শিরোনাম:
●   কুষ্টিয়ায় ছাত্রীদের মাঝে বাইসাইকেল বিতরণ ●   শৈলকুপায় হত্যা, ধর্ষণ, ডাকাতি ও অস্ত্রসহ ৭ মামলার আসামী সন্ত্রাসী ইয়ামিন গ্রেফতার ●   দণ্ড বাতিল, নওয়াজ-মরিয়মকে মুক্তির নির্দেশ ●   পুলিশ আজিজের জামাই ১শ বোতল ফেন্সিডিলসহ কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী নাহিদ আটক ●   চি‌রিরবন্দ‌রে ডেকে নিয়ে গিয়ে ৩ জনকে কু‌পি‌য়ে আহত ●   ইবির ছাত্রী হলে পানি সংকট : মধ্যরাতে বিক্ষোভ ●   শিশু আকিফা হত্যা মামলা : দুই দিনের রিমান্ডে বাসচালক ●   সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টে আরও ২০ কোটি টাকা দেবেন প্রধানমন্ত্রী ●   বাহরাইনকে ১০ গোলের পর লেবাননকে ৮ গোলে উড়িয়ে দিল বাংলাদেশ ●   নারায়ণগঞ্জে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫
Bijoynews24.com
সোমবার ● ১৩ নভেম্বর ২০১৭
প্রথম পাতা » Slider » সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচাররোধে দেড়‘শ কোটি টাকার প্রকল্প
প্রথম পাতা » Slider » সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচাররোধে দেড়‘শ কোটি টাকার প্রকল্প
৩৭ বার পঠিত
সোমবার ● ১৩ নভেম্বর ২০১৭
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচাররোধে দেড়‘শ কোটি টাকার প্রকল্প

 

---Bijoynews:  সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচার রোধ, দেশের ভামমূর্তি রক্ষা, সকল পর্নোসাইট বন্ধ করা, সর্বোপরি সাইবার অপরাধ রোধকল্পে সরকার ডিপিআই (ডিপ প্যাকেজ ইন্সপেকসন ) নামে একটি প্রকল্প বাস্তবায়ন প্রক্রিয়া শুরু করেছে।

প্রকল্পটি বাস্তবায়নে দেড়‘শ কোটি টাকা ব্যয় হবে । সম্পূর্ন সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে এই অর্থ যোগান দেয়া হবে। চলতি মাসের ২৮ তারিখ যার টেন্ডার থোলা হচ্ছে ।

ফেইসবুকে ভূয়া আইডি খুলে সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচার, দেশে বসে ফেইসবুক বা কোন অন-লাইনে সরকার বিরোধী অপপ্রচার সহ সব ধরনের সাইবার অপরাধ রোধে এই মেশিন কার্যকর ভূমিকা রাখবে। বর্তমানে কোন অন-লাইন বন্ধে ২৮ টি আইআইজি এবং ৩ টি নিক্স একচেঞ্জকে অনুরোধ করতে হয়। এই প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে বিটিআরসি এক মিনিটেই বন্ধ করে দিতে পারবে। পারবে ভূয়া ফেইসবুক আইডি বন্ধ করতে । এমনকি সরকার যদি চায় সকল অন-লাইনের টেক্স এই মেশিনের ভিতর দিয়ে ফিল্টার হয়ে প্রকাশ হবে। চাইলে ১৮ বছরের নীচে কেউ পর্নো সাইটে প্রবেশ করতে পারবেনা। যদি  কেউ  ‍ঢুকতে চাঁয়  তবে তার ভোটার আইডি আইডি নাস্বার  দিয়ে প্রবেশ করতে পারবেন।

জানা গেছে, ১৮ মাসের মধ্য প্রকল্পের কাজ শেষ করে বিটিআরসিকে বুঝিয়ে দেয়া হবে। প্রকল্পের কাজ শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত টেলিযোগাযোগ অধিদপ্তর (ডট ) এর কর্মকর্তারা থাকবেন। এই প্রকল্পের পিডি‘র দায়িত্ব পেয়েছেন ড‘টের পরিচালক আলহাজ্ব রফিকুল মতিন । টেকনিক্যাল বিষয়ে তাঁর ভাল অভিঞ্জতা ,দক্ষতা এবং সৎ কর্মকর্তা হিসাবে সুনাম থাকায় সরকার তাকে এই প্রকল্পের পিডি করেছে বলে বিটিসিএলের এক উর্ধতন কর্মকর্তা জানান।

জানা গেছে ২৮ টি আইআইজি এবং ৩ টি নিক্স একচেঞ্জে এই ইকুয়েপমেন্ট বসানো হবে। যার সম্পূর্ন নিয়ন্ত্রন থাকবে বিটিআরসি‘র হাতে । বর্তমানে ডট থেকে ১৯ জন কর্মকর্তা এই প্রকল্পের সঙ্গে সংযুক্ত থাকবে। তবে এই প্রকল্পে ডুকতে অনেকেই এখনও চেষ্টা করছেন। কারন দেড়‘শ কোটি টাকা খরচ হবে তাঁদের হাতে। তবে টানকি প্রকল্প হিসাবে এই প্রকল্পের সার-সংক্ষেপে উল্লেখ রয়েছে।

পিডি‘র সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান,  আন্তর্জাতিক টেন্ডার করা হয়েছে । দেশী-বিদেশী সকল আগ্রহী প্রতিষ্ঠান অংশ গ্রহন করতে পারবে। ঢাকায় ড‘ট অফিসে এবং ডিসি অফিসে সিডিউল জমা দেয়ার জন্য সুবিধা রাখা হয়েছে । এ পর্যন্ত ৩০ টি সিডিউল বিক্রয় করা হয়েছে। দেশের স্বার্থে এই প্রকল্পটি বাংলাদেশে একটি সময়োপযোগী প্রকল্প বলে তিনি উল্লেখ করে বলেন সিঙ্গাপুরেও এই  প্রকল্পটি অনেক আগে থেকেই চালু আছে ।

 

পর্নো ছবি দেখার ওপর এমন কঠোরতাই আরোপ করতে যাচ্ছে ব্রিটিশ সরকারও। ওয়েবসাইটে পর্নো দেখা ব্যক্তির তথ্য সংরক্ষণ বাধ্যতামূলক করবে তারা। অনলাইন পর্নোগ্রাফি ব্যবহারের জন্য দেশটির সরকার বয়স যাচাইয়ের পদক্ষেপও হাতে নিয়েছে। এর অর্থ হলো, বয়স যাচাইয়ের জন্য ব্যবহারকারীকে নিজের মোবাইল ফোন ও পাসপোর্টের বিবরণ জানাতে হবে। মোবাইল ফোন ও পাসপোর্টের বিবরণের সঙ্গে বয়স মিলে গেলেই অনলাইনে পর্নো ছবি দেখতে পারবেন ওই ব্যবহারকারী।

এতে করে ব্যবহারকারীর সব তথ্য থেকে যাবে ওই ওয়েবসাইট কর্তৃপক্ষ ও সরকারে কাছে। এর আগে ক্রেডিট কার্ডের তথ্য দেয়ার মাধ্যমে অনলাইনে বয়স যাচাই করা হতো। কিন্তু কিশোর-তরুণেরা বড়দের বা অন্য সদস্যের ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে পর্নো দেখে। এ বিষয়টি রোধ করতেই এই পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার।

ব্রিটিশ আইন অনুসারে, ১৮ বছরের কম বয়সী কোনও ব্যক্তির জন্য এ ধরনের ছবি ধারণ কিংবা প্রেরণ- উভয়ই অবৈধ। এমনকি নিজের ছবিও। ২০১৩ সাল থেকে এ পর্যন্ত সেক্সটিংয়ে জড়িত ৪ হাজারের বেশি শিশুকে শনাক্ত করেছে ব্রিটিশ পুলিশ। এদের বেশিরভাগের বয়সই ১৩ থেকে ১৪ বছরের মধ্যে। বারবার বিভিন্ন সতর্কতা সত্ত্বেও ঠেকানো যাচ্ছে না এই ক্ষতিকর সংস্কৃতি।

ব্রিটিশ দৈনিক দ্য টেলিগ্রাফের প্রতিবেদনে বলা হয়, চলতি বছরের শুরুর দিকে এ সংক্রান্ত ডিজিটাল ইকোনমি অ্যাক্ট পার্লামেন্টে পাস হয়েছে। দেশটির ডিজিটাল ইকোনমি মন্ত্রী ম্যাট হ্যানককের তত্ত্বাবধানে ব্রিটিশ বোর্ড অব ফিল্ম ক্ল্যাসিফিকেশন নামের একটি নিয়ন্ত্রণ সংস্থা কিছু কিছু পর্নো সাইট ব্লক করতে সক্ষম হয়েছে। এছাড়া ১৮ বছরের নিচের কাউকে পর্নো দেখতে অনলাইনে বাধা দেয়া হচ্ছে। আর নতুন ওই নিয়ম বাধ্যতামূলকভাবে জারি হবে আগামী বছরের এপ্রিল থেকে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, নতুন এই নিয়মকে দেশটির ন্যাশনাল সোসাইটি ফর দ্য প্রিভেনশন অব ক্রুয়েলটি টু চিলড্রেন (এনএসপিসিসি) স্বাগত জানিয়েছে। সংগঠনটি দাবি করে আসছিল, পর্নো ছবি কোমলমতি তরুণদের ধ্বংসের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতেও একই ধরনের পদক্ষেপ নেয়ার দাবি জানিয়েছে সংস্থাটি।

তবে এই পদক্ষেপের সমালোচনা করেছে মানবাধিকার সংগঠনগুলো। তারা বলছে, পর্নো সাইটে বয়স যাচাইয়ের জন্য ব্যবহারকারীকে নিজের মোবাইল ফোন ও পাসপোর্টের বিবরণ জানাতে হবে- এটা ভালো। কিন্তু একই সঙ্গে ব্যবহারকারীর যাবতীয় তথ্য থেকে যাচ্ছে ওই ওয়েবসাইটের ডেটাবেসে। কোনো কারণে হ্যাকাররা ওই তথ্য চুরি করলে ব্যবহারকারীদের সমূহ বিপদ হতে পারে।

প্রসঙ্গত, ব্রিটেনে শিশুদের মধ্যে যৌনতা বেড়ে যাওয়া নিয়ে অনেকদিন ধরে উদ্বেগ দেখিয়ে আসছিল দেশটির সরকার ও অভিভাবকরা। শিশুদের এই যৌনতা ছড়িয়ে পড়ার জন্য বিশ্লেষকরা সবচেয়ে বেশি দায়ী করছেন সামাজিকমাধ্যমকে। প্রথমে এই মাধ্যমেই তারা যৌন আচরণে অভ্যস্ত হয়ে ওঠে। তবে পারিবারিক শিক্ষাকেও গুরুত্ব দিয়েছেন তারা। পরিবারের মধ্য থেকে শিশু সঠিক শিক্ষা না পেলে তার চরিত্রের বিকাশ সম্ভব নয় বলে মনে করছেন তারা। এছাড়া শিশুকে অবাধে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে দেয়াও ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠছে।

দেশটির বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা জানান, অনলাইনে পর্নোগ্রাফি অবাধ হওয়ায় স্কুলের গণ্ডি পেরোনোর আগেই শিক্ষার্থীরা ভয়াবহ এই নেশায় আক্রান্ত হচ্ছে। এ বিষয়ে এক জরিপ প্রতিবেদনে দেখা যায়, শিক্ষার্থীদের এমন আচরণ সম্পর্কে জানেন দুই-তৃতীয়াংশ বা শতকরা প্রায় ৬২ ভাগ শিক্ষক। দেড় হাজারেরও বেশি শিক্ষকের ওপর ওই জরিপ চালানো হয়েছে।

ব্রিটিশ আইন অনুসারে, ১৮ বছরের কম বয়সী কোনও ব্যক্তির জন্য এ ধরনের ছবি ধারণ কিংবা প্রেরণ- উভয়ই অবৈধ। এমনকি নিজের ছবিও। ২০১৩ সাল থেকে এ পর্যন্ত সেক্সটিংয়ে জড়িত ৪ হাজারের বেশি শিশুকে শনাক্ত করেছে ব্রিটিশ পুলিশ। এদের বেশিরভাগের বয়সই ১৩ থেকে ১৪ বছরের মধ্যে। বারবার বিভিন্ন সতর্কতা সত্ত্বেও ঠেকানো যাচ্ছে না এই ক্ষতিকর সংস্কৃতি।

 

ইন্টারনেটের এই অবাধ দুনিয়ায় চাইলেই এখন অনেক কিছু হাতের মুঠোয় পাওয়া যায়। ব্রাউজিং শেষে আপনি সব মুছেও ফেলতে পারবেন। কেউ জানতে পারবে না কিছু। কিন্তু এটাই শেষ নয়, পর্নো ছবি দেখাতে ওয়েবসাইটে ঢুকলে সেই সাইটই চিনে রাখবে আপনাকে। কম্পিউটার বা মোবাইল থেকে হিস্ট্রি মুছে ফেললেও ওই সাইটের নজরদারি এড়ানো যাবে না। এতে চাইলে যেকোনো সময় আপনার নাম, পরিচয়ও প্রকাশ করা যাবে।



আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
কুষ্টিয়ায় ছাত্রীদের মাঝে বাইসাইকেল বিতরণ
শৈলকুপায় হত্যা, ধর্ষণ, ডাকাতি ও অস্ত্রসহ ৭ মামলার আসামী সন্ত্রাসী ইয়ামিন গ্রেফতার
দণ্ড বাতিল, নওয়াজ-মরিয়মকে মুক্তির নির্দেশ
পুলিশ আজিজের জামাই ১শ বোতল ফেন্সিডিলসহ কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী নাহিদ আটক
চি‌রিরবন্দ‌রে ডেকে নিয়ে গিয়ে ৩ জনকে কু‌পি‌য়ে আহত
ইবির ছাত্রী হলে পানি সংকট : মধ্যরাতে বিক্ষোভ
শিশু আকিফা হত্যা মামলা : দুই দিনের রিমান্ডে বাসচালক
সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টে আরও ২০ কোটি টাকা দেবেন প্রধানমন্ত্রী
বাহরাইনকে ১০ গোলের পর লেবাননকে ৮ গোলে উড়িয়ে দিল বাংলাদেশ
নারায়ণগঞ্জে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১
নাটোরে রেলের ২৫৩০ লিটার চোরাই তেলসহ আটক ৩
তিন প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন হাসিনা-মোদি
সিরিয়ার ভুলে রাশিয়ার ১৫ সেনা নিহত
হাবীব উন নবী খান সোহেল গ্রেপ্তার
মাদক মামলায় ফাসানোর চেষ্টা : কুষ্টিয়া ঝাউদিয়া পুলিশের সোর্স আটক
গাইবান্ধায় নদ-নদীগুলোর পানি সামান্য বৃদ্ধি ব্রহ্মপুত্র নদে বিপদসীমার ৭ সে.মি. উপর দিয়ে প্রবাহিত
ঝিনাইদহে চলমান বছরে ৫৪টি দুর্দ্ধর্ষ চুরি, চোর ধরে সিসি ক্যামেরায় সনাক্ত করতে পারে না পুলিশ !
বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে শ্রমিক অধিকার আদায়ে নিয়োগের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন
শ্রীমঙ্গলে শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয়
গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে রাস্তার গাছ কেটে নিচ্ছেন স্থানীয়রা : দেখার যেন কেউ নেই