শিরোনাম:
●   সিলেটে স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে ধর্ষণ ●   মালয়েশিয়ায় ৫৫ বাংলাদেশি শ্রমিক গ্রেপ্তার ●   আলোচনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ৪৩ ধারা ●   চাকরি না পেয়ে সুইসাইড নোট লিখে খুবি ছাত্রের আত্মহত্যা ●   গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে কুষ্টিয়ার নবাগত পুলিশ সুপারের মতবিনিময় ●   সিএনজি থেকে লাফ দিয়েও বাঁচতে পারলনা প্রিয়া! ●   জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কনক কান্তি দাস এবার ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে দর্শনার্থীদের জন্যে নির্মাণ করে দিলেন অত্যাধুনিক বিশ্রমাগার ●   জকিগঞ্জে আবারো শ্রেণি কক্ষে এক শিক্ষিকাকে ঘুমে পেলেন উপজেলা চেয়ারম্যান ●   কুষ্টিয়ায় হঠাৎ বাস বন্ধ করে দিলেন পরিবহনশ্রমিকেরা ●   স্বাধীনতা বিরোধী জঙ্গী সঙ্গীদের ক্ষমতায় যেতে দেওয়া হবে না —তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু
ঢাকা, রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫
Bijoynews24.com
মঙ্গলবার ● ২৬ ডিসেম্বর ২০১৭
প্রথম পাতা » Slider » ঘুষ কি উপাদেয় খাদ্য?
প্রথম পাতা » Slider » ঘুষ কি উপাদেয় খাদ্য?
৪৫ বার পঠিত
মঙ্গলবার ● ২৬ ডিসেম্বর ২০১৭
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

ঘুষ কি উপাদেয় খাদ্য?

( শিক্ষামন্ত্রী জাতিকে শিক্ষা দিলেন এই বলে যে, খালি অফিসাররা চোর না,মন্ত্রীরাও চোর -আমিও চোর । আবার বল্লেন, ঘুষ খান তবে সহনীয় পর্যায়ে । একজন দায়িত্বশীল মন্ত্রীর এ ম্যাসেজ থেকে জাতি কি শিক্ষা নিলো ?
ঘুষ নিয়ে আমার লেখাটি পড়ুন আর কমেন্ট করুন।)

: শামসুল আলম স্বপন :

---মাসের শেষে একজন রাজকর্মচারীর স্ত্রী তার শিশু সন্তানের সামনে স্বামীকে জিজ্ঞেস করলো –হ্যাগো এ মাসে তুমি কত ঘুষ খেয়েছ? স্বামীর জবাবের আগেই অবুঝ শিশুটি বাবাকে আগ্রহ ভরে প্রশ্ন করলো “ঘুষ কি বাবা ”? বাবা থতমত খেয়ে তাৎক্ষণিক জবাব দিল – “ঘুষ একটি উপাদেয় খাদ্য”। তখনই শিশুটি হাত পা ছুড়ে কেদেঁ কেদেঁ বলতে লাগলো ”- তাহলে এতদিন আমাকে ঘুষ খেতে দাওনি কেন? ঘুষ এনে দাও আমি খাব। বাবা হতবাক; মা নির্বাক ।

কৌতুকটি হয়তো অনেকেরই গাত্রোদাহ হবে, আবার হয়তো বা অনেকেরই হাসির খোরাক যোগাবে। কিন্তু যে অবুঝ শিশুটি ঘুষকে খাদ্য ভেবে খাওয়ার জন্য পিতার কাছে আকুল আর্তি জানালো, আমরা পারবো কি সেই শিশুটির মনে ঘুষ সম্পর্কে খারাপ ধারণা দিতে ? ঘৃণা জন্মাতে? যে শিশুটি পতিতালয়ে জন্মায় সেকি তার মাকে এবং মায়ের পেশাকে ঘৃণা করতে পারে ?

তিন যুগ আগেও ঘুষখোরের সাথে কেউ বৈবাহিক সম্পর্ক স্থাপন করতো না । এমনকি ঘুষকে এতই ঘৃণা করা হত যে ঘুষখোরের বাড়ীর পানি পর্যন্ত কেউ পান করতো না। সামাজিক ভাবে ঘুষখোরকে বয়কট করা হত। কিন্তু আজ আর ঘুষের সেই দূর্দিন নেই। ঘুষখোর এখন আর নিন্দিত নয়, বরং অভিজাত আর উঁচুতলার মানুষ হিসেবে সমাজ নন্দিত। ঘুষখোর জামাইয়ের শ্বশুর এখন পান চিবুতে চিবুতে গালের দু’পাটির দাঁত বের করে গর্বভরে বলতে- পারে “ বেতন যাই হোক ,জামাই আমার অনেক টাকা উপরি কামাই করে।” ঘুষখোর সন্তানের গর্বিত পিতা বুকের ছিনা ফুলিয়ে এখন বলতে পারে, দু’ বছর চাকরি না করতেই রাজধানীর বুকে বাড়ী তৈরী করা চারটেখানি কথা নয়। ছেলেটি কার দেখতে হবে তো? বেতনের টাকা তো ছেলে আমার খরচই করে না।কন্যা দায়গ্রস্ত পিতা এখন চাকুরীজীবি পাত্রের মাইনে দেখে না , দেখে পাত্রের অফিসে অবৈধ মালপানি কামানোর পথ আছে কিনা। কালের ব্যবধানে ঘুষ আজ সামাজে স্বীকৃত সে কথা বলার অপেক্ষা রাখে না । ঘুষ কাকে বল, কত প্রকার এবং কি কি, এধরনের প্রশ্নের জবাব দেওয়া বড়ই কঠিন ব্যাপার । দুই একটি শব্দের মাধ্যমে ঘুষের সংজ্ঞা দেওয়াও অসম্ভব।

তবে ঘুষ কি তা শিক্ষিত অশিক্ষিত, ধনী- দরিদ্র, পুরুষ –মহিলা, বালক – বৃদ্ধ সকলেই জানেন এবং বোঝেন । ঘুষ কখনো অর্থ , কখনো স্বত্ত্ব,কখনো চা- পান , কখনো রমণী,কখনো বেনসন সিগারেট, কখনো মিষ্টি, কখনো ফজলী আম, কখনো অর্নামেন্ট, কখনো স্যুট পিচ ,কখনো পুকুরের মাছ , কখনো গাছের তরিতরকারী। ঘুষকে আজ আর কেউ বাহতের কামাই বলে না , ওটা যেন সেকেলে ব্যাপার। ঘুষের দাপট দেশের সর্বোচ্চ ক্ষমতাধর ব্যক্তি থেকে শুরু করে চৌকিদার পর্যন্ত বিস্তৃত। সাবেক একজন রাষ্ট্রপতি, তার ডজন খানেক মন্ত্রী, এমপি, আমলা ও তালাথানার নন্দলাল চৌকিদার তার প্রত্যক্ষ প্রমাণ।

নামের আগে আলহাজ্ব, মাথায় টুপি, মুখে রাসুলের সুন্নত, চেহারায় মোত্তাকীন , নামাজও পড়ছে ঘুষও খাচ্ছে এমন লোকের অভাব নেই আমাদের সমাজে । তাদের থিওরী ঘুষ খেয়ে পাপ করি, নামাজ পড়ে পূণ্য করি অর্থাৎ সমানে সমান। ঘুষদাতার যেমন রকমভেদ আছে ঘুষ গ্রহীতারও তেমন রকম ভেদ আছে । কেউ ইচ্ছা করে ঘুষ দেয় ,কেউ বাধ্য হয়ে। আবর কেউ ইচ্ছে করে ঘুষ খায়। মজার ব্যাপার হল ক্ষেত্র বিশেষে ঘুষ খেলেও বিপদ আবার না খেলেও বিপদ। ঘুষ খাওয়ার অপরাধে চাকুরী যায় আবার না খাওয়ার অপরাধেও চাকুরী যায়। যা আমরা বিটিভির “আইন আদালত ” অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রত্যক্ষ করেছিলাম। ঘুষ এবং দূর্নীতি দমনের জন্য সরকার “দূর্নীতিদমন” বিভাগ নামে একটি সংস্থা সৃষ্টি করেছেন। দূর্নীতিদমন বিভাগ কেমন ভাবে দূর্নীতি দমন করেন তা সমাজের প্রতিটি লোকেরই জানা । এ কথা পত্রিকায় লিখে আমি কারোর স্ত্রীর ভাই হতে চাই না।

দেশের এমন কোন প্রতিষ্ঠান বা বিভাগ নেই যেখানে ঘুষ আর দূর্নীতি শব্দ দু’টি’ নেই। আমরা যারা তথাকথিত দেশদরদী, শিক্ষিত সম্প্রদায়, সমাজের উঁচু তলার লোক তারা ঐ দু’টি শব্দের সাথে ঘনিষ্ঠ ভাবে সম্পূক্ত। আমরা সবাই একটি স্মোগানের সাথে কম বেশী পরিচিত আর তা হল “শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড”। কিন্তু দূর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য যে, শিক্ষা বিভাগ আজ ঘুষ দূর্নীতির আখড়ায় পরিণত হয়েছে । শিক্ষা বিভাগের দূর্নীতির কথা শুনে পুলিশ ও বিচার বিভাগের কর্মচারীরাও হাসে । আমাদের জাতীয় সংসদ যদি ঘুষ চাইলে ঘুষি মারার বিধান পাশ করতো তাহলে জাতির কি এই অবস্থা হত?

ইসলামে ঘুষ হারাম। ঘুষদাতা আর ঘুষ গ্রহীতা কিয়ামতের দিন জাহান্নামের খড়ি হবে। এ ভয়াবহ শাস্তির কথা কি ঘুষ খাওয়ার আগে বা দেওয়ার আগে আমাদের একটিবারও মনে পড়ে না? আমরা যদি ইসলামকে অনুস্মরণ করতাম তা হলে ঘুষ খেতামও না, ঘুষ দিতামও না । ঘুষ নামের কালব্যাধি আজ প্রবেশ করেছে জাতির রন্দ্রে রুন্দ্রে । ঘুষ যেন এক বিষধর কালসাপ – এর ছোবল থেকে জাতি কি নিস্কৃতি পেতে পারে না?

স্বৈরাচার পতনের পর দেশবাসী আশা করেছিল দেশ থেকে দুর্নীতির মূলোচ্ছেদ হবে। কিন্তু সে আলামত দেখা যাচ্ছে না । বর্তমান দেশপ্রেমিক গণতান্ত্রিক সরকারের কাছে আমাদের প্রত্যাশা দেশকে যদি বাঁচাতে চান তবে সর্বাগ্রে দেশ থেকে ঘুষ দূর্নীতির মূলোচ্ছেদ করুন। প্রচলিত আইন যদি দূর্নীতি দমনে ব্যর্থ হয় তবে ইসলামী বিধানের মাধ্যমে কঠোর ব্যবস্থা নিন । আর যেন কোন ঘুষখোর সদর্পে বলতে না পারে “ঘুষ একটি উপাদেয় খাদ্য” । নতুন প্রজন্ম যেন ঘৃণা ভরে বলতে পারে “বাবা ঘুষ খেও না, ঘুষ খাওয়া হারাম। ”

www.bijoynews24.com

লেখক : শামসুল আলম স্বপন

সভাপতি

বাংলাদেশ অনলাইন নিউজ পোর্টাল এেোসিয়েশন (বনপা)

সম্পাদক

বিজয় নিউজ ২৪ ডটকম

মোবা: ০১৭১৬৯৫৪৯১৯



Slider এর আরও খবর

সিলেটে স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে ধর্ষণ সিলেটে স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে ধর্ষণ
মালয়েশিয়ায় ৫৫ বাংলাদেশি শ্রমিক গ্রেপ্তার মালয়েশিয়ায় ৫৫ বাংলাদেশি শ্রমিক গ্রেপ্তার
আলোচনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ৪৩ ধারা আলোচনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ৪৩ ধারা
চাকরি না পেয়ে সুইসাইড নোট লিখে খুবি ছাত্রের আত্মহত্যা চাকরি না পেয়ে সুইসাইড নোট লিখে খুবি ছাত্রের আত্মহত্যা
গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে কুষ্টিয়ার নবাগত পুলিশ সুপারের মতবিনিময় গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে কুষ্টিয়ার নবাগত পুলিশ সুপারের মতবিনিময়
সিএনজি থেকে লাফ দিয়েও বাঁচতে পারলনা প্রিয়া! সিএনজি থেকে লাফ দিয়েও বাঁচতে পারলনা প্রিয়া!
জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কনক কান্তি দাস এবার ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে দর্শনার্থীদের জন্যে নির্মাণ করে দিলেন অত্যাধুনিক বিশ্রমাগার জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কনক কান্তি দাস এবার ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে দর্শনার্থীদের জন্যে নির্মাণ করে দিলেন অত্যাধুনিক বিশ্রমাগার
জকিগঞ্জে আবারো শ্রেণি কক্ষে এক শিক্ষিকাকে ঘুমে পেলেন উপজেলা চেয়ারম্যান জকিগঞ্জে আবারো শ্রেণি কক্ষে এক শিক্ষিকাকে ঘুমে পেলেন উপজেলা চেয়ারম্যান
কুষ্টিয়ায় হঠাৎ বাস বন্ধ করে দিলেন পরিবহনশ্রমিকেরা কুষ্টিয়ায় হঠাৎ বাস বন্ধ করে দিলেন পরিবহনশ্রমিকেরা
স্বাধীনতা বিরোধী জঙ্গী সঙ্গীদের ক্ষমতায় যেতে দেওয়া হবে না  —তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু স্বাধীনতা বিরোধী জঙ্গী সঙ্গীদের ক্ষমতায় যেতে দেওয়া হবে না —তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
সিলেটে স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে ধর্ষণ
মালয়েশিয়ায় ৫৫ বাংলাদেশি শ্রমিক গ্রেপ্তার
আলোচনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ৪৩ ধারা
চাকরি না পেয়ে সুইসাইড নোট লিখে খুবি ছাত্রের আত্মহত্যা
গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে কুষ্টিয়ার নবাগত পুলিশ সুপারের মতবিনিময়
সিএনজি থেকে লাফ দিয়েও বাঁচতে পারলনা প্রিয়া!
জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কনক কান্তি দাস এবার ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে দর্শনার্থীদের জন্যে নির্মাণ করে দিলেন অত্যাধুনিক বিশ্রমাগার
জকিগঞ্জে আবারো শ্রেণি কক্ষে এক শিক্ষিকাকে ঘুমে পেলেন উপজেলা চেয়ারম্যান
কুষ্টিয়ায় হঠাৎ বাস বন্ধ করে দিলেন পরিবহনশ্রমিকেরা
স্বাধীনতা বিরোধী জঙ্গী সঙ্গীদের ক্ষমতায় যেতে দেওয়া হবে না —তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু
গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া ওসির বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মলনে সোস্যাল মিডিয়ায় সমালোচনার ঝড়
পঞ্চগড়ে শিক্ষার্থীদের নিয়ে স্কুল ব্যাংকিং সম্মেলন ও মেলা অনুষ্ঠিত
কমলগঞ্জে বিদেশে পাঠানোর নামে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ
দৌলতপুরে ১৩ টি ককটেল সহ বি.এন.পির ৫ নেতা-কর্মী আটক
নতুন পরিচয়ে জেনিফা
গোপালগঞ্জে জমি নিয়ে সংঘর্ষে আহত ২৫
কমলগঞ্জে ছেলে-মেয়ে দুইজন অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত
যুক্তরাষ্ট্রে নারী বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ৩
চট্টগ্রাম সরকারি কলেজ প্রকাশ্যে অস্ত্রধারী সেই ছাত্রলীগ নেতা গ্রেপ্তার
বেনাপোল সীমান্ত থেকে বিপুল পরিমান অস্ত্র ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার