শিরোনাম:
●   কক্সবাজারের কটেজে ললনার হাট: সী ফ্লাওয়ার কটেজ সীলগালা ●   গাইবান্ধায় নাগরিক সেবায় উদ্ভাবনী উদ্যোগ বিষয়ক কর্মশালা ও প্রদর্শনী ●   ১১ বিদেশী নাগরিককে আটক করেছে র‌্যাব কক্সবাজার ক্যাম্পের সদস্যরা ●   আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন যথাসময়ে সংবিধান অনুযায়ীই হবে : হানিফ ●   তারুণ্যক ও আমাদের খুলনা সংগঠনের আয়োজনে অসহায় দুস্থ পথ শিশুদের মাঝে শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ ●   শৈলকুপায় বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই এম পি ক্রিকেট টুর্ণামেন্ট ও পুরস্কার বিতরন অনুষ্ঠিত ●   বোদায় বিএনপি জাগপাসহ বিভিন্ন দলের দুই হাজার তিনশত ৪১জন নেতাকর্মী ও সমর্থকের আওয়ামীলীগে যোগদান ●   বগুড়ায় বিএনপির দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৪ ●   ঝিনাইদহে পাসপোর্ট বিপ্লবের ডেরায় ভ্রাম্যমান আদালতের হানা, মূল হোতা বিপ্লব পলাতক,১জনের জেল ●   গাইবান্ধায় সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের আয়োজনে বুকের অন্তঃপুরে অনুষ্ঠিত
ঢাকা, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ১২ ফাল্গুন ১৪২৪
Bijoynews24.com
প্রথম পাতা » Slider » প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার; তার আগেই প্রস্তুত সিনহা!
মঙ্গলবার ● ২৯ আগস্ট ২০১৭
Email this News Print Friendly Version

প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার; তার আগেই প্রস্তুত সিনহা!

---Bijoynews : ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় নিয়ে সরকারের উত্তেজনা ও বাগাড়ম্বর চলছেই। এরি মাঝখানে রায় বদলানোর জন্য সরকার রিভিউ করে রায় থেকে আপত্তিকর অংশ বাদ দিতে চেষ্টা চালাবে। আর তাতেও কাঙ্খিত ফল না এলে রাষ্ট্রপতির কাছে লিখিত অভিযোগ করে প্রধান বিচারপতিকে চাকুরচ্যুতির কঠোর পথে আগাবে সরকার। তবে তেমন ঘটনা ঘটলে সংসদ ও সরকারকে অবৈধ ঘোষণা করতে ছাড়বেন না প্রধান বিচারপতি। সূত্রের খবর তেমনই।

যে কঠোর বিকল্পের কথাও ভাবছে আওয়ামী লীগ:
সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায়ের পর্যবেক্ষণ থেকে ‘আপত্তিকর’ অংশ স্বেচ্ছায় বাতিল কিংবা রিভিউ আবেদনে এসব অংশ বাতিল হবে এমন সম্মতি চায় শাসক দল আওয়ামীলীগ। এ জন্য আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা রাষ্ট্রপতি ও প্রধান বিচারপতির সঙ্গে দেখা করেছেন। তবে প্রধান বিচারপতি সিনহা সমঝোতায় রাজী না হলে কঠোর বিকল্প চিন্তাও রয়েছে ক্ষমতাসীনদের। এ জন্য আরো সময় নেবে শাসক দল। আওয়ামী লীগ নেতারা রায়ের পর্যবেক্ষণের বিভিন্ন অংশ নিয়ে ‘জনমত গঠনে’ প্রতিনিয়ত বক্তব্য-বিবৃতি দিচ্ছেন। রিভিও করার কথা বলা হলেও মন্ত্রী ও নেতারা প্রতিদিনই প্রধান বিচারপতিকে আক্রমন করতে ছাড়ছেন না। প্রধান বিচারপতির পদত্যাগও চেয়েছে সরকারের মন্ত্রীরা। বিচারপতি সিনহাকে আরো চাপে রাখার কৌশল হিসেবে রাষ্ট্রপতির সাংবিধানিক ক্ষমতা প্রয়োগ করে তাকে অপসারনের আওয়াজ ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

সরকারের গুরুত্বপূর্ণ এক মন্ত্রী জানিয়েছেন, প্রধান বিচারপতির বিচারিক ‘অসদাচরণ’ ও ‘শপথ ভঙ্গের’ অভিযোগে নিয়ে রাষ্ট্রপতির কাছে অভিযোগ পাঠানোর বিষয়টি ভাবা হচ্ছে। তবে এ জন্য আওয়ামী লীগ আরো সময় নিবে। রাজপথের পাশাপাশি আইনিভাবেও প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বিরুদ্ধে ‘অসদাচরণের’ কিছু অভিযোগ জোগাড় করছে সরকার। তবে এসব সাংবিধানিক বিষয়ে সরকার হুটহাট কিছু করতে চাচ্ছে না। বিচার বিভাগ ও নির্বাহী বিভাগের মধ্যে যাতে কোনো জটিল অবস্থা বজায় না থাকে সে জন্য সরকার ধারাবাহিক আলোচনার মাধ্যমে সমঝোতার পথে এগোনোর ওপর সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে। এ অবস্থায় পূর্ণাঙ্গ রায়ের পর্যবেক্ষণ নিয়ে আওয়ামী লীগের দাবি পূরণ করার সম্ভাব্য মসৃণ পথ খোঁজা হচ্ছে। তবে আপীল বিভাগের ৭ বিচারপতির সর্বসম্মত রায় কোনো রিভিউতে পরিবর্তন হওয়ার কোনো সম্ভবনা নেই, সেটা জানে শাসক দল। তেমন ঘটনাটি ঘটলে আওয়ামী লীগ রাষ্ট্রপতিকে তার সাংবিধানিক ক্ষমতা প্রয়োগের জন্য অনুরোধ করবে। সুপ্রিম জুডিসিয়াল কাউন্সিলে তদন্তের জন্য রাষ্ট্রপতিকে আনুষ্ঠানিকভাবে চিঠি দেবে সরকার। তখন প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে রাষ্ট্রপতি বিষয়টি তদন্ত করার জন্য সুপ্রিম জুডিসিয়াল কাউন্সিলকে নির্দেশ দিতে পারেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, প্রধান বিচারপতির ‘অসদাচরণ’ প্রমাণের জন্য বেশকিছু অভিযোগ যোগাড় করেছে সরকার। এর মধ্যে যুদ্ধাপরাধে দণ্ডিত একজন আসামীর পরিবারের সঙ্গে বৈঠক, আবেদনকারীর অনুরোধে আপিল বিভাগের বেঞ্চ পরিবর্তনসহ প্রধান বিচারপতির বিভিন্ন বক্তব্যের অডিও এবং ভিডিও জোগাড় করা হচ্ছে। তবে সুপ্রীম জুডিশিয়াল কাউন্সিল পার করে বিচারপতি সিনহাকে অপসারন করা প্রায় অসম্ভব, সেটা সরকার জানে।

যদিও শাসকদলের শীর্ষস্থানীয় নেতারা আশা করছেন, এক সপ্তাহের মধ্যে পরিস্থিতির সমঝোতা হতে পারে, কিন্তু আলামত বলছে ভিন্ন কথা। সূত্র নিশ্চিত করেছে, উদ্ভূত বিষয়গুলো নিয়ে কথা বলার জন্য রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ প্রধান বিচারপতিকে একাধিকবার বঙ্গভবনে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। কিন্তু বিচারপতি সিনহা নিশ্চিত হয়েছেন যে, সেখানে রাষ্ট্রপতি প্রধান বিচারপতির সঙ্গে কেবল কথাই বলবেন না, পদত্যাগের অনুরোধও জানাতে পারেন রাষ্ট্রপতি। এমনকি অস্ত্রের মুখে বিচারপতি সিনহাকে পদত্যাগে বাধ্য করা হতে পারে। এর ফলে গত এক সপ্তাহের চেষ্টায়ও প্রধান বিচারপতিকে বঙ্গভবনে নেয়া যায়নি। উপরন্তু রোববার প্রধান বিচারপতি আদালতে সরকারের এটর্নি জেনারেলকে পাকিস্তানের সুপ্রীম কোর্ট কতৃক সরকার পতনের বিষয়টি স্মরন করিয়ে দিয়েছেন। এর ফলে ষোড়শ সংশোধনীর রায় নিয়ে সরকার এবং প্রধান বিচারপতির মধ্যে টানাপোড়েনের পরিণতি সম্পর্কে সরকারের মধ্যে আতঙ্ক শুরু হয়েছে। তবে সমঝোতার পথ প্রায় রুদ্ধ হওয়ায় কঠোর পথ অবলম্বনের নিয়ে সরকার দ্বিধাগ্রস্থ। এর আগে সরকার প্রধান থেকে শুরু করে সরকারের নীতিনির্ধারকরা প্রধান বিচারপতিকে কিভাবে বাগে আনা যায় বা শক্ত হাতে দমন করা যায় তার বিশ্লেষন করতে দফায় দফায় বৈঠক করে যাচ্ছেন।

বিচারপতি সিনহার প্রস্তুতি
জানা গেছে, অনড় অবস্থানে আছেন প্রধান বিচারপতি সিনহা। সরকারের যত চাপই আসুক না কেনো তিনি নতি স্বীকার করবেন না। এর শেষ দেখে ছাড়বেন। বিশেষ করে বিচার বিভাগের স্বাধীনতার প্রশ্ন কোনো আপোষ করবেন না তিনি। বিচার বিভাগের স্বাধীনতার পথে যতটুকু অগ্রগতি হয়েছে, তা কিছুতেই নষ্ট হতে তিনি দেবেন না। এমনকি দলমত নির্বিশেষে উচ্চ সুপ্রীম কোর্টের উভয় বিভাগ এবং অধিকাংশ আইনজীবিরাও এ বিষয়ে প্রধান বিচারপতিকে সমর্থন দিয়ে যাচ্ছেন। ফলে প্রধান বিচারপতি সিনহা তার পথে অবিচল থাকবেন এটাই ধরে নিচ্ছে সবাই।

অন্যদিকে, সরকারের গুরুত্বপূর্ন মন্ত্রিরা প্রকাশ্যেই বলে যাচ্ছেন, প্রধান বিচারপতি সিনহা একটি বড় অঘটন ঘটাতে যাচ্ছেন। পূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন প্রথম এ প্রশ্নটি উত্থাপন করেন যে, প্রধান বিচারপতি সিনহাকে পরিচালনা করছে কোনো বৃহদ শক্তি। খাদ্যমন্ত্রী এডভোকেট কামরুল ইসলাম ভীত হয়ে আশংকা করছেন, বিচারপতি সিনহার তৎপরতায় ৭৫ সালের ঘটনার পূনরাবৃত্তি ঘটতে পারে। আ’লীগের যুগ্ম সম্পাদক হানিফ বলেছেন, ১/১১র কুশিলবদের সাথে হাত মিলিয়ে অসাংবিধানিক সরকার আনার চেষ্টা করছেন বিচারপতি সিনহা। তবে এসবের বাইরেও সুপ্রীম কোর্টে আরও খবর চাউর হয়েছে, বিচারপতি সিনহা এমন একটি রায় প্রস্তুত করে রেখেছেন, যাতে সরকার তার উপর আঘাত করার আভাস পেলেই তিনি বর্তমান সরকার বা সংসদকে অবৈধ ঘোষণা করবেন। এর জন্য সকল প্রস্তুতি নেয়া আছে। এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা। তেমন ঘটনা ঘটলে অরাজনৈতিক শক্তি দেশের ক্ষমতায় আসতে পারে, এমন আশংকা প্রকাশ করেছেন সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক বি চৌধুরি। কয়েকটি জাতীয় দৈনিক লিখেছে- সাংবিধানিক সংকটের পথে বাংলাদেশ।


কান্নায় ভেঙে পড়লেন বাবা, বিচার পেল মেয়ে!

মিয়ানমারে সেনা সহিংসতায় শিশু সহ ৮০০ রোহিঙ্গা নিহত


আরো পড়ুন...

কক্সবাজারের কটেজে ললনার হাট: সী ফ্লাওয়ার কটেজ সীলগালা কক্সবাজারের কটেজে ললনার হাট: সী ফ্লাওয়ার কটেজ সীলগালা
গাইবান্ধায় নাগরিক সেবায় উদ্ভাবনী  উদ্যোগ বিষয়ক কর্মশালা ও প্রদর্শনী গাইবান্ধায় নাগরিক সেবায় উদ্ভাবনী উদ্যোগ বিষয়ক কর্মশালা ও প্রদর্শনী
১১ বিদেশী নাগরিককে আটক করেছে র‌্যাব কক্সবাজার ক্যাম্পের সদস্যরা ১১ বিদেশী নাগরিককে আটক করেছে র‌্যাব কক্সবাজার ক্যাম্পের সদস্যরা
আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন যথাসময়ে সংবিধান অনুযায়ীই হবে : হানিফ আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন যথাসময়ে সংবিধান অনুযায়ীই হবে : হানিফ
তারুণ্যক ও আমাদের খুলনা সংগঠনের আয়োজনে  অসহায় দুস্থ পথ শিশুদের মাঝে শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ তারুণ্যক ও আমাদের খুলনা সংগঠনের আয়োজনে অসহায় দুস্থ পথ শিশুদের মাঝে শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ
শৈলকুপায় বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই এম পি ক্রিকেট টুর্ণামেন্ট ও পুরস্কার বিতরন অনুষ্ঠিত শৈলকুপায় বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই এম পি ক্রিকেট টুর্ণামেন্ট ও পুরস্কার বিতরন অনুষ্ঠিত
বোদায় বিএনপি জাগপাসহ বিভিন্ন দলের দুই হাজার তিনশত ৪১জন নেতাকর্মী ও সমর্থকের আওয়ামীলীগে যোগদান বোদায় বিএনপি জাগপাসহ বিভিন্ন দলের দুই হাজার তিনশত ৪১জন নেতাকর্মী ও সমর্থকের আওয়ামীলীগে যোগদান
বগুড়ায় বিএনপির দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৪ বগুড়ায় বিএনপির দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৪
ঝিনাইদহে পাসপোর্ট বিপ্লবের ডেরায় ভ্রাম্যমান আদালতের হানা, মূল হোতা বিপ্লব পলাতক,১জনের জেল ঝিনাইদহে পাসপোর্ট বিপ্লবের ডেরায় ভ্রাম্যমান আদালতের হানা, মূল হোতা বিপ্লব পলাতক,১জনের জেল
গাইবান্ধায় সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের  আয়োজনে বুকের অন্তঃপুরে অনুষ্ঠিত গাইবান্ধায় সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের আয়োজনে বুকের অন্তঃপুরে অনুষ্ঠিত

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
কক্সবাজারের কটেজে ললনার হাট: সী ফ্লাওয়ার কটেজ সীলগালা
গাইবান্ধায় নাগরিক সেবায় উদ্ভাবনী উদ্যোগ বিষয়ক কর্মশালা ও প্রদর্শনী
১১ বিদেশী নাগরিককে আটক করেছে র‌্যাব কক্সবাজার ক্যাম্পের সদস্যরা
আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন যথাসময়ে সংবিধান অনুযায়ীই হবে : হানিফ
তারুণ্যক ও আমাদের খুলনা সংগঠনের আয়োজনে অসহায় দুস্থ পথ শিশুদের মাঝে শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ
শৈলকুপায় বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই এম পি ক্রিকেট টুর্ণামেন্ট ও পুরস্কার বিতরন অনুষ্ঠিত
বোদায় বিএনপি জাগপাসহ বিভিন্ন দলের দুই হাজার তিনশত ৪১জন নেতাকর্মী ও সমর্থকের আওয়ামীলীগে যোগদান
বগুড়ায় বিএনপির দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৪
ঝিনাইদহে পাসপোর্ট বিপ্লবের ডেরায় ভ্রাম্যমান আদালতের হানা, মূল হোতা বিপ্লব পলাতক,১জনের জেল
গাইবান্ধায় সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের আয়োজনে বুকের অন্তঃপুরে অনুষ্ঠিত
সুন্দরগঞ্জে আওয়ামীলীগের কর্মী সভা অনুষ্ঠিত
শ্রীমঙ্গলে আন্তঃ নগর উপবন এক্সপ্রেসের ১১টি বগি লাইনচ্যুত
পঞ্চগড়ে সুপ্রিয় জুট ইন্ডাষ্ট্রিজের শুভ উদ্বোধন
গোপালগঞ্জে বাস ও মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ : নিহত ৩
শেখ হাসিনার সরকার স্বাস্থ্য সেবা জনগনের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়ার জন্য নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এমপি
আন্তর্জাতিক ইউএল সার্টিফিকেট পেলো বাংলাদেশের আরআর কাবেল
রসুলপুর প্রমিয়িার লীগ’র ফাইনাল খলো ও কৃতি ছাত্র-ছাত্রীদরে সংর্বধনা
তৃতীয় বিয়ে নিয়ে রেহাম খান : বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক ছিল ইমরান খানের
কলেজছাত্রী ধর্ষণের ভিডিও ফেসবুকে ছড়ালো স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা
‘আন্দোলনের মাধ্যমে খালেদা জিয়া ও গণতন্ত্রকে মুক্ত করা হবে’