শিরোনাম:
●   NID জালকারী হাজির কারণে কুষ্টিয়া সদরে নৌকার ভোট বিপর্যয় ! ●   কুষ্টিয়ায় পরিবেশ বান্ধব জিকজাক ইট ভাটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ওরা কারা ? ●   কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে ●   ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি ●   অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক ●   কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি ●   দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড ●   ‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’ ●   আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি ●   সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ শাহবাগে ‘গণঅনশন ও অবস্থান’ কর্মসূচিতে সংখ্যালঘুদের ৮ দফা দাবি
ঢাকা, সোমবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২২, ৩ মাঘ ১৪২৮

Bijoynews24.com
সোমবার, ১৪ মার্চ ২০১৬
প্রথম পাতা » বক্স্ নিউজ | রাজনীতি » জাসদ ভাঙনের নেপথ্যে
প্রথম পাতা » বক্স্ নিউজ | রাজনীতি » জাসদ ভাঙনের নেপথ্যে
সোমবার, ১৪ মার্চ ২০১৬
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

জাসদ ভাঙনের নেপথ্যে

---বিজয় নিউজ: আবারও ভাঙলো জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ)। ভাঙনই যেন নিয়তি দলটির। রাজনৈতিক দল হিসেবে আবির্ভূত হওয়ার প্রায় ৪ দশক সময়ে অন্তত ৫ বারের মতো ভাঙনের মুখে পড়েছে স্বাধীনতা-পরবর্তী সময়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সরকারের ঘোরবিরোধী এ দলটি। সর্বশেষ শনিবার রাতে অনেকটা নাটকীয়ভাবেই ভেঙে গেল বর্তমানে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে গঠিত সরকারের শরিক জাসদ। যদিও দল থেকে বেরিয়ে গিয়ে নতুন জাসদ নাম ধারণ করা দলটির এ ধরনের উদ্যোগকে রাজনৈতিক পূর্বপরিকল্পিত বলে মনে করছে জাসদের (ইনু) এক অংশ। অন্যদিকে বেরিয়ে

গিয়ে আলাদা কমিটি করা নেতারা বলছেন, ক্ষমতার কাছাকাছি থেকে ক্রমেই স্বৈরাচারী হয়ে উঠেছেন দলের একাংশের সভাপতি হাসানুল হক ইনু। এছাড়া আরও নানা বিষয়ে মতপার্থক্য, দীর্ঘদিনের পুঞ্জীভূত ক্ষোভ ও হতাশা থেকেই তারা দল ছেড়ে নতুন জাসদ গঠন করতে বাধ্য হয়েছেন।
প্রায় ছয় বছর পর শুক্রবার রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বেশ ঘটা করে পালন করা হয় জাসদের কাউন্সিল অধিবেশন। দুদিনব্যাপী অনুষ্ঠিত কাউন্সিলে সারাদেশ থেকে দলের কয়েক হাজার নেতাকর্মী এসেছিলেন। অধিবেশন অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ, ওয়ার্কার্স পার্টিসহ কেন্দ্রীয় ১৪ দলের শরিক দলের শীর্ষ নেতারা। তবে কিছুটা গুঞ্জন থাকলেও আপাতদৃষ্টিতে ওইদিন পর্যন্ত সবকিছু্‌ই ছিল ঠিকঠাক। কিন্তু শনিবার রাজধানীর মহানগর নাট্যমঞ্চে অনুষ্ঠিত নির্বাচনী অধিবেশনে গোলমাল হয়ে যায় সবকিছু। সভাপতি পদে দলের বর্তমান সভাপতি ও সরকারের তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুই পুননির্বাচিত হচ্ছেন সেটি অনুমেয়ই ছিল। তবে, নির্বাচনী অধিবেশনে কণ্ঠভোটে ইনুকে সভাপতি পদে নির্বাচিত করার পর সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে দেখা দেয় বিপত্তি। দলের একটি অংশ বর্তমান প্রেসিডিয়াম সদস্য শিরিন আখতার ও আরেকটি অংশ প্রেসিডিয়াম সদস্য নাজমুল হক প্রধানের নাম প্রস্তাব করে। তবে, কণ্ঠভোটে শিরিন আখতার নির্বাচিত হন। অবশ্য এর আগে কাউন্সিলরদের ভোটের মাধ্যমে নেতৃত্ব নির্বাচনের দাবি করেন সদ্য সাবেক কমিটির সাধারণ সম্পাদক শরীফ নুরুল আম্বিয়াসহ তার অনুসারী নেতাকর্মীরা। তবে, সদ্য সাবেক কমিটির সভাপতি হাসানুল হক ইনুর কিছু সমর্থক নেতাকর্মী ও কাউন্সিলর এই প্রস্তাবের বিরোধিতা করেন। একপর্যায়ে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচন প্রক্রিয়া গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় হয়নি- এমন প্রতিবাদ করে কাউন্সিলের নির্বাচনী অধিবেশন থেকে রাগে ক্ষোভে বেরিয়ে আসেন শরীফ নুরুল আম্বিয়া, মঈনুদ্দিন খান বাদল ও নাজমুল হক প্রধানসহ কিছু নেতাকর্মী। রাত ১০টার পরে প্রেস ক্লাবের সামনে এসে তারা জাসদের নতুন কমিটি ঘোষণা করেন। ঘোষিত কমিটিতে শরীফ নুরুল আম্বিয়াকে সভাপতি, মঈনুদ্দিন খান বাদলকে কার্যকরী সভাপতি ও নাজমুল হক প্রধানকে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে ঘোষণা করা হয়। এদিকে জাসদের এই ভাঙনের বিষয়টিকে আপাতদৃষ্টিতে নির্বাচন প্রক্রিয়া নিয়ে মতবিরোধের কথা বলা হলেও দলীয় সূত্র জানিয়েছে, জাসদের একাংশের দীর্ঘদিনের পুঞ্জীভূত ক্ষোভ, হতাশা, বঞ্চনা থেকেই এমন সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন নবগঠিত জাসদের একাংশের নেতাকর্মীরা। বিষয়টি তারা প্রকাশ্যে বলছেনও। দলীয় সভাপতির প্রতি স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগের পাশাপাশি এ অংশটি চাইছিলেন জোট ও সরকারে যেহেতু অবমূল্যায়ন হচ্ছে, তাই ১৪ দল ও সরকার থেকে বেরিয়ে এসে জাসদ তার স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্য বজায় রাখুক। অবশ্য ১৪ দলে অবহেলা ও অনাদর এবং নিজস্ব মতামত প্রদানে জোট ও সরকারে কোনো ধরনের মূল্যায়ন না থাকায় আগে থেকেই ক্ষোভ ছিল এই অংশের নেতাকর্মীদের। এমনকি এভাবে জাসদ ক্রমেই ১৪ দলে বিলীন হয়ে যাচ্ছে কিনা এমন প্রশ্নও উঠেছে কখনও কখনও। কিন্তু হাসানুল হক ইনুর অনুসারী গ্রুপটি চাইছিল ১৪ দল ও সরকারে থেকেই রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করতে। যদিও ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের সঙ্গে ১৪ দলের বিভিন্ন বৈঠক ও গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তের সময় ইনু ও তার অনুসারীদের উপস্থিতি ছিল খুবই কম।
শুক্র ও শনিবার রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও গুলিস্তানের মহানগর নাট্যমঞ্চে অনুষ্ঠিত দুদিনব্যাপী অনুষ্ঠিত কাউন্সিলে জাসদের একাংশের দুটি রাজনৈতিক প্রস্তাবনার মধ্যে ছিল ১৪ দল ও সরকার থেকে বেরিয়ে আসা এবং যারা সরকারের মন্ত্রণালয়ে দায়িত্বে আছেন তারা দলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে থাকতে পারবেন না। কিন্ত কাউন্সিলে ইনু ও শিরিন গ্রুপের অনুসারীরা এ বিষয়টি নাকচ করে দেন। ফলে এ নিয়ে জটিলতা আরও বেড়ে যায়। ইতিমধ্যে দলের বিদ্রোহী অংশের শীর্ষনেতারা দলের সভাপতি হাসানুল হক ইনুর দিকে অভিযোগের তীর ছুড়েছেন। তাদের মতে, ইনুর স্বেচ্ছাচারিতা, আর্থিক অস্বচ্ছতার কারণেই জাসদে আবারও ভাঙন শুরু হয়েছে। রোববার জাতীয় সংসদে নিজ কার্যালয়ে জাসদের (একাংশ) কার্যকরী সভাপতি মঈনুদ্দিন খান বাদল সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন, দলীয় সভাপতি হাসানুল হক ইনুর স্বেচ্ছাচারিতা, ব্যক্তিগত অনুরাগ, আর্থিক অস্বচ্ছতার কারণেই জাসদে ফের বিস্ফোরণ ঘটেছে। তিনি বলেন, মন্ত্রী হওয়ার পর উনার (ইনু) আর্থিক অস্বচ্ছতা ও  আর্থিক আচরণ সম্পর্কে দলে বারবার প্রশ্ন উঠেছে। এ ব্যাপারে অস্পষ্টতা ও অস্বচ্ছতা রয়েছে। দলীয় সভাপতি হিসেবে এতদিন তিনি ব্যক্তিগত রাগ-অনুরাগ ও ব্যক্তিগত সম্পর্কের ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। কিন্তু এটি তিনি পারেন না। বিগত ৬ বছর দলের সাধারণ সম্পাদক  শরীফ নুরুল আম্বিয়াকে হাসানুল হক ইনু কোনো কাজ করতে অথবা কোনো কাজ করতে গেলে বাধা সৃষ্টি করেছেন বলে অভিযোগ করেন মঈনুদ্দিন খান বাদল। এছাড়া হাসানুল হক ইনুর হঠকারী ও তথাকথিত মন্ত্রিত্ব পদের ঔদ্ধত্যের কারণেই সবকিছু ধ্বংস হয়েছে এবং এর জবাব ইনুকেই দিতে হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।
এদিকে ১৪ দলে না থাকার বিষয়ে দলের একাংশের মত ছিল- এ বিষয়টি স্বীকার করেছেন জাসদের (ইনু) সাধারণ সম্পাদক শিরিন আখতার।  তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলে না থাকা এবং যারা সরকারের মন্ত্রীর পদে আছেন তারা দলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হতে পারবেন না- কাউন্সিলে এমন প্রস্তাবনা ছিল। কিন্তু আমরা এখন জঙ্গিবাদ, সামপ্রদায়িকতা ও আগুন সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে ১৪ দলকে সঙ্গে নিয়ে যুদ্ধে নেমেছি। ভবিষ্যতেও তাদেরকে নিয়ে মাঠে থাকতে থাকতে চাই। অবশ্য নেতৃত্ব নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় অনেক স্বচ্ছ ও ভোটের মাধ্যমে তিনি সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন বলে দাবি করেন শিরিন আখতার। জাসদের (একাংশ) নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধান মানবজমিনের সঙ্গে আলাপকালে হাসানুল হক ইনুর প্রতি ইঙ্গিত করে বলেন, দল যতই ক্ষমতার কাছাকাছি গেছে ততই দলের ভেতরে স্বৈরতন্ত্র তৈরি হচ্ছে এবং এ স্বৈরতান্ত্রিক মনোভাবের কারণে অচিরেই কর্মীদের কাছে হাসানুল হক ইনু পরিত্যক্ত হবেন।



এ পাতার আরও খবর

NID জালকারী হাজির কারণে কুষ্টিয়া সদরে নৌকার ভোট বিপর্যয় ! NID জালকারী হাজির কারণে কুষ্টিয়া সদরে নৌকার ভোট বিপর্যয় !
কুষ্টিয়ায় পরিবেশ বান্ধব জিকজাক ইট ভাটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ওরা কারা ? কুষ্টিয়ায় পরিবেশ বান্ধব জিকজাক ইট ভাটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ওরা কারা ?
কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে
ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি
অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক
কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি
দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড
‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’ ‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’
আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি
সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ শাহবাগে ‘গণঅনশন ও অবস্থান’ কর্মসূচিতে সংখ্যালঘুদের ৮ দফা দাবি সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ শাহবাগে ‘গণঅনশন ও অবস্থান’ কর্মসূচিতে সংখ্যালঘুদের ৮ দফা দাবি

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
NID জালকারী হাজির কারণে কুষ্টিয়া সদরে নৌকার ভোট বিপর্যয় !
কুষ্টিয়ায় পরিবেশ বান্ধব জিকজাক ইট ভাটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ওরা কারা ?
কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে
ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি
অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক
কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি
দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড
‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’
আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি
সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ শাহবাগে ‘গণঅনশন ও অবস্থান’ কর্মসূচিতে সংখ্যালঘুদের ৮ দফা দাবি
আজ বিআরবি কেবল ইন্ড্রাষ্টিজ লিমিটেড এর ৪৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী
কুষ্টিয়া জেলা প্রেসক্লাবের অভিনন্দন
মণ্ডপে হামলা : উস্কানিদাতা ইসলামিক বক্তা গ্রেপ্তার
প্রেমিককে স্বামী বানিয়ে প্রবাসীর সম্পদ লিখে নেন সাকুরা
আবারও বাড়ছে ভোজ্যতেলের দাম
তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে সাঈদ খোকনের চ্যালেঞ্জ ইসলাম ত্যাগ করেন, দুই দিনও মন্ত্রী থাকতে পারবেন না
কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে আপত্তিকর অবস্থা থেকে পালাতে গিয়ে ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে যুবকের মৃত্যু
কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব কেপিসির নবনির্বাচিত কমিটির দায়িত্ব গ্রহণ ও শপথ অনুষ্ঠিত
চিলাহাটি গার্লস্ স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষের প্রদায়ন ও নবাগত কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠিত
স্বামী বিদেশে নেওয়ার আগেই রাতের আধারে প্রেমিকের সঙ্গে পালালেন স্ত্রী