শিরোনাম:
●   নোয়াখালীতে পুলিশের পরিচয়ে এক কিশোরীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ ●   অপরাধের শাস্তি ভোগ করছেন খালেদা জিয়া : প্রধানমন্ত্রী ●   খালেদা জিয়ার জামিনের শুনানি রোববার : জরিমানা স্থগিত ●   শ্বাশুড়ী যখন পুত্রবধু,চাঁদপুরে বিধবা দাদির সন্তান প্রসব, নাতির সাথে বিয়ে!! ●   মাসিক বেতন ১০ হাজার, বাড়ি কিনেছেন আড়াই কোটি টাকার ●   কুষ্টিয়ায় সড়ক সংস্কারসহ ৭দফা দাবীতে কুষ্টিয়ায় মানববন্ধন ●   কুষ্টিয়ার পৌর শিশু পার্কে১১ জোড়া প্রেমিক যুগল আটক ●   মক্কা শরীফে তাস খেলছেন নারীরা! ●   আর ছাপা নয়: পরীক্ষার হলে ডিজিটাল ডিভাইসে ভেসে উঠবে প্রশ্ন ●   কুষ্টিয়ার খোকসায় বিয়ের দাবিতে ছাত্রলীগ নেতার বাড়িতে যুবলীগ নেতার স্ত্রী
ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ১১ ফাল্গুন ১৪২৪
Bijoynews24.com
প্রথম পাতা » Slider » চিরিরবন্দরে অচল পা কেটে বাচঁতে চায় প্রতিবন্ধী রবিন্দ্র
শনিবার ● ১৩ জানুয়ারী ২০১৮
Email this News Print Friendly Version

চিরিরবন্দরে অচল পা কেটে বাচঁতে চায় প্রতিবন্ধী রবিন্দ্র

---মোহাম্মাদ মানিক হোসেন চিরিরবন্দর(দিনাজপুর)প্রতিনিধি:

দিনাজপুরের চিরিরবন্দরের বাক প্রতিবন্ধী রবিন্দ্র রায় (৫০) অচল পা কেটে বাকি জীবন বাচঁতে চায়। উপজেলার নশরতপুর ইউনিয়নের ছতিশ মাষ্টার পাড়া গ্রামের মৃত হরপতি রায়ের পূত্র রবিন্দ্র রায় জন্ম থেকেই বাক প্রতিবন্ধী। প্রতিবন্ধী হলেও ফুটবল খেলা থেকে শুরু করে সকল ধরনের খেলাধুলায় পারদর্শী ছিলেন রবিন্দ্র। লেখাপড়া না করায় সাত বছর বয়স থেকেই করতো কৃষি কাজ। বিভিন্ন জায়গায় ক্ষেতখামার ও মানুষের বাড়িতে কাজ করে ভালোই দিন যাচ্ছিলো তার। ১৯৯৮ সালে বিয়ে করে সে। বিয়ে করে প্রথমে দুই ছেলে সন্তানের জনক হলেও জন্মগত কারনেই দুই ছেলেই মারা যায়। দুই ছেলের মৃত্যুর কষ্ট নিয়েই আবারো জীবন চলতে থাকে তার। কিন্তু ভাগ্যর কি নিমর্ম পরিহাস ২০০৮ সালে হঠাৎতে একদিন কৃষি কাজে যাওয়ার পথে সড়ক দূঘর্টনায় তার বাম পা থেতলে যায়। দূঘর্টনার পর বাড়িতে অচল হয়ে পরে ছিলো বছর খানেক। এরই মধ্যে চিকিৎসার কাজে তার গচ্ছিত টাকা খরচ হয়ে যায়। বিভিন্ন জায়গায় ডাক্টার দেখিয়েও হয়নি কোন লাভ। অচল পা নিয়ে সংসারে দেখা দেয় অভাব-অনটন। অভাব-অনটনের সংসারে অচল স্বামীর দিকে তাকিয়ে স্ত্রী জোসনাও মানুষের বাড়িতে কাজ করে অর্থ উর্পাজন করা শুরু করে। কিন্তু তা দিয়েও হয় না। বেঁচে তাকার তাগিতে রবিন্দ্র রায় অচল পা নিয়ে শুরু করে ভিক্ষা বৃত্তি। দশ বছর যাবত ভিক্ষা করেই চলছে তার জীবনযাপন। ৬ মাস হয়েছে রবিন্দ্র আবারো ছেলে সন্তানের বাবা হয়েছেন। কিন্তু বর্তমানে অচল পা নিয়ে ভিক্ষা করেও মুসকিল হয়ে গেছে তার। ভিক্ষা করেই ছেলেকে মানুষ করার চিন্তা থাকলেও বর্তমানে তাও পারছে না রবিন্দ্র। ডাক্টার পা কেটে ফেলার পরামর্শ দিয়েছেন। পা না কাটলে ধীরে ধীরে পুরো শরীর অচল হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে। নিচে থেকে পা ফুলে ব্যাপক হারে ওজন বৃদ্ধি হচ্ছে। যা বহন করে ভিক্ষা করা ভীষন কষ্টকর হয়ে দাড়িয়েচ্ছে তার। অকেজো পা কে ঝামেলা মনে করে দূর্বিসহ দিন কাটাচ্ছে রবিন্দ্র। টাকার অভাবে কাটতে পারছে না অচল পা।

স্থানীয় রণজিত কুমার রায় বলেন, ১০-১১ বছর আগে কৃষি কাজ করেই ভালোই দিন যাচ্ছিলো রবিন্দ্র রায়ের। আর্থিক অবস্থা ভালোই ছিল। ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে আজ তাকে ভিক্ষা করতে হচ্ছে। বাক-প্রতিবন্ধী হয়েও আবার পা টাকে হারিয়েছে রবিন্দ্র । দেখে আমাদের খারাপ লাগে কিন্তু কি করব বলুন।

বাক-প্রতিবন্ধী রবিন্দ্র রায় ইশিরায় সাংবাদিকদের জানান, আমি কঠিন রোগে ভুগছি। রোগের চিকিৎসা করাতে আমার সব কিছুই শেষ হয়ে গেছে। এখন সম্বলহীন। বাড়িতে ছোট একটা ছেলে আর স্ত্রী রয়েছে। তাদের মুখে দুবেলা খাবার দিতে পারি না। কোনো কাজও করতে পারি না। ১০ বছর যাবত ভিক্ষা করে সংসার চললেও কিন্তু এখন শেষ পর্যন্ত ভিক্ষা করেও আর শান্তি পাচ্ছি না। অচল পায়ের ভারে শরীরের ওজন দিগুন হয়ে গেছে। অর্থের অভাবে অচল পা কাটতে পারছি না। আমি অচল পাকে কেটে ফেলে আরো কিছুদিন বাচঁতে চাই। রবিন্দ্র রায়ের স্ত্রী জোসনা রায় তার পা কেটে চিকিৎসার জন্য হৃদয়বান মানুষের কাছে সহায়তার আহ্বান জানিয়েছেন। সহয়তার জন্য-রেজাউল ইসলাম-০১৭২২৮০৯১৪২ ।


রাঙামাটি জেলা পরিষদ কর্তৃপক্ষ জনসাধারনের পায়ে হাটার ফুতপাত কেটে ফেলেছেন

ভৃমিদস্যুদের দখলে বরাখ নদী : মৌলভীবাজারে সরকারী খাস জায়গা জবরদখল করে যুবলীগ নেতার কেজি স্কুল নির্মান


আরো পড়ুন...

নোয়াখালীতে পুলিশের পরিচয়ে এক কিশোরীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ নোয়াখালীতে পুলিশের পরিচয়ে এক কিশোরীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ
অপরাধের শাস্তি ভোগ করছেন খালেদা জিয়া : প্রধানমন্ত্রী অপরাধের শাস্তি ভোগ করছেন খালেদা জিয়া : প্রধানমন্ত্রী
খালেদা জিয়ার জামিনের শুনানি রোববার : জরিমানা স্থগিত খালেদা জিয়ার জামিনের শুনানি রোববার : জরিমানা স্থগিত
শ্বাশুড়ী যখন পুত্রবধু,চাঁদপুরে বিধবা দাদির সন্তান প্রসব, নাতির সাথে বিয়ে!! শ্বাশুড়ী যখন পুত্রবধু,চাঁদপুরে বিধবা দাদির সন্তান প্রসব, নাতির সাথে বিয়ে!!
মাসিক বেতন ১০ হাজার, বাড়ি কিনেছেন আড়াই কোটি টাকার মাসিক বেতন ১০ হাজার, বাড়ি কিনেছেন আড়াই কোটি টাকার
কুষ্টিয়ায় সড়ক সংস্কারসহ ৭দফা দাবীতে কুষ্টিয়ায় মানববন্ধন কুষ্টিয়ায় সড়ক সংস্কারসহ ৭দফা দাবীতে কুষ্টিয়ায় মানববন্ধন
কুষ্টিয়ার পৌর শিশু পার্কে১১ জোড়া প্রেমিক যুগল আটক কুষ্টিয়ার পৌর শিশু পার্কে১১ জোড়া প্রেমিক যুগল আটক
মক্কা শরীফে তাস খেলছেন নারীরা! মক্কা শরীফে তাস খেলছেন নারীরা!
আর ছাপা নয়: পরীক্ষার হলে ডিজিটাল ডিভাইসে ভেসে উঠবে প্রশ্ন আর ছাপা নয়: পরীক্ষার হলে ডিজিটাল ডিভাইসে ভেসে উঠবে প্রশ্ন
কুষ্টিয়ার খোকসায় বিয়ের দাবিতে ছাত্রলীগ নেতার বাড়িতে যুবলীগ নেতার স্ত্রী কুষ্টিয়ার খোকসায় বিয়ের দাবিতে ছাত্রলীগ নেতার বাড়িতে যুবলীগ নেতার স্ত্রী

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
নোয়াখালীতে পুলিশের পরিচয়ে এক কিশোরীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ
অপরাধের শাস্তি ভোগ করছেন খালেদা জিয়া : প্রধানমন্ত্রী
খালেদা জিয়ার জামিনের শুনানি রোববার : জরিমানা স্থগিত
শ্বাশুড়ী যখন পুত্রবধু,চাঁদপুরে বিধবা দাদির সন্তান প্রসব, নাতির সাথে বিয়ে!!
মাসিক বেতন ১০ হাজার, বাড়ি কিনেছেন আড়াই কোটি টাকার
কুষ্টিয়ায় সড়ক সংস্কারসহ ৭দফা দাবীতে কুষ্টিয়ায় মানববন্ধন
কুষ্টিয়ার পৌর শিশু পার্কে১১ জোড়া প্রেমিক যুগল আটক
মক্কা শরীফে তাস খেলছেন নারীরা!
আর ছাপা নয়: পরীক্ষার হলে ডিজিটাল ডিভাইসে ভেসে উঠবে প্রশ্ন
কুষ্টিয়ার খোকসায় বিয়ের দাবিতে ছাত্রলীগ নেতার বাড়িতে যুবলীগ নেতার স্ত্রী
কালীগঞ্জের ফুলের মাঠে নতুন অতিথি ইউরোপের জারবেরা
বগুড়ায় জাপা নেতার পরিবারে এমপি সমর্থকদের হামলা, নারীসহ আহত ৫
গাইবান্ধায় শহীদ দিবস ও আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত
লাখো প্রদীপে নড়াইলবাসীর শহীদ স্মরণ
মানিকগঞ্জের পুলিশ সুপারের একটি মহৎ উদ্যোগ
‘ইয়াবা পাচারে সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড রেখে নতুন আইন হচ্ছে’
সিদ্ধিরগঞ্জে দুলাভাই কর্তৃক শিশু শ্যালিকা ধর্ষন, শাশুড়ির মামলা
গৌরীপুরে বাস-সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে চালকসহ নিহত-৪ : আহত-২
নতুন আইজির ‘আতঙ্কে’ দুর্নীতিগ্রস্ত পুলিশ কর্মকর্তারা
আজ রাজশাহী সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী