ঢাকা, বুধবার, ২৬ জুলাই ২০১৭, ১১ শ্রাবণ ১৪২৪
Bijoynews24.com
প্রথম পাতা » Slider » ছাগল কিনতে পাগল প্রায় কুষ্টিয়ার ইউএনও ইবাদত আলী
শুক্রবার ● ১৬ জুন ২০১৭
Email this News Print Friendly Version

ছাগল কিনতে পাগল প্রায় কুষ্টিয়ার ইউএনও ইবাদত আলী

 

---শামসুল আলম স্বপন / রবিউল হক খান , বিজয় নিউজ : কুষ্টিয়া সদর উপজেলার গরীব মহিলাদের মাঝে বাচ্চা ছাগল বিতরণের কথা জানতে পেরে  কুষ্টিয়া সদর আসনের সংসদ সদস্য জননেতা মাহবুব আলম হানিফ ভৎর্সনা করেছিলেন কুষ্টিয়া সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: ইবাদত আলীকে। এমপি মহোদয় বলেছিলেন টেন্ডারে যে মূল্য আছে তা দিয়ে ছাগল ও গরু কিনতে হবে। এমপি সাহেবের ধমক খেয়ে  ইউএনও’র  হাসি মুখ সেদিন  বাংলা ৫’র মত হয়ে যায়। ফেরৎ দিতে বাধ্য হন প্রতিটি ৩০ হাজার টাকার স্থলে ১০/১২ হাজার টাকায় কেনা গরু আর ৫ হাজার টাকার স্থলে প্রতিটি ২ হাজার টাকায় কেনা ছাগলের বাচ্চা । তিনি পড়েন মহা মছিবতে।

ঈদের আগে ছাগল / গরু দিতে না পারলে  এমপি সাহেব তুলোধুনা করবেন এই ভয়ে ঠিকেদারের কাছ থেকে টাকা নিয়ে নিজেই গত ১৫ই জুন বৃহস্পতিবার  ছুটে যান আইলচারা পশু হাটে। সাথে নেন আইলচারা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমানকে। চরম গরম আর গরু-ছাগলের মল-মুত্রের গন্ধে নাকাল ইউএনও নিজেই দর-দাম ঠিক করলেন । প্রতিটি ছাগল আড়াই হাজার টাকা মূল্যে কিনলেন আবারো ১৭টি ছাগলের গেদা বাচ্চা । ইউএনও’র ছাগল কেনার দৃশ্য দেখে সমির নামে এক ব্যক্তি বললেন আহা ! ইউএনও সাহেবের কি দেশপ্রেম? এ কথা শুনে  পাশের জন বললেন এটা স্যারের দেশ প্রেম নয়, ছাগল প্রেম। মুচকি হাসলেন অনেকেই । এ সময় বিজয় নিউজের ক্যামরা ম্যান ছবি তুলতে গেলে চরম বিরক্ত হলেন ইউএনও সাহেব। ক্যামেরা থেকে মুখ ফিরিয়ে নিলেন তিনি। তার পর ফিস ফিস করে বললেন এই শালাদের জন্য কোথাও কিছু করার জো নেই। অগ্নিশর্মা হয়ে তিনি যেয়ে বসলেন গরু/ছাগল লেখা ঘরে।

ছাগল /গরু কেনা কমিটির সদস্য সচিব ইঞ্জি. নজরুল ইসলাম জানালেন তিনিও জানেন না ইউএনও সাহেব আইলচারা হাটে গরু /ছাগল কিনতে গেছেন। তবে ইউএনও সাহেব  ৬০ হাজার টাকার বদলে ৪২ হাজার টাকা দিয়ে ২টি গরু কিনেছেন তা চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমান সাক্ষ্য দিলেন।

আমরা খোঁজ খবর নিয়ে জেনেছি মো: ইবাদত আলী একজন সম্ভান্ত্র ঘরের সন্তান (!) । তিনি নিজেকে ধুয়ো তুলসি পাতা বলে জাহির করেন । ঘুষ -দুর্নীতির ধারের কাছে তিনি নেই বলে প্রচার চালান। ঘুষ খেলে,দুর্ণীতি করলে তাঁর নামের অমর্যাদা হবে হয়তো এই ভেবে। বরবাদ হবে তার ইবাদত বন্দিগী। তাই তিনি নিজে হাতে ঘুষ নেন না কখনো । এমন সৎ করিৎকর্মা ইউএনও দেশে দ্বিতীয়টি খুঁজে পাওয়া ভার (!) ।

---কিন্তু এই রকম একজন মানুষের বিরুদ্ধে কেন তাঁর সহকর্মী ও সংশ্লিষ্টরা  কুৎসা রটায় তা আমাদের বোধগম্য নয়। তিনি নাকি একটি বাড়ি একটি খামারের মোটা অংকের টাকা খেয়ে ফেলেছেন, কাজের বিনমিয়ে টাকা কর্মসূচির (কাবিটা) টাকা  অগ্রমী না দিলে তিনি নাকি ফাইলে স্বাক্ষর করেন না । হাট বাজার,বালিমহল ইজারার নামে নাকি অন্যরকম কারবার করেন । সেলাই মেশিন বিতরণ, গরু ,ছাগল বিতরণ নিয়ে তিনি অনেক ঘাপলা করছেন। ঘুষ খেয়ে তিনি নাকি সম্পদের পাহাড় গড়েছেন । আমাদের মনে হয় সহকর্মী ও সংশ্লিষ্টরা  তাকে দুর্নীতিবাজ বানাতে উঠে পড়ে লেগেছেন।

আমরা এ কথা বিশ্বাস করি না যে, তিনি দুর্ণীতি করেন কিম্বা ঘুষ খান । যেহেতু কুষ্টিয়া সদর ইউএনও মো: ইবাদত আলীর  বিরুদ্ধে  এ ধরণের অভিযোগের অপ্রচার চালানো হচ্ছে সেহেতু অভিযোগ থেকে তাঁর দায়মুক্ত করার জন্য  সকল অভিযোগ  তদন্ত করে  ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য আমরা কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসক,খুলনা বিভাগীয় কমিশনার এবং এলজিআরডি মন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।


যারা রোজা রাখতে অক্ষম তাঁদের যা করণীয়?

নববধূ রেখে না ফেরার দেশে ক্যাপ্টেন তানভীর


পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
হবিগঞ্জে চার শিশু হত্যায় মামলায় ৩ আসামির ফাঁসি
কুষ্টিয়ায় পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধে ২ ডাকাত নিহত
৫০ হাজার বাংলাদেশি সৌদি আরব থেকে ফিরছেন
সরকারবিরোধী প্রচারণার জবাব দিতে জয়ের দিকনির্দেশনা
‘আমার বিয়ের সিদ্ধান্ত প্রকৃতির উপর ছেড়ে দিয়েছি’
তওসিফের প্রেমে সাবা
ষড়যন্ত্র করে লাভ নেই, বিএনপি নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ -মোশারফ
বন্যা কবলিত মানুষের মধ্যে গাইবান্ধায় বিএনপির ত্রাণ বিতরণ
কালীগঞ্জে যে সংবাদ এখন টক অব দি টাউন
ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে কারামুক্ত হলেন মিরপুরের জনপ্রিয় নেতা কামারুল আরেফিন
জেলা প্রশাসকদের ২৩টি নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
বরিশালের সেই বিচারককে বদলীর প্রস্তাব
মওদুদের দুর্নীতির মামলার আদালত বদলাবে
আমি আপনাদের কাছে কৃতজ্ঞ
৫৭ ধারার পক্ষে মন্ত্রীরা
স্কুলের পড়া বাদ দিয়ে যেমন করে বিশ্বের শ্রেষ্ঠ ধনী নারী ঝাউ
জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার তুলে দিনে প্রধানমন্ত্রী দেশের ইতিহাস সংস্কৃতিকে তুলে ধরে চলচ্চিত্র নির্মাণের আহবান
৫৭ ধারার মামলা : উচ্চ আদালত থেকে আগাম জামিন পেলেন বনপা’র সভাপতি শামসুল আলম স্বপন
‘৫৭ ধারার ফলে সংবাদকর্মী সহ মুক্ত চিন্তার মানুষ হয়রানীর শিকার হচ্ছেন
বিশিষ্ট কলামিষ্ট ও অনলাইন সাংবাদিকদের নেতা স্বপনের বিরুদ্ধে ৫৭ধারায় হয়রানী মুলক মামলা করায় অনলাইন প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের নিন্দা ও প্রতিবাদ