন্দগঞ্জে বাইসাইকেল পেলেন ১৭০ গ্রাম পুলিশ গোবিন্দগঞ্জে বাইসাইকেল পেলেন ১৭০ গ্রাম পুলিশ
ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হতে চায় যুবলীগ নেতা রাসেল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হতে চায় যুবলীগ নেতা রাসেল
চিলাহাটির তরুণ সাংবাদিক ইভা যুব সাংবাদিক ফেলোশীপে সম্মাননা স্মারক পেল চিলাহাটির তরুণ সাংবাদিক ইভা যুব সাংবাদিক ফেলোশীপে সম্মাননা স্মারক পেল
পঞ্চগড়ে ধান খেত থেকে নবজাতক উদ্ধার পঞ্চগড়ে ধান খেত থেকে নবজাতক উদ্ধার
চিলাহাটি রেলস্টেশন ও সীমান্ত এলাকা পরিদর্শনে  ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার চিলাহাটি রেলস্টেশন ও সীমান্ত এলাকা পরিদর্শনে ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার
চিলাহাটিতে নিরীহ লোকজনের নামে একাধিক মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ চিলাহাটিতে নিরীহ লোকজনের নামে একাধিক মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ
চিলাহাটিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলায় শিক্ষার্থীদের মধ্যে আনন্দের জোয়ার চিলাহাটিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলায় শিক্ষার্থীদের মধ্যে আনন্দের জোয়ার
পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে বিদেশী মাদকসহ আটক এক পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে বিদেশী মাদকসহ আটক এক
চিলাহাটি স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের বেহাল দশা  দেখার কেউ নেই !!! চিলাহাটি স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের বেহাল দশা দেখার কেউ নেই !!!
চিলাহাটি রেলস্টেশনের উন্নয়ন কাজ বন্ধ চিলাহাটি রেলস্টেশনের উন্নয়ন কাজ বন্ধ

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
কুষ্টিয়ায় পরিবেশ বান্ধব জিকজাক ইট ভাটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ওরা কারা ?
কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে
ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি
অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক
কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি
দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড
‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’
আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি
সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ শাহবাগে ‘গণঅনশন ও অবস্থান’ কর্মসূচিতে সংখ্যালঘুদের ৮ দফা দাবি
আজ বিআরবি কেবল ইন্ড্রাষ্টিজ লিমিটেড এর ৪৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী
কুষ্টিয়া জেলা প্রেসক্লাবের অভিনন্দন
মণ্ডপে হামলা : উস্কানিদাতা ইসলামিক বক্তা গ্রেপ্তার
প্রেমিককে স্বামী বানিয়ে প্রবাসীর সম্পদ লিখে নেন সাকুরা
আবারও বাড়ছে ভোজ্যতেলের দাম
তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে সাঈদ খোকনের চ্যালেঞ্জ ইসলাম ত্যাগ করেন, দুই দিনও মন্ত্রী থাকতে পারবেন না
কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে আপত্তিকর অবস্থা থেকে পালাতে গিয়ে ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে যুবকের মৃত্যু
কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব কেপিসির নবনির্বাচিত কমিটির দায়িত্ব গ্রহণ ও শপথ অনুষ্ঠিত
চিলাহাটি গার্লস্ স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষের প্রদায়ন ও নবাগত কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠিত
স্বামী বিদেশে নেওয়ার আগেই রাতের আধারে প্রেমিকের সঙ্গে পালালেন স্ত্রী