শিরোনাম:
ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৯ আশ্বিন ১৪২৫
Bijoynews24.com
সোমবার ● ১৬ এপ্রিল ২০১৮
প্রথম পাতা » Slider » মৌলভীবাজারে ফ্রেস ফাউন্ডেশন ও শাহমোস্তফা সমবায় সমিতির নামে প্রতারণা
প্রথম পাতা » Slider » মৌলভীবাজারে ফ্রেস ফাউন্ডেশন ও শাহমোস্তফা সমবায় সমিতির নামে প্রতারণা
৯৯ বার পঠিত
সোমবার ● ১৬ এপ্রিল ২০১৮
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

মৌলভীবাজারে ফ্রেস ফাউন্ডেশন ও শাহমোস্তফা সমবায় সমিতির নামে প্রতারণা

---মশাহিদ আহমদ, মৌলভীবাজার : ফ্রেস সোস্যাল ডেভলপমেন্ট ফাউন্ডেশন শুরুটা সুধ মুক্ত অর্থনীতির বিকল্প ধারা তৈরিতে দেশের নি¤œবিত্ত ও মধ্যবিত্ত জনগণের মধ্যে সঞ্চয়ী মনোভাব, ব্যবসা/বানিজ্য প্রতিষ্টায় পুজি সরবরাহ এবং প্রয়োজনীয় পণ্য কিস্তিতে সরবরাহ, জমি ক্রয়-বিক্রয় এবং এপার্টমেন্ট নির্মাণ, ফ্রেস সিটি নির্মান, বৃক্ষরোপনের মাধ্যমে বনায়ন কর্মসুচি, ভিক্ষুক পুণর্বাসন প্রকল্পের মত সমাজসেবামুলক বিভিন্ন প্রকল্পের নাম দিয়ে। এখানে রয়েছেন, কেউ পরিচালক, কেউ সদস্য, কেউ বিনোয়োগ গ্রহীতা আবার কেউ সেবা গ্রহীতা। তাদের গতি শুধু বৃহত্তর সিলেট বিভাগে নয় দেশের সীমানা পেরিয়ে ইউরোপ ও মধ্যপ্রাচ্যে বিস্তৃত। ফ্রেসের নামমাত্র ১৮টি ভুয়া প্রকল্পের মাধ্যমে বৃহত্তর সিলেট, মৌলভীবাজার,  সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জসহ বিভিন্ন জেলা ও উপজেলার বিভিন্ন এলাকায়  জোনাল অফিস এবং তাদের ৩৮টি ব্রাঞ্চ এর মাধ্যমে প্রতারনা ও দেশের সীমানা পেরিয়ে ইউরোপ ও মধ্যপ্রাচ্য তাদের ভুয়া কার্যক্রম বিস্তৃত করে গ্রাহকদের কোটি কোটি টাকা আন্তসাৎ করেছে এ প্রকল্পটি। ফ্রেস কনজিউমার ক্রেডিট প্রেগ্রাম, ফ্রেস ইষ্টার্ণ গেইট আবাসন প্রাঃ লিঃ, ফ্রেস মেডিকেল সেন্টার (নিরাময় পলি ক্লিনিক), ফ্রেস সোনালী এগ্রো ইন্ডাষ্ট্রিজ প্রাঃ লিঃ, ফ্রেস যাত্রীসেবা প্রকল্প, ফ্রেস স্বাবলম্বী উদ্দ্যোগ, ফ্রেস ইন্সটিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজি, ফ্রেস চিকিৎসা সহায়তা প্রকল্প, ফ্রেস শিক্ষা সহায়তা প্রকল্প, ফ্রেস ভিক্ষুক পুণর্বাসন প্রকল্প, ফ্রেস যৌতুক রুখো ও বিবাহ সহায়তা প্রকল্প, ফ্রেস দুঃস্থ মহিলা ও বিধাব সহায়তা প্রকল্প, ফ্রেস বনায়ন কর্মসুচি ও সর্বশেষ শাহমোস্তফা (সঞ্চয় ও ঋনদান) সমবায় সমিতির মাধ্যমে অধিক মুনাফার প্রলোভন দেখিয়ে শুধু মাত্র কাগজে কলমে প্রজেক্ট তৌরি করে গ্রাহকদের কোটি কোটি টাকা আন্তসাৎ করে অফিস বন্ধ করে পালিয়েছে এ প্রতারক চক্রটি। প্রতারক চক্রের মধ্যে অনেকেই আবার বিদেশে পালিয়ে গেছেন, কিছু প্রতারক আবার নাম পাল্টিয়ে ভিন্ন ভিন্ন নামে তাদের প্রতারনা চালিয়ে যাচ্ছে। প্রতরানার  কৌশল হিসাবে প্রতারকরা আলেম, সরকারি গুরুত্বপৃর্ণ চাকুরীজিবি ও রাজনৈতিক ব্যক্তিদের সাথে ছবি দেখিয়ে বিশ্বাষ তৈরি করত এবং পরবর্তীতে তারা গ্রাহক সংগ্রহ করত। প্রথমে সদস্যপদ গ্রহনের জন্য ১শত  টাকা এবং ছবিসহ বায়োডাটা সংগ্রহ করতেন। নতুন সদস্য হওয়া ব্যাক্তি তার অধীনে আরো সদস্য করলে তাকে নির্দিষ্ট হারে কমিশন দেওয়া হত। পরবর্তীতে নির্ধারিত সঞ্চয় এর মাধ্যমে বিনোযোগ সহযোগীতা ও লভ্যাংশের ৭০% মুনাফা দেখিয়ে টাকা আদায় করতেন এ চক্রটি। এই সময়ের মধ্যে প্রতারক  ফ্রেসের প্রজেক্ট ডিরেক্টর ও (ম্যানেজিং ডিরেক্টর লন্ডন বাংলা আবাসন প্রকল্প) শাহ মাশুকুর রশীদ ও ফাইন্যান্সি ডিরেক্টর শরীফ খালেদ সাইফুল্লাহসহ অন্যন্যা প্রতারকরা দেশ ছেড়ে বিদেশে পালিয়ে গেছেন। তাদের দলের মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিলেন-  ফ্রেস চেয়ারম্যান মুফতী নোমান সিদ্দিক, ম্যানেজিৎ ডিরেক্টর মাহবুবুর রশীদ, ভাইস চেয়ারম্যান মুখতার হুসাইন, ম্যানেজিং ডিরেক্টর ফারুক আহমদ, প্রজেক্ট ডিরেক্টর (ম্যানেজিং ডিরেক্টর লন্ডন বাংলা আবাসন প্রকল্প) শাহ মাশুকুর রশীদ (বর্তমানে লন্ডন), ফ্রেসের ফাইন্যান্সি ডিরেক্টর শরীফ খালেদ সাইফুলাহ (বর্তমানে কাতার), ফ্রেসের ফাইন্যান্স ডিরেক্টর ও প্রেগ্রাম চীফ তৈয়্যিবুবুর রহমান চৌধুরী, এডমিন ডিরেক্টর সিরাজুল ইসলাম, কমিনিকেশন ডিরেক্টর জুনেদ আহমদ, এডমিন ডিরেক্টর আমীরুল হক, ফ্রেসের প্রধান উপদেষ্টা মাওলানা মুহিউদ্দিন খান, ফ্রেসের নবাগত ডিরেক্টর ও লন্ডন বাংলা আবাসন (প্রাঃ) লিমিটেড (গভঃ রেজিঃ নং- সি- ৮০৯৮৬/০৯) এর চেয়ারম্যান, আজীবন ডাইরেক্টর ও এক্সিকিউটিভ মেম্বার আলহাজ্ব আব্দুর রশিদ (লন্ডনী), আলহাজ্ব ফাইয়াজ উদ্দীন, ফ্রেস চ্যারিটি ইউকের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মাওলানা ফয়জুল ইসলাম, সেক্রেটারী মুহাম্মদ জোওয়াহির, প্রেস এন্ড পাবলিকেশন্স ডিরেক্টর আমীরুল হক, নগরী প্রেস এন্ড পাবলিকেশন্স ডিরেক্টর মুহাম্মদ রুহুল আমীন, ফিল্ড অফিসার শামীম আহমদ, ব্রাঞ্চ অফিসার শাহ লুৎফুর রশীদ, ফিল্ড অফিসার মোঃ আশরাফুল আলম। ফ্রেস ফাউন্ডেশন এর মাধ্যমে প্রতারনার শিকার মাট কর্মী আনোয়ারা বেগম জানান- আমি এখন সর্বহারা। পাঁচ বছরে মূলধনের সাথে দ্বিগুন পাওয়ার আসায় ফ্রেস সোস্যাল ডেভলপমেন্ট ফাউন্ডেশন এ গ্রাহকদের বিনোয়োগসহ ১১ লক্ষ টাকা ও শাহমোস্তফা (সঞ্চয় ও ঋনদান) সমবায় সমিতিতে আমার বিনোয়োগ ৩লক্ষ টাকা আন্তসাৎ করেছে এ প্রতারক চক্র। সদস্য ুমোঃ ছাবির মিয়া জানান- ফিল্ড অফিসার মোঃ আশরাফুল আলম এর মাধ্যমে শাহমোস্তফা (সঞ্চয় ও ঋনদান) সমবায় সমিতিতে ১ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা বিনোয়োগ করেছি। প্রতারকরা আমার সেই টাকা নিয়ে হাওয়া হয়ে গেছে। মাট কর্মী রুজি বেগম নিজেকে একজন ধার্মিক মহিলা জানিয়ে বলেন- ফ্রেস সোস্যাল ডেভলপমেন্ট ফাউন্ডেশন শ্রীমঙ্গল- মৌলভীবাজার দুই উপজেলা মিলিয়ে গ্রাহকদের প্রায় ৩ লক্ষাধিক টাকা আন্তসাৎ করা হয়েছে। মাঠ কর্মী সাজমা বেগম জানান- অধিক লাভের আশায় লক্ষাধিক টাকা বিনোয়োগ করেছি। মাঠে কাজ করেছি সদস্য বৃদ্ধির জন্য এবং সদস্যদের জমাকৃত টাকা মেয়াদ পূর্তিতে অফিস থেকে তাদেকে পূবালী ব্যাংক শাখার চেক প্রদান করা হত। গ্রাহকরা ব্যাংকে টাকা উত্তোলনের জন্য গেলে তাদের একাউন্টে কোনো টাকা পাওয়া যেত না। গ্রাহকরা একাধিকবার অফিসে এসে অভিযোগ করলে তাদেরকে বলা হত একাউন্টে টাকা শেষ হয়ে গেছে কিছু দিনের মধ্যে টাকা জমা হবে বলে শান্তনা দেওয়া হত। এভাবে সময় ক্ষেপন করে অফিসের লোকজন অফিসে জেলার সকল অফিসে পর্যায়ক্রমে তালা ঝুলিয়ে সকল কর্মকর্তা কর্মচারীরা পালিয়ে যান। মাঠ কর্মীরা গ্রাহকের যন্ত্রনায় অতিষ্ট হয়ে পরিচালকসহ জড়িত অন্যান্যদের বাসা বাড়িতে গিয়ে যোগাযোগ করলে তাদেরকে বলা হতো অফিস পরিবর্তন করা হয়েছে । নতুন অফিসের কাজ চলছে, কিছু দিনের মধ্যে অফিসের কার্যক্রম শুরু হবে। প্রতারকরা জেলার বিভিন্ন মসজিদের  ইমামদেরকে ব্যবহার করে সঞ্চয় আদায় করতেন। গ্রামের ধর্মপ্রাণ সহজ সরল লোকজন ইমামদের কথা বিশ্বাষ করে টাকা জমা রাখতেন। মেয়াদ উর্ত্তীন হবার পরও বছরের পর বছর গ্রাহকদের টাকা  ফেরৎ না আসায় গ্রহকরা মসজিদের ইমামদের চাপ প্রয়োগ করতেন। এ ভয়ে অনেক মসজিদের ইমাম রাতের অন্ধকারে মসজিদ ছেড়ে পালিয়ে গেছেন এমন সংবাদও পাওয়া গেছে। এ প্রতারক চক্রের সাথে জড়িত অনেকেই মসজিদ-মাদ্রাসার গুরুত্বপূর্ন দায়িত্বে ও দলীয় রাজনৈতিক পরিচয় ব্যবহার করতেন। তাদের মধ্যে অনেকেই সক্রিয় ভাবে রাজনৈতিক দলের সাথে জড়িতও রয়েছেন। ফ্রেশ সোস্যাল ডেভলপমেন্টের চেয়ারম্যান শাহ মাহবুবুর রশীদ প্রতি মাসে দেশের বাহিরে গিয়ে বাংলাদেশের ভিক্ষুকদের পুর্ণবাসন, শিক্ষা, যৌতুক রুখো ও বিবাহ, দুঃস্থ মহিলা ও বিধবা, চিকিৎসা, বনায়ন কর্মসূচির বিভিন্ন ভিডিও ও ছবি প্রদর্শন করে প্রতারনার মাধ্যমে বড় অংকের অনুদান হাতিয়ে নিয়েছেন। এখানে নাম ছড়াতো ফাউন্ডেশনের। এই ভাবে অনেকে নাম মাত্র ফাউন্ডেশনের খপ্পরে পরে প্রতারিত হয়ে হাজার হাজার মানুষ সব হারিয়ে আজ নিঃস্ব। প্রতারনার শিকার মাট কর্মী আনোয়ারা বেগম এর প্রায় ১৪ লক্ষ টাকা, মাট কর্মী রুজি বেগম এর ৩লক্ষ টাকা, মাট কর্মী সাজমা বেগম এর ৫১ হাজার ৫শত টাকা, সদস্য মোঃ সাব্বির মিয়ার ১লক্ষ ৫০ হাজার টাকা, আল-আমিন ইসলাম ১ হাজার টাকা, রেকাত আলী ২ হাজার ৫শত টাকা, হবিরুন বিবি ১০ হাজার টাকা, কবিরুন নেছা ৪৮ হাজার টাকা, সাইদুল ইসলাম ১৯ হাজার টাকা, হাসিনা বেগম ১৯ হাজার টাকা, সোনিয়া বেগম ৪শত টাকা, সাজনা বেগম ১০ হাজার টাকা, কলি বেগম ৫ হাজার টাকা, স্বপ্না বেগম ১ হাজার টাকা, সুফিয়া বেগম ৩ হাজার ৬শত টাকা, রাজনা বেগম ৩ হাজার ৪শত টাকা, মনোয়ারা চৌধুরী ৫ হাজার টাকা, সোহেনা বেগম ১৫শত টাকা, ফাতেমা আক্তার(বেবি) ১৯ হাজার টাকা, হেলা বেগম ১ হাজার টাকা, নীলিমা বেগম ৩ হাজার টাকা, হুসনা বেগম ১৯ হাজার টাকা, তাজিরুন বেগম ৩ হাজার ২শত টাকা, বাতির মিয়া ৪শত টাকা, সাদিকুর রহমান ১৯ হাজার টাকা, নাসিফা বেগম চৌধুরী ১৫ হাজার টাকা, মোঃ জগলু মিয়া ১৫ হাজার টাকা, সুজিত কুমার দাশ ৭শত টাকা ও মোঃ ছাবির মিয়া ১ লক্ষ ৪০ হাজার টাকাসহ হাজার হাজার গ্রাহকের কোটি কোটি টাকা। প্রতারকরা গ্রাহকদের টাকা আন্তসাৎ করে তারা দেশ থেকে বিদেশে পালানোর ধান্ধায় থাকতো। জানা গেছে- ফ্রেস সোস্যাল ডেভলপমেন্টে সিলেটে প্রধান কার্যালয় দেখিয়ে সিলেট জেলা সমাজসেবা কার্যালয় থেকে নিবন্ধন সনদ (রেজিঃ নং এস-৭৪৩৪(৬২৩)/০৮) গ্রহন করে প্রায় ১৮টি প্রকল্পের মাধ্যমে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করে। পরবর্তীতে মৌলভীবাজার শাহ মোস্তফা রোড়, আহমদ ভিলা (৩য় তলা) কার্যালয় দেখিয়ে শাহমোস্তফা (সঞ্চয় ও ঋনদান) সমবায় সমিতি (গভঃ রেজিঃ নং- সমঃ মৌলঃ ১৮৪) দিয়ে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করতেন। শাহমোস্তফা (সঞ্চয় ও ঋনদান) সমবায় সমিতির ফিল্ড অফিসার মোঃ আশরাফুল আলম টাকা আন্তসাৎ এর বিষয়টি স্বীকার করে বলেন- আমি কিছু দিন বিদেশে ছিলাম। বর্তমানে আমি জড়িত নই। টাকাসবগুলো প্রজেক্ট ডিরেক্টর শাহ মাশুকুর রশীদ নিয়েছেন।



পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
চট্টগ্রামে গণধর্ষণের শিকার দুই কিশোরী
পদ্মার ডান তীরে ভাঙন ফের আতঙ্ক
২৯শে সেপ্টেম্বর আওয়ামী লীগের নাগরিক সমাবেশ
ঢাকায় বৃহস্পতিবার বিএনপি’র সমাবেশ
ডিআরইউ’র বিবৃতি : ডিজিটাল আইন স্বাধীন সাংবাদিকতার অন্তরায়
দুর্নীতিবাজদের নিয়ে জোট করে সরকার উৎখাতের চেষ্টা হচ্ছে
বৃহত্তর ঐক্যের কর্মসূচি প্রণয়নে লিয়াজোঁ কমিটি হচ্ছে
সিলেটে স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে ধর্ষণ
মালয়েশিয়ায় ৫৫ বাংলাদেশি শ্রমিক গ্রেপ্তার
আলোচনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ৪৩ ধারা
চাকরি না পেয়ে সুইসাইড নোট লিখে খুবি ছাত্রের আত্মহত্যা
গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে কুষ্টিয়ার নবাগত পুলিশ সুপারের মতবিনিময়
সিএনজি থেকে লাফ দিয়েও বাঁচতে পারলনা প্রিয়া!
জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কনক কান্তি দাস এবার ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে দর্শনার্থীদের জন্যে নির্মাণ করে দিলেন অত্যাধুনিক বিশ্রমাগার
জকিগঞ্জে আবারো শ্রেণি কক্ষে এক শিক্ষিকাকে ঘুমে পেলেন উপজেলা চেয়ারম্যান
কুষ্টিয়ায় হঠাৎ বাস বন্ধ করে দিলেন পরিবহনশ্রমিকেরা
স্বাধীনতা বিরোধী জঙ্গী সঙ্গীদের ক্ষমতায় যেতে দেওয়া হবে না —তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু
গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া ওসির বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মলনে সোস্যাল মিডিয়ায় সমালোচনার ঝড়
পঞ্চগড়ে শিক্ষার্থীদের নিয়ে স্কুল ব্যাংকিং সম্মেলন ও মেলা অনুষ্ঠিত
কমলগঞ্জে বিদেশে পাঠানোর নামে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ