ঢাকা, বুধবার, ১৭ জানুয়ারী ২০১৮, ৪ মাঘ ১৪২৪
Bijoynews24.com
প্রথম পাতা » Slider » খালেদার আইনজীবীরা আদালতে কান্নাকাটি করছেন: রাষ্ট্রপক্ষ
বৃহস্পতিবার ● ১১ জানুয়ারী ২০১৮
Email this News Print Friendly Version

খালেদার আইনজীবীরা আদালতে কান্নাকাটি করছেন: রাষ্ট্রপক্ষ

---Bijoynews : উচ্চ আদালতে ৫০ বার আপিল করে ব্যর্থ হয়ে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা এখন আদালতে কান্নাকাটি করছেন বলে মন্তব্য করেছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মো: মোশাররফ হোসেন কাজল।

বৃহস্পতিবার জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার ১০ম দিনের (খালেদা জিয়ার পক্ষে ৯ম) যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

্এর আগে বেগম খালেদা জিয়ার পক্ষে ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ যুক্তি উপস্থাপনে বলেন: এটি  ফৌজদারি মামলার আবরণে রাজনৈতিক মামলা।  পশ্চিমা দেশগুলোতে এ ধরনের মামলাগুলোকে বলা হয় ‘বানোয়াট মামলা’। খালেদা জিয়ার জনপ্রিয়তার কারণে এ মামলা এখনো চলছে। নয়তো প্রথম দিনেই এই মামলা খারিজ হয়ে যেতো।

ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ
তিনি বলেন: এ মামলা এখানে কেন? এখানে কোর্টের কোন পরিবেশ নেই। লজিস্টিক সাপোর্ট নেই। তার মধ্যে আরো ১৪টি মামলা এখানে নিয়ে আসা হয়েছে। এখানে কেন? এটি ক্যামেরা ট্রাইলের জন্য।  এই আদালতে আসামী তার মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এটি সংবিধানের লঙ্ঘন।

মওদুদ বলেন: এ মামলার অভিযোগগুলোর কোন ভিত্তি নেই। এটি একটি প্রাইভেট ট্রাস্ট। শহীদ জিয়ার সঙ্গে কুয়েতের আমিরের একটা বন্ধুত্বের জন্য তার নামে ট্রাস্টে আসছে এই অর্থটা। সরকারি কোন অর্থ না তা। কাজেই এ মামলা রাজনৈতিক।

মওদুদ আহমদের এসব বক্তব্যের জবাবে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী বলেন: খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা এই  মামলা খারিজ করে দেয়ার জন্য  উচ্চ আদালতে গিয়েছেন ৫০ বার। তারা বলছেন, এ মামলার কোন অস্তিত্বই থাকতে পারে না। কিন্তু সমস্ত চেষ্টা চালিয়ে তারা ব্যর্থ হয়েছে। আর এখন আদালতে কান্নাকাটি করছেন।

‘তারা যে মামলা খারিজের কথা বলছেন তা অমূলক। এসব তারা বাঁচার জন্য বলছেন। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট গঠিত হয় ১৯৯৩ সালে। অথচ টাকা আসলো ১৯৯১ সালে। তাহলে তা কিভাবে ব্যক্তিগত হলো?  ঘোড়ার আগে গাড়ি নাকি গাড়ির আগে ঘোড়া; ঠিক বুঝতে পারছি না। মূলত তিনি প্রধানমন্ত্রী থাকা অবস্থায় তার কাছে টাকা এসেছে। তারা বলছেন টাকা ব্যাংকে আছে। তাহলে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের টাকা কোথায়? এর অস্তিত্ব কোথায়?’, বলেন মোশাররফ হোসেন কাজল। 

তিনি জানান: তারা মূলত যতো রকম রাজনৈতিক বক্তব্য দেয়া যায় তা দিচ্ছে।  মূলত রাজনৈতিক স্ট্যান্ড চলছে। তাদের আরগুমেন্টে আইন নেই। এসব রাজনৈতিক বক্তব্য। এতদিন ব্যারিস্টার মওদুদ এবং জমির উদ্দীন সরকারেরা এ মামলা পরিচালনা করেননি। তারা এখন কেন আসলেন?  আসলে তারা বাঁচার চেষ্টা করছেন। আমরা আসামীদের যাবজ্জীবন সাজা চেয়েছি। আশা করি তা হবে।

আগামী ১৬, ১৭ ও ১৮ জানুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেছেন আদালত।


অন্যের স্ত্রী নিয়ে পালালেন জাপার মেয়র প্রার্থী

চিরিরবন্দরে ৩ দিন ব্যাপী উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন


পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
কুষ্টিয়া পল্লী বিদ্যৎ সমিতির গাফিলতিতে শ্রমিকের মৃত্যু
রণক্ষেত্র নারায়ণগঞ্জ, আইভীসহ আহত শতাধিক
আট ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল ঘোষণা
সন্ধ্যায় চূড়ান্ত হচ্ছে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর নাম
কুষ্টিয়ায় নিয়ন্ত্রন হারিয়ে বাস খাদে, হেলপার নিহত:আহত -১৫
ডিএনসিসি নির্বাচনে সেনা মোতায়েন করুন: রিজভী আহমেদ
৭০ অনুচ্ছেদের বৈধতা প্রশ্নে বিভক্ত আদেশ হাইকোর্টের
ডিএনসিসিতে সালিশ বৈঠকে অপু
বাগদাদে আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহত কমপক্ষে -৩৮
৮ উইকেটের দাপুটে জয় পেল বাংলাদেশ
বিয়ের প্রলোভনে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ: শাবি ছাত্র গ্রেপ্তার
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে প্রণব মুখার্জির সাক্ষাৎ
আওয়ামী লীগ নেতা প্রভাষ রায় হত্যা মামলা: ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৯ জনের মৃত্যুদণ্ড
অস্ত্র মামলায় গাংনীর পৌর মেয়রের ১০ বছর কারাদণ্ড
ডিআইজি মিজানের ‘স্বর্ণকমল’ ও পরিবারের ক্ষমতার দাপট
রাজশাহীতে অতিরিক্ত মদপানে কলেজছাত্রীর মৃত্যু
প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য জাতিকে হতাশ করেছে: বিএনপি
ভৃমিদস্যুদের দখলে বরাখ নদী : মৌলভীবাজারে সরকারী খাস জায়গা জবরদখল করে যুবলীগ নেতার কেজি স্কুল নির্মান
চিরিরবন্দরে অচল পা কেটে বাচঁতে চায় প্রতিবন্ধী রবিন্দ্র
রাঙামাটি জেলা পরিষদ কর্তৃপক্ষ জনসাধারনের পায়ে হাটার ফুতপাত কেটে ফেলেছেন