ঢাকা, সোমবার, ১৮ জুন ২০১৮, ৪ আষাঢ় ১৪২৫
Bijoynews24.com
প্রথম পাতা » Slider » ঝিনাইদহে পাসপোর্ট বিপ্লবের ডেরায় ভ্রাম্যমান আদালতের হানা, মূল হোতা বিপ্লব পলাতক,১জনের জেল
শনিবার ● ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৮
Email this News Print Friendly Version

ঝিনাইদহে পাসপোর্ট বিপ্লবের ডেরায় ভ্রাম্যমান আদালতের হানা, মূল হোতা বিপ্লব পলাতক,১জনের জেল

---ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে “পাসপোর্ট বিপ্লবের ডেরা” ক্ষ্যাত একটি ভবন থেকে বিপুল পরিমাণ পাসপোর্ট, বিদেশী ডলার জব্দ করেছে। এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার দায়ে সুকান্ত সেন নামের জালিয়াত চক্রের এক সদস্যকে ১ মাসের কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। তবে এই পাসপোর্ট জলিয়াতির মূল হোতা বিপ্লব কুমার গাঙ্গুলীকে আটক করতে সক্ষম হয়নি তারা। বৃহস্পতিবার দুপুরে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়। ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সোহেল সুলতান জুলকার নাইন কবির জানান, গোপন সংবাদরে ভিত্তিতে খবর পেয়ে জেলা শহরের চাকলাপাড়া গাঙ্গুলী এণ্টারপ্রাইজের চারতলা ভবনে অভিযান চালানো হয়। সেখন থেকে আমেরিকা, ভিয়েতনাম, মালয়েশিয়াসহ অন্তত ১০ দেশের প্রায় ১ হাজার পাসপোর্ট, বিদেশী মুদ্রা, কাগজপত্র, সীল-স্¦াক্ষর জব্দ করা হয়। এ সময় সেখানে কর্মরত অবস্থায় সুকান্ত সেন নামের এক জনকে হাতেনাতে আটক করে এক মাসের কারাদন্ড দেওয়া হয়।

ঝিনাইদহ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবসে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা

---জাহিদুর রহমান তারিক,ঝিনাইদহঃ

“এসো চেতনার রঙে একুশ আঁকি” শ্লোগানকে সামনে রেখে অমর একুশে ও আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ঝিনাইদহে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রের আয়োজনে বুধবার বিকেলে শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিযোগিতায় শহরের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১’শ ৫০ জন শিক্ষার্থী ৪ টি গ্রুপে অংশ নেয়। পরে বিকেলে শহীদ মিনার চত্বরে প্রতিযোগিদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌরসভার মেয়র আলহাজ সাইদুল করিম মিন্টুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) বাকাহীদ হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এস এম মুনিম লিংকন, নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) জেলা শাখার সভাপতি এ্যাড, মনোয়ারুল হক লাল, কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর সুষেন্দু কুমার ভৌমিক, শিশুকুঞ্জ স্কুল এন্ড কলেজের প্রভাষক আব্বাস আলী, সাবেক অধ্যক্ষ আমিনুর রহমান টুকু, নিসচা জেলা শাখার সহ-সভাপতি শাহিনুর আলম লিটন। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্র’র জেলা ইউনিট ইনচার্জ আলমগীর হোসেন। পরে ৪ টি গ্রুপে অংশগ্রহণকারী ২০ জন বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

কালীগঞ্জে পুকুরে ডুবে শিশুর মৃত্যু

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহ কালীগঞ্জে আফরিন নামের সাড়ে তিন বছরের এক শিশু নানা বাড়িতে বেড়াতে এসে পানিতে ডুবে মারা গেছে। বৃহস্পতিবার বিকালে কালীগঞ্জ পৌরসভার শ্রীরামপুর গ্রামে এই মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। শিশু আফরিন কালীগঞ্জ শহরের বলিদাপাড়া গ্রামের আনিচুর রহমানের মেয়ে ও শ্রীরামপুর গ্রামের আক্কাচ আলীর নাতনী। আফরিন এক মাস আগে মায়ের সাথে নানা বাড়ি শ্রীরামপুর গ্রামে বেড়াতে আসে। বৃহস্পতিবার বিকালে বাড়ির পাশে প্রতিদিনের মত খেলা করছিল। এ সময় বাড়ির পাশে পুকুরে পড়ে পানিতে ডুবে মারা যায়। তাকে খোঁজ না পেয়ে বাড়ির লোকজর অনেক খোঁজ করতে থাকে , এক পর্যায় শিশুটি পানিতে ভাসতে থাকে। তাকে উপরে তুলে এনে দেখে সে মারা গেছে ।

ঝিনাইদহের মানসিক প্রতিবন্ধীকে মাগুরায় পিটিয়ে হত্যা!

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার পোড়াহাটি ইউনিয়নের আড়–য়াকান্দি গ্রামের মৃত আবুল কাশেম ওরফে চুন্ন মোল্লার ছেলে প্রতিবন্ধী কবীর হোসেন (৪৫)কে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে মাগুরা সদর উপজেলার সাইত্রিশ এলাকা থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। মাগুরা থানার ওসি ইলিয়াস হোসেন জানান, সকালে সাইত্রিশ নামক স্থানে একজনের লাশ পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসী পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ এসে তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। নিহত ব্যক্তিকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। নিহতের বড় ভাই সিরাজ হোসেন বলেন, আমার ভাই অনেকদিন ধরে মানসিক ভারসাম্যহীন। তাকে আমরা পাবনা থেকে চিকিৎসা করিয়েছি। এর পর থেকে মাঝে মধ্যে ভাল থাকতো। তবে বৃহস্পতিবার দুপুর তিনটার দিকে ঘরের তালা ভেঙে পালিয়ে যায় সে। রাতে মাগুরা সদর উপজেলার খালিমপুর গ্রামে গেলে ওই গ্রামের লুৎফর রহমান, মুক্তার হোসেন, রেজাউল ইসলাম, বাদশা হোসেন চোর অপবাদ দিয়ে তাকে নৃসংশ ভাবে পিটিয়ে হত্যা করে। আমি এ ঘটনার বিচার চাই। পোড়াহাটি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম হিরন বলেন, কবীর আমার প্রতিবেশী। সে র্দীঘদিন ধরে মানসিক ভারসাম্যহীন ছিল। মাঝে মধ্যে সে হারিয়ে যেত। ভোর রাতে কবীর হোসেন খালিমপুর গ্রামের লুৎফর রহমানের বাড়িতে গেলে চোর সন্দেহ করে তাকে পিটিয়ে পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলে হত্যা করে গাছের সঙ্গে বসিয়ে রাখা হয়। একজন প্রতিবন্ধীকে এভাবে পিটিয়ে হত্যা করা মধ্যযুগীয় বর্বরতাকে হার মানায়। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে বিচার আশা করছি। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, প্রতিবন্ধী কবীর হোসেন দীর্ঘ ১৮ বছর মানসিক রোগে ভুগছেন। সম্প্রতি তার এই প্রতিবন্ধীতার জন্য তার স্ত্রী তাকে ছেড়ে চলে গেছেন। তার বৃদ্ধা মা সালেহা খাতুন কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেন, আমার পাগল ছেলেকে যারা মেরে ফেলল, আমি তাদের বিচার চাই। এ ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে একটি হত্যা মামলা করা হবে বলে জানিয়েছেন নিহতের মেজ ভাই হবিবর রহমান।

ওজোপাডিকো’র বিদ্যুৎ বিল বাকি পড়েছে কালীগঞ্জসহ আট পৌরসভায় ৯ কোটি টাকা

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ

দক্ষিণের চার জেলার আট পৌরসভার কাছে ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের পাওনা প্রায় ৯ কোটি টাকা। গত ১১ বছরে এ বিপুল পরিমাণ বিদ্যুৎ বিল বকেয়া করেছে পৌর কর্তৃপক্ষ। ওজোপাডিকো’র কর্মকর্তাদের দাবি, কুষ্টিয়া, ঝিনাইদহ, মেহেরপুর ও চুয়াডাঙ্গা জেলার আট পৌরসভার কাছে বকেয়া বিদ্যুৎ বিল আদায়ে একাধিকবার ধরনা দেয়া হয়েছে। বিল আদায় করতে ব্যর্থ হয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে বিদ্যুৎ বিভাগ। জনকল্যাণকর প্রতিষ্ঠানের এমন আচরণ নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের অন্তরায় বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্ট মহল। ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের (ওজোপাডিকো) নির্বাহী প্রকৌশলী আরিফুর রহমান জানান, ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের আওতাধীন ৮টি পৌরসভায় প্রায় ৯ কোটি টাকার বিদ্যুৎ বিল বকেয়া রয়েছে। এর মধ্যে শুধু কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা ও কুমারখালী পৌরসভার বকেয়া বিলের পরিমাণ প্রায় ৩ কোটি টাকা। এর মধ্যে ভেড়ামারা পৌরসভার ১ কোটি ৩৫ লাখ টাকা এবং কুমারখালী পৌরসভার প্রায় ১ কোটি ২৭ লাখ টাকা বকেয়া রয়েছে। ঝিনাইদহ জেলার ঝিনাইদহ পৌরসভার বকেয়া বিদ্যুৎ বিলের পরিমাণ ৭১ লাখ ৪৫ হাজার টাকা। একই জেলার শৈলকুপা পৌরসভায় ১৫ লাখ ৫৯ হাজার টাকা, কালীগঞ্জ পৌরসভায় ১ কোটি ৩৫ লাখ ১৬ হাজার টাকা, কোটচাঁদপুর পৌরসভায় ২ কোটি ১ লাখ ৬৬ হাজার টাকা এবং মহেশপুর পৌরসভায় ১ কোটি ৩ লাখ ৮৬ হাজার টাকার বিদ্যুৎ বিল বকেয়া রয়েছে। মেহেরপুর জেলার মেহেরপুর পৌরসভায় বকেয়া বিদ্যুৎ বিলের পরিমাণ ৩৭ লাখ ৬৭ হাজার টাকা। চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা পৌরসভায় বকেয়া বিদ্যুৎ বিলের পরিমাণ ৫৫ লাখ ৫০ হাজার টাকা। সব মিলিয়ে এ আট পৌরসভার কাছে ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের পাওনা দাঁড়িয়েছে ৮ কোটি ৮২ লাখ ৭৫ হাজার ৩০২ টাকা। কুষ্টিয়ার কুমারখালী ও ভেড়ামারা পৌরসভায় বিদ্যুৎ বিল অনাদায়ে বিদ্যুৎ বিভাগ নানা উদ্যোগ নিলেও তা কজে আসেনি। এ বিল আদায়ের জন্য সর্বশেষ বিদ্যুৎ বিভাগ শরণাপন্ন হয়েছে আদালতের। বিল পরিশোধের জন্য এরই মধ্যে দুই পৌরসভাকে দেয়া হয়েছে লিগ্যাল নোটিশ। এদিকে দেশের আর্সেনিক প্রবন জেলা কুষ্টিয়ায় বিশুদ্ধ পানি সরবরাহের জন্য ৮টি শক্তিশালী পাইপ লাইনের পাম্প স্থাপন করা হলেও বিদ্যুৎ সংযোগ না পাওয়ায় পাম্প গুলো চালু করা যায়নি। বিদ্যুৎ বিল বকেয়া থাকার কারণে বিদ্যুৎ বিভাগ সংযোগ দিচ্ছে না। কুমারখালী পৌরসভার মেয়র শামসুজ্জামান অরুণ জানান, আমাদের কিস্তি করে দিলে এখন থেকে বিল পরিশোধ কার্যক্রম শুরু করতে পারি। অপরদিকে কুষ্টিয়া ভেড়ামারা পৌরসভার মেয়র শামীমুল ইসলাম ছানা ওকালীগঞ্জ পৌর মেয়র আলহাজ মকছেল আলী বিশ্বাস বলেন, দায়িত্ব নেয়ার আগে থেকেই বকেয়া বিলের বোঝা আমার ওপর চেপেছে।

মহেশপুরের আলোচিত জোড়া হত্যা মামলায় সাবেক প্রেমিক পুলিশ কনষ্টবলকে ১০ দিনের রিমান্ড

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর উপজেলার যাদবপুর গ্রামের আলোচিত মুসা মিয়ার স্ত্রী রিপ্না খাতুন ও তার মেয়ে মুন্নি আক্তারকে হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার হওয়া পুলিশ কনস্টেবল আলিমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন জানিয়ে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ কনস্টেবল আলিমের(৩২) বাড়ি ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর উপজেলার যাদবপুর গ্রামে। আব্দুল আলিম যাদবপুর গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কালিগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক সুধাংশু কুমার হালদার বলেন, সোমবার দেবহাটার ইছামতী নদীর ছুটিপুর ও কালিগঞ্জের ইছামতী নদীর বসন্তপুর থেকে যথাক্রমে মেয়ে মুন্নি আক্তার ও মা রিপ্না খাতুনের লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় দেবহাটা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী ও কালিগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক ইসরাফিল বাদি হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। উল্লেখ্য, গত ১০ ফেব্রুয়ারি ডাক্তার দেখাতে বাড়ি থেকে বেরিয়ে আসা স্ত্রী ও সন্তানকে না পেয়ে মহেশপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন মুছা মিয়া। এ সময় তিনি পুলিশকে জানান, সাড়ে ৫ বছর আগে রিপ্না খাতুনের সঙ্গে তার বিয়ে হলেও একই গ্রামের আলীমের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। আলীম (কং নং-৯৫২৮) বর্তমানে ঢাকার গুলশানে ডিপোমেট্রিক সিকিউরিটি বিভাগে কর্মরত। ছুটিতে থাকা আলীমকে গত বৃহষ্পতিবার রাতে ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর থানার যাদবপুর গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে স্থানীয় পুলিশের সহায়তায় কালিগঞ্জ থানার পুলিশ আটক করে। পূর্বের প্রেমের সর্ম্পকের জের ধরে ইতিপূর্বে  আলিম কালিগঞ্জ থানায় কাজ করার সুবাদে পূর্ব পরিচিত কোন ব্যক্তির বাড়িতে এনে ধর্ষণের পর মা ও মেয়েকে হত্যা করে নদীতে ফেলে লাশ গুম করার চেষ্টা করা হয়েছে বলে লাশ সনাক্ত কালে পুলিশকে অবহিত করেন মুছা মিয়া। প্রাথমিক তদন্তে রিপ্না ও মুন্নিকে সাতক্ষীরায় নিয়ে এসেছিল আলিম তার সত্যতা মিলেছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন জানানো হয়েছে।

আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারে ঝিনাইদহে খেজুর রস, গুড় ও পাটালি রপ্তানি করে প্রচুর পরিমাণে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করা সম্ভব

জাহিদুর রহমান তারিক,ঝিনাইদহঃ

ঝিনাইদহ কালীগঞ্জ উপজেলার কৃষকরা অন্যান্য ফসলের পাশাপাশি পতিত জমিতে বাণিজ্যিক ভাবে খেজুর বাগান গড়ে তুলছে। যে কারনে কালীগঞ্জ উপজেলায় খেজুরের গুড় ও পাটালির উৎপাদন দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। কালীগঞ্জ উপজেলার ১১টি ইউনিয়নে প্রচুর পরিমাণে গুড় ও পাটালি উৎপাদন হচ্ছে। এখানে উৎপাদিত গুড় পাটালি যাচ্ছে দেশের বিভিন্ন স্থানে। কিন্তু আধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে খেজুর রস, গুড় ও পাটালি প্যাকেটজাত করে বিদেশে রপ্তানি করে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করা সম্ভব বলে মনে করেন এলাকাবসী। বৃহত্তম কুষ্টিয়া, যশোর-ঝিনাইদহ অঞ্চলে আগে গুড় থেকে চিনি তৈরির ১১৭টি কারখানা ছিল। পরে তা কমে ৫০ এর কোটায় নেমে আসে। ধীরে ধীরে খেজুর গুড় থেকে চিনি তৈরির কারখানা গুলো প্রায় বিলুপ্ত হয়ে যায়। তবে সম্প্রতি উপজেলার কৃষকদের মাঝে তাদের পতিত জমিতে বাণিজ্যিক ভাবে খেজুর বাগান তৈরির প্রবনতা বৃদ্ধি পেয়েছে। কালীগঞ্জ উপজেলার রামনগর গ্রামের বাবলু, মহিদুল ইসলাম, ঈশ্ববার গ্রামের রোস্তম আলী ও চাঁচড়া গ্রামের আক্কাচ আলী জানান-খেজুর গাছের বাগান তৈরি করতে বেশি যতœ এবং সময়ের প্রয়োজন হয় না। খেজুর গাছ কাটা যুক্ত হওয়ায় গরু-ছাগলের উৎপাত কম হয়। একটি খেজুর গাছ ৪/৫ বছর বয়স থেকে রস দিতে শুরু করে এবং তা ৪০/৫০ বছর পর্যন্ত অব্যাহত থাকে। শীত মৌসুম শুরু হলেই গাছিরা খেজুর গাছ থেকে রস সংগ্রহে ব্যস্ত থাকে। একটি খেজুর গাছ থেকে এক মৌসুমে ১৫/১৬ কেজি গুড় পাওয়া যায়। সেই হিসেবে শীত মৌসুমে কালীগঞ্জে প্রচুর পরিমাণে গুড় উৎপাদিত হয়। এই গুড় এই অঞ্চলের চাহিদা পূরণ করে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে সরবরাহ করা হয়। শীত মৌসুমে এ উপজেলা থেকে প্রতি সপ্তাহে ১০/১২ ট্রাক গুড় দেশের বিভিন্ন শহরে চালান হয়। কালীগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আলীমুজ্জামান জানান, আগের তুলনায় বর্তমানে কৃষকরা খেজুর বাগান গড়ে তুলতে আগ্রহী হচ্ছেন। তাই সরকারি ভাবে আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার করে খেজুর রস, গুড় ও পাটালি প্যাকেটজাত করার মাধ্যমে রপ্তানি করলে প্রতি বছর প্রচুর পরিমাণে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করা সম্ভব।


গাইবান্ধায় সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের আয়োজনে বুকের অন্তঃপুরে অনুষ্ঠিত

বগুড়ায় বিএনপির দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৪


পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
মেয়েকে কুপ্রস্তাব, স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দিলেন স্ত্রী!
সেনা প্রধান হলেন জেনারেল আজিজ আহমেদ
যশোরে দু’গ্রুপের ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত
ময়মনসিংহে নারী ‘মাদক ব্যবসায়ীর’ গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার
জকিগঞ্জের বন্যা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে : দেড় লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দী
গড়াই নদী থেকে তরু‌ণের ভাসমান লাশ উদ্ধার
দাকোপে পরকীয়ার ঘটনায় স্বামীর পিটুনিতে স্ত্রীসহ প্রেমিক আহত
মেসির পেনাল্টি মিস, আর্জেন্টিনাকে রুখে দিল আইসল্যান্ড
আফগানিস্তানে আত্মঘাতী হামলায় নিহত ২৫
দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর
এটিএন বাংলায় ইভা রহমানের একক সংগীতানুষ্ঠান
রাশিয়ান সুন্দরী এম্বাসেডরের সতর্কতা
কারাফটকের আগেই ব্যারিকেড, সাক্ষাত পেলেন না বিএনপি নেতারা
গণভবনে জনসাধারণের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়
বায়তুল মোকাররমে ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত
বাড্ডায় আওয়ামী লীগ নেতাকে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা
আত্মঘাতী গোলে হারলো মরক্কো
রোনালদোর হ্যাটট্রিক
কমলাপুর, সদরঘাটে উপচেপড়া ভিড়
ভিজিএফ কার্ডের ৪৫৬ বস্তা চাল জব্দ