শিরোনাম:
ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর ২০১৭, ৬ অগ্রহায়ন ১৪২৪
Bijoynews24.com
প্রথম পাতা » Slider » তিনি এখন ‘জনতার কমিশনার’
মঙ্গলবার ● ১৫ আগস্ট ২০১৭
Email this News Print Friendly Version

তিনি এখন ‘জনতার কমিশনার’

---মুনতাসির রায়হান,বিশেষ প্রতিবেদক : :  ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের ৯২টি ওয়ার্ডের মধ্যে সবচাইতে তরুণ কাউন্সিলর তারেকুজ্জামান রাজিব। ঢাকা মহানগর উত্তরের ৩৩ নং ওয়ার্ডের জনপ্রতিনিধিত্ব করছেন তিনি। কল্যাণমুখী এই কাউন্সিলরকে এলাকার গরীব-দুঃখীরা ভালবেসে ডাকেন ‘জনতার কমিশনার’ বলে।

এলাকার গরীব দু:খীরা এভাবেই তাকে ভালোবাসেন…

রাজিব ছাত্র রাজনীতি থেকেই মূল ধারার রাজনীতিতে এসেছেন। বর্তমানে জনপ্রতিনিধি হয়ে হাল ধরেছেন মোহাম্মদপুরের বসিলা, ওয়াশপুর, কাটাসুর, গ্রাফিক্স আর্টস ও শারীরিক শিক্ষা কলেজ, মোহাম্মদদিয়া হাউজিং সোসাইটি এবং বাঁশবাড়ী এলাকার। ২০১৫ সালের কাউন্সিলর নির্বাচনে তিনি ছিলেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী। নির্বাচনে তিনি তিন হাজার ভোটের বিশাল ব্যবধানে হারান হেভিওয়েট নেতা ও ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি শেখ বজলুর রহমানকে।

জনপ্রতিনিধি হওয়ার পর আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি রাজিবকে। যদিও রাজিবের অভিযোগ, একটি মহল তাকে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য সব সময় পেছনে লেগে থাকে। তারপরও নিজের মেধা, যোগ্যতা, সাংগঠনিক দক্ষতা আর মানুষকে ভালোবেসে সর্বস্তরের জনগণের আস্থা অর্জন করেছেন তিনি। তার দেশের বাড়ি ভোলায় তবে ছোটবেলা থেকেই বড় হয়েছেন ঢাকার মোহাম্মদপুরে। ঢাকাতেই তার রাজনৈতিক জীবনের শুরু। বর্তমানে তিনি মোহাম্মদপুর থানা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি এক কন্যা সন্তানের জনক।

tower near sia mosqueমোহাম্মদপুরের শিয়া মসজিদ সংলগ্ন দ্য গ্লোরি অব নামিরা টাওয়ার..

দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকেই তিনি নানাভাবে এলাকার উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন। তবে তার দৃষ্টিনন্দন কাজগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো, মোহাম্মদপুরের শিয়া মসজিদ সংলগ্ন চৌরাস্তায় আল্লাহর ৯৯ নাম দিয়ে তৈরি করা কাঁচের স্তম্ভটি। যেটার মূল পরিকল্পনাকারী রাজিব নিজেই। এই স্তম্ভটির নাম ‘দ্য গ্লোরি অব নামিরা’। এই স্তম্ভটি রাতের বেলা অনন্য রূপ ধারণ করে। রাজিবের এই উদ্যোগে যারপনাই খুশি এলাকার মুসল্লিরা।

এলাকাবাসী ইউনুস আলী বলেন, ‘আমাদের জনতার কমিশনার কাজ কর্মে যেমন তড়িৎকর্মা, চিন্তা চেতনাতেও তেমন উন্নত। তিনি প্রথমবারের মতো ইসলাম ধর্ম প্রধান দেশে ধর্মীয় চিন্তা ভাবনা থেকে এমন একটা স্তম্ভ নির্মাণ করেছেন। এটি আমাদের মুগ্ধ করেছে। ‘

রাজিব বলেন, ‘মোহাম্মদপুর ঐতিহ্যগতভাবেই একটি মুসলিম নাম। আল্লাহর কাছে আমি শুকরিয়া আদায় করছি যে, আমি এই ওয়ার্ডের প্রতিনিধিত্ব করতে পারছি। আমি সৌদি আরবে এমন অনেক ইসলামিক স্ট্যাচু দেখেছি। তখন থেকেই মোহাম্মদপুরে এমন কিছু একটা করার পরিকল্পনা ছিলা। ইচ্ছা আছে, পরবর্তীতে মোহাম্মদপুর বাসস্ট্যান্ডে বড় করে পবিত্র কোরআন রাখার রেহেলের আদলে একটি স্তম্ভ তৈরি করবো।’

tarequzzaman rajib councilor3ক্লান্ত কাউন্সিলর ঘুমিয়ে পড়েছেন বেঞ্চের উপরেই। তার ভক্ত এক তরুণের ফেসবুক থেকে…

জমি দখল, খাল ভরাটের বিরুদ্ধেও অত্যন্ত সোচ্চার কাউন্সিলর রাজিব। গত মার্চে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) মোহাম্মদপুর বেড়িবাঁধ সংলগ্ন তিন রাস্তার মোড়ে উচ্ছেদ অভিযান চালিয়েছিল। সেই অভিযানে ৮ শতাংশ জমি দখলমুক্ত করা হয়। ডিএনসিসি’র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ সাজিদ আনোয়ার ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে অভিযানের নেতৃত্ব দেন। এই উচ্ছেদ কর্মসূচি সমন্বয় করেন রাজিব।

রাজিবের ভক্ত সমর্থকরা জানান, রাজিব ভাই পুরো ঢাকা শহরের যুবক রাজনীতিকদের জন্য এক অনুসরণীয় ব্যক্তিত্ব। যার জনপ্রিয়তা আকাশ ছোঁয়া।

মাদকের বিরুদ্ধেও সোচ্চার এই জনতার কমিশনার। কাটাসুর কাদিরাবাদের পেছনের খালটি ছিল মাদকসেবীদের আড্ডা। দুর্গন্ধের কারণে খালটির আশেপাশে যাওয়াও কঠিন ছিল। কিন্তু কাউন্সিলর রাজিব সেই খালটি সংস্কার করেন। নিজে কাঁদাপানিতে নেমে তদারকি করেন পরিষ্কার অভিযানের। বর্তমানে সেই খালটি পরিচ্ছন্ন, রুপান্তরিত হয়েছে লেকে। আশেপাশের রাস্তায় বসানো হয়েছে অসংখ্য লাইট, বাড়ানো হয়েছে নিরাপত্তা। সকল বয়স, সকল পেশার মানুষ এখন চাইলেই হেঁটে আসতে পারেন।

হাতির ঝিলের অনুকরণে এলাকাসী দৃষ্টিনন্দন এই লেকটির নাম দিয়েছে মোহাম্মদপুরের ঝিল। সবচেয়ে অবাক করা তথ্য হলো, ঝিলটিতে রাজিব প্রায় তিনশতটির মতো লাইট লাগিয়েছেন সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত খরচে।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, গত দুই বছরে অত্র এলাকার ব্যাপক রাস্তাঘাটের উন্নতি হয়েছে। নিরাপত্তা জোরদার হয়েছে। মাদক এবং ইভটিজিংকে কাউন্সিলর রাজীব সবসময় জিরো টলারেন্স দেখিয়ে আসছেন। এজন্য এলাকায় মা-বোনরা নির্ভয়ে চলাচল করতে পারেন। রাস্তার মোড়ে মোড়ে বসিয়েছেন রাস্তা নির্দেশক বোর্ড। ৩৩ নং ওয়ার্ডে মাদকের প্রভাব এবং ইভটিজিং কমে যাওয়ার বিষয়টি স্বীকার করেছেন থানা-পুলিশও।

tarequzzaman a trafiqট্র্যাফিক নেই তো কি হয়েছে? কাউন্সিলর রাজিব আছেন…

তারিকুজ্জামানের ফেসবুক টামলাইন ঘাঁটলেই বোঝা যায় তরুণদের কাছে তিনি ঠিক কতোখানি জনপ্রিয়। চলতি বছর ৩৩ নং ওয়ার্ডে স্মার্টকার্ড বিতরণ কর্মসূচি পালিত হয়। স্মার্টকার্ড সেবা থেকে যেন একজনও বাদ না পড়ে এজন্য তিনি নিজেই দিনরাত পরিশ্রম করেছেন। এরই ফাঁকে তিনি ক্লান্ত এক দুপুরে ঘুমিয়ে পড়েন বেঞ্চের ওপর।

ক্লান্ত কাউন্সিলর সেই ছবিটি ফেসবুকে দিয়ে তার এলাকার দিরহাম নামের এক তরুণ লিখেন, ‘টানা ১ মাস দিন-রাত কঠোর পরিশ্রমে স্মার্টকার্ড বিতরণ করে ক্লান্ত হয়ে মাঠেই একটি কাঠের বেঞ্চের উপরেই ঘুমিয়ে পরেছেন আমাদের সকলের প্রিয় জনতার কমিশনার তারেকুজ্জামান রাজীব ভাই। যিনি কিনা সবসময় নিজের এলাকার মানুষের কথা চিন্তা করেন, ঘুমোনোর আগেও একবার জনগনের কথা চিন্তা করে ঘুমান..।’

tarequzzaman rajid seeing everythingকাউন্সিলর রাজিব নিজেই মাঠপর্যায়ে গিয়ে তদারকি করেন সবকিছু…

কাউন্সিলর রাজিব এলাকার তরুণদের কাছে একটি আবেগের নাম। কখনো তিনি ছুটে যান মাঠে, ব্যাট হাতে তরুণদের সঙ্গে নেমে যান ক্রিকেট খেলতে। কখনো বনে যান পুরোদমের সাইক্লিস্ট, সাইকেলের প্যাডেলে দাঁপিয়ে বেড়ান রাজপথ। কখনো বৃষ্টিতে ভিজে, রোদে পুরে চলে যান মেহনতি মানুষের পাশে। কখনো তুখোর যুবনেতা হয়ে দাঁপিয়ে বেড়ান রাজপথ। বংশগতভাবে অর্থবিত্ত, প্রতাপ থাকার পরও সাধারণ মানুষের সঙ্গে মেশেন বন্ধুর মতো।

জনতার কমিশনার তারেকুজ্জামান রাজিব  বলেন, ‘আমি স্বপ্ন দেখি ৩৩ নম্বর ওয়ার্ডটি হবে একটি একান্নবর্তী পরিবারের মতো। যেখানে সকল ধর্মবর্ণের মানুষ মিলেমিশে বসবাস করবে। আমি জনগণের কল্যানের জন্য কাজ করে যেতে চাই। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ বুকে ধারণ করে সন্ত্রাসমুক্ত, মাদকমুক্ত, জঙ্গিবাদমুক্ত অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার একজন কর্মী হতে চাই।’


জাতীয় শোক দিবস আজ

৫ বছরের শিশু ধর্ষণের দায়ে মুয়াজ্জিন গ্রেফতার


পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
হোটেলে অভিযান, ১৪ তরুণীসহ ১৭ জনের কারাদণ্ড
কিশোরীকে ধর্ষণ-পরিচয় মোবাইলে
কুড়িগ্রামে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে মোটরসাইকেল ৩ আরোহী নিহত
‘বাপ-ছেলে আমারে কামড়াইয়া-চিমড়ায়া কিছু রাখে নাই’- সৌদি প্রবাসী নারী
সিলেটে প্রেমের টানে বাড়ী থেকে পালিয়ে ধর্ষণের শিকার কিশোরী
ইয়াবার মামলায় পুলিশের এএসআই গ্রেপ্তার
কুষ্টিয়া=২ আসন( মিরপুর-ভেড়ামারা) : ইনুকে নিয়ে আওয়ামীলীগে ক্ষোভ : বিএনপিতে একাধিক সম্ভাব্য প্রার্থী
কুষ্টিয়ার বিত্তিপাড়ায় সত্য কুমার ১৫দিন নিখোজ
বরগুনার পাথরঘাটায় তরুনী ধর্ষণ শেষে হত্যা, নেপথ্যে ‘বড় ভাই’
দুই কুল হারিয়ে পথে পথে ঘুরছে পারভিন
সৌদি আরবে ২৪ হাজার অবৈধ অভিবাসী আটক
প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় ১ম দিন দেড় লাখ অনুপস্থিত
আইন-শৃংখলা উন্নয়নে কুষ্টিয়া জেলা পুলিশের যুগান্তকারী পদক্ষেপ ৮ মাসে বন্দুক যুদ্ধে ১১ চরমপন্থী নিহত : ৫৪ টি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার
গাজীপুরে ঘুমন্ত শিশুকে পানিতে ফেলে হত্যা!
রিপা’র ও তার মায়ের ৪টি করে বিয়ে, নানীর বিয়ে ৮টি, ৩ খালার প্রত্যেকের ৩টি করে বিয়ে!
বগুড়ার শাজাহানপুরে রাষ্ট্রিয় মর্যাদা বঞ্চিত মরহুম মুক্তিযোদ্ধার শোকাহত পরিবারের প্রতি সাংবাদিকদের সমবেদনা
কুষ্টিয়ায় পুলিশের অভিযানের আটক-২৭
শীঘ্রই রাজশাহী-কলকাতা ট্রেন চালু হচ্ছে
৪৫ দিনের মধ্যে খুলতে যাচ্ছে রাজশাহীর ঐতিহ্যবাহী রেশম কারখানা
এক জেলায় আট নারী ইউএনও!