ঢাকা, সোমবার, ১৮ জুন ২০১৮, ৪ আষাঢ় ১৪২৫
Bijoynews24.com
প্রথম পাতা » Slider » ঘুষ-দুর্নীতি বন্ধ করতে সচিবদের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর
মঙ্গলবার ● ৪ জুলাই ২০১৭
Email this News Print Friendly Version

ঘুষ-দুর্নীতি বন্ধ করতে সচিবদের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

---Bijoynews : ঘুষ-দুর্নীতি বন্ধে সচিবদের নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বলেছেন, আমরা যে হারে বেতন-ভাতা বাড়িয়েছি পৃথিবীর কোনো দেশ তা করতে পারেনি। কর্মচারীদের দুর্নীতি বন্ধ করতে হবে। এটা কোনোভাবেই যেন না হয়। পাশাপাশি আন্তঃক্যাডার বৈষম্য দূর করে সবার ন্যায়সঙ্গত পদোন্নতি এবং পদায়ন নিশ্চিত করতে হবে। গতকাল সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সভাকক্ষে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় এবং বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত সচিবদের নিয়ে অনুষ্ঠিত সচিব সভায় এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। চার ঘণ্টা দীর্ঘ এ সভায় ১৬ জন সচিব নিজেদের সমস্যা ও আগামীর ভাবনার কথা খোলামেলাভাবে প্রধানমন্ত্রীকে জানান। সভায় উপস্থিত ৭১ জন সিনিয়র সচিব, সচিব ও ভারপ্রাপ্ত সচিবদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী দুপুরের খাবার খান। একাধিক সচিবের সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে, প্রশাসনযন্ত্র সচিবালয়ে কর্মকর্তা- কর্মচারীদের বসার স্থান সংকুলান না হওয়া, বাজেট পরবর্তী সময়ে কাজের পরিকল্পনা প্রণয়নসহ নানা বিষয় উঠে আসে সচিবদের আলোচনায়। সচিবদের উদ্দেশ্যে দেয়া বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী দক্ষ এবং যোগ্যদের গুরুত্বপূর্ণ কাজের দায়িত্ব দেয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, ভালো কাজের পুরস্কার আর মন্দ কাজের জন্য তিরস্কার ব্যবস্থা কার্যকর করতে হবে। সুশাসন নিশ্চিত করার ব্যবস্থা নিন। সেবা প্রদানকারী সংস্থাগুলো থেকে সেবা পেতে জনগণকে যাতে ভোগান্তির শিকার না হতে হয় তার উদ্যোগ নিন। সচিবরা সরকারের অন্যতম চালিকাশক্তি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, একটি রাজনৈতিক সরকার একটি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য ক্ষমতায় আসে। কিন্তু, সচিবদের আরো অনেক দীর্ঘ সময় ধরে সেবা দেয়ার সুযোগ থাকে। কাজেই এটা সচিবদের উপরই নির্ভর করে দেশ কিভাবে চলবে। সচিবরা শুধু সরকারি কর্মকর্তা নয়, দেশপ্রেমিক নাগরিক হিসেবে তাদের জনকল্যাণে আত্মনিয়োগ করতে হবে। সচিবদের কাজে সন্তুষ্টি প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, একটি রাজনৈতিক সরকার নির্দিষ্ট সময়ের জন্য ক্ষমতায় আসে। কিন্তু সচিবদের অনেক সময় ধরে সেবা দেয়ার সুযোগ থাকে। আমার দলের রাজনৈতিক দর্শন এবং পরিকল্পনা বাস্তবায়নে একটি ভালো দল পেয়েছি। তিনি বলেন, অর্থবছরের শেষদিকে তাড়াহুড়ো না করে বছরের শুরু থেকেই বাস্তবায়নের কৌশল নির্ধারণ করুন। বর্ষা মৌসুমে প্রকল্পের পেপার ওয়ার্ক সম্পন্ন করুন। আন্তঃমন্ত্রণালয় সমন্বয়ের প্রয়োজন হলে তা দ্রুত করে ফেলুন। পাশাপাশি কাজের গুণগতমানের সঙ্গে কোনো আপস করা যাবে না। প্রধানমন্ত্রী বলেন, গ্রাম উন্নয়ন, ধনী-দরিদ্র্যের বৈষম্য কমানো, দুর্নীতি রোধ, সুশাসন নিশ্চিত করতে হবে। গ্রাম উন্নয়নের উপর জোর দিতে হবে, কর্মসংস্থান তৈরি করতে হবে। যাতে গ্রামের মানুষ কাজের খোঁজে শহরে না আসে। শহরের উপর জনসংখ্যার চাপ যাতে না বাড়ে সে ব্যবস্থা করতে হবে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বৈষম্যহীন সমাজ বিনির্মাণের স্বপ্ন দেখার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ধনী- দরিদ্র্যের বৈষম্য কমাতে হবে। সম্পদের সুষম বণ্টন নিশ্চিত করতে হবে। উন্নয়ন কর্মসূচি এমনভাবে গ্রহণ করতে হবে সর্বোচ্চ সংখ্যক মানুষ যাতে উপকৃত হয়। একই সঙ্গে সরকারের অগ্রাধিকার প্রকল্পগুলো নির্ধারিত সময়ের মধ্যে শেষ করতে আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করতে হবে। সচিব সভার শুরুতে আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন এবং স্বচ্ছ ও জবাবদিহিমূলক প্রশাসন গড়ে তুলতে সরকারের সংস্কার কর্মসূচির উল্লেখ করে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. শফিউল আলম স্বাগত বক্তব্য রাখেন। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সচিব সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ব্যবসায়ীদের সুবিধার্থে স্থল ও নৌবন্দরগুলো ২৪ ঘণ্টা খোলা রেখে মালামাল আমদানি ও রপ্তানি কার্যক্রম চালিয়ে যেতে বলেন। এজন্য তিনি সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিবদের নির্দেশ দেন। সচিব সভা শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব (সংস্কার ও সমন্বয়) এম এন জিয়াউল আলম সাংবাদিকদের বলেন, চলতি অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে সব প্রকল্পের পেপার ওয়ার্ক শেষ করতে বলা হয়েছে, যেন বর্ষা মৌসুমের শেষে উন্নয়ন কাজ শুরু করা যায়। অগ্রাধিকারমূলক প্রকল্পগুলো যথাসময়ে বাস্তবায়নের জন্য সচিবদের আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি স্থানীয় জনগণের চাহিদার প্রেক্ষিতে প্রকল্প গ্রহণ করতে বলা হয়েছে। তিনি বলেন, ত্রাণ তৎপরতার জন্য  জেলা পর্যায়ে যেন পর্যাপ্ত তহবিল থাকে এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট সচিবকে প্রধানমন্ত্রী একটি অনুশাসন দিয়েছেন। বৈঠকে বৃক্ষরোপণের ওপর জোর দেয়া হয়েছে। এছাড়া, দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ দেয়ার বিষয়ে জোর দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। জঙ্গিবাদ ও মাদকবিরোধী অভিযানে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। নতুন ভবন তৈরির ক্ষেত্রে বৃষ্টির পানি ব্যবহারের সুবিধা রেখে যেন তৈরি করা হয় সে বিষয়ে নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী। হাইওয়ের পাশে পানি জমলে রাস্তার ক্ষতি যেন না হয় এজন্য পাশেই জলাধার ও ড্রেনেজ রাখার ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর কাছে সচিবদের কোনো প্রস্তাব ছিল কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে শফিউল আলম বলেন, ফৌজদারি মামলার বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। সচিবদের মতামত পজিটিভই হয়েছে, সবাই প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসনগুলো মেনে চলবেন সে কথাই বলেছেন। মামলার দীর্ঘসূত্রতা দূর করার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। সচিবদের গাড়িতে পতাকা ব্যবহার নিয়ে সভায় কোনো আলোচনা হয়েছে কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে জিয়াউল আলম বলেন, সচিবদের আলোচনায় বিষয়টি এভাবে আসেনি তবে প্রধানমন্ত্রীকে হয়তো সেগুলো জানানো হবে।


রায়ে প্রতিক্রিয়া না দিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা

শোভা-সাথী চক্রের প্রতারণার ফাঁদ


পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
মেয়েকে কুপ্রস্তাব, স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দিলেন স্ত্রী!
সেনা প্রধান হলেন জেনারেল আজিজ আহমেদ
যশোরে দু’গ্রুপের ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত
ময়মনসিংহে নারী ‘মাদক ব্যবসায়ীর’ গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার
জকিগঞ্জের বন্যা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে : দেড় লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দী
গড়াই নদী থেকে তরু‌ণের ভাসমান লাশ উদ্ধার
দাকোপে পরকীয়ার ঘটনায় স্বামীর পিটুনিতে স্ত্রীসহ প্রেমিক আহত
মেসির পেনাল্টি মিস, আর্জেন্টিনাকে রুখে দিল আইসল্যান্ড
আফগানিস্তানে আত্মঘাতী হামলায় নিহত ২৫
দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর
এটিএন বাংলায় ইভা রহমানের একক সংগীতানুষ্ঠান
রাশিয়ান সুন্দরী এম্বাসেডরের সতর্কতা
কারাফটকের আগেই ব্যারিকেড, সাক্ষাত পেলেন না বিএনপি নেতারা
গণভবনে জনসাধারণের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়
বায়তুল মোকাররমে ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত
বাড্ডায় আওয়ামী লীগ নেতাকে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা
আত্মঘাতী গোলে হারলো মরক্কো
রোনালদোর হ্যাটট্রিক
কমলাপুর, সদরঘাটে উপচেপড়া ভিড়
ভিজিএফ কার্ডের ৪৫৬ বস্তা চাল জব্দ