শিরোনাম:
●   এমপি বদির বেয়াইর গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার ‘বন্দুকযুদ্ধ’ অব্যাহত নিহত আরো ১১ ●   হৃদ্যতাপূর্ণ পরিবেশের স্বার্থে সমস্যার কথা এখানে উত্থাপন করতে চাই না সাংস্কৃতিক কূটনীতি ●   এবার কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়ায় গোলাগুলি; দুই শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী নিহত ●   নেত্রকোনায় নিহত ২জন টেকনাফের, নিশ্চিত করেছে পরিবার ●   পশ্চিমবঙ্গের বঙ্গবন্ধুর নামে ভবন নির্মাণ করা হবে!:মমতা ●   বনপা’র উদ্যোগে “জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মহাকাশে বাংলাদেশ” শীর্ষক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল আজ ●   ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে পুলিশের সঙ্গে ‘গোলাগুলি’তে শামীম নামের এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত ! ●   আজ মাদক প্রতিরোধ কমিটির মানববন্ধন ●   ভেড়ামারায় হাজী আফছার উদ্দীন দারুল ইসলাম হাফিজিয়া মাদ্রাসায় দোয়া ও ইফতার মাহফিল ●   আজও ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৮
ঢাকা, শনিবার, ২৬ মে ২০১৮, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
Bijoynews24.com
প্রথম পাতা » Slider » গাইবান্ধা পৌরসভার প্রফেসর কলোনীতে মাটি খুঁড়ে রাখার জনগণের দুর্ভোগ : ১৭ দিনেও ড্রেনের কাজ শুরু হয়নি
শুক্রবার ● ১৮ মে ২০১৮
Email this News Print Friendly Version

গাইবান্ধা পৌরসভার প্রফেসর কলোনীতে মাটি খুঁড়ে রাখার জনগণের দুর্ভোগ : ১৭ দিনেও ড্রেনের কাজ শুরু হয়নি


---আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ
গাইবান্ধা পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের প্রফেসর কলোনীর সুন্দরজাহান মোড় এলাকায় বসতবাড়ির সামনে সড়কের পাশে মাটি খুঁড়ে রাখার পর ১৭ দিন অতিক্রান্ত হলেও এখন পর্যন্ত ড্রেনের নির্মাণ কাজ শুরু করা হয়নি। ফলে ওই সড়ক পথে যানবাহন ও পথচারী চলাচলে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। জনপথ বিভাগ সড়ক সংলগ্ন এই ড্রেনের নির্মাণ কাজ শুরু করেন।

এলাকাবাসির অভিযোগ থেকে জানা গেছে, বিনা নোটিশে এই ড্রেনটির নির্মাণ কাজ শুরু করা হয়। দ্রুত ড্রেনের নির্মাণ কাজ করার কথা থাকলেও ঠিকাদারের গাফিলতির কারণে তা বিলম্বিত হচ্ছে না। ফলে মাটি খুঁড়ে রাখা ড্রেনের গর্তে পানি জমে গেছে এবং ড্রেনের পাশে রাস্তায় জমে রাখা মাটি রাস্তায় ছড়িয়ে পড়ে তা বৃষ্টিতে কদমার্ক্ত হয়ে পড়ছে। এতে স্কুলগামি ছাত্রছাত্রী ও পথচারীদের পথ চলাচল চরম ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

উল্লেখ্য, ড্রেন খোড়া হলেও ঠিকাদারের গাফিলতির কারণে কোন কাজ করা হচ্ছে না। শুধু তাই নয়, একটু বৃষ্টি হলেই রাস্তায় কাঁদা হয়ে যায়। ফলে স্কুল চলাকালীন সময়ে ব্যাপক যানযটের সৃষ্টি হয়ে জনগণকে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হয়।

এব্যাপারে ঠিকাদারের সাথে একাধিক বার যোগাযোগ করেও কোন সুফল পাওয়া যায়নি। তবে সড়ক বিভাগের কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন শীঘ্রই ড্রেনটির নির্মাণ কাজ সমাপ্ত করা হবে। ছবি সংযুক্ত

জমিজমা সংক্রান্ত জের ধরে

গাইবান্ধায় নিরীহ অটো চালককে বেঁধে রেখে সাদা স্ট্যাম্পে

স্বাক্ষর মামলা করায় আসামি কর্তৃক হত্যাসহ নানা ধরনের হুমকি

---আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধা সদর উপজেলার মালিবাড়ি ইউনিয়নের মৌজা মালিবাড়ি আকন্দপাড়া গ্রামের দরিদ্র নিরীহ অটো চালক মমিনুল ইসলামকে একই এলাকার সন্ত্রাসী প্রকৃতির দাদন ব্যবসায়ি মোকাব্বর আকন্দ ঘরে আটকে রেখে ৩’শ টাকার সাদা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়েছে। এতে মামলা মমিনুল বিজ্ঞ আমলী আদালতে (ফৌঃ কাঃ বিঃ ১৪৭/১৮ ডিডি নং ৯৮৭) একটি মামলা করায় মোকাব্বর আকন্দসহ তার লোকজন তাকে হত্যা নানা ধরণের হুমকি প্রদান করে আসছে।

মামলা সুত্রে জানা গেছে, সদর উপজেলার মালিবাড়ি ইউনিয়নের মৌজা মালিবাড়ি আকন্দপাড়া গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে মমিনুল ইসলামের সাথে একই এলাকার মৃত আব্দুল খালেকের ছেলে দাদন ব্যবসায়ি প্রভাবশালী মোকাব্বর আকন্দ ও সিদ্দিকুর রহমান মুক্তারের সামান্য জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এরই সুবাদে গত ২৭ ফেব্র“য়ারি মমিনুল ইসলাম গাইবান্ধা সদরে অটো নিয়ে আসার সময় পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা আসামি মোকাব্বর আকন্দ, সিদ্দিকুর রহমান মুক্তারসহ তাদের লোকজন অটোর সামনে দাঁড়িয়ে অটোবাইকটি থামিয়ে তাকে জোর পূর্বক নামিয়ে নেয়। এরপর তাকে শার্টের কলার ধরে মোকাব্বরের বাড়িতে নিয়ে আটক করে রেখে তার কাছে থাকা অটোবাইকের ব্যাটারী ক্রয়ের জন্য ৬০ হাজার টাকা ও একটি মোবাইল কেড়ে নেয়। কিছুক্ষণ পর পার্শ্ববর্তী লেঙ্গা বাজারে সিদ্দিকুর রহমানের লাইব্রেরীতে নিয়ে গিয়ে সেখানে বেঁধে রেখে মমিনুলের কাছে জোরপূর্বক ৩০০ টাকার সাদা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে ছেড়ে দেয়। উক্ত স্ট্যাম্পটি উদ্ধারের জন্য এলাকার লোকজন মিমাংসার প্রস্তাব দিলে আসামিরা নানা টালবাহানা করে সময় ক্ষেপন করছে এবং মমিনুলকে হত্যাসহ নানা ধরণের হুমকি প্রদান করে আসছে। ফলে মমিনুল ইসলাম চরম নিরাপত্তাহীনতার মধ্য দিয়ে নানা আতংকের মধ্যে দিন কাটাচ্ছে। এব্যাপারে মমিনুল কোথাও কোন সহযোগিতা না পেয়ে বেঁচে থাকার জন্য জেলা প্রশাসক, পুলিশ প্রশাসনের কাছে বিষয়টির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ করেছেন।

তরুণ প্রজন্মের আলোকিত মানুষ

গাইবান্ধার আল মামুনের রাজনৈতিক প্রত্যাশা

আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ তরুণ প্রজন্মের আলোকিত মানুষ মো. আল মামুন। তিনি যুদ্ধাহত বীরমুক্তিযোদ্ধার সন্তান। তার পিতা মো. আব্দুল কুদ্দুছ আলী একজন যুদ্ধাহত বীরমুক্তিযোদ্ধা। বাড়ি গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার ভরতখালী ইউনিয়নের উত্তর উল্লা গ্রামে। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হতে এমএসএস (রাষ্ট্রবিজ্ঞান) শিক্ষা অর্জন শেষে বর্তমানে বাংলাদেশ ‘ল’ কলেজে এলএলবিতে অধ্যয়ণরত এবং ঢাকায় অবস্থান করছেন। আল মামুন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় সংসদের মুক্তিযুদ্ধ ও গবেষনা বিষয়ক উপ-সম্পাদক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্যার এ.এফ.রহমান হলের সাবেক সহ-সভাপতি ছিলেন। বর্তমানে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক পদে নিয়োজিত আছেন। তার যুদ্ধাহত পিতা মো. আব্দুল কুদ্দুছ আলী রাষ্ট্রীয় সম্মানী ভাতা প্রাপ্ত। ১৯৭১ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে মামুনের পিতা মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েন। মহান মুক্তিযুদ্ধে বঙ্গবন্ধু’র সন্তান শেখ কামালের সাথে ভারতের দার্জিলিং মুজিব ক্যাম্পে ২৮ দিন ভারতের সেনাবাহিনীর অধীনে উচ্চতর গেরিলা প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। মুক্তিযুদ্ধ কালে লালমনিরহাটের বড়খাতা নামক স্থানে রক্তক্ষয়ী সম্মুখ যুদ্ধে পাকবাহিনীর গুলিতে বাম পায়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হন।

পরবর্তীতে স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধু ও তার পুত্র বীরমুক্তিযোদ্ধা শেখ কামালের সান্নিধ্য, সহানুভূতি ও আর্থিক সহযোগিতা পান। এমন প্রমাণ মুক্তিযোদ্ধা গেজেট নং- ৮৩২ (গাইবান্ধা), যুদ্ধাহত গেজেট নং-২৩৭৯, কল্যাণ ট্রাস্ট তালিকা নং ৪২০৩৯, লাল মুক্তিবার্তা নং- ০৩১৭০৪০০৯০ থেকে পাওয়া যায়। তার যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা পিতা বর্তমানে শহীদ ও যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ড গাইবান্ধা জেলার ডেপুটি কমান্ডার হিসেবে নিয়োজিত আছেন। তিনি আওয়ামী প্রীতির রাজনীতিতে সম্পৃক্ত ও সক্রিয়। তবে পঙ্গুঁত্ব রোগে চিকিৎসাধীনে আছেন মাত্র। তার পুত্র আল মামুন জানান, তিনিও ছাত্র জীবনে আওয়ামী প্রীতির বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ও বর্তমানে আওয়ামী রাজনীতির সাথে জড়িত। বর্তমানে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ২৯তম জাতীয় সম্মেলনে সভাপতি/সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে তার চাওয়া-পাওয়ার রাজনীতিতে এক যুদ্ধহত মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান হিসেবে ছাত্রলীগের জাতীয় সম্মেলনে ছাত্রলীগের নেতৃত্ব দেওয়ার প্রত্যাশার কথা তুলে ধরেন। তাকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নেতৃত্ব দেয়া হলে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ ও মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে কাজ করার পাশাপাশি বাংলাদেশ ছাত্রলীগকে সারা বাংলাদেশে সুসংগঠিতসহ সংগঠনকে শক্তিশালী কার্যক্রমে বেগবান করার প্রত্যয় ব্যক্ত করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আশির্বাদ ও সহযোগিতা কামনা করছেন। ছবি সংযুক্ত

পুনরায় ভোট গনণার দাবিতে গাইবান্ধায়

মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত

আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার ফজলুপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাধারণ নির্বাচনে পুনরায় ভোট গনণার দাবিতে এক মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ ছাড়া পুনরায় ভোট গনণার দাবিতে জেলা প্রশাসকসহ জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার বরাবর একটি আবেদন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে গাইবান্ধা পৌরসভার দক্ষিণ ধানঘড়া এলাকায় জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে এই কর্মসূচি পালন করে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী ও চেয়ারম্যান প্রার্থী (স্বতন্ত্র) আনছার আলী মন্ডলের সমর্থকরা।

মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন চেয়ারম্যান প্রার্থী আনছার আলী মন্ডল, এলাকাবাসীর মধ্যে সাখাওয়াত হোসেন ও ফরিদ মিয়া প্রমুখ।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন ৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের ভোটকেন্দ্র থেকে আনছার আলী মন্ডলের এজেন্টদের বের করে দিয়েছেন আরেক স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু হানিফ প্রামানিকের সমর্থকরা। এছাড়া কেন্দ্রে ফলাফল ঘোষণা না করে উপজেলায় গিয়ে ভোট গনণা না করেই ফলাফল ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। এসব ভোট কেন্দ্রে আনছার আলী মন্ডলের ব্যাপক জনপ্রিয়তা রয়েছে ও ভোট পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। উক্ত নির্বাচনের ভোট গনণাটি সঠিক হয় নাই। তাই এই নির্বাচনের চেয়ারম্যান পদের ভোটগুলো পুনরায় গনণা করতে হবে। পরে একটি বিক্ষোভ মিছিলে দুই শতাধিক মানুষ অংশ নেয়। শেষে পুনরায় ভোট গনণার দাবিতে জেলা প্রশাসকসহ জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার বরাবর আবেদন দেওয়া হয়। এর আগে একই দাবিতে ফজলুপুরে বুধবার মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করে এলাকাবাসী।

উল্লেখ্য, গত ১৫ মে গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার ফজলুপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাধারণ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৫জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এতে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হন স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু হানিফ প্রামানিক। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি হলেন আনছার আলী মন্ডল। ছবি সংযুক্ত


চট্টগ্রামে ইলিয়াছ ব্রাদার্সের এমডির বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

কুমারখালীতে জোনাকী খাতুন নামের এক গৃহবধূকে গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যার অভিযোগ!


আরো পড়ুন...

এমপি বদির বেয়াইর গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার ‘বন্দুকযুদ্ধ’ অব্যাহত নিহত আরো ১১ এমপি বদির বেয়াইর গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার ‘বন্দুকযুদ্ধ’ অব্যাহত নিহত আরো ১১
হৃদ্যতাপূর্ণ পরিবেশের স্বার্থে সমস্যার কথা এখানে উত্থাপন করতে চাই না সাংস্কৃতিক কূটনীতি হৃদ্যতাপূর্ণ পরিবেশের স্বার্থে সমস্যার কথা এখানে উত্থাপন করতে চাই না সাংস্কৃতিক কূটনীতি
এবার কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়ায় গোলাগুলি; দুই শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী নিহত এবার কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়ায় গোলাগুলি; দুই শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী নিহত
নেত্রকোনায় নিহত ২জন টেকনাফের, নিশ্চিত করেছে পরিবার নেত্রকোনায় নিহত ২জন টেকনাফের, নিশ্চিত করেছে পরিবার
পশ্চিমবঙ্গের বঙ্গবন্ধুর নামে ভবন নির্মাণ করা হবে!:মমতা পশ্চিমবঙ্গের বঙ্গবন্ধুর নামে ভবন নির্মাণ করা হবে!:মমতা
বনপা’র উদ্যোগে “জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মহাকাশে বাংলাদেশ” শীর্ষক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল আজ বনপা’র উদ্যোগে “জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মহাকাশে বাংলাদেশ” শীর্ষক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল আজ
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে পুলিশের সঙ্গে ‘গোলাগুলি’তে শামীম নামের এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত ! ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে পুলিশের সঙ্গে ‘গোলাগুলি’তে শামীম নামের এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত !
আজ মাদক প্রতিরোধ কমিটির মানববন্ধন আজ মাদক প্রতিরোধ কমিটির মানববন্ধন
ভেড়ামারায় হাজী আফছার উদ্দীন দারুল ইসলাম হাফিজিয়া মাদ্রাসায় দোয়া ও ইফতার মাহফিল ভেড়ামারায় হাজী আফছার উদ্দীন দারুল ইসলাম হাফিজিয়া মাদ্রাসায় দোয়া ও ইফতার মাহফিল
আজও ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৮ আজও ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৮

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
এমপি বদির বেয়াইর গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার ‘বন্দুকযুদ্ধ’ অব্যাহত নিহত আরো ১১
হৃদ্যতাপূর্ণ পরিবেশের স্বার্থে সমস্যার কথা এখানে উত্থাপন করতে চাই না সাংস্কৃতিক কূটনীতি
এবার কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়ায় গোলাগুলি; দুই শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী নিহত
নেত্রকোনায় নিহত ২জন টেকনাফের, নিশ্চিত করেছে পরিবার
পশ্চিমবঙ্গের বঙ্গবন্ধুর নামে ভবন নির্মাণ করা হবে!:মমতা
বনপা’র উদ্যোগে “জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মহাকাশে বাংলাদেশ” শীর্ষক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল আজ
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে পুলিশের সঙ্গে ‘গোলাগুলি’তে শামীম নামের এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত !
আজ মাদক প্রতিরোধ কমিটির মানববন্ধন
ভেড়ামারায় হাজী আফছার উদ্দীন দারুল ইসলাম হাফিজিয়া মাদ্রাসায় দোয়া ও ইফতার মাহফিল
আজও ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৮
লালমনিরহাটে ফেন্সিডিলসহ রংপুরের তিন ভুয়া ‘সাংবাদিক’ আটক
কুষ্টিয়া সুগারমিল কর্মচারীদের ৩ মাস ধরে বেতন বন্ধ!
বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল এখন সিলেটে
বন্দুকযুদ্ধে এমপি বদির বেয়াই মাদক ব্যবসায়ী কামাল নিহত
কুলাউড়ায় অপহরণ ও ধষর্নের ঘটনায় পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন পিবিআই এর সাফল্য
দু’দিনের সফরে কলকাতা গেলেন প্রধানমন্ত্রী
পদ্মা সেতুর খরচ বাড়ল আরও ৪ হাজার কোটি টাকা
কালীগঞ্জে বন্দুকযুদ্ধে মাদকব্যবসায়ী নিহত, ৪ পুলিশ আহত
সেনাসদস্যের ভাড়া বাড়িতে পুলিশের জালে ধরা পড়ল স্মরণকালের বড় অস্ত্রের চালান
নতুন দুই বিজ্ঞাপনে মিথিলা