ঢাকা, বুধবার, ১৭ জানুয়ারী ২০১৮, ৪ মাঘ ১৪২৪
Bijoynews24.com
প্রথম পাতা » Slider » ‘আমাকে জেলে নিলেই সরকারের পতন হবে’
শুক্রবার ● ১২ জানুয়ারী ২০১৮
Email this News Print Friendly Version

‘আমাকে জেলে নিলেই সরকারের পতন হবে’

---Bijoynews : সপ্তাহে দুইদিন করে গুলশান থেকে বকশীবাজারের অস্থায়ী আদালতে যাচ্ছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। আগে আদালতে যেতে বেগম জিয়ার দারুণ অনীহা ছিল। অন্তত দেড়শবার তিনি সময় নিয়ে আদালতে যাননি। ছয়বার মামলার বিভিন্ন দিক চ্যালেঞ্জ করে উচ্চতর আদালতে গেছেন। বকশী বাজারের আদালত স্থাপন নিয়েও উষ্মা প্রকাশ করেছেন। কিন্তু এখন বেগম জিয়াই বকশীবাজারে যেতে উৎসাহী। মামলার কর্যক্রমেও তিনি অংশ নিচ্ছেন। বকশীবাজার আদালতের চারপাশে নেতা-কর্মীদের উপচে পড়া ভিড় তাঁকে আনন্দ দিচ্ছে। তার আদালতে যাওয়া এবং আসার পথে কর্মীদের উপস্থিতিও তাঁকে স্বস্তি দিচ্ছে। তাই আগামী সপ্তাহে তিনদিন শুনানি দিলেও বেগম জিয়া আপত্তি করেননি। বেগম জিয়ার ‘আদালত যাত্রা’ ঢাকায় বিএনপি সংগঠনে নতুন প্রাণ দিচ্ছে বলে বিএনপির নেতৃবৃন্দ মনে করছেন। বিএনপির একাধিক নেতা বলছেন, এভাবে আর কিছুদিন বেগম জিয়া আদালতে যাওয়া আসা করলে মানুষের ঢল নামবে।

বৃহস্পতিবার আদালতে মধ্যাহ্ন বিরতির সময় আইনজীবীদের সঙ্গে আলাপে বেগম জিয়া ছিলেন উৎফুল্ল। তিনি বলেছেন, ‘লোকজন রাস্তায় নামতে শুরু করেছে। এটা আরও বাড়াতে হবে।’ তিনি বলেন, ‘সরকার আমাদের উপকারই করেছে, আমাদের আন্দোলনের প্রস্তুতি ভালোই হচ্ছে।‘এসময় ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার বিএনপি চেয়ারপারসনকে বলেন, ‘শুধু বিএনপি কর্মী নয় সাধারণ মানুষও এখন আদালত প্রাঙ্গনে আসছেন। এখান থেকেই গণঅভ্যুত্থানের সূচনা হবে।’

বেগম জিয়া বৃহস্পতিবার আদালতে ছিলেন চনমনে। উপস্থিত আইনজীবীদের সঙ্গেও তিনি কথাবার্তা বলেছেন।

বিএনপির একাধিক নেতা বলেছেন, বেগম জিয়ার নিয়মিত আদালতে যাবার ফলে ঢাকার বিএনপি চাঙ্গা হচ্ছে। এই ঢাকাই ছিল বিএনপির ব্যর্থতার প্রধান স্থান। এখন এই সুযোগে বিএনপি মহানগরী সংগঠন গুছিয়ে নিতে পারছে। কর্মীরাও আস্তে আস্তে মনোবল ফিরে পাচ্ছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, বেগম জিয়ার আদালতে যাওয়া আসার পথে কর্মীর সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। কেন্দ্রীয়ভাবে কর্মীদের নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে তাঁরা যেন সড়কের পাশে অবস্থান নেয়।

বিএনিপির একজন নেতা বলেছেন, ‘বেগম জিয়ার এই চলাচল ঢাকায় গণঅভ্যুত্থানের পটভূমি তৈরি করেছে।’ বিএনপির অন্য নেতা আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী মনে করেন, দেশে গণঅভ্যুত্থানের সব রসদই মজুত আছে। দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতি, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি, গুম-খুন, ব্যাংক ডাকাতি ইত্যাদি কারণে মানুষের দমবন্ধ অবস্থা। এ অবস্থায় বিএনপি চেয়ারপারসনের মামলা বারুদের স্তুপে একটা দেয়াশলাই এর মতো কাজ করতে পারে।’ বিএনপি নেতারা বলছেন তাঁরা রাজপথে গণঅভ্যুত্থানের গন্ধ পাচ্ছেন। সেজন্যই মামলার রায়ের দ্বারপ্রান্তে দাঁড়িয়ে ফুরফুরে বেগম জিয়া। বৃহস্পতিবারও আদালতে বলেছেন, ‘আমার কিছুই হবে না, আমাকে জেলে নিলেই সরকারের পতন হবে।’ বেগম জিয়া এটাও তাঁর আইনজীবীদের বলেছেন, ‘এই মামলা চালিয়ে সরকার নিজেই নিজের করব খুঁড়েছে।’


সুন্দরবনে বন্দুকযুদ্ধে ৩ দস্যু নিহত

রংপুরে ক্লিনিক মালিকের বিরুদ্ধে আয়াকে ধর্ষণের অভিযোগে: মালিক গ্রেফতার


পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
কুষ্টিয়া পল্লী বিদ্যৎ সমিতির গাফিলতিতে শ্রমিকের মৃত্যু
রণক্ষেত্র নারায়ণগঞ্জ, আইভীসহ আহত শতাধিক
আট ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল ঘোষণা
সন্ধ্যায় চূড়ান্ত হচ্ছে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর নাম
কুষ্টিয়ায় নিয়ন্ত্রন হারিয়ে বাস খাদে, হেলপার নিহত:আহত -১৫
ডিএনসিসি নির্বাচনে সেনা মোতায়েন করুন: রিজভী আহমেদ
৭০ অনুচ্ছেদের বৈধতা প্রশ্নে বিভক্ত আদেশ হাইকোর্টের
ডিএনসিসিতে সালিশ বৈঠকে অপু
বাগদাদে আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহত কমপক্ষে -৩৮
৮ উইকেটের দাপুটে জয় পেল বাংলাদেশ
বিয়ের প্রলোভনে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ: শাবি ছাত্র গ্রেপ্তার
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে প্রণব মুখার্জির সাক্ষাৎ
আওয়ামী লীগ নেতা প্রভাষ রায় হত্যা মামলা: ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৯ জনের মৃত্যুদণ্ড
অস্ত্র মামলায় গাংনীর পৌর মেয়রের ১০ বছর কারাদণ্ড
ডিআইজি মিজানের ‘স্বর্ণকমল’ ও পরিবারের ক্ষমতার দাপট
রাজশাহীতে অতিরিক্ত মদপানে কলেজছাত্রীর মৃত্যু
প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য জাতিকে হতাশ করেছে: বিএনপি
ভৃমিদস্যুদের দখলে বরাখ নদী : মৌলভীবাজারে সরকারী খাস জায়গা জবরদখল করে যুবলীগ নেতার কেজি স্কুল নির্মান
চিরিরবন্দরে অচল পা কেটে বাচঁতে চায় প্রতিবন্ধী রবিন্দ্র
রাঙামাটি জেলা পরিষদ কর্তৃপক্ষ জনসাধারনের পায়ে হাটার ফুতপাত কেটে ফেলেছেন