ঢাকা, রবিবার, ২০ আগস্ট ২০১৭, ৫ ভাদ্র ১৪২৪
Bijoynews24.com
প্রথম পাতা » Slider » আজওয়া খেজুরের বিস্ময়কর ইতিহাস
বুধবার ● ২ আগস্ট ২০১৭
Email this News Print Friendly Version

আজওয়া খেজুরের বিস্ময়কর ইতিহাস

……………………………………………………
---হযরত সালমান ফার্সী রা. ছিলেন একজন ক্রিতদাস। তার মালিক ছিল একজন ইয়াহুদী। হযরত সালমান ফার্সী রা. যখন মুক্তি চাইল তখন ইয়াহুদী তাকে মুক্তি দিতে আপত্তি জানায়। বারবার বলায় এক অসম্ভব শর্ত জুড়ে দিয়ে তাকে মুক্তি দিতে রাজি হলো। আসলে রাজি হয়নি। তার উদ্দেশ্য ছিলো এই অসম্ভব শর্তে আটকে তাকে মুক্তি না দেয়া। শর্ত হলো যদি তিনি নির্দিষ্ট অতি অল্প কয়েক দিনের মধ্যে নগদ ৬০০ দিনার ইয়াহুদিকে দেন এবং অতি অল্প কয়েক দিনের মধ্যে ত্রিশটি খেজুর গাছ রোপন করার পর তাতে খেজুর ধরে পাকলে তবেই সে মুক্ত হতে পারবে। যা ছিলো সম্পূর্ণ অসম্ভব।
ইয়াহুদি জানতো যে, সালমান ফার্সী রা. এর পক্ষে ৬০০ দিনার যোগাড় করা কঠিন ছিল। আর ৬০০ দিনার যোগাড় করলেও নির্দিষ্ট অতি অল্প কয়েক দিনের মধ্যে খেজুর গাছ রোপন করে তাতে ফল ধরে ফল পাকানো অনেক সময়ের ব্যাপার।
তাই উপায়ান্তর না দেখে হযরত সালমান ফার্সী রাসুল (সঃ) এর দরবারে এসে ঘটনা বর্ণনা করলেন। রাসুল (সঃ) ৬০০ দিনারের ব্যবস্থা করলেন। তারপর হযরত আলী (রাঃ) কে সাথে নিয়ে গেলেন ইয়াহুদীর কাছে। ইহুদী এক কাঁদি খেজুর দিয়ে বলল, এই খেজুর থেকে চারা উৎপন্ন করে তাতে ফল ফলাতে হবে। রাসুল (সঃ) দেখলেন যে, ইহুদীর দেয়া খেজুরগুলো সে আগুনে পুড়িয়ে কয়লা করে ফেলছে যাতে চারা না গজায়।
রাসুল (সঃ) খেজুরের কাঁদি হাতে নিয়ে আলী (রাঃ) কে গর্ত করতে বললেন আর সালমান ফার্সীকে বললেন পানি আনতে। আলী (রাঃ) গর্ত করলে ---রাসুল (সঃ) নিজ হাতে প্রতিটি গর্তে সেই পোড়া খেজুর রোপন করলেন। বাগানের একদিক থেকে পোড়া কালো দানা রোপণ করতে করতে বাগানের শেষ পর্যন্ত গেলেন। রাসুল (সঃ) সালমান ফার্সীকে এ দির্দেশ দিলেন যে, বাগানের শেষ প্রান্তে না যাওয়া পর্যন্ত তুমি পেছন ফিরে তাকাবে না। সালমান ফার্সী পেছনে না তাকিয়ে পানি দিতে লাগলেন। বাগানের শেষ প্রান্তে যাওয়ার পর তিনি তাকিয়ে দেখলেন যে প্রতিটি গাছ খেজুরে পরিপূর্ণ। আল্লাহর অশেষ মহিমায় সেই পোড়া খেজুর থেকে চারা গজালো। আর খেজুরগুলো পেকে কালো বর্ণ হয়ে গেছে। কারণ এই খেজুরের দানাগুলো ছিলো আগুনে পোড়া কয়লার মতো কালো। তাই এর স্বাদও অনেকটা পোড়া পোড়া। গন্ধও তাই।
এই খেজুর পৃথিবীর সবচেয়ে দামি খেজুর। আর স্বাদের দিক দিয়েও সবচেয়ে বেশি সুস্বাদু। আর কেনইবা দামী হবে না? যে খেজুর রাসুলের নিজ হাতে রোপন করা। এই খেজুরের গুণ বর্ণনা করে হাদিস বর্ণিত হয়েছে-
حديث مرفوع) حَدَّثَنَا عَلِيٌّ ، حَدَّثَنَا مَرْوَانُ ، أَخْبَرَنَا هَاشِمٌ ، أَخْبَرَنَا عَامِرُ بْنُ سَعْدٍ ، عَنْ أَبِيهِ رَضِيَ اللَّهُ عَنْهُ ، قَالَ : قَالَ النَّبِيُّ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ : مَنِ اصْطَبَحَ كُلَّ يَوْمٍ تَمَرَاتٍ عَجْوَةً لَمْ يَضُرَّهُ سُمٌّ وَلَا سِحْرٌ ذَلِكَ الْيَوْمَ إِلَى اللَّيْلِ وَقَالَ غَيْرُهُ : سَبْعَ تَمَرَاتٍ
অর্থ ঃ আলী রহ রা. আমির ইবনে সাদ রহ. তাঁর পিতা থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, যে ব্যক্তি প্রতিদিন সকালে কয়েকটি আজওয়া খুরমা খাবে, ঐ দিন রাত পর্যন্ত কোন বিষ ও যাদু তার কোন ক্ষতি করবে না। অন্যান্য বর্ণনাকারীগণ বলেছেন, সাতটি খুরমা। হাদীস নং ৫৩৭৪
2)
আলী (র) আমির ইবন সাদ তার পিতা থেকে বর্ণিত । তিনি বলেনঃ নবী (সা) বলেছেন: যে ব্যক্তি প্রতিদিন সকালে কয়েকটি আজওয়া খুরমা খাবে ঐ দিন রাত পর্যন্ত কোন বিষ ও যাদু তার কোন ক্ষতি করবে না । অন্যান্য বর্ননাকারীগণ বলেছেনঃ সাতটি খুরমা ।সহীহ বুখারী, হাদীস নং-৫৩৫৬
3)
জুমুআ ইবন আব্দুল্লাহ (র)……সাদ (রাঃ) তার পিতা থেকে বর্ণিত । তিনি বলেন- রাসুলুল্লাহ (সা) বলেছেনঃ যে ব্যক্তি প্রত্যাহ সকালে সাতটি আজওয়া (উৎকৃষ্ট) খেজুর খাবে, সেদিন তাকে কোন বিষ ও যাদু ক্ষতি করবে না।


৫৭ ধারার অপপ্রয়োগ বন্ধ হওয়া জরুরি’

উত্তরা থেকে বাংলাদেশি পর্ন সাইটের মালিক গ্রেফতার


পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
ওরা ক্ষমতায় এলে ১ লক্ষ লোককে খুন করবে’
নিজের স্ত্রীকেই ছয়বার বিয়ে করে তুফান!
৩১টি করিডর খুলে দেওয়ায় ভারত সীমান্ত দিয়ে আসছে গরুর পাল
“ক্যাম্পাস ” ম্যাগাজিনের মোড়ক উন্মোচন
হোটেলে নারীসহ ধরা পড়লো সমাজসেবা কর্মকর্তা
অন্তঃসত্ত্বার কারণেই রিয়া সেনের তড়িঘড়ি বিয়ে!
ন্যান্‌সির আক্ষেপ
ভারতে ট্রেন দূর্ঘটনায় ১০ জন নিহত, আহত ৩০
আজব এক দম্পতি
মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে : হাজ্বী রবিউল ইসলাম
গাইবান্ধায় বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত : করতোয়া নদীর পানি বেড়ে গোবিন্দগঞ্জে বন্যা
নওগাঁয় ছোট যমুনা নদীর ভাঙ্গা বাঁধ দিয়ে পানি প্রবেশ অব্যাহত: বন্যার পানিতে পড়ে ২ শিশুর মৃত্যু
১০ দিন পর বগুড়া থেকে ইবি শিক্ষার্থী উদ্ধার
বাংলাদেশ মানবাধিকার নাট্য পরিষদ কুষ্টিয়া জেলা শাখার দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন সম্পন্ন
চিরিরবন্দরে ট্রাকের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষে কলেজ ছাত্র নিহত
পঞ্চগড়ে জমি দখল নিতে এ কেমন বর্বরতা!
নন্দীগ্রামে মাধবকুড়ি গ্রামে বিদ্যুতায়নের উদ্বোধন করলেন এমপি তানসেন
অপহরণের তিন‌দিন পর ক‌লেজ ছা‌ত্রের লাশ উদ্ধার : গ্রেফতার ১
তৃতীয়বারও ক্ষমতায় আসবে শেখ হাসিনা: ভারতীয় পত্রিকা
দক্ষিণবঙ্গের জালিয়াত চক্রের প্রধান জলিল হুজুর গ্রেফতার