শিরোনাম:
●   সিলেটে স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে ধর্ষণ ●   মালয়েশিয়ায় ৫৫ বাংলাদেশি শ্রমিক গ্রেপ্তার ●   আলোচনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ৪৩ ধারা ●   চাকরি না পেয়ে সুইসাইড নোট লিখে খুবি ছাত্রের আত্মহত্যা ●   গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে কুষ্টিয়ার নবাগত পুলিশ সুপারের মতবিনিময় ●   সিএনজি থেকে লাফ দিয়েও বাঁচতে পারলনা প্রিয়া! ●   জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কনক কান্তি দাস এবার ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে দর্শনার্থীদের জন্যে নির্মাণ করে দিলেন অত্যাধুনিক বিশ্রমাগার ●   জকিগঞ্জে আবারো শ্রেণি কক্ষে এক শিক্ষিকাকে ঘুমে পেলেন উপজেলা চেয়ারম্যান ●   কুষ্টিয়ায় হঠাৎ বাস বন্ধ করে দিলেন পরিবহনশ্রমিকেরা ●   স্বাধীনতা বিরোধী জঙ্গী সঙ্গীদের ক্ষমতায় যেতে দেওয়া হবে না —তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু
ঢাকা, সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৯ আশ্বিন ১৪২৫
Bijoynews24.com
বুধবার ● ৪ জুলাই ২০১৮
প্রথম পাতা » Slider » ডা. ফয়সাল ইকবালের বিরুদ্ধে অভিযোগের শেষ নেই
প্রথম পাতা » Slider » ডা. ফয়সাল ইকবালের বিরুদ্ধে অভিযোগের শেষ নেই
১৬৬ বার পঠিত
বুধবার ● ৪ জুলাই ২০১৮
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

ডা. ফয়সাল ইকবালের বিরুদ্ধে অভিযোগের শেষ নেই

---Bijoynews : চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে খাবার সরবরাহ, চিকিৎসকদের ইচ্ছানুযায়ী বদলি এবং অপছন্দের চিকিৎসকের বদলি ঠেকানোসহ এন্তার অভিযোগ বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) চট্টগ্রাম জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ডা. ফয়সাল ইকবালের বিরুদ্ধে। তবে কেউ তার বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে অভিযোগ করেন না। এর কারণ হিসেবে একাধিক চিকিৎসক বলেন, যে এটা করবে তার পরিণতি খুব খারাপ হতে পারে। বদলি হয়ে যেতে পারেন মফস্বল কোনো এলাকায়। তাই সবাই চুপ করে থাকেন। অভিযোগ রয়েছে, বিভাগীয় স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ও চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জনও ফয়সাল ইকবালের দিকনির্দেশনার বাইরে প্রশাসনিক কোনো সিদ্ধান্ত নেন না। বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে চাইলে সিভিল সার্জন ডা. আজিজুল ইসলাম সিদ্দিকী

 

হেসে এড়িয়ে যান। ফয়সাল ইকবালের বিরুদ্ধে সবচেয়ে বড় অভিযোগ, তিনি সবসময় ভুল চিকিৎসা করা চিকিৎসকদের পক্ষ নিয়ে কথা বলেন। উল্টো রোগীর অভিভাবকদের হুমকি দেন। দেলোয়ারা বেগম নামের এক অভিভাবক চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে গত সোমবার এক সমাবেশে প্রকাশ্যে এ অভিযোগ জানান। ২০১২ সালের ৩০ মে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আমিনুল ইসলামের মলদ্বারে অস্ত্রোপচার করেছিলেন ডা. সুরমান আলী ও জাকির হোসেন। এর পর আমিনুল সেখানে ব্যথা অনুভব করলে তারা দ্বিতীয়বার অস্ত্রোপচার করেন। পরে অবস্থার অবনতি হলে কলকাতার অ্যাপোলো হাসপাতালে রেডিওলজিস্ট দেবাশীষ দত্ত অস্ত্রোপচার করে সেখান থেকে সুঁই বের করে আনেন। চিকিৎসা শেষে দেশে ফিরে ২০১৩ সালের ২৮ জানুয়ারি ডা. সুরমান আলী ও জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ করেন আমিনুলের মা দেলোয়ারা বেগম। মামলাটি সর্বশেষ হাইকোর্ট পর্যন্ত গড়ায়। নি¤œ আদালতে ডা. সুরমান আলী ও জাকির হোসেনকে খালাস দিলেও উচ্চ আদালত তাদের শাস্তি দিতে অভিযোগ গঠনের জন্য নি¤œ আদালতের প্রতি নির্দেশ দিয়েছেন। দেলোয়ারা বেগমের অভিযোগ, সুরমান আলী ও জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা চলাকালে ডা. ফয়সাল ইকবাল তাকে নিজ চেম্বারে ডেকে পাঠান। মামলা তুলে নেওয়ার জন্য দেলোয়ারা বেগমকে চাপও দেন। ওই নারী তাতে অপারগতা প্রকাশ করলে নিজেকে তিনটি হত্যা মামলার আসামি বলে দাবি করে এর পরিণতিও খুব খারাপ হবে বলে শাসিয়ে দেন। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, চমেক হাসপাতালে রোগীদের খাবার সরবরাহের ঠিকাদারি নিয়েছেন ফয়সাল ইকবাল। তবে নিজ নামে না নিয়ে আত্মীয়দের সাহায্যে সেই কাজ পরিচালনা করেন তিনি। ডা. ফয়সাল ইকবাল স্বয়ং বলেছেন, ‘আমার নামে কোথাও কিছুই নেই। কেউ প্রমাণ করতে পারবেন না।’ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, চমেক হাসপাতালে খাবার সরবরাহের দরপত্র দেওয়ার সময় এমন কিছু শর্ত জুড়ে দেওয়া হয়, যাতে একটি প্রতিষ্ঠান ছাড়া অন্য কেউ অংশ নিতে না পারে। ঢাকার বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালে খাবার সরবরাহকারী কিছু প্রতিষ্ঠানের যোগ্যতা থাকলেও ভয় ও শঙ্কা থেকে চমেক হাসপাতালে খাবার সরবরাহে আগ্রহ দেখায় না। এদিকে গত ১ জুন চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন (সিইউজে) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে একটি লিখিত অভিযোগ দেয়। সংগঠনের সভাপতি নাজিমুদ্দিন শ্যামল ও সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস স্বাক্ষরিত ওই অভিযোগে বলা হয়, ডা. ফয়সাল ইকবাল ইতোপূর্বে চিকিৎসাসেবা বন্ধ করার হুমকি দেওয়ায় তা আদালত পর্যন্ত গড়ায়। আদালত তাকে এ ব্যাপারে সতর্ক করা সত্ত্বেও আগের মতোই রোগীদের চিকিৎসা বন্ধের হুমকি দেন তিনি। চমেক হাসপাতাল, জেনারেল হাসপাতাল, ফৌজদারহাট বক্ষব্যাধি হাসপাতালে খাবার সরবরাহসহ দরপত্রও নিয়ন্ত্রণ করেন। তার কাছে টাকা দিলেই জামায়াতের লোক হয়ে যান আওয়ামী লীগ। এমনকি চিকিৎসকের অবহেলায় কোনো হাসপাতালে রোগী মারা গেলে তিনি লাখ লাখ টাকা নিয়ে মধ্যস্থতা করে দেন। শিশু রাইফা খান মারা যাওয়ার পর গত ৩০ জুন রাতে চকবাজার থানায় তিনি পুলিশের সামনে সাংবাদিকদের সারাদেশে চিকিৎসা না দেওয়ার হুমকি দেন। এ বিষয়ে মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. কাজী জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ‘লিখিত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বাংলাদেশে ৪৪ হাজার চিকিৎসক আছেন। তাদের কেউই বলতে পারেন না, চিকিৎসা বন্ধ করে দেবেন। তবে ডা. ফয়সাল ইকবাল সরকারি চাকরি ছেড়ে দেওয়ায় তার বিরুদ্ধে চাকরিসংক্রান্ত ব্যবস্থা নেওয়ার সুযোগ নেই।’ এসব অভিযোগ প্রসঙ্গে ডা. ফয়সাল ইকবাল আমাদের সময়কে বলেন, ‘আমার বিরুদ্ধে সব অভিযোগই মনগড়া, কোনো তথ্যপ্রমাণ নেই। দরপত্রের অভিযোগও কেউ প্রমাণ করতে পারবে না।’ থানায় গিয়ে সাংবাদিকদের চিকিৎসা না দেওয়ার হুমকি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আসলে সেখানে আমার এক সহকর্মী বলেছেন, সাংবাদিকরা যদি এ রকম করতে থাকেন তা হলে তাদের চেম্বার আর ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়া যাবে না। তাদের সরকারি হাসপাতালে পাঠিয়ে দিতে হবে।’



Slider এর আরও খবর

সিলেটে স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে ধর্ষণ সিলেটে স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে ধর্ষণ
মালয়েশিয়ায় ৫৫ বাংলাদেশি শ্রমিক গ্রেপ্তার মালয়েশিয়ায় ৫৫ বাংলাদেশি শ্রমিক গ্রেপ্তার
আলোচনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ৪৩ ধারা আলোচনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ৪৩ ধারা
চাকরি না পেয়ে সুইসাইড নোট লিখে খুবি ছাত্রের আত্মহত্যা চাকরি না পেয়ে সুইসাইড নোট লিখে খুবি ছাত্রের আত্মহত্যা
গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে কুষ্টিয়ার নবাগত পুলিশ সুপারের মতবিনিময় গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে কুষ্টিয়ার নবাগত পুলিশ সুপারের মতবিনিময়
সিএনজি থেকে লাফ দিয়েও বাঁচতে পারলনা প্রিয়া! সিএনজি থেকে লাফ দিয়েও বাঁচতে পারলনা প্রিয়া!
জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কনক কান্তি দাস এবার ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে দর্শনার্থীদের জন্যে নির্মাণ করে দিলেন অত্যাধুনিক বিশ্রমাগার জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কনক কান্তি দাস এবার ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে দর্শনার্থীদের জন্যে নির্মাণ করে দিলেন অত্যাধুনিক বিশ্রমাগার
জকিগঞ্জে আবারো শ্রেণি কক্ষে এক শিক্ষিকাকে ঘুমে পেলেন উপজেলা চেয়ারম্যান জকিগঞ্জে আবারো শ্রেণি কক্ষে এক শিক্ষিকাকে ঘুমে পেলেন উপজেলা চেয়ারম্যান
কুষ্টিয়ায় হঠাৎ বাস বন্ধ করে দিলেন পরিবহনশ্রমিকেরা কুষ্টিয়ায় হঠাৎ বাস বন্ধ করে দিলেন পরিবহনশ্রমিকেরা
স্বাধীনতা বিরোধী জঙ্গী সঙ্গীদের ক্ষমতায় যেতে দেওয়া হবে না  —তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু স্বাধীনতা বিরোধী জঙ্গী সঙ্গীদের ক্ষমতায় যেতে দেওয়া হবে না —তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
সিলেটে স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে ধর্ষণ
মালয়েশিয়ায় ৫৫ বাংলাদেশি শ্রমিক গ্রেপ্তার
আলোচনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ৪৩ ধারা
চাকরি না পেয়ে সুইসাইড নোট লিখে খুবি ছাত্রের আত্মহত্যা
গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে কুষ্টিয়ার নবাগত পুলিশ সুপারের মতবিনিময়
সিএনজি থেকে লাফ দিয়েও বাঁচতে পারলনা প্রিয়া!
জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কনক কান্তি দাস এবার ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে দর্শনার্থীদের জন্যে নির্মাণ করে দিলেন অত্যাধুনিক বিশ্রমাগার
জকিগঞ্জে আবারো শ্রেণি কক্ষে এক শিক্ষিকাকে ঘুমে পেলেন উপজেলা চেয়ারম্যান
কুষ্টিয়ায় হঠাৎ বাস বন্ধ করে দিলেন পরিবহনশ্রমিকেরা
স্বাধীনতা বিরোধী জঙ্গী সঙ্গীদের ক্ষমতায় যেতে দেওয়া হবে না —তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু
গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া ওসির বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মলনে সোস্যাল মিডিয়ায় সমালোচনার ঝড়
পঞ্চগড়ে শিক্ষার্থীদের নিয়ে স্কুল ব্যাংকিং সম্মেলন ও মেলা অনুষ্ঠিত
কমলগঞ্জে বিদেশে পাঠানোর নামে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ
দৌলতপুরে ১৩ টি ককটেল সহ বি.এন.পির ৫ নেতা-কর্মী আটক
নতুন পরিচয়ে জেনিফা
গোপালগঞ্জে জমি নিয়ে সংঘর্ষে আহত ২৫
কমলগঞ্জে ছেলে-মেয়ে দুইজন অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত
যুক্তরাষ্ট্রে নারী বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ৩
চট্টগ্রাম সরকারি কলেজ প্রকাশ্যে অস্ত্রধারী সেই ছাত্রলীগ নেতা গ্রেপ্তার
বেনাপোল সীমান্ত থেকে বিপুল পরিমান অস্ত্র ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার