ঢাকা, শুক্রবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৬ আশ্বিন ১৪২৪
Bijoynews24.com
প্রথম পাতা » Slider » নিজের স্ত্রীকেই ছয়বার বিয়ে করে তুফান!
রবিবার ● ২০ আগস্ট ২০১৭
Email this News Print Friendly Version

নিজের স্ত্রীকেই ছয়বার বিয়ে করে তুফান!

---Bijoynews : বগুড়ায় ধর্ষণের শিকার স্কুলছাত্রী ও তার মাকে নির্যাতনের পর মাথা ন্যাড়া করে দেয়ার ঘটনায় আলোচিত তুফান সরকার বিয়ে করেছে ছয়বার। তবে সেই বিয়ের কনে অন্য কেউ নয়, তার স্ত্রী আশা খাতুন।

 

৯ বছরের দাম্পত্যজীবনে তুফান সরকার স্ত্রী আশাকে পাঁচবার তালাক দিয়ে পুনরায় বিয়ে করেছে। বিয়ের পর থেকেই তাদের মধ্যে দাম্পত্যকলহ লেগেই ছিল। কথায় কথায় নিজেরা মারামারি করত।

এসব কারণে তুফান ক্ষিপ্ত হয়ে স্ত্রীকে তালাক দিত। বিভিন্ন সময় এ নিয়ে বিচার সালিশও হয়েছে। বারবার তালাক দিয়ে মৌলভী ডেকে আবারও তারা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছে। গ্রেফতারের পর পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে তুফান সরকার নিজেই পুলিশকে এসব তথ্য দিয়েছে।

এদিকে ভর্তির কথা বলে ওই স্কুলছাত্রীকে গাড়ি পাঠিয়ে নিজের বাড়িতে ডেকে আনে তুফান। পরে কাগজপত্র সই করার নাম করে বেডরুমে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করে। এ সময় তুফানের পাঁচ বন্ধু পাহারায় ছিল।

ধর্ষণের পর তাকে জন্মনিয়ন্ত্রক ওষুধ খাওয়ানো হয়। পুলিশের কাছে দেয়া জবানবন্দিতে তুফান এসব কথা বলেছে। তুফানের ভাষ্য, সে বিভিন্ন সময় মোবাইল ফোনে মেয়েটিকে বিরক্ত করত।

তাকে খুশি করতে সে কলেজে ভর্তি করিয়ে দেয়ার কথা বলে। সে ওই ফাঁদে পা দেয়। তুফান ওই ছাত্রীর কাছে কাগজপত্র চায়। বন্ধু দীপুর মাধ্যমে তাকে কাগজপত্র এবং ৪ হাজার টাকা দেয় মেয়েটি।

১৭ জুলাই তুফান ওই কিশোরীকে জানায়, সে ঢাকা যাবে। ভর্তির জন্য কাগজপত্রে তার স্বাক্ষর লাগবে। সে আসতে অস্বীকৃতি জানালে দুই সহযোগী আতিক ও দীপু তাকে গাড়িতে করে নিয়ে আসে।

কাগজপত্রে স্বাক্ষর করার নাম করে মেয়েটিকে বেডরুমে নিয়ে ধর্ষণ করে তুফান। এ সময় তার পাঁচ বন্ধু আতিক, দীপু, রুপম, শিমুল ও মুন্না বাইরে পাহারা দিয়েছে। ধর্ষণের পর মেয়েটিকে জন্মনিয়ন্ত্রক ওষুধ খাওয়ায় তুফান। এসব স্বীকার করে পুলিশের কাছে তুফান সরকারের ভাষ্য, ধর্ষণের পর ওই মেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে।

এ সময় আতিকের সহায়তায় রক্তক্ষরণ বন্ধ করা এবং জন্মনিয়ন্ত্রক ওষুধ আনিয়ে কিশোরীকে খাওয়ানো হয়। তারপর তুফান, আতিক ও জিতু প্রাইভেট কারে কিশোরীকে বাসায় পৌঁছে দেয়। তারপর তুফান ঢাকায় যায়।

তুফান পুলিশকে আরও বলেছে, বিষয়টি তার স্ত্রী আশা জেনে যায়। ২৮ জুলাই তার স্ত্রী আশা খাতুন, তার বোন বগুড়া পৌরসভার সংরক্ষিত কাউন্সিলর মার্জিয়া হাসান রুমকি, তুফানের শাশুড়ি রুমি, তুফানের বন্ধু আতিক, দীপু, রুপম, শিমুল ও মুন্না কৌশলে ওই স্কুলছাত্রী ও তার মাকে ডেকে আনে।

সেখানে মা-মেয়ের মাথা ন্যাড়া করার পাশাপাশি রড দিয়ে শারীরিক নির্যাতন করা হয়। নির্যাতনের সময় তুফান নিজের বাসায় ঘুমিয়ে ছিল বলে দাবি করে।

এ ঘটনার পর ধর্ষণ ও নির্যাতনের শিকার কিশোরী বগুড়া সদর থানায় দুটি মামলা করে। বগুড়া সদর থানার ওসি এমদাদ হোসেন যুগান্তরকে বলেন, কিশোরীকে ধর্ষণ এবং পরে তাকে ও তার মাকে নির্যাতনের ঘটনার তদন্তে অগ্রগতি হয়েছে। তদন্ত শেষ করে এ মামলায় দ্রুত অভিযোগপত্র দেয়া হবে।

তুফান কাশিমপুর কারাগারে, জেলে রাজকীয় জীবন নিয়ে তদন্ত কমিটি গঠন : বগুড়া ব্যুরো জানায়, বগুড়ায় ছাত্রী ধর্ষণ ও নির্যাতন মামলার প্রধান আসামি বহিষ্কৃত শ্রমিক লীগ নেতা তুফান সরকারকে গাজীপুরের কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারে পাঠানো হয়েছে। শনিবার দুপুরে তাকে কাশিমপুরে নিয়ে যাওয়া হয় বলে জানিয়েছেন বগুড়ার জেল সুপার মোকাম্মেল হক।

শুক্রবার দৈনিক যুগান্তরে ‘বগুড়া জেলে তুফান সরকারের রাজকীয় জীবনযাপন’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়। সংবাদে দর্শনার্থী কক্ষে পাইপ দিয়ে ফেনসিডিল সেবন ও কারাগারের প্রাচীর দিয়ে ফেনসিডিলের বোতল ভেতরে পাঠানো হয় বলে উল্লেখ করা হয়। এরপর তুফানকে হাসপাতাল থেকে ওয়ার্ডে সরিয়ে নেয়া হয়।

এ ঘটনায় কারা সদর দফতর থেকে রাজশাহীর ডিআইজি প্রিজন আলতাফ হোসেনকে তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয়। ঘটনা তদন্ত করতে তিনি শনিবার দুপুরের পর বগুড়ায় এসে পৌঁছেছেন।


৩১টি করিডর খুলে দেওয়ায় ভারত সীমান্ত দিয়ে আসছে গরুর পাল

ওরা ক্ষমতায় এলে ১ লক্ষ লোককে খুন করবে’


পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
১৮ সালের প্রথম সপ্তাহে ইবি’র সর্ববৃহৎ সমাবর্তন
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সেনাপ্রধান
হরিণাকুন্ডুতে রহিঙ্গা হত্যার প্রতিবাদে মানব বন্ধন পালিত
৩ বছর ভারতে আটক থাকার পর দেশে ফিরেছে দুই কিশোর
রোহিঙ্গা মুসলিমদের বর্বরোচিত নির্যাতন হত্যার প্রতিবাদ : গোবিন্দগঞ্জ নাগরিক কমিটির মানববন্ধন
বগুড়ায় জেলা বিএনপির সভাপতি কারাগারে, প্রতিবাদে শনিবার হরতাল
ব্যর্থ প্রেমের শোকেই মুসলিম নির্যাতন সু চি’র!
প্রেমের ফাঁদে যুবক খুন
সেই ভিখারি মায়ের স্কুলশিক্ষিকা কন্যা যা বললেন!
মালয়েশিয়ায় গণ-আদালতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের অভিযোগ
কুষ্টিয়ার মিরপুরে কালুগাড়ায় বাস উল্টে আহত-১০
মন্ত্রীদের দেয়া কথা রাখেননি মিল মালিকরা : কুষ্টিয়ার বাজারে এখনো সব ধরনের চাল সেই আগের দরেই বিক্রি হচ্ছে
চুক্তিতে কিশোরী বিয়ে করতে আসা ৮ লম্পট ‘আরব শেখ’ গ্রেফতার
মিশরের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে ইবি ভিসির সৌজন্য সাক্ষাৎ
রোহিঙ্গা ইস্যুতে রশির ওপর দিয়ে হাঁটছে ভারত
রোহিঙ্গাদের ত্রাণবাহী ট্রাক খাদে, নিহত ৯
বাংলাদেশের সকল মন্ত্রী এবং সাংসদদের মোবাইল নাম্বার
আরবদের হটিয়ে যেভাবে ইসরায়েল রাষ্ট্রের জন্ম হয়েছিল
মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের আয়োজনে কুষ্টিয়ার বাঁশগ্রাম আলাউদ্দিন আহমেদ ডিগ্রি কলেজে মাদক বিরোধী আলোচনা সভা
বগুড়ায় সাংবাদিক ইউনিয়নের মানববন্ধন, মিয়ানমারে গণহত্যার প্রতিবাদ