শিরোনাম:
●   কুষ্টিয়ায় নিখোঁজ সাংবাদিকের মরদেহ উদ্ধার ●   কাফন মিছিলের পর শাবিতে এবার গণঅনশনের ডাক ●   ●   কুষ্টিয়ায় পরিবেশ বান্ধব জিকজাক ইট ভাটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ওরা কারা ? ●   কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে ●   ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি ●   অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক ●   কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি ●   দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড ●   ‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’
ঢাকা, মঙ্গলবার, ৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯

Bijoynews24.com
শুক্রবার, ২৫ মার্চ ২০১৬
প্রথম পাতা » অনিয়ম-দুর্নীতি | বক্স্ নিউজ | শিরোনাম » ঘুষ-দুনীর্তির আঁকড়া দিনাজপুর ‘বিআরটিএ’ অফিস
প্রথম পাতা » অনিয়ম-দুর্নীতি | বক্স্ নিউজ | শিরোনাম » ঘুষ-দুনীর্তির আঁকড়া দিনাজপুর ‘বিআরটিএ’ অফিস
শুক্রবার, ২৫ মার্চ ২০১৬
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

ঘুষ-দুনীর্তির আঁকড়া দিনাজপুর ‘বিআরটিএ’ অফিস

---বিজয় নিউজ: দিনাজপুর: অনিয়ম আর দুনীর্তির রাহুগ্রাসে নিমজ্জিত হয়ে পড়েছে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি ‘বিআরটিএ’ দিনাজপুর অফিস। এ অফিসে ডিজিটাল পদ্ধতিতে ড্রাইভিং আর যানবাহনের লাইসেন্সের কাজ শুরুর সঙ্গে বৃদ্ধি পেয়েছে দালালের দৌরাত্ম। ঘুষ ছাড়া কোনো কাজ হচ্ছে না এ অফিসে। এছাড়াও নকল লাইসেন্স তৈরিরও অভিযোগ রয়েছে।
এক প্রকার জিম্মি হয়ে পড়েছে যানবাহন মালিক ও চালকরা। কর্মকর্তা থেকে শুরু করে দালাল পর্যন্ত পদে পদে দিতে হচ্ছে ঘুষ। অনিয়মের কথা নির্দ্বিধায় স্বীকারও করছেন কর্তৃপক্ষ।
বিভিন্ন অজুহাতে পদে পদে হয়রানির শিকার হচ্ছেন যানবাহনের মালিক ও চালকরা। আর ঘুষ দিলে সকল অবৈধ বৈধ হয়ে যাচ্ছে এখানে। বাসায় পৌঁছে যাচ্ছে লাইসেন্স। তবে তা আসল কি না নকল তা নিয়েও দুশ্চিন্তায় থাকতে হয়।
দিনাজপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে চলছে বিআরটিএ দিনাজপুর অফিসের কার্যক্রম। সহকারী পরিচালকসহ সরকারিভাবে ৫টি পদে লোক নিয়োগ থাকলেও এ অফিসে কমপক্ষে কাজ করছেন ১৫জন! এদের অধিকাংশই দালাল।
এছাড়াও বাইরে আরও ২০ থেকে ২৫ জন দালাল রয়েছেন। অফিসের চেয়ার-টেবিল বসে প্রকাশ্যভাবে তারা করছেন ঘুষ বাণিজ্য ও লাইসেন্স জালিয়াতির কাজ।
ডিজিটাল পদ্ধতিতে যান-বাহনের লাইসেন্স, ফিটনেস, ড্রাইভিং লাইসেন্স চালুর পর ঘুষের পরিধিও বৃদ্ধি পেয়েছে এখানে।
ব্যাংকে টাকা জমা দেয়ার রশিদ ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ ফরম জমা দেয়ার সময় ঘুষের টাকা না দিলে নানান অজুহাতে হয়রানি করা হচ্ছে যানবাহনের মালিক ও চালকদের।
এ অফিসের ভলিয়ম বইয়ে রয়েছে, কিন্তু কম্পিউটারের অনলাইনে নেই এমন বেশ কিছু যানবাহনের ভুয়া লাইসেন্স এর সন্ধান মিলেছে। প্রমাণ দিলেও কর্তৃপক্ষ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি জালিয়াতে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে।
তবে, শক্তিশালী দালাল নেটওয়ার্কের কাছে জিম্মি এবং লাইসেন্স জালিয়াতির কথা স্বীকার করেছেন বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি-বিআরটিএ দিনাজপুর অফিসের সহকারী পরিচালক উথোয়াইনু চেীধূরী।
তিনি বলেন, ‘এই অফিসে দু নাম্বারি কাজ হয় এটা সবাই জানে। এখানে অনেক ভুয়া লাইসেন্স আছে। যা ভলিয়মে আছে কিন্তু অনলাইনে নাই। দালাল আছে, তারা খুবেই শক্তিশালী। তাদের নেটওয়ার্ক খুব বড়। ধরিযে দিলে বা বের করে দিলেও পরে আবার তারা এখানেই অবস্থান নেয়। ফিরে আসে বড় কারো সুপারিশে।’
এদিকে সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি-বিআরটিএ দিনাজপুর অফিসের সহকারী পরিচালক উথোয়াইনু চেীধূরী দালাল আব্দুল খালেক এর মোটরসাইকেলের পেছনে বসেই তার বাসায় ফিরেন এবং ওই দালাল তার পুলিশ লাইন্সের ভাড়া বাসা থেকে সকালে অফিসে নিয়ে আসেন। অথচ ওই দালাল আব্দুল খালেকের বিরুদ্ধে রয়েছে লাইসেন্স জালিয়াতির অভিয্গো।
এসব হচ্ছে, দনাজপুর -ল-১১-১১৫১ থেকে দিনাজপুর  -ল-১১-১১৫৪ পর্যন্ত ভুয়া লাইসেন্স। যা অফিসের ভলিয়মে আছে কিন্তু অনলাইনে নাই।
এছাড়াও দিনাজপুর -ল-১১-১১৬০ থেকে দিনাজপুর -ল-১১-১১৬৮ পর্যন্ত ভলিয়মের পাতা ফাঁকা রাখা রয়েছে। যাতে আরও ভুয়া লাইসেন্স সংযোগ করবে জালিয়াতি চক্রটি।
অন্যদিকে দিনাজপুর  -ল-১১-১১৬৯ থেকে দিনাজপুর  -ল-১১-১১৭১ পর্যন্ত ভলিয়মের লাইন্সেসে স্বাক্ষর নাই অফিস প্রধানের।
এ বিষয়ে উথোয়াইনু চেীধূরীকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি খালেককে চেনেন না বলে  জানান। অথচ তার মোটরসাইকেলে চেপে তিনি বাইরে চলাফেরা করেন।
এই দালাল আব্দুল খালেক সম্পর্কে পাওয়া গেছে চাঞ্চল্যকর তথ্য। একজন সামান্য হেলপার থেকে ট্রাক চালক এই দালাল বিআরটিএ অফিসের সুবাদে এখন কয়েক কোটি টাকার মালিক। রয়েছে গাড়ি, বাড়ি ব্যাংক ব্যালেন্স!
বিআরটিএ দিনাজপুর অফিস কবে হবে অনিয়ম আর দুনীর্তির রাহুগ্রাস থেকে মুক্ত? জালিয়াতি আর সীমাহীন দুর্ভোগ থেকে কবে মুক্তি পাবে যানবাহনের মালিক ও চালকরা? এ জিজ্ঞাসা এ অঞ্চলের ভুক্তভোগী মানুষের।

দিনাজপুর: অনিয়ম আর দুনীর্তির রাহুগ্রাসে নিমজ্জিত হয়ে পড়েছে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি ‘বিআরটিএ’ দিনাজপুর অফিস। এ অফিসে ডিজিটাল পদ্ধতিতে ড্রাইভিং আর যানবাহনের লাইসেন্সের কাজ শুরুর সঙ্গে বৃদ্ধি পেয়েছে দালালের দৌরাত্ম। ঘুষ ছাড়া কোনো কাজ হচ্ছে না এ অফিসে। এছাড়াও নকল লাইসেন্স তৈরিরও অভিযোগ রয়েছে।
এক প্রকার জিম্মি হয়ে পড়েছে যানবাহন মালিক ও চালকরা। কর্মকর্তা থেকে শুরু করে দালাল পর্যন্ত পদে পদে দিতে হচ্ছে ঘুষ। অনিয়মের কথা নির্দ্বিধায় স্বীকারও করছেন কর্তৃপক্ষ।
বিভিন্ন অজুহাতে পদে পদে হয়রানির শিকার হচ্ছেন যানবাহনের মালিক ও চালকরা। আর ঘুষ দিলে সকল অবৈধ বৈধ হয়ে যাচ্ছে এখানে। বাসায় পৌঁছে যাচ্ছে লাইসেন্স। তবে তা আসল কি না নকল তা নিয়েও দুশ্চিন্তায় থাকতে হয়।
দিনাজপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে চলছে বিআরটিএ দিনাজপুর অফিসের কার্যক্রম। সহকারী পরিচালকসহ সরকারিভাবে ৫টি পদে লোক নিয়োগ থাকলেও এ অফিসে কমপক্ষে কাজ করছেন ১৫জন! এদের অধিকাংশই দালাল।
এছাড়াও বাইরে আরও ২০ থেকে ২৫ জন দালাল রয়েছেন। অফিসের চেয়ার-টেবিল বসে প্রকাশ্যভাবে তারা করছেন ঘুষ বাণিজ্য ও লাইসেন্স জালিয়াতির কাজ।
ডিজিটাল পদ্ধতিতে যান-বাহনের লাইসেন্স, ফিটনেস, ড্রাইভিং লাইসেন্স চালুর পর ঘুষের পরিধিও বৃদ্ধি পেয়েছে এখানে।
ব্যাংকে টাকা জমা দেয়ার রশিদ ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ ফরম জমা দেয়ার সময় ঘুষের টাকা না দিলে নানান অজুহাতে হয়রানি করা হচ্ছে যানবাহনের মালিক ও চালকদের।
এ অফিসের ভলিয়ম বইয়ে রয়েছে, কিন্তু কম্পিউটারের অনলাইনে নেই এমন বেশ কিছু যানবাহনের ভুয়া লাইসেন্স এর সন্ধান মিলেছে। প্রমাণ দিলেও কর্তৃপক্ষ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি জালিয়াতে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে।
তবে, শক্তিশালী দালাল নেটওয়ার্কের কাছে জিম্মি এবং লাইসেন্স জালিয়াতির কথা স্বীকার করেছেন বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি-বিআরটিএ দিনাজপুর অফিসের সহকারী পরিচালক উথোয়াইনু চেীধূরী।
ঢাকাটাইমসকে তিনি বলেন, ‘এই অফিসে দু নাম্বারি কাজ হয় এটা সবাই জানে। এখানে অনেক ভুয়া লাইসেন্স আছে। যা ভলিয়মে আছে কিন্তু অনলাইনে নাই। দালাল আছে, তারা খুবেই শক্তিশালী। তাদের নেটওয়ার্ক খুব বড়। ধরিযে দিলে বা বের করে দিলেও পরে আবার তারা এখানেই অবস্থান নেয়। ফিরে আসে বড় কারো সুপারিশে।’
এদিকে সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি-বিআরটিএ দিনাজপুর অফিসের সহকারী পরিচালক উথোয়াইনু চেীধূরী দালাল আব্দুল খালেক এর মোটরসাইকেলের পেছনে বসেই তার বাসায় ফিরেন এবং ওই দালাল তার পুলিশ লাইন্সের ভাড়া বাসা থেকে সকালে অফিসে নিয়ে আসেন। অথচ ওই দালাল আব্দুল খালেকের বিরুদ্ধে রয়েছে লাইসেন্স জালিয়াতির অভিয্গো।
এসব হচ্ছে, দনাজপুর -ল-১১-১১৫১ থেকে দিনাজপুর  -ল-১১-১১৫৪ পর্যন্ত ভুয়া লাইসেন্স। যা অফিসের ভলিয়মে আছে কিন্তু অনলাইনে নাই।
এছাড়াও দিনাজপুর -ল-১১-১১৬০ থেকে দিনাজপুর -ল-১১-১১৬৮ পর্যন্ত ভলিয়মের পাতা ফাঁকা রাখা রয়েছে। যাতে আরও ভুয়া লাইসেন্স সংযোগ করবে জালিয়াতি চক্রটি।
অন্যদিকে দিনাজপুর  -ল-১১-১১৬৯ থেকে দিনাজপুর  -ল-১১-১১৭১ পর্যন্ত ভলিয়মের লাইন্সেসে স্বাক্ষর নাই অফিস প্রধানের।
এ বিষয়ে উথোয়াইনু চেীধূরীকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি খালেককে চেনেন না বলে ঢাকাটাইমকে জানান। অথচ তার মোটরসাইকেলে চেপে তিনি বাইরে চলাফেরা করেন।
এই দালাল আব্দুল খালেক সম্পর্কে পাওয়া গেছে চাঞ্চল্যকর তথ্য। একজন সামান্য হেলপার থেকে ট্রাক চালক এই দালাল বিআরটিএ অফিসের সুবাদে এখন কয়েক কোটি টাকার মালিক। রয়েছে গাড়ি, বাড়ি ব্যাংক ব্যালেন্স!
বিআরটিএ দিনাজপুর অফিস কবে হবে অনিয়ম আর দুনীর্তির রাহুগ্রাস থেকে মুক্ত? জালিয়াতি আর সীমাহীন দুর্ভোগ থেকে কবে মুক্তি পাবে যানবাহনের মালিক ও চালকরা? এ জিজ্ঞাসা এ অঞ্চলের ভুক্তভোগী মানুষের। - See more at: https://www.dhakatimes24.com/2016/03/25/107009#sthash.G5pyxmLu.dpuf



এ পাতার আরও খবর

কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের নির্বাচনকে ঘিরিয়া মাল-সা. কেন বেপরোয়া ? কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের নির্বাচনকে ঘিরিয়া মাল-সা. কেন বেপরোয়া ?
কু‌ষ্টিয়া মে‌ডি‌কেল ক‌লেজ নির্মা‌ণে অনিয়মকারীদের বিরু‌দ্ধে ব্যবস্থা নি‌তে প্রধানমন্ত্রীর নি‌র্দেশ কু‌ষ্টিয়া মে‌ডি‌কেল ক‌লেজ নির্মা‌ণে অনিয়মকারীদের বিরু‌দ্ধে ব্যবস্থা নি‌তে প্রধানমন্ত্রীর নি‌র্দেশ
কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল : ১৭ লাখ টাকার অ্যানেসথেসিয়া মেশিন ৭১ লাখে কিনেছেন তত্ত্বাবধায়ক কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল : ১৭ লাখ টাকার অ্যানেসথেসিয়া মেশিন ৭১ লাখে কিনেছেন তত্ত্বাবধায়ক
ভেঙ্গে পড়ল ঝিনাইদহে মুজিববর্ষে পাওয়া আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘরের খুটি,আশ্রয়ণ প্রকল্পে চলছে চরম আতঙ্ক! ভেঙ্গে পড়ল ঝিনাইদহে মুজিববর্ষে পাওয়া আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘরের খুটি,আশ্রয়ণ প্রকল্পে চলছে চরম আতঙ্ক!
মন্তব্য প্রতিবেদন : ডা. তাপসের চামচাদের কান্না থামছে না ! মন্তব্য প্রতিবেদন : ডা. তাপসের চামচাদের কান্না থামছে না !
প্রধানমন্ত্রীর উপহারের দেওয়া আধাপাকা ঘর হস্তান্তরের আগেই খুলে পড়ছে ঘরের দরজা জানালা প্রধানমন্ত্রীর উপহারের দেওয়া আধাপাকা ঘর হস্তান্তরের আগেই খুলে পড়ছে ঘরের দরজা জানালা
ফুর্তির জন্য চুক্তিতে নারী সঙ্গী রাখতেন নাসির : পুলিশ ফুর্তির জন্য চুক্তিতে নারী সঙ্গী রাখতেন নাসির : পুলিশ
কুষ্টিয়া পৌরসভার কর কর্মকর্তা বরখাস্ত নির্বাহী প্রকৌশলী রবিউল ইসলাম ইসলাম ওএসডি কুষ্টিয়া পৌরসভার কর কর্মকর্তা বরখাস্ত নির্বাহী প্রকৌশলী রবিউল ইসলাম ইসলাম ওএসডি
কুষ্টিয়া বিএডিসি(সার) অফিসের এডি মাহবুবুর রহমানের অর্থ লোপাটের তথ্য ফাঁস কুষ্টিয়া বিএডিসি(সার) অফিসের এডি মাহবুবুর রহমানের অর্থ লোপাটের তথ্য ফাঁস
৯০ ভরি স্বর্ণ লুট: মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা গ্রেফতার ৯০ ভরি স্বর্ণ লুট: মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা গ্রেফতার

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
কুষ্টিয়ায় পরিবেশ বান্ধব জিকজাক ইট ভাটার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ওরা কারা ?
কুষ্টিয়ার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নবাসী তাদের প্রিয় নেত্রী সম্পা মাহমুদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়েছে
ঢাকাসহ সারাদেশে রেড অ্যালার্ট জারি
অবশেষে ‘‘সৈয়দ মাছ-উদ-রুমী সেতুুর’’ (গড়াই সেতু) টোলে পে-অর্ডারর জাতিয়াতির টাকা ফেরৎ দিল ব্যাংক
কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মশাল প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি
দৌলতপুরে কৃষি, ব্যাংক কর্মকর্তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড
‘একটি গোষ্ঠী ঘটনার জন্ম দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করতে চায়’
আবরারের মাও যেন বলতে পারে, ‘ন্যায়বিচার পেয়েছি
সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ শাহবাগে ‘গণঅনশন ও অবস্থান’ কর্মসূচিতে সংখ্যালঘুদের ৮ দফা দাবি
আজ বিআরবি কেবল ইন্ড্রাষ্টিজ লিমিটেড এর ৪৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী
কুষ্টিয়া জেলা প্রেসক্লাবের অভিনন্দন
মণ্ডপে হামলা : উস্কানিদাতা ইসলামিক বক্তা গ্রেপ্তার
প্রেমিককে স্বামী বানিয়ে প্রবাসীর সম্পদ লিখে নেন সাকুরা
আবারও বাড়ছে ভোজ্যতেলের দাম
তথ্য প্রতিমন্ত্রীকে সাঈদ খোকনের চ্যালেঞ্জ ইসলাম ত্যাগ করেন, দুই দিনও মন্ত্রী থাকতে পারবেন না
কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে আপত্তিকর অবস্থা থেকে পালাতে গিয়ে ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে যুবকের মৃত্যু
কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব কেপিসির নবনির্বাচিত কমিটির দায়িত্ব গ্রহণ ও শপথ অনুষ্ঠিত
চিলাহাটি গার্লস্ স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষের প্রদায়ন ও নবাগত কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠিত
স্বামী বিদেশে নেওয়ার আগেই রাতের আধারে প্রেমিকের সঙ্গে পালালেন স্ত্রী