ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ জুন ২০১৮, ৭ আষাঢ় ১৪২৫
Bijoynews24.com
প্রথম পাতা » Slider » বরিশালে প্রেমিকাকে গণধর্ষণের পর হত্যা: গ্রেফতার ২
বুধবার ● ৬ ডিসেম্বর ২০১৭
Email this News Print Friendly Version

বরিশালে প্রেমিকাকে গণধর্ষণের পর হত্যা: গ্রেফতার ২

---Bijoynews : বরিশালের ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজির প্যাথলজি বিভাগের ছাত্রীকে বেড়াতে নিয়ে মঠবাড়িয়ার খেজুরতলা নামকস্থানে গণধর্ষণ শেষে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে প্রেমিক ও তার সহযোগিরা। হত্যার পর ঐ ছাত্রীর লাশ বলেশ্বর নদীতে ভাসিয়ে দেয়া হয়।

গত ১৯ নভেম্বর এ ঘটনার ১৬দিন পর তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে অভিযুক্ত তিন আসামির মধ্যে দুইজনকে গ্রেফতার করেছে বরিশাল কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলো- সিরাজ ও হাফিজ (১৪)।

সোমবার সন্ধ্যায় কোতোয়ালি মডেল থানায় প্রেস ব্রিফ্রিংয়ে মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার সাইফুল্লাহ মো. নাসের জানান, ১৯ নভেম্বর বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব হেলথ্ অ্যান্ড টেকনোলজির প্যাথলজি বিভাগের ছাত্রী ও বরিশাল নগরীর অক্সফোর্ড মিশন রোডের আলমগীর খানের মেয়ে সাদিয়া আক্তার প্রেমিক সিরাজের সঙ্গে মঠবাড়িয়ায় বেড়াতে যায়। মঠবাড়িয়ায় নিয়ে গিয়ে সিরাজ ও তার ফুফাতো ভাই নাজমুল ইসলাম নয়ন ওরফে সমীর কৌশলে সাদিয়াকে খেজুরবাড়ি এলাকার মাঠে নিয়ে ধর্ষণ করে।

পরে বিষয়টি স্থানীয় কিশোর হাফিজ দেখে ফেললে তাকে ফাঁসানোর কথা বলে সিরাজ ও সমীর তাদের কথা মত চলতে বলে এবং হাফিজও ঐ ছাত্রীকে ধর্ষণ করে। সাদিয়া ডাক-চিৎকার করলে সিরাজ ও সমীর তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে লাশ গুম করার লক্ষ্যে বলেশ্বর নদীতে ভাসিয়ে দেয়।

পাশাপাশি নদীতে ফেলে দেয়া হয় সাদিয়ার ব্যবহৃত মালামালগুলোও। তবে কানের একটি বলরিং খুলে রাখে সিরাজ। যা সিরাজকে আটকের সময় তার বসত ঘর থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত সাদিয়ার লাশ উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। এছাড়া আটক দুই আসামি সত্যতা স্বীকার করেছেন।

বরিশাল কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহ্ মো. আওলাদ হোসেন জানান, কলেজ ছাত্রী সাদিয়া নিখোঁজের পর তার বাবা আলমগীর খান একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

তিনি ওই ডায়েরিতে উল্লেখ করেন, ২৩নং ওয়ার্ডস্থ তার শ্যালক জালাল হাওলাদারের বাসা থেকে কলেজের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়। সেই থেকেই ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তার কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। ২ ডিসেম্বর থেকে

এসআই ওয়াহাবের নেতৃত্বে অভিযান চালানো হয় এবং রোববার তাদের মধ্যে দুইজনকে আটক করতে সক্ষম হয় পুলিশ। আসামিদের মধ্যে দুইজনকে আটক করা হলেও সমীর নামের আরেক আসামি এখনো পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।


ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় লম্পট শিক্ষক কারাগারে

ভাঙ্গা চুরা আবাসিক ভবন পরিবার নিয়ে বসবাস করতে পারছেনা ফুলবাড়ী থানার পুলিশ কর্মকর্তা-কর্মচারীরা


পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
শ্বাসরুদ্ধকর অপেক্ষা
নতুন সেনা প্রধান লে.জে. অাজিজ অাহমেদের বর্নিল জীবন
যে যুবতী ফুটবল মাঠে পোশাকের তোয়াক্কা করেন না
ফুলবাড়ী রেলওয়ে স্টেশনে ট্রেনের টিকিট কালোবাজারীদের হাতে : দেখার কেউ নেই
আনুষ্কার সঙ্গে সম্পর্ক, মুখ খুললেন প্রভাস
৪ মিনিটে মিশরের জালে আরো ২ গোল রাশিয়ার
প্রচারণায় কেন্দ্রীয় নেতারা উত্তেজনা বাড়ছে
অপরিবর্তিত বন্যা পরিস্থিতি : কুশিয়ারা নদীর বাঁধে নতুন করে ভাঙ্গন : শহর রক্ষা বাঁধ সংস্কারে কাজ শুরু
গাইবান্ধায় মাদক বিরোধী অভিযানে : গ্রেফতার ৭
খালেদা জিয়ার মুক্তি ও চিকিৎসার দাবিতে বিএনপির বিক্ষোভ বৃহস্পতিবার
রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর স্বাক্ষাৎ
পর্যটকের ভীড়ে মুখর পাহাড় ঘেরা বান্দরবান!
জাপানের ঐতিহাসিক জয়
২১ জুলাই প্রধানমন্ত্রীকে গনসংবর্ধনা দেওয়া হবে
কুতুবদিয়া থানার সাবেক ওসি আলতাফ জেলহাজতে
ড. মোশারফের গাড়িবহরে বাসের ধাক্কা, ছাত্রদল নেতা নিহত
উখিয়ায় ক্যাম্পে রোহিঙ্গা নেতাকে গলাকেটে হত্যা
আনুশকা রেগে গেলেন যে কারণে
বিমানে আগুন, অল্পের জন্য রক্ষা পেল সৌদি আরব দল
রাজধানীতে সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল চালক নিহত