ঢাকা, রবিবার, ২৪ জুন ২০১৮, ১০ আষাঢ় ১৪২৫
Bijoynews24.com
প্রথম পাতা » Slider » রাজশাহী কারা হাসপাতালের বেড বাণিজ্যে ডাঃ সায়েম
মঙ্গলবার ● ২৮ নভেম্বর ২০১৭
Email this News Print Friendly Version

রাজশাহী কারা হাসপাতালের বেড বাণিজ্যে ডাঃ সায়েম


---হাবিব জুয়েল, রাজশাহী: বাংলদেশের প্রতিটি কারাগারে একটি করে হাসপাতাল রয়েছে। এটা বোধহয় সরকারের তরফ থেকে বন্দিদের জন্য দেওয়া অনেক বড় উপহার। সেই কারা হাসপাতালে কি ঘটছে প্রতিনিয়ত তার মোটামুটি বিবরণ সরকার জানেন তাতে কোন সন্দেহ নেই। সম্প্রতি রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের হাসপাতালে নানা রকমের অনিয়মের অভিয়োগ উঠেছে। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নাকের ডগার সামনেই ঘটছে ওই সকল কর্মকান্ড। প্রকৃত অসুস্থরা থাকেন সাধারণ ওয়ার্ডে। অর্থের বিনিময়ে মেডিকেল বেডে রাজত্ব করেন সাধারণরা এমনই তথ্য পাওয়া গেছে।

তবে ডিআইজি প্রিজন ও সিনিয়র জেল সুপারের পরিদর্শনের দিনে পাল্টে যায় মেডিকেলের দৃশ্যপট। তখন লোক দেখানোর জন্য সত্যিকারের অসুস্থ বন্দীদের হাজির করা হয় মেডিকেলে। শুধু তাই নয় মেডিকেলের ওয়ার্ড ও জরুরী বিভাগ পরিস্কার করাসহ যাবতীয় নতুন নতুন জিনিস লাগিয়ে ঝকঝকে করা হয়। তবে পরিদর্শন শেষ হয়ে গেলে আবার অসুস্থদের পাঠানো হয় সাধারণ ওয়ার্ডে। সদ্য কারাগার থেকে বের হয়ে আসা বন্দীদের থেকে এমনই  তথ্য প্রকাশ হয়েছে।

কারা সূত্রে জানা যায়, রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে অসুস্থ বন্দীদের চিকিৎসার জন্য ৪টি ওয়ার্ড রয়েছে। এখানে কোন পরিদর্শক ও সিনিয়র জেল সুপার কখানো যান না। যার কারণে সকল অপকর্ম করেন দায়িত্বরত কর্মচারী ও ডাক্তার। মেডিকেলে অসুস্থদের ফ্রি চিকিৎসা ও ঔষুধ দেওয়ার নিয়ম হলেও চিত্রপট সম্পূর্ণ আলাদা।অসুস্থ ছাড়া যারা অসুস্থ মেডিকেলে থাকতে চান তাদের সেখানে থাকতে গুনতে হয় দিন প্রতি ১০০ টাকা।আর রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের হাসপাতালের মেডিকেলে থাকার সব বন্দোবস্ত করে দেন ডাঃ এসএম সায়েম। টাকা দিলেই যাবতীয় দায়িত্ব তাদের ঘাড়ে। আর এই টাকা পরিশোধ করা হয় বিকাশে।

তবে সম্প্রতি রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারা হাসপাতালের ডাঃ সায়েমের দুর্নীতি নিয়ে মুখ খুলতে শুরু করেছেন অনেকেই ।সম্প্রতি কারা হাসপাতালের দ্বায়িত্বে থাকা এই চিকিৎসক সীমাহীন দুর্নীতি ও অনিয়মের সাথে জড়িয়ে গেছেন।সেই সাথে রাতারাতি গড়ে তুলছেন রাজশাহী নগরীর বিজিবি হেড কোয়ার্টারের পাশে “পারিজাত” নামের বিলাস বহুল বহুতল বাড়ি ও  নাম না জানা আরো সম্পদ ।

কারা সূত্রে আরো নিশ্চিত হয় যায় ,গত বছর অক্টবর মাসে এই কারাগারের খোকন (৬৫) নামের একজন বন্দী মারা যায়। তাঁর বাড়ি নওগাঁয়। তিনি হৃদ্রোগে ভুগছিলেন। কারা হাসপাতালের চিকিৎসকের অবহেলার কারণেই তার মৃত্যু হয় বলে জানা যায়।

এর আগে ২০১৬ সালের ৫ জুলাই কারাগারের একজন বন্দী আত্মহত্যা করেন। তাঁকেও সে সময় প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার সময় পাওয়া যায়নি। সেই সাথে দায়িত্ব অবহেলার কারণে প্রধান কারারক্ষী আমজাদ হোসেন ও কারারক্ষী শুকুর উল্লাহকে ওই ঘটনায় সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছিল।কিন্তু কারা হাসপাতালের এই চিকিৎসক থেকেই যান অন্তরালে।

২০১১ সালের ২১ মার্চ পাবনা কারাগার থেকে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত কয়েদি পাবনা সদর থানার রামচন্দ্রপুর গ্রামের রফিকুল ইসলাম (৫০) ও হাজতি একই থানার মন্দিরপুর গ্রামের আবদুল জলিলকে (৫৫) চিকিৎসার জন্য রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়। কারা হাসপাতালে সুচিকিৎসা না হওয়ায় তাঁদের পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছিল  তাঁরা দুজনই চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।………….পরবর্তী সংখ্যায় বিস্তারিত


বিডিআর বিদ্রোহ : ১৩৯ আসামির মৃত্যুদণ্ড ১৮৫ জনের যাবজ্জীবন

রাজশাহীর ৬ আসনেই শক্তিশালী অবস্থান চায় বিএনপি


পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
ইংল্যান্ড ৫ - ০ পানামা : পানামার জালে ইংলিশদের গোল উৎসব
কর্ণফুলী কলেজের ডরমেটরিতেও অসামাজিক কার্যকলাপ!
প্রকাশ্যে সৌদি আরবে গাড়ি চালালেন নারীরা
গাজীপুরের শ্রীপুরে ‘জঙ্গি আস্তানায়’ অভিযান
শেষ মুহুর্তে নাটকীয় জয় ব্রাজিলের
মাদক ব্যবসায়ীর সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড: প্রধানমন্ত্রী
কুষ্টিয়ায় র‌্যাবের অভিযানে ইয়াবা সহ আটক-২
ব্রাজিল-কোস্টারিকা প্রথমার্ধ গোলশূন্য
চট্টগ্রামের রাউজানে বাস পুকুরে পড়ে শিশুসহ নিহত ৫
রাজধানীতে আর্জেন্টিনা সমর্থকের আত্মহত্যা !
রাশিয়ায় এলাহি কান্ড
রোববার থেকে গাড়ি চালানোর অনুমতি পাচ্ছেন সৌদি নারীরা
নরসিংদীতে দুই সন্তানকে হত্যার পর বাবার আত্মহত্যা
গোপালগঞ্জে স্মাতক পাশ করেই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ?
প্রধানমন্ত্রীকে এসএমএস করে আব্দুস সামাদের কপাল খোলে গেল
উচ্ছ্বসিত বুবলী
ক্রোয়েশিয়ার গোল উৎসব, গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায়ের শঙ্কায় আর্জেন্টিনা
ময়মনসিংহে মাদকবিরোধী অভিযানে নিহত ২
শ্বাসরুদ্ধকর অপেক্ষা
নতুন সেনা প্রধান লে.জে. অাজিজ অাহমেদের বর্নিল জীবন